Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪
শিরোনাম

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন স্থগিত করুন : জাতিসংঘ

প্রকাশিত:শনিবার ০১ এপ্রিল ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ১৪৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ সরকারের প্রতি অবিলম্বে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের প্রয়োগ বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। গতকাল শুক্রবার জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনার ভলকার টুর্ক এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানান।

বাংলাদেশজুড়ে সাংবাদিক ও মানবাধিকারকর্মীদের গ্রেপ্তার, হয়রানি ও ভীতি প্রদর্শন এবং অনলাইনে সমালোচকদের কণ্ঠরোধ করতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ব্যবহার করা হচ্ছে বলে দাবি করে উদ্বেগ প্রকাশ করেন ভলকার টুর্ক। তিনি বলেন, ‘আমি পুনরায় কর্তৃপক্ষের প্রতি অবিলম্বে এর প্রয়োগ স্থগিত এবং এই আইনকে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ করতে এর বিধানাবলিতে প্রয়োজনীয় সংশোধনী আনার আহ্বান জানাচ্ছি।

জাতিসংঘের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ২০১৮ সালের ১ অক্টোবর ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন কার্যকর হওয়ার পর থেকে এই আইনে দুই হাজারের বেশি মামলা হয়েছে। সর্বশেষ ২৯ মার্চ বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ দৈনিক সংবাদপত্র প্রথম আলোর সাংবাদিক শামসুজ্জামান এর শিকার হয়েছেন। বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে তাকে আটক করা হয়েছে। সঙ্গে তার ল্যাপটপ, ফোন ও অন্যান্য সরঞ্জাম জব্দ করে নেওয়া হয়েছে, জামিনের আবেদন নাকচ করা হয়েছে। দ্বিতীয় আরেকটি মামলায় প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান এবং একজন আলোকচিত্রী সাংবাদিককেও আসামি করা হয়েছে। এ মামলা করা হয়েছে বাংলাদেশে জীবনযাপনের ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় সৃষ্ট সংকট নিয়ে একটি প্রতিবেদনের ভিত্তিতে।

ফেসবুক পোস্টে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে গত ফেব্রুয়ারিতে পরিতোষ সরকার নামের এক তরুণকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেওয়ার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে ভলকার টুর্ক বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের যে ধারাগুলো মানুষের মতপ্রকাশের অধিকার ক্ষুণ্ণ করে সেগুলো নিয়ে ধারাবাহিকভাবে উদ্বেগ জানাচ্ছে তার দপ্তর। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ সরকার এই আইনের অপপ্রয়োগ বন্ধে সুরক্ষাকবচ রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কিন্তু যখন গ্রেপ্তার করা অব্যাহত রয়েছে, তখন তাদের এই প্রতিশ্রুতি যথেষ্ট নয়। খোদ এই আইনকেই যথাযথভাবে ঢেলে সাজানো দরকার।

বর্তমানে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের যেসব মামলা রয়েছে সেগুলো পর্যালোচনার জন্য একটি স্বাধীন বিচারিক প্যানেল গঠনের জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনার। তার ভাষ্যমতে, এই পর্যালোচনা করা হবে যেন অভিযুক্ত ব্যক্তিরা মুক্তি পান।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




ঘূর্ণিঝড় রেমাল কবে আঘাত হানবে

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৯৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ঘূর্ণিঝড় রেমাল ধেয়ে আসছে। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপটি শনিবার (২৫ মে) ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে এবং এটি পরদিন ২৬ মে (রোববার) সন্ধ্যায় ‘রেমাল’ নাম নিয়ে ঘূর্ণিঝড়টি বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উপকূলীয় অঞ্চলে আঘাত হানতে পারে বলে জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া দপ্তর (আইএমডি)।

আঘাত হানার সময় ঘূর্ণিঝড়টির বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় ১০০ থেকে ১২০ কিলোমিটার থাকবে বলে জানায় সংস্থাটি। ভারতের আবহাওয়া দপ্তর থেকে পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উপকূলে আঘাত হানার কথা বলা হলেও আবহাওয়া বিষয়ক বিভিন্ন ওয়েবসাইটে নির্দিষ্ট করে বলা হচ্ছে এটি ভারতের ওড়িশা অথবা বাংলাদেশের উপকূলের ওপর দিয়ে যেতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলেছে, ঘূর্ণিঝড়টি আঘাত হানা শুরু করতে পারে রোববার (২৬ মে) বিকেল ৫টা ৩০ মিনিট থেকে ২৭ মে রাত ২টা ৩০ মিনিটের মধ্যে।

জানা গেছে, ‘রেমাল’ একটি আরবি শব্দ। যার বাংলা অর্থ বালু। নামটি দিয়েছে ওমান। বঙ্গোপসাগরে যেসব ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হবে সেগুলোর নাম আগে থেকেই ঠিক করা থাকে।

২০২০ সালে ভারতের আবহাওয়া দপ্তর ১৬৯টি ঘূর্ণিঝড়ের নাম দেয়। সেখান থেকেই এবারের ঘূর্ণিঝড়টির নাম নেওয়া হবে। যখন এই ঘোষণা আসবে তখনই বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট এ নিম্নচাপটিকে ‍ঘূর্ণিঝড় রেমাল হিসেবে অভিহিত করা হবে।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




উদ্ভাবনী চার্জিং প্রযুক্তির কারণে অনন্য ইনফিনিক্স নোট ৪০ সিরিজ

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ১১৯জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:উদ্ভাবনী ও স্টাইলিশ ফোন বাজারে এনে তরুণ ও প্রযুক্তিপ্রেমীদের মাঝে জনপ্রিয় হয়েছে ট্রেন্ডি প্রযুক্তি ব্র্যান্ড ইনফিনিক্স। সম্প্রতি স্মার্টফোন শিপমেন্টের ক্ষেত্রে অন্যান্য বৈশ্বিক ব্র্যান্ডের তুলনায় সর্বোচ্চ বার্ষিক প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে ব্র্যান্ডটি।

একইসঙ্গে দ্রুত ও উদ্ভাবনী চার্জিং প্রযুক্তি নিয়ে ক্রমাগত কাজ করে যাচ্ছে ইনফিনিক্স। সম্প্রতি বাজারে আসা নতুন নোট ৪০ সিরিজের স্মার্টফোনে এই প্রযুক্তির মান আরও বেড়েছে। ফলে ব্যবহারকারীদের অভিজ্ঞতাও উন্নত হয়েছে।

প্রথমবারের মতো নোট ৪০ সিরিজে যুক্ত করা হয়েছে অল-রাউন্ড ফাস্টচার্জ ২.০ নামে পরিচিত ইনফিনিক্সের অল- রাউন্ড ফাস্টচার্জ প্রযুক্তির দ্বিতীয় প্রজন্ম। অত্যাধুনিক এই প্রযুক্তিতে আছে একটি মাল্টি-ট্যাব গঠনের ব্যাটারি এবং তিনটি সমান্তরাল ফাস্ট-চার্জিং চিপ। যার মাধ্যমে ১০০ ওয়াট পর্যন্ত স্থিতিশীল ও কার্যকর ওয়্যারড চার্জিংয়ের সুবিধা  পাওয়া যায়। এছাড়া, সিরিজটি ২০ ওয়াটের ওয়্যারলেস চার্জিং ও ওয়্যারলেস রিভার্স চার্জিংও সাপোর্ট করে। যার সাহায্যে ফোনকে অন্যান্য ডিভাইসের জন্য পাওয়ার ব্যাংক হিসেবে ব্যবহার করা যায়।

নোট ৪০ সিরিজের একটি উল্লেখযোগ্য ফিচার হলো- ওয়্যারলেস ম্যাগচার্জ, যা অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ক্ষেত্রে একটি নতুন  সংযোজন। নিরবচ্ছিন্ন ম্যাগনেটিক চার্জিংয়ের জন্য এই সিস্টেমে আছে একটি ফোন কেস (ম্যাগকেস), একটি ম্যাগনেটিক চার্জিং প্যাড (ম্যাগপ্যাড) এবং একটি ওয়্যারলেস ম্যাগনেটিক পাওয়ার ব্যাংক (ম্যাগপাওয়ার)। সম্প্রতি,  ফোর্বস ইনফিনিক্সের ম্যাগচার্জকে অ্যাপলের ম্যাগসেফ-এর সাথে তুলনা করেছে। তাদের মতে, কার্যকারিতা ও সুবিধা উভয় ক্ষেত্রেই ইনফিনিক্সের সমাধান উন্নততর।

অল-রাউন্ড ফাস্টচার্জ ২.০ প্রযুক্তির কেন্দ্রে আছে ইনফিনিক্সের তৈরি পাওয়ার ম্যানেজমেন্ট চিপ চিতা এক্স১। যার সাহায্যে বিভিন্ন ধরনের চার্জিং ফিচার ও মোড কাজ করতে পারে। যেমন- মাল্টি-স্পিড ফাস্ট চার্জিং, বাইপাস চার্জিং, এআই চার্জিং প্রোটেকশন এবং পিডি ৩.০ প্রোটোকলের জন্য সাপোর্ট। মাল্টি-স্পিড ফাস্ট চার্জিংয়ের আওতায় আছে সুপার মোড, স্মার্ট মোড এবং লো-টেম্পারেচার মোড। এই মোডগুলো ব্যবহারকারীদের চার্জিংয়ের অভিজ্ঞতা উন্নত করে।

উচ্চ তাপমাত্রা সহনীয় ডিভাইস হিসেবে নোট ৪০ সিরিজের ডিজাইন করা হয়েছে। মাইনাস ২০° সেলসিয়াস তাপমাত্রায়ও অনায়েসেই এই স্মার্টফোন চার্জ দেওয়া যায়। এ কারণে ভ্রমণপ্রেমীরা নিশ্চিন্তে এই ডিভাইসটি বেছে নিতে পারেন।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের বাজারে নোট ৪০ সিরিজের দুটি মডেল এসেছে- নোট ৪০ ও নোট ৪০ প্রো। দেশজুড়ে ইনফিনিক্স অফিশিয়াল রিটেইলারের কাছে পাওয়া যাচ্ছে ফোনগুলো।


আরও খবর



রিয়েলমি সি৬৫ পাওয়া যাচ্ছে দেশজুড়ে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | ১৭৭জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:সম্প্রতি দুইটি ভ্যারিয়েন্টে ১ নম্বর কোয়ালিটির ‘রিয়েলমি সি৬৫’ উন্মোচন করেছে তরুণদের জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি। এই ফোনটির রয়েছে স্বনামধন্য টিইউভি এসইউডি এর ৪৮-মাস মেয়াদী ফ্লুয়েন্সি সার্টিফিকেশন এবং সেগমেন্টের প্রথম ৪৮-ওয়াট চার্জিং সিস্টেম। আজ থেকে দেশজুড়ে রিয়েলমি’র সকল অনুমোদিত আউটলেটে রিয়েলমি সি৬৫ এর ১২৮জিবি ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া যাচ্ছে ১৯,৯৯৯ টাকায় এবং ২৫৬জিবি ভ্যারিয়েন্ট কেনা যাবে ২৩,৯৯৯ টাকায়।

রিয়েলমি’র নতুন এই ফোন বাজারে চালু হয়েছে গত ৮ মে, ২০২৪ তারিখে। উন্মোচনের মাত্র ১ ঘণ্টার মধ্যেই অনলাইন স্টোর পিকাবুতে সোল্ড আউট হয়ে যায় এই স্মার্টফোনটি। এছাড়াও, ৮ মে, ২০২৪ থেকে গতকাল ১২ মে, ২০২৪ পর্যন্ত এই ডিভাইসের প্রি-অর্ডারের হার আগের ডিভাইসটির তুলনায় ১৩৪ শতাংশ বেশি ছিল।

এই স্মার্টফোনে রয়েছে টিইউভি লো ব্লু লাইটের মতো নানা প্রযুক্তিগত সুরক্ষা, যা চোখের চাপ কমায়। এতে আরও রয়েছে আইপি৫৪ ওয়াটার রেজিস্ট্যান্স এবং উদ্ভাবনী কার্যক্ষমতাসম্পন্ন রেইনওয়াটার স্মার্ট টাচ ও ৩৬০ ডিগ্রি সারাউন্ড অ্যান্টেনা ডিজাইন, যা ফোনটির দীর্ঘস্থায়িত্বের পাশাপাশি ইউজার এক্সপেরিয়েন্সকে আরও বাড়িয়ে তোলে।

রিয়েলমি সি৬৫ বাজারে আনার সময় এর এআই বুস্ট ফিচারটি ডিভাইসপ্রেমীদের সামনে হাজির করতে পেরে রিয়েলমি গর্বিত। ফোন ব্যবহারকারীদের একটি নিরবচ্ছিন্ন ও সত্যিকারের সক্রিয় ইউজার এক্সপেরিয়েন্স দিতে এই ফিচারটি পারফরম্যান্স বৃদ্ধির পাশাপাশি সর্বোচ্চ পাওয়ার এফিশিয়েন্সিও প্রদান করে।

এছাড়াও, স্মার্টফোনটির ৪৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সক্ষমতা ফোন ব্যবহারকারীকে দেয় মাত্র ৩০ মিনিটেই চার্জহীন একটি ডিভাইসকে সর্বোচ্চ ৫০% পর্যন্ত চার্জ দেওয়ার নিশ্চয়তা। রিয়েলমি সি৬৫ এ রয়েছে ৭.৬৪ এমএম আল্ট্রা স্লিম বডি, যা এই ক্লাসের মধ্যে সবচেয়ে পাতলা ফোন।

তারার আলোর (স্টারলাইট) ঝলকানিতে অনুপ্রাণিত হয়ে, এই ফোনে যুক্ত করা হয়েছে একটি উন্নত ৩০০এনএম ৭-লেয়ার কোটিং প্রক্রিয়া, যা একটি অনন্য দ্বি-স্তরযুক্ত তারার আলোর (স্টারলাইট) প্রভাব তৈরি করে।

ফোনের ডিজাইনকে আরও অসাধারণ করে তুলতে, এতে ব্যবহার করা হয়েছে ভ্যাকুয়াম-প্লেটেড হাই-গ্লস প্রক্রিয়া, যা আপনার সামনে আপনার অনন্য পছন্দকে উপস্থাপন করে। স্মার্টফোনটি স্টারলাইট পার্পল ও স্টারলাইট ব্ল্যাক- এই দুটি রঙে পাওয়া যাচ্ছে।

এসব উন্নত ফিচারের মাধ্যমে, ব্যবহারকারীরা একটি ধারাবাহিকভাবে মসৃণ ও নিরবচ্ছিন্ন অপারেটিং অভিজ্ঞতা প্রত্যাশা করতে পারে, যা স্মার্টফোনের সামগ্রিক কর্মক্ষমতাকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যায়।

রিয়েলমি সি৬৫ সম্পর্কে আরও তথ্যের জন্য, স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা রিয়েলমি বাংলাদেশের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ https://www.facebook.com/realmeBD/ থেকে ঘুরে আসতে পারেন।


আরও খবর



আমরা মনে করছি মাংসের টুকরোগুলো এমপি আনারেরই : হারুন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ১০০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:উদ্ধার হওয়া মাংসের টুকরোগুলো এমপি আনোয়ারুল আজীম আনারের বলে মনে করছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ। বাংলাদেশ ও ভারতে গ্রেপ্তার হওয়া আসামিদের বক্তব্য এবং পারিপার্শ্বিক অন্যান্য ঘটনা বিবেচনায় তিনি এ ধারনা করছেন বলে জানান।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) বিকেলে কলকাতা থেকে বাংলাদেশে নেমে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

ডিবি প্রধান বলেন, কলকাতায় আমাদের তদন্তকাজ সফল হয়েছে। সংসদ সদস্য আনার হত্যাকাণ্ড নিয়ে যেসব তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করতে গিয়েছি, তা পেয়েছি। আলামত উদ্ধার, পারিপার্শ্বিক ডিজিটাল তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করায় আনার হত্যার তদন্ত অনেকটাই এগিয়েছে। ফরেনসিক রিপোর্ট পেলেই তা নিশ্চিত হওয়া যাবে।

ডিবি প্রধান বলেন, মামলায় ভিকটিমের মরদেহ বা মরদেহের অংশ বিশেষ না পাওয়া গেলে তদন্তকারী কর্মকর্তার সুরতহাল, ভিসেরা ও মেডিকেল রিপোর্ট দিতে বেগ পেতে হয়। এগুলো না পাওয়া গেলে মামলাটি নিষ্পত্তি করাও অনেক কঠিন হয়ে যায়। আমরা সেখানে গিয়ে আমাদের হাতে গ্রেপ্তার আসামিদের তথ্য ক্রস এক্সামিনেশন করেছি। এছাড়া কলকাতায় গ্রেপ্তার আসামির তথ্য যাচাই-বাছাই করেছি। কলকাতার সিআইডিকে সঙ্গে নিয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি এবং আসামিদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য মিলিয়ে দেখার চেষ্টা করেছি।

তিনি আরও বলেন, আমরা কলকাতা পুলিশকে অনুরোধ করেছিলাম সুয়ারেজ লাইন ও সেপটিক ট্যাংক দেখার জন্য। আমরা মনে করি, সেখান থেকে কিন্তু ভিকটিমের মরদেহের খণ্ডাংশ উদ্ধার করা হয়েছে। ভারতীয় পুলিশ ফরেনসিক ও ডিএনএ পরীক্ষা করে এ বিষয়ে জানাবে। আমরা প্রাথমিকভাবে মনে করি, স্বাভাবিকভাবে ফ্লাশের মাধ্যমে মাংসগুলো সেখানে যায়নি। তাই আমরা মনে করছি, মরদেহের খণ্ডাংশগুলো এমপি আনারের।

হারুন আর রশিদ আরও বলেন, আমরা সে দেশের কলকাতা পুলিশ প্রধানের সঙ্গে কথা বলেছি। কলকাতায় গ্রেপ্তার কসাই জিহাদের সঙ্গে কথা বলেছি। তার কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ করেছি। মূল পরিকল্পনাকারী আখতারুজ্জামান শাহীন যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছে। আরেকজন অভিযুক্ত নেপালে। ইন্টারপোলের মাধ্যমে তাদের ফিরিয়ে আনা হবে। আমরা কাঠমুন্ডুর সঙ্গে যোগাযোগ করছি। শাহীনকে ফেরাতে ইন্টারপোলের সহায়তা নিতে ভারতকে অনুরোধ করেছি।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




সরকারি অফিসের সময়সূচিতে পরিবর্তন

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | ৯৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:নতুন অফিস সময়সূচি নির্ধারণ করেছে মন্ত্রিসভা,দেশের সব সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের। সোমবার (৩ জুন) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এখন থেকে সরকারি প্রতিষ্ঠানে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত অফিস চলবে। তবে মাঝখানে দুপুর ১টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত নামাজ ও মধ্যাহ্নভোজের বিরতি থাকবে।

তিনি আরও বলেন, শুক্র-শনিবার থাকবে সাপ্তাহিক ছুটি। এই সময়সূচি কোরবানির ঈদের ছুটির পর প্রথম কর্মদিবস থেকে কার্যকর হবে।

এর আগেও সরকারি কর্মীরা সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত অফিস করতেন। কিন্তু জ্বালানি সংকটের কারণে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে ২০২২ সালের ২৪ আগস্ট থেকে কর্মঘণ্টা কমিয়ে অফিস ও ব্যাংকের সময়সূচি বদলে দেয় সরকার। সে অনুযায়ী দুই মাসের বেশি সময় সব সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত অফিস সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত চলে।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪