Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

ঢাকায় পুলিশের বড় পদে বদলি

প্রকাশিত:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১১৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:উপপুলিশ কমিশনার পদমর্যাদার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের বড় পদের তিন কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক আদেশে এই বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়।বদলিকৃতদের অবিলম্বে নতুন কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ দেওয়া হয় একই আদেশে।

এর আগে রোববার (৭ জুলাই) র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) চার পরিচালকসহ পাঁচ কর্মকর্তাকে বদলি করে নতুন দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

র‌্যাবের মহাপরিচালক ব্যারিস্টার হারুন অর রশিদ স্বাক্ষরিত এক আদেশে এ বদলি করা হয়।

আদেশে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার আরাফাত ইসলামকে র‌্যাব-৮-এর অধিনায়ক, র‌্যাব-৪-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আবদুর রহমানকে র‌্যাব সদর দপ্তরের অপারেন্স উইংয়ের পরিচালক, র‌্যাব-৮-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল কাজী যুবায়ের আলম শোভনকে র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক হিসেবে বদলি হয়েছে।

এ ছাড়া র‌্যাব-৫-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মুনীম ফেরদৌসকে লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক এবং র‌্যাব-৩-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল ফিরোজ কবীরকে র‌্যাব-৫ এর অধিনায়ক হিসেবে বদলি হয়েছে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



রাতে ভারতের মুখোমুখি বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৬২জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক:আজ মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও ভারত সুপার এইটে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে । অ্যান্টিগায় রাত সাড়ে আটটায় শুরু হবে ম্যাচটি। সেমিফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখতে এই ম্যাচে জয় পেতে হবে শান্ত'র দলকে। টাইগারদের হারালে শেষ চার অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে যাবে টিম ইন্ডিয়ার।

গ্রুপপর্বে চার ম্যাচে তিন জয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের ইতিহাসে দ্বিতীয়বারের মতো সুপার এইটে কোয়ালিফাই করে বাংলাদেশ। যদিও সুপার এইটের শুরুটা ভালো হয়নি শান্তদের। বৃষ্টি আইনে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ২৮ রানে হেরে গেছে। সেমিফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখতে অ্যান্টিগার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে নামছে টাইগাররা। আজ বাংলাদেশ সময় রাত ৮টা ৩০ মিনিটে শুরু হবে ম্যাচটি।

টাইগারদের জন্য এই ম্যাচটা কার্যত বাঁচা-মরার। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলতে এই ম্যাচে জয়ের কোনো বিকল্প নেই। সংবাদ সম্মেলনে পেসার তাসকিন আহমেদও জানিয়েছেন নিজেদের জয়ের প্রত্যাশার কথা। আশা রাখছেন এখনো শেষ হয়নি সেমি-ফাইনাল খেলার স্বপ্ন।

এদিকে এই ম্যাচের আগে বাংলাদেশ বিশেষ সুবিধা পাবে বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠোর। ভারতীয় এ কোচের মতে অ্যান্টিগার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামের উইকেট স্পিনারদের সহায়তা করছে। আর এ ধরনের কন্ডিশনে বাংলাদেশ সব সময় ভালো করে। ফলে ভারতের বিপক্ষেও বাংলাদেশের ভালো করার সম্ভাবনা আছে বলে মনে করেন তিনি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চারবার দেখা হয়েছে দু’দলের। সব ম্যাচই জিতেছে টিম ইন্ডিয়া। পরিসংখ্যান বাংলাদেশের পক্ষে না থাকলেও, ভারতকে বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ানোর আশা টিম টাইগার্সের।


আরও খবর



নবীনগরে রাস্তার দুপাশ দখল করে গড়ে ওঠা কয়েক শতাদিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১১৯জন দেখেছেন

Image

মোহাম্মদ হেদায়েতুল্লাহ  নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)প্রতিনিধি:-ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার বাঙ্গরা বাজারের নবীনগর টু কোম্পানীগঞ্জ সড়কের দুপাশে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের জায়গা দখল করে গড়ে ওঠা কয়েক শতাদিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। আজ সোমবার (১৫ জুলাই) সকাল ৯ টা থেকে এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। প্রথমে স্থানীয় অবৈধ দখলদারদের বাধায় উচ্ছেদ অভিযান কিছুটা ব্যাহত হলেও পুলিশের জোড়ালো ভূকিকায় কিছুক্ষণ পর থেকে শক্তিশালী ভেকু দিয়ে ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানসহ প্রায় তিন শতাধিক অবৈধ স্থাপনা। এতে টানা সাত ঘণ্টার অভিযানে রাস্তার দুপাশ দখল করে গড়ে ওঠা কয়েক শতাদিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে দখলমুক্ত হয়।


উচ্ছেদ অভিযানে নেতৃত্ব দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানভীর ফরহাদ শামীম। উচ্ছেদ অভিযানে আরো উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মীর নিজাম উদ্দিন, উপজেলার সহকারী কমিশনা ভূমি আবু মোছা, নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মাহাবুবুর রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা আক্তার শিউলী, ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল আউয়াল রবি সহ প্রায় শতাদিক পুলিশ সদস্য।


এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানভীর ফরহাদ শামীম জানান, দোকানগুলো সরকারি জমিতে অবৈধভাবে নির্মাণ করা হয়েছিল। পূর্বে ব্যবসায়ীদের একাধিকবার নোটিশ ও মাইকিং করে এসব অবৈধ দখলদারদের নিজ উদ্যোগে স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হলেও সেটি মানা হয়নি। ফলে বিধি অনুযায়ী এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। তিনি ভবিষ্যতে এ ধরণের ঘটনা পুনরাবৃত্তি না হওয়ার জন্য স্থানীয়দের সচেতন থাকার আহ্বান জানান।


এব্যাপারে জেলা সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মীর নিজাম উদ্দিন জানান, আগামীতে এই বাজারের মধ্য দিয়ে ফোরলেনের রাস্তা নির্মাণ করা হবে। ফলে আমাদের জায়গাগুলো দখলমুক্ত করা প্রয়োজন হয়ে পড়ায় উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশেক্রমে এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।


জানা যায়, এই বাজারটি কেবল একটি ঐতিহাসিক স্থান ছিল না, বরং এটি উপজেলার কয়েক হাজার পরিবারের জীবিকার প্রধান উৎস ছিল। এই বাজার উচ্ছেদের ফলে কয়েক হাজার ব্যবসায়ী ও কর্মী বেকার হয়ে পড়েছে। এতে করে স্থানীয় অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব পড়ার আশঙ্কা করছেন অনেকেই। ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের অভিযোগ তাদের পূর্ব নোটিশ দেওয়া হয়নি। বিকল্প পুনর্বাসনের ব্যবস্থা না করে আচমকা এ অভিযানে তাদের যে পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তা পূরণ হওয়ার নয়।

   -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



ওবায়দুল কাদের নেতাকর্মীদের প্রস্তুত থাকতে বললেন

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৪৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বুধবার (১৭ জুলাই) দুপুরে ঢাকা জেলা ও ঢাকা মহানগর (উত্তর ও দক্ষিণ) আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, কোটা সংস্কার আন্দোলন সাধারণ ছাত্রদের হাতে নেই, এর নেতৃত্বে এখন ছাত্রদল-ছাত্রশিবির। আমাদের অস্তিত্বের প্রতি হামলা এসেছে, হুমকি এসেছে। আমাদের এই পরিস্থিতি মোকাবিলা করতেই হবে। আপনারা ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে প্রস্তুত হয়ে যান।

ওবায়দুল কাদের প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তেজগাঁও ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সাধারণ শিক্ষার্থীরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে কেন রাস্তাঘাট দখল করতে যাবে? কেন সহিংসতায় জড়াবে? এই আন্দোলনের নেতৃত্ব নিঃসন্দেহে অশুভ শক্তির হাতে চলে গেছে। সেই অবস্থায় আমরা নিশ্চুপ থাকতে পারি না। আমরা যারা বঙ্গবন্ধুর সৈনিক, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করি, লালন করি, বিশ্বাস করি সেই চেতনা বিশ্বাসীরা চুপ করে বসে থাকতে পারি না। আমাদের অস্তিত্বের প্রতি হামলা এসেছে, হুমকি এসেছে। এই পরিস্থিতি মোকাবিলা আমাদের করতেই হবে। আপনারা ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে প্রস্তুত হয়ে যান। যার যার এলাকায় যান, আজকেও তাদের ভয়াবহ তাণ্ডব সৃষ্টির এজেন্ডা আছে, বিধ্বংসী এজেন্ডা আছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এখানে শুধু পুলিশের শক্তি নয়, আমাদের দল, দলের যে শক্তি, যে শক্তি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ করেছে, যে শক্তি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গণতন্ত্রকে শৃঙ্খল মুক্ত করেছে সেই শক্তিকে আজ কাজে লাগাতে হবে। আমাদের যার যার দায়িত্ব নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করতে হবে। আমাদের সারাদেশের প্রত্যেক নেতাকর্মীকে আমাদের নেত্রীর পক্ষ থেকে নির্দেশ দিচ্ছি, সারাদেশে সতর্ক হয়ে শক্ত অবস্থান নিয়ে এই অশুভ অপশক্তিকে প্রতিহত করতে হবে। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল সাহেব দম্ভ করে বলেছেন, আমরা যা পারি নাই ছাত্ররা তা করে দেখিয়েছে। এতে বুঝা যায় কোটার দাবিতে তারা নামেনি। তারা নির্বাচিত সরকারকে হটাতে চায়। ক্ষমতা দখলের জন্য কতটা মরিয়া হলে তারা শিশু-কিশোরদের মিছিল ব্যবহার করে। ছাত্রদল ও শিবিরের কর্মীরা উসকানিমূলক স্লোগান দিচ্ছে। তারা এ আন্দোলনকে সরকার বিরোধী আন্দোলনে পরিণত করেছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির এক নেতার ফোনালাপের অডিও ক্লিপ থেকে বুঝা গেছে ছাত্রদলের ক্যাডাদের সংঘর্ষ হামলার নির্দেশ দিচ্ছে। এতে প্রমাণ হয় সাধারণ শিক্ষার্থীদের আবেগকে পুঁজি করে বিএনপি-জামায়াত আবারও সহিংসতার প্রতি হাটছে। তারা ক্যাডার বাহিনী সারাদেশ থেকে এনে এই শহরে গুপ্ত হত্যা শুরু করেছে। আরও অনেক বাজে পরিস্থিতি, ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টির আহবান জানাচ্ছে, উসকানি দিচ্ছে। এই পরিকল্পনার অংশ হিসেবে বিএনপির পল্টন কার্যালয়ে গতকাল রাতে ৫-৬ বোতল পেট্রল, বিপুল লাঠি, ৬০টি দেশি-বিদেশি অস্ত্র, শতাধিক ককটেল জড়ো করেছিল। যা পুলিশের তল্লাশিতে উদ্ধার করা হয়। অভিভাবকদের বলব আপনাদের প্রাণপ্রিয় সন্তানদের এই ধরনের আত্মবিধ্বংসী কর্মকাণ্ড থেকে দূরে রাখুন। কারণ বিএনপি জামায়াতের ক্যাডাররা এই আন্দোলনের নেতৃত্ব গ্রহণ করেছে। এই স্বশস্ত্র ক্যাডাররা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে মিশে গিয়ে রাজনৈতিক ফায়দা চরিতার্থ করার জন্য হত্যা, গুপ্ত হত্যা চালিয়ে যাচ্ছে।

উপস্থিত ছিলেন এসময়, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, শাজাহান খান, কামরুল ইসলাম, মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, জাহাঙ্গীর কবির নানক, প্রধানমন্ত্রী বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রী মোজাম্মেল হক, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম প্রমুখ।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



ব্যবসা-বাণিজ্য সহজ করতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৮১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার। ব্যবসা-বাণিজ্য যাতে সহজ হয়, উদ্যোক্তারা যাতে উৎসাহ পায়, আমরা সর্বদা সেই কাজই করছি,বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । আমাদের সরকার ব্যবসায় নানা প্রণোদনা প্রদান করে আসছে।

‘জাতীয় রপ্তানি ট্রফি’ প্রদান উপলক্ষে দেওয়া এক বাণীতে তিনি এসব কথা বলেন। আজ (১৪ জুলাই) এই রপ্তানি ট্রফি প্রদান করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, রপ্তানি বাণিজ্যের মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে দেশের অর্থনীতিতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ২০২১-২২ অর্থবছরের জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান করা হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। এ উপলক্ষে সফল রপ্তানিকারকদের আমি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই।

শেখ হাসিনা বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ বজায় রাখতে বদ্ধপরিকর। ২০০৯ সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে সরকার পরিচালনা করে আমরা বাংলাদেশকে অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী রাষ্ট্র হিসেবে পরিণত করতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি। একটি দেশের সামগ্রিক অর্থনৈতিক অগ্রগতি ও উন্নয়নে রপ্তানি বাণিজ্যের অবদান অনস্বীকার্য। বাংলাদেশের রপ্তানিকারকরা বিশ্ববাজারে দেশীয় উৎপাদিত মানসম্পন্ন পণ্য রপ্তানি করে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখছেন। বিশ্ব অর্থনীতির এ কঠিন সময়েও পণ্য ও সেবাখাতে ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৩ দশমিক ৪২ শতাংশ প্রবৃদ্ধিতে ৬৩ দশমিক ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রপ্তানি আয় অর্জিত হয়েছে।

২০২৭ সালে রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা ১১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার নির্ধারণ করা হয়েছে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, এ লক্ষ্য অর্জনে সরকার এবং রপ্তানিকারকসহ সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। পণ্য রপ্তানির পাশাপাশি সেবা খাতের সম্প্রসারণ ও রপ্তানিতে বাংলাদেশের সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আমাদের সরকার ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি দৃঢ়ভাবে আস্থা প্রকাশ করেন, পণ্য খাতের মতো সেবা খাতেও আমরা সফলতা অর্জন করতে সক্ষম হবো।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান কার্যক্রম দেশের রপ্তানিকারকদের উৎসাহ প্রদানসহ রপ্তানি বাণিজ্য সম্প্রসারণে বিশেষ ভূমিকা রাখছে। রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে প্রদত্ত এ ধরনের স্বীকৃতি দেশের শিল্পায়ন ত্বরান্বিত করার মাধ্যমে রপ্তানির চলমান প্রবৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিতে গতি সঞ্চার করবে বলে তিনি দৃঢ় আস্থা প্রকাশ করেন।

প্রধানমন্ত্রী জাতীয় রপ্তানি ট্রফি ২০২১-২২ প্রদান অনুষ্ঠানের সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



ইসলামপুরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ফাইনাল অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১০১জন দেখেছেন

Image
লিয়াকত হোসাইন লায়ন,ইসলামপুর (জামালপুর) সংবাদদাতা।। জামালপুরের ইসলামপুরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ের উদ্যোগে উপজেলা পর্যায়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালক (অনূর্ধ্ব-১৭) ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়।

শুক্রবার(৫জুলাই) বিকালে ইসলামপুর সরকারী নেকজাহান মডেল হাই স্কুল মাঠে ফাইনাল খেলা আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ধর্মমন্ত্রী আলহাজ্ব ফরিদুল হক খান এমপি।উপজেলা প্রশাসন আয়োজনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে এতে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এড. আঃ সালাম, সহকারী কমিশনার ভুমি সাঈদ মোহাম্মদ ইব্রাহীম,সহকারী পুলিশ সুপার আভিজিত দাস, আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি জামাল আবু নাছের চৌধুরী চার্লেস, ভারপ্রাপ্ত পৌর মেয়র দেলোয়ার হোসেন লেবু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আঃ খালেক আকন্দ, আবিদা সুলতানা যুথী,অফিসার ইনচার্জ সুমন তালুকদার,উপজেলা ক্রীড়া সম্পাদক খলিলুর রহমান,প্রধান শিক্ষক রিয়াজুল করিম বাবু, সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ফাইনাল খেলায় নোয়ার ইউনিয়ন ট্রাইব্রেকারে কুলকান্দিপাড়া ইউনিয়নকে পরাজিত করে। অনুষ্ঠানে চ্যাম্পিয়নদের হাতে ট্রফি তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

আরও খবর