Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

ঢাবির হলের ছাদ থেকে পড়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২৮৫জন দেখেছেন

Image

শফিক আহমেদঃ-

ঢাবির হলের ছাদ থেকে পড়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) জগন্নাথ হলের ছাদ থেকে পড়ে লিমন কুমার রায় (২০) নামে এক ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।


তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইইআর (ইনস্টিটিউট অব এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ) বিভাগের ছাত্র ছিলেন।


বুধবার (২৩ নভেম্বর) সকাল সাড়ে দশটায় গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসা হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া সকালের সময় কে বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের ১০তলার ছাদ থেকে পড়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র গুরুতর আহত হয়। পরে তাকে মেডিকেলে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তবে কীভাবে সে ছাদ থেকে পড়ে গেছে তা প্রাথমিক জানা যায়নি।


জগন্নাথ হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মিহির লাল সাহা বলেন, আজ সকাল ১০টার দিকে সন্তোষ চন্দ্র ভট্টাচার্য ভবন থেকে ওই শিক্ষার্থী পড়ে যায়। শব্দ শুনে হলের শিক্ষার্থীরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বর্ণমালা আদর্শ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের গভর্নিং বডির নির্বাচন ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১১০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ- রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানার দনিয়া বর্ণমালা আদর্শ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় গভর্নিং বডির নির্বাচনকে ঘিরে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। আগের কমিটি বহাল রেখে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে।

অবিভাবক প্রতিনিধি ও শিক্ষক প্রতিনিধি পদে যারা নির্বাচন করছেন তাদের অভিযোগ, আগের কমিটির সভাপতি আব্দুস সালাম বাবু ও অধ্যক্ষ তাদের কোটি কোটি টাকার অনিয়ম, দুর্নীতি আড়াল করার জন্য নতুন কমিটিতে তাদের মনোনীতদের যে কোনো উপায়ে বিজয়ী করার জন্য নানা অপকৌশলসহ সব ধরণের অনিয়ম করে চলেছেন।

এসব বিষয়ে ঢাকা জেলা প্রশাসকের কাছে একাধিক লিখিত অভিযোগও দেয়া হয়েছে। সর্বশেষ ১৮ ফেব্রুয়ারি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) বরাবরে এক আবেদনে বলা হয়েছে, নির্বাচনে শিক্ষক প্রতিনিধি পদে কলেজ ও স্কুল শাখায় শিক্ষকদের ভোটার তালিকায় কলেজ ও স্কুল শাখার শিক্ষকদের আলাদা করা হয়নি। এমনকি ভোটার তালিকায় অধ্যক্ষ, দুই জন সহকারী প্রধান শিক্ষক, একজন অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ও একজন সহকারি লাইব্রেরীয়ানের নাম অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।

অথচ বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্বাচন প্রবিধান-২০০৯ এবং সংশোধনী-২০১৭ ইং এর ২ এর (থ) ধারায় বলা হয়েছে, অধ্যক্ষ ও সহকারি প্রধান শিক্ষক ভোটার হতে বা ভোট দিতে পারবেন না। এ বিষয়ে অধ্যক্ষকে জানানোর পর কোনো প্রতিকার মেলে নি।

নির্বাচনে ভোটার তালিকা চূড়ান্ত করা হয় গত ১ জানুয়ারি ২০২৪। ২ জানুয়ারি চূড়ান্ত তালিকায় গভর্নিং বডির সভাপতি ও অধ্যক্ষ স্বাক্ষর করেন। অথচ ভোটার তালিকা পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, ফেব্রুয়ারি মাসে ভর্তি হয়েছে এমন শিক্ষার্থীর অবিভাবককেও ভোটার করা হয়েছে। যেমন, ৬৮২ নং ভোটারের পোষ্য বা সন্তান ভর্তি হয়েছে জানুয়ারির ২২ তারিখে। ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী জান্নাতুল ফেরদৌস, রোল ২২৬। সে ভর্তি হয়েছে জানুয়ারির ২ তারিখে।

অথচ বর্তমান সভাপতির পক্ষের না হওয়ায় তার অবিভাবককে ভোটার করা হয়নি। পক্ষান্তরে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী নাজমুল ইসলাম (রোল ৩১৪) ৩ জানুয়ারি ভর্তি হওয়ার পরেও তার অবিভাবককে ভোটার বানানো হয়েছে। এমনিভাবে ৭ম শ্রেণির রোল ৩১০ থেকে ৩২৩ রোল পর্যন্ত সব শিক্ষার্থী জানুয়ারির ১৩ তারিখে ভর্তি হওয়ার পরেও তাদের অবিভাবকদের ভোটার বানানো হয়েছে। যাদের ভোটার নম্বর ক্রমানুসারে ৬৬৮  থেকে ৬৮২ পর্যন্ত। যথাক্রমে ৬ষ্ঠ, ৭ম, ৮ম, ৯ম শ্রেণিতে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছে জানুয়ারি মাসের মাঝামাঝি বা তারও পরে।

অথচ এদের বেশিরভাগ অবিভাবককে ভোটার বানানো হয়েছে। অন্যদিকে, বর্তমান সভাপতির দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদকারী মো. নাজিম উদ্দিন সরকার (পিন্টু) তার মেয়েকে জানুয়ারি মাসের ২৩ তারিখে ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি করানোর কারণে তার অবিভাবক প্রতিনিধি পদের মনোনয়ন বাতিল করেছেন ঢাকা জেলা প্রশাসন অফিসের সহকারী কমিশনার (শিক্ষা) ও প্রিজাইডিং অফিসার মো. শফিকুল ইসলাম। অথচ জানুয়ারির ২৩ তারিখে বা তারও পরে ভর্তি হওয়ার অনেক অবিভাবকও ভোটার হয়েছেন। জানুয়ারির ২২ তারিখে সন্তানকে ভর্তি করে ভোটার হয়েছেন ৬৮২ নং ভোটার।

শুধু তাই নয়, মৃত ব্যক্তি এবং একই শিক্ষার্থীর অবিভাবক হিসাবে একাধিক ভোটারের নাম স্থান পেয়েছে ভোটার তালিকায়। নুসরাত জাহান নামে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীর (রোল ৪৫৪) পিতা মৃত হারুন অর রশীদ। ভোটার তালিকায় এই মৃত ব্যক্তির নামও আছে। নাম আছে দশম শ্রেণির মাহবুবা স্বপ্নার মৃত পিতা মোস্তাফিজুর রহমানেরও। ভোটার তালিকায় ২৬০২ এবং ২৬০৩ নম্বরে একই অবিভাবকের নাম। একইভাবে ২৬০৪ ও ২৬০৫ নম্বর, ২৬০৮ ও ২৬০৯ নম্বর ভোটারওb একই ব্যক্তি।

নির্বাচনে প্রতিন্দ্বন্দ্বিতাকারী অবিভাবক সদস্য ও শিক্ষক প্রতিনিধিদের আশঙ্কা জাল জালিয়াতির মাধ্যমে বর্তমান সভাপতি ও অধ্যক্ষের মনোনীত প্রার্থীদের বিজয়ী করার জন্য এসবই ষড়যন্ত্র  ও দূরভিসন্ধিমূলক কূট-কৌশল। যে কৌশলে দুই যুগের বেশি সময় ধরে সভাপতি ও অধ্যক্ষ কোটি কোটি টাকা লোপাট করেও রয়ে গেছেন ধরাছোঁয়ার বাইরে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর

ঢাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৬

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




হিলিতে সরিষা কাটা-মাড়াইয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষকেরা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৩৫জন দেখেছেন

Image

মাসুদুল হক রুবেল,হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:দিনাজপুরের হাকিমপুরের হিলিতে চলতি মৌসুমে লক্ষ্যমাত্রা চেয়ে ৮০ হেক্টর জমিতে বেশি সরিষা আবাদ হয়েছে। ইতিমধ্যে উপজেলার একটি পৌরসভা ও তিনটি ইউনিয়নের মাঠে মাঠে সরিষা কাটা-মাড়াইয়ের কাজ চলছে পুরাদমে। এবছর আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় সরিষার আবাদ ভালো হওয়ার পাশাপাশি ভালো ফলন হয়েছে বলছেন উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর।

আগাম জাতের সরিষা চাষাবাদ করে লাভের মুখ দেখছেন এ উপজেলা কৃষকেরা। মাঠে সরিষা পেকেছে তাই কৃষকেরা সরিষা কাটা-মাড়াই করে ঘরে তুলতে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকেরা।

উপজেলার জালালপুর গ্রামের কৃষক আনছার হাজী বলেন,এক বিঘা জমিতে সরিষা আবাদ করতে ৪-৬ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। সরিষার ফলন হয় ৬-৮ মণ। কাঁচা সরিষা ১৬ থেকে ১৭ টাকা মন বিক্রি হচ্ছে। আর শুকনা সরিষা ২৯ থেকে ৩ হাজার টাকা মন দরে বিক্রি হচ্ছে।

উপজেলার সিংড়া পাড়া গ্রামের সরিষা চাষি আবু বক্কর বলেন, আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় সরিষার আবাদ ভালো হয়েছে। আশা করছি ভালো দামে এবারে সরিষা বিক্রি করতে পারবো। সরিষা তুলে ইরিবোরো রোপনের জন্য জমি প্রস্তুত করছি। সরিষা তোলার পর আলাদাভাবে তেমন সার দিতে হয় না এটা আমাদের অনেক উপকারে আসে।

হাকিমপুর উপজেলা কৃষি অফিসার আরজেনা বেগম জানান,চলতি মৌসুমে হাকিমপুর উপজেলায় ৩ হাজার ৩৫শ হেক্টর জমিতে সরিষার চাষবাদ হয়েছে। যা লক্ষ্যমাত্রা চেয়ে ৮০ হেক্টর জমিতে বেশি আবাদ করা হয়েছে। তিনি আর বলেন, হাকিমপুর উপজেলায় সরিষার জাত ছিল বারি সরিষা-১৪,বিনা সরিষা ১১, বারি সরিষা ১৭, বারি সরিষা-১৮। বারি সরিষা ১৪ কর্তন সম্পন্ন হয়েছে। অন্যান্য জাতের সরিষা কর্তন করে দেখা গেছে বিঘাপ্রতি ৭ থেকে সাড়ে ৭ মন পেয়েছে কৃষকেরা। বিনা সরিষার ফলন আরও অধিক হবে।


আরও খবর

গাংনীতে বালাইনাশক ব্যবহারে উদাসিন কৃষকরা

শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সরকারি গাড়ি ব্যবহার করে রৌমারীতে যাত্রামঞ্চে ভোট চাইলেন চেয়ারম্যান

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯২জন দেখেছেন

Image

মাজহারুল ইসলাম,রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:সরকারি গাড়ি ব্যবহার করে যাত্রামঞ্চে উপস্থিত হয়ে পুণরায় ভোট চাইলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ইমান আলী। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার চরশৌলমারী ইউনিয়নের শান্তিরচর গাছবাগান যাত্রাপালা আসরে। এ যাত্রাপালায় ঝিলিমিলি অনুষ্ঠানে রঙ্গীন রুপবান নামের একটি বই উপহার দেওয়া হয়েছিল।

খোঁজখবর নিয়ে জানা যায়, উপজেলার চরশৌলমারী ইউনিয়নের শান্তিরচর সোনার বাংলা নাট্য সংগঠনের উদ্যোগে অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন আজিজুল রহমান আজিবর।যাত্রাপালা অনুষ্ঠানের নামে রাতভর যাত্রা, গান, অশ্লীল নৃত্য আসর হয়। এতে হাজার হাজার নারী পুরুষ দর্শক হিসেবে উপভোগ করেন। এ যাত্রাপালায় বহিরাগত নারী শিল্পীরা অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়া যাত্রাপালার মঞ্চ ব্যানারে দেখাগেছে প্রধান অতিথি হিসেবে স্থানীয় সংসদ সদস্য বিপ্লব হাসান পলাশের নাম ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়াও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ইমান আলী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদ হাসান খান ও রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ হিল জামান, ইউপি চেয়ারম্যান ও বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আব্দুল কাদের সরকার, ইউপি চেয়ারম্যান একেএইচএম সাইদুর রহমান দুলাল

প্রমুখ। কিন্তু যাত্রাপালায় মঞ্চে শুধু মাত্র উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ইমান আলী। যাত্রাপালায় সভাপতিত্ব করেন চরশৌলমারী ইউপি চেয়ারম্যান একেএইচএম সাইদুর রহমান দুলাল উপস্থিত ছিলেন। বাকি অতিথিরা সকলে অনুপস্থিত ছিলেন।এতে রৌমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ইমান আলী যাত্রামঞ্চে উপস্থিত হয়ে দর্শকের কাছে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে একজন সম্ভাব্য উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে পুণরায় ভোট ও দোয়া চাইলেন।

স্থানীয় সচেতনমহল বলছে, আসন্ন এসএসসি পরীক্ষা সন্নিকটে হওয়ায় এ রকম আয়োজন করায় শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া মনোনিবেশ নষ্ট হচ্ছে। তাই এ ধরনের অনুষ্ঠান অনুমতি না দেয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন তারা।

এ ব্যাপারে রৌমারী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোজাফ্ধসঢ়;ফর হোসেন অভিযোগ করে বলেন, তিনি কিভাবে সরকারি গাড়ি ব্যবহার করে রাতে যাত্রাপালায় উপস্থিত হয়ে ভোট প্রার্থনা করেন। তা আমার বোধগম্য নয়।এ ব্যাপারে রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল্লা হিল জামান যাত্রাপালা অনুষ্ঠান করার কোন অনুমতি দেয়া হয়নি। তবে মঞ্চ ব্যানারে আপনার নাম রয়েছে সে সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি পাশ কাটিয়ে যান।

রৌমারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদ হাসান খান বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা।সরকারি গাড়ি ব্যবহার ও পুণরায় ভোট চাওয়ার বিষয় জানতে চাইলে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ইমান আলীর মুঠোফোনে একাধিকবার কল করেও তাকে পাওয়া যায়নি।


আরও খবর



ঢাকা দূষিত শহরের তালিকায় দ্বিতীয়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৪০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আজ বিশ্বে দূষিত শহরের তালিকায় ১০০ শহরের মধ্যে ঢাকার অবস্থান দ্বিতীয়। মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকালের দিকে বায়ুমানের সূচক (একিউআই) অনুযায়ী ঢাকায় বাতাসের মান ছিল ১৮১ স্কোর।বায়ুর মান বিচারে এ মাত্রাকে অস্বাস্থ্যকর বলা হয়।

এছাড়া স্কোর ১৮৩ নিয়ে প্রথম স্থানে রয়েছে ভারতের মুম্বাই। ১৭৮ স্কোর নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারতের কলকাতা এবং ১৭১ স্কোর নিয়ে চতুর্থ স্থানে রয়েছে ভারতের কলকাতা।

একিউআই স্কোর ১০১ থেকে ২০০ এর মধ্যে থাকলে অস্বাস্থ্যকর, ২০১ থেকে ৩০০-র মধ্যে থাকলে খুব অস্বাস্থ্যকর এবং স্কোর ৩০১ থেকে ৪০০ এর মধ্যে থাকলে ঝুঁকিপূর্ণ বলে বিবেচিত হয়।

ঢাকায় বায়ুদূষণের জন্য ইটভাটা, যানবাহনের ধোঁয়া ও নির্মাণ সাইটের ধুলোকে দায়ী করে আসছেন বিশেষজ্ঞরা। ভয়াবহ এ দূষণের ফলে গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি হচ্ছে। এটা সব বয়সী মানুষের জন্য ক্ষতিকর। বিশেষ করে শিশু, অসুস্থ ব্যক্তি, প্রবীণ ও অন্তঃসত্ত্বাদের জন্য বায়ুদূষণ খুবই ক্ষতিকর।


আরও খবর



মধুপুরে মানবতার পরিচয় দিলেন উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সম্পাদক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১১৪জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ- মধুপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা এক রক্ত শুন্যতা রোগীকে রক্তের ব্যবস্থা করে দিলেন মধুপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

মধুপুর হাসপাতালে গিয়ে জানা যায় গোলাবাড়ী ইউনিয়নের শিবরাম বাড়ী এলাকার নিরন্জন নামে এক ব্যাক্তি রক্ত শুন্যতা জনিত কারণে দুইদিন যাবৎ চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। হত দরিদ্র লোকটির পরিবার কোন অবস্থাতেই রক্ত সংগ্রহ করতে পারছেন না।


এ কথা শুনার পর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক তাৎক্ষনিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে জরুরি A+ রক্তের প্রয়োজন বলে পোস্ট করেন।

পোস্টের পরপরই মালাউড়ি এলাকার আশিক নামের এক যুবক ফোন কলে জানান আমি রক্ত দিতে চাই। তাৎক্ষনিক সভাপতি ও সম্পাদক হাসপাতালে ছুটে যান কিন্তু হাসপাতালের প্যাথলজি বিভাগ বন্ধ থাকায় লাইফ কেয়ার হাসপাতালে রক্তের গ্রুপ পরিক্ষা নিরিক্ষার ব্যবস্থা করেন এবং আশিকের রক্তের সাথে তার গ্রুপের মিল হওয়ায় আশিক নিরন্জন নামে ঐ রোগীকে এক ব্যাগ রক্ত স্বেচ্ছায় দান করেন।


তার রক্ত পেয়ে রোগীর স্ত্রী আনন্দে কেদে ফেলেন। আশিকের জন্য প্রানখুলে আশির্বাদ করেন।

এখন তার আরও দুই ব্যাগ রক্তের প্রয়োজন। তাই যারা সেচ্ছায় রক্ত দান করে থাকেন তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই রোগীর সাথে যোগাযোগ করে রক্ত দিয়ে তাকে সহযোগিতা করতে পারেন। সে খুবই মুমূর্ষু অবস্থায় মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ১০০ সজ্জা ভবনের ৪র্থ তলায় চিকিৎসাধীন আছেন।



আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪