Logo
আজঃ Wednesday ২৫ May ২০২২
শিরোনাম

ডেমরার বাওয়ানী উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ইতিহাস

প্রকাশিত:Monday ১১ April ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ২৪২জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

এহিয়া বাওয়ানী নামে একজন শিল্পদ্যোক্তা কর্তৃক১৯৫৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ডেমরার বাওয়ানী উচ্চ বিদ্যালয়।স্কুলটির বর্তমান প্রধান শিক্ষক মো ইসমাইল হোসেন ।ডেমরা এলাকার ঐতিহ্যবাহী বাওয়ানী উচ্চ বিদ্যালয়টির রয়েছে সোনালী অতীত।সুলতানা কামাল সেতুর পাশে ডেমরার কামারগোপ এলাকায় বিদ্যালয়টির অবস্থান।



১৯৪৬ সালে ডেমরা বলরাম শ্যামলাল ইনষ্টিটিউট নামে ডেমরায় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় ছিল।১৯৪৮ সালে শ্রী সত্য গোপাল পাল নামক এক হিন্দু লোক একটি ইংরেজী বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার জন্য ১২ শতাংশ জমি দান করেন। এরপর বলরাম পোদ্দার কর্তৃক আরো ১২ শতাংশ জমি দান করা হয়।এদের জমিদান ও সার্বিক প্রচেষ্টায় কামারগোপ এলাকায়  ললিতা সুন্দরী বলরাম মধ্য ইংরেজী নামে একটি  বিদ্যালয় প্রতিষ্টা হয়।



সেই সময়ে বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক ছিলেন শফিউল হক প্রধান।সহকারী শিক্ষক ছিলেন বড়দা ঠাকুর,মোজাফফর মাষ্টার,দীনেশ চন্দ্র রায়,রমেশ চন্দ্র রায়,গৌড়াঙ্গ রায়।তাদের অব্যাহত প্রচেষ্টায় এ অঞ্চলে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে পড়ে।


পরবর্তীতে১৯৫৭ সালে যখন এহিয়া বাওয়ানী নামক ধনাঢ্য ব্যাক্তি ডেমরা অঞ্চলে বিশাল আকারের মিল স্থাপন করতে আসেন তখন তার উদ্যোগে এবং এলাকাবাসীর সহযোগীতায় মাধ্যমিক বিদ্যালয় হিসেবে ডেমরার বাওয়ানী উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়।


১৯৮০ সালে ঢাকার তৎকালীন বিভাগীয় কমিশনার খান-এআলম খাঁন কর্তৃক বিদ্যালয়টি সরকারী অনুদানে ৩য় তলা ভবনে উন্নীত হয়।


বর্তমানে বিদ্যালয়টি এল প্যার্টানে পশ্চিম অংশে ৫ তলা ভবন উত্তর অংশে ৩ তলা ভবন এবং পুর্বপাশে ২ তলা ভবন রয়েছে।


বিদ্যালয়টির প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক হিসেবে মোহাম্মদ তৈয়ব এবং সহকারী প্রধান শিক্ষক হিসেবে আব্দুল মালেক ভূইয়া দীর্ঘ ৩৮ বছর কৃতিত্বের সঙ্গে কর্মরত ছিলেন।১৯৮৪ সালে বিদ্যালয়টি এমপিও ভুক্ত হয়।বিদ্যালয়টি থেকে ১৯৬০ সালে সর্বপ্রথম ৯ জন পরীক্ষার্থী মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষায় অংশ নেয়।এদের মধ্য থেকে ২য় বিভাগে ২ জন এবং ৩য় বিভাগে ৫ জন পরীক্ষার্থী উত্তীর্ন হয়।


আরও খবর



চোর-ছিনতাইকারী বলে গালি দেয়ায় ১০ বছরের শিশুর আত্মহত্যা

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ April ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১৬৬জন দেখেছেন
Image

সাভার প্রতিনিধিঃ

সাভার পৌর এলাকায় চোর-ছিনতাইকারী বলে গালির অপবাদ সইতে না পেরে আরাফাত (১০) নামে এক শিশু বাসায় ফ্যানের সঙ্গে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুঁলে আত্মহত্যা করেছে।সোমবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে সাভার পৌর এলাকার দেঁওগায়ে কামালের বাড়ি থেকে শিশুটির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।


শিশু আরাফাত চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ থানার কালিবাজার গ্রামের জিন্নার ছেলে। সে সাভারে দেঁওগায়ে দাদির কাছে থাকতো। বিয়ে বিচ্ছেদের পর বাবা-মা শিশুটিকে দাদির কাছে রেখে যার যার মতো সংসার করছেন। তাদের সঙ্গে এখন আর কোন যোগাযোগ নেই দাদী জরিনা বেগমের।



দাদি জরিনা বেগম  বলেন, ‘বাপ-মায়ে চলে যাওয়ার পর আরাফাত আমার সঙ্গে সাভারেই থাকতো। শুনেছি কারা যেন আরাফাতকে চোর-ছিনতাইকারী বলে গালিগালাজ করেছে। পরে গতকাল (সোমবার) দুপুরে আমি বাসায় না থাকলে সে ফ্যানের সঙ্গে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুঁলে আত্মহত্যা করে। তার মরদেহ পুলিশ এসে উদ্ধার করে।



আরও খবর



প্রেমিকার সাথে মনোমালিন্যের সূত্র ধরে

প্রমিকাকে ভিডিও কল করে প্রেমিকের আত্মহত্যা

প্রকাশিত:Wednesday ২৫ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ২০জন দেখেছেন
Image

নিজস্বপ্রতিনিধিঃ

চুয়াডাঙ্গা পৌরসভায় প্রেমিকাকে ভিডিও কলে রেখে এক কলেজছাত্র আত্মহত্যা করেছেন।তার নাম ফজলে রাব্বি ওরফে সোলাইমান (২৪) ।মঙ্গলবার (২৪ মে) দিবাগত রাত ২টার দিকে চক্ষু হাসপাতালের পেছনে ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে। 


ঘটনার পর পরিবারের সদস্যরা দরজা ভেঙে ফজলে রাব্বিকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিলে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


নিহত কলেজ ছাত্র চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বোয়ালমারি গ্রামে টুলু মিয়ার ছেলে। তিনি চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের অনার্স তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন। বেসরকারি স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র সনো সেন্টারে এক্স-রে বিভাগে কর্মরত ছিলেন রাব্বি। বাবা টুলু মিয়ার চাকরির সুবাদে চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার চক্ষু হাসপাতালের পেছনে ভাড়া বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে থাকতেন।


পরিবারের সদস্যরা বলেন, ‘দিনগত রাত ২টার দিকে অজ্ঞাত একটি নারী আমাদের ফোন করে ফজলে রাব্বি গলায় ফাঁস দিয়েছে বলে তার ঘরে যেতে বলেন। আমরা গিয়ে দেখি দরজা বন্ধ। প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় দরজা ভেঙে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়। পরে জানতে পারি প্রেমিকার সঙ্গে মনোমালিন্যের কারণে ভিডিও কলেই আত্মহত্যা করে ফজলে রাব্বি।’


পরিবারের কাছে ফোন দেওয়া নাম্বারে কথা হলে অপরপ্রান্ত থেকে বলা হয় নম্বরটি চুয়াডাঙ্গার শুভ নামে এক তরুণীর। তিনি ঢাকায় একটি ছাত্রী মেসে থাকেন। ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী। শুভ ফজলে রাব্বির প্রেমিকা। রাতে তারা ভিডিও কলে কথা বলছিলেন। হঠাৎ তাদের মধ্যে মনোমালিন্য দেখা দিলে ভিডিও কলে রেখেই রাব্বি তার ঘরে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস দেন। পরে শুভর এক বান্ধবীর মাধ্যমে ফজলে রাব্বির পরিবারের নম্বর সংগ্রহ করে খবর দেওয়া হয়।


চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সোহরাব হোসেন বলেন, দিনগত রাত ২টার দিকে ফজলে রাব্বি নামে এক যুবককে হাসপাতালে নিয়ে আসে পরিবারের সদস্যরা। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। হাসপাতালে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। মরদেহ হিম ঘরে রাখা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট থানায় জানানো হবে।


চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসিন বলেন, ‘মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। প্রতিবেদন পেলে বিস্তারিত জানা যাবে।’


আরও খবর



পুলিশ ইন্সপেক্টর রুহুল কুদ্দুছ মারা গেছেন

প্রকাশিত:Tuesday ১০ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ২০৩জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলার কৃতি সন্তান নেত্রকোনা সমিতি ময়মনসিংহ এর সদস্য ময়মনসিংহ জেলার ইন-সার্ভিস ট্রেনিং সেন্টারে কর্মরত পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মোহাম্মদ রুহুল কুদ্দুছ খান  আর নেই( ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। গতকাল  রাত ১.২০ মিনিটে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ইহকাল এর মায়া ত্যাগ করেছেন। 


তিনি কর্মজীবনে ছিলেন একজন নিষ্ঠাবান সৎ সাদা মনের পুলিশ অফিসার। কর্মজীবনে তিনি ময়মনসিংহ ডিবি, ওসি তদন্ত নান্দাইল, অফিসার ইনচার্জ, ১নং পুলিশ ফাঁড়িতে সততা দক্ষতা সাথে দায়িত্ব পালন করে গেছেন।তাঁর কর্মদক্ষতা প্রজন্মের কাছে অনুকরণীয় হয়ে থাকবে।


কৃতিমান এই সৎ দক্ষ কর্মবীরের মৃত্যুতে নেত্রকোনা সমিতি, ময়মনসিংহ এর পক্ষ থেকে সভাপতি আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মোঃ আব্দুল হক, সহ-সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক মোঃ আব্দুল হাফিজ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্দুল আজিজ, বাবু জ্যোর্তিরময় সাহা,সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জহিরুল ইসলাম খান জামাল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ আনিসুর রহমান খান  গভীর শোক প্রকাশ করে শোকাভিভূত পরিবার বর্গের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। 


রাইটার্স ইউনিটি ময়মনসিংহ এরপক্ষ থেকে সভাপতি লেখক ও সাংবাদিক মোঃ আব্দুল হাফিজ শোক প্রকাশ করে শোকাভিভূত পরিবার বর্গের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।


মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন তাকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসিব করুন ও কবরকে সহজ করে দাও, আমিন।


আরও খবর



দেশের উন্নয়নে বাধা সৃষ্টি করা অপরাজনীতির বিপক্ষে অবস্থান নিতে হবে-মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

প্রকাশিত:Friday ০৬ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৮৯জন দেখেছেন
Image

পিরোজপুর, ৬ মে ২০২২ (শুক্রবার)

দেশের উন্নয়নে বাধা সৃষ্টি করা অপরাজনীতির বিপক্ষে দল-মত নির্বিশেষে অবস্থান নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন  মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।


শুক্রবার (৬ মে) সকালে পিরোজপুর সদর উপজেলা পরিষদের শহীদ ওমর ফারুক মিলনায়তনে দুস্থ জনগোষ্ঠীর মাঝে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহারের শুকনো খাবার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ আহ্বান জানান।


পিরোজপুর সদর উপজেলা প্রশাসন এ অনুষ্ঠান আয়োজন করে।


এ সময় মন্ত্রী বলেন, দেশের উন্নয়নে যারা বাধা সৃষ্টি করে, যারা অপরাজনীতি করে, যারা ধ্বংসের রাজনীতি করে তাদের বিপক্ষে অবস্থান নিতে হবে। বিপক্ষে অবস্থান নিতে হবে স্বাধীনতাবিরোধীদের।


প্রত্যেকের মধ্যে নিজস্ব বিশ্বাস ও চেতনা থাকলেও স্বাধীনতাবিরোধীদের ভ্রান্ত, অন্ধকারাচ্ছন্ন জায়গা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য সকলকে প্রগতিশীল রাজনীতিতে আসতে হবে।

তিনি আরো বলেন, যদি কেউ ধ্বংসাত্মক কার্যক্রম করতে চায়, পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করতে চায়, মানুষকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের দিকে নিয়ে যেতে চায় তাহলে রাষ্ট্রের সাংবিধানিক দায়িত্ব আছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করার।


এ জাতীয় অপরাজনীতি যারা করবে আওয়ামী লীগ জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তাদের যেকোন মূল্যে প্রতিহত করবে।

মন্ত্রী আরও যোগ করেন, আমরা অন্ধকার থেকে আলোর পথে যাচ্ছি। অপ্রতিরোধ্য গতিতে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হচ্ছি। শেখ হাসিনা হচ্ছেন উন্নয়নের জাদুকর। তাঁর নেতৃত্বে বাংলাদেশ আরও এগিয়ে যাবে।


পিরোজপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বশির আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাঈদুর রহমান, পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ হাকিম হাওলাদার, স্থানীয় অন্যান্য সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ ও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।


পরে পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলা কৃষি অফিস হলরুমে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন উপকূলীয় চরাঞ্চলে সমন্বিত প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের অবহিতকরণ সভায় যোগ দিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, দেশের অসহায় মানুষকে স্বাবলম্বী করাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লক্ষ্য।


তাঁর নেতৃত্বাধীন সরকারে সময়ে দেশে কোনো মানুষ অভুক্ত থাকে না। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে করোনা মহামারীতেও দেশের উন্নয়ন থেমে নেই।



আরও খবর



মোটরসাইকেল যোগে দুর্ধর্ষ ছিনতাই

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের মোবাইল ফোন ও ব্যাগ ছিনতাই

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক শাতিল সিরাজের স্ত্রী ইফফাত জাহান রিতার (৪১) মোবাইল ফোন ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে।


শুক্রবার (২০ মে) বেলা ৩টার দিকে মহানগরীর বিগবাজারের কাছে এ ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।


এ ঘটনায় ভুক্তভোগী রিতা মহানগরীর বোয়ালিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।


অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে ভুক্তভোগী ইফফাত জাহান রিতা রিকশাযোগে মহানগরীর রেলগেট এলাকা থেকে আমানা বিগবাজারের দিকে যাচ্ছিলেন।


আমানা বিগবাজারে পৌঁছার আগেই লাল পাঞ্জাবি পরা এক ছিনতাইকারী মোটরসাইকেলযোগে এসে তার ডানহাতে থাকা ভেনেটি ব্যাগটি ছিনতাই করে চলে যায়। ব্যাগের মধ্যে মোবাইল ফোন, আড়াই হাজার টাকা ও গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ছিল।


জানতে চাইলে রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বলেন, দিনে-দুপুরে এভাবে মোবাইল ফোন ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নিজেই থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।


ছিনতাইকারীকে শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনতে পুলিশ ইতোমধ্যেই অভিযান শুরু করেছে


আরও খবর