Logo
আজঃ Monday ২৯ November ২০২১
শিরোনাম
নৌকা পরাজিত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান হলো তৃতীয় লিঙ্গের ঋতু! তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা কুমিল্লায় নৌকা পেয়েও সরে দাড়ালেন বাহালুল, প্রাথমিক সদস্য না হয়েও মনোনীত নূরুল! মাতুয়াইলে সড়ক উন্নয়ন কাজের উদ্ধোধন করলেন সংসদ সদস্য কাজী মনু পলো উৎসবে মাছ ধরায় মেতেছে মানুষ, চির চেনা বাংলা গাজীপুরে ৩০ সেকেন্ডেই মা-মেয়ের জীবন শেষ করল দুই খুনি হয়নি হাফ পাসের সিদ্ধান্ত,টাস্কফোর্স গঠনের প্রস্তাব আলেম-ওলামাদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা-ভক্তি রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রংপুরের তারাগঞ্জে ট্রাকচাপায় তিন নারী শ্রমিক নিহত কুমিল্লার তিতাস ও মেঘনা উপজেলায় ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী যারা !
ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে চুরির ঘটনা বেড়েছে

চুরি আতঙ্ক, রাত জেগে এলাকাবাসীর পাহারা

প্রকাশিত:Sunday ১০ October ২০২১ | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ৯৯জন দেখেছেন
Image


জেলা সংবাদদাতা :

 

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে চুরির ঘটনা বেড়েছে। শুধু রাতে নয়, দিনের বেলাতেও চুরির ঘটনা ঘটছে। খাবারে ওষুধ মিশিয়ে বাড়ির লোকজনকে অচেতন করে সব চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে একটি সংঘবদ্ধ দল। এতে উপজেলাজুড়ে চুরি-আতঙ্ক বিরাজ করছে। চোরদের হাত থেকে রক্ষা পেতে লাঠি-সোটা নিয়ে রাত জেগে পাহারা দিচ্ছেন এলাকাবাসী।

 

শনিবার (৯ অক্টোবর) রাত ৯টায় উপজেলার পাড়িয়া ইউনিয়নের সৌলাপুকুর গ্রামে এ দৃশ্য দেখা গেছে। একদল যুবক সময় ভাগ করে নিয়ে রাতে বাড়িঘর পাহারা দিচ্ছেন।

 

এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, শুধু অক্টোবর মাসের প্রথম ১০ দিনেই দুওসুও ও পাড়িয়া ইউনিয়নে পাঁচটি দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে একটি চুরি হয়েছে দিনের বেলায়, অপরটি ঘটেছে বাড়ির লোকজনকে অচেতন করে। আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দুটি ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে এবং সাবেক এক ইউপি সদস্যের (মেম্বার) বাড়িতে তিনটি গরু চুরির ঘটনা ঘটেছে।

 

এলাকাবাসী বলছেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বিষয়টি জানানোর পরও চুরি বন্ধ হয়নি। সবাই চুরি আতঙ্কে রয়েছেন। উপায় না পেয়ে নিজেদের সম্পদ রক্ষা করতে নিজেরাই টর্চলাইট ও লাঠি নিয়ে রাত জেগে পাহারা বসিয়েছেন। তবে পুলিশ বলছে, চুরির ঘটনা ঠেকাতে তারা তৎপর রয়েছেন। খুব শিগগিরই সব চুরির ঘটনার রহস্য উন্মোচন হবে।

 

গত ৬-৮ অক্টোবর উপজেলার পাড়িয়া ইউনিয়নের তিনটি গ্রামে তিনজনের বাড়িতে দুর্ধর্ষ চুরি হয়েছে। এদের মধ্যে সৌলাপুকুর গ্রামের গয়া প্রসাদের বাড়িতে চেতনানাশক স্প্রে করে সাত ভরি স্বর্ণ ও নগদ লাখ টাকা, পানিশাল গ্রামের নাজমুল হকের বাড়িতে তিন লাখ টাকা ও ছয় ভরি স্বর্ণ এবং লোহাগাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক অতুল প্রসাদ সিংহের বাড়ি থেকে মোবাইল ও আসবাবপত্র চুরির ঘটনা ঘটেছে।

 

এর আগে ৫ অক্টোবর বালিয়াডাঙ্গী-নেকমরদহ মহাসড়কের পাশে সমিরউদ্দিন স্মৃতি কলেজের বিপরীতে স্কুলশিক্ষক আসাদ আলীর বাড়িতে দুপুরে চোরেরা চার ভরি স্বর্ণ চুরি করে নিয়ে গেছে। পরের দিন দুওসুও ইউনিয়নের হাসান মেম্বারপাড়া এলাকার রাজু হোসেন ও তার চাচার বাড়ির লোকজনকে অচেতন করে তিন লক্ষাধিক নগদ টাকা চুরি হয়েছে।

 

স্কুলশিক্ষক আসাদ আলী বলেন, চুরির ঘটনা পুলিশকে জানানোর পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এরপর আমরা থানায় লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছি। এ পর্যন্তই শেষ। কোনো ফল পাওয়া যায়নি। পাড়িয়া গ্রামের নাজমুল হক বলেন, চুরির ঘটনায় পরিবার নিয়ে চরম আতঙ্কে আছি।

সৌলাপুকুর গ্রামে রাত জেগে পাহারা দেওয়া কয়েকজন যুবক বলেন, চুরির ঘটনা ঠেকাতে সময় ভাগ করে আমরা ১৫ জন যুবক পাহারা দিচ্ছি। চুরি বন্ধ এবং পুলিশ তিনটি চুরির রহস্য উন্মোচন না করা পর্যন্ত এ কার্যক্রম চলবে।

পাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী রুবেল বলেন, চুরির ঘটনায় এলাকায় সাধারণ মানুষের মাঝে আতঙ্ক শুরু হয়েছে। ঘটনাগুলো তদন্ত করে চুরি হওয়া মালামাল উদ্ধারসহ চোরদের গ্রেফতারের দাবি জানান তিনি।

শনিবার রাতে পাড়িয়া ইউনিয়নে সংঘটিত দুটি চুরির ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুল হক প্রধান, উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুস সোবহান।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে থানার ওসি হাবিবুল হক প্রধান বলেন, ঘটনাগুলো তদন্ত করা হচ্ছে। পরিবারের সবার ঘুম ঘুম ভাব এলে স্থানীয় চেয়ারম্যান অথবা থানাকে জানিয়ে রাখবেন। প্রয়োজনে আমরা পোশাক ছাড়া আপনাদের বাড়িতে এসে অবস্থান নেবো। চোরদের ধরতে স্থানীয়দের সহযোগিতা চান তিনি।

খবর প্রতিদিন /সি.বা

  


আরও খবর



রসুনের চিপস এয়ারটাইট জারে সংরক্ষণ করুন

যেভাবে তৈরি করবেন মজাদার ‘রসুনের চিপস

প্রকাশিত:Monday ০১ November ২০২১ | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ১৪৭জন দেখেছেন
Image


 

রান্নার খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি মশলা হচ্ছে রসুন। রসুন খাবারের স্বাদ বহুগুণে বাড়িয়ে তোলে। এর তীব্র গন্ধ সহজেই খাবারের স্বাদ বদলে দিতে পারে। তাছাড়াও রসুনের রয়েছে বহু পুষ্টিগুণ। এটি কাঁচা, ভাজা, কিংবা অন্যান্য উপায়েও খাওয়া যায়। তবে যেভাবেই খাওয়া হোক না কেন, সবকিছুতেই রসুনের বহুবিধ স্বাস্থ্য উপকারিতা পাওয়া যায়।

 

রসুনকে ওষুধি গুণাবলির পাওয়ার হাউজ বলা হয়। ইউএসডিএ অনুসারে, প্রতি ১০০ গ্রাম রসুনে ১৫০ ক্যালরি, ৩৩ গ্রাম কার্বস এবং ৬.৩৬ গ্রাম প্রোটিন থাকে। এটি ভিটামিন, খনিজ এবং অন্যান্য বেশ কয়েকটি স্বাস্থ্যকর পুষ্টি দ্বারা সমৃদ্ধ।

 

অন্যান্য উপায়ে রসুন খেলেও, কখনো রসুনের চিপস খেয়েছেন কি? না খেয়ে থাকলে আজই তৈরি করে নিন স্বাস্থ্যকর রসুনের চিপস। চলুন জেনে নেয়া যাক রসুনের চিপস তৈরি করার পদ্ধতিটি-

সাধারণত রসুনের চিপস রোদে শুকিয়ে তৈরি করা হয়। রসুনের কোয়াগুলো পাতলা টুকরো টুকরো করে কেটে তারপরে এগুলো একটি প্লেটে ছড়িয়ে কমপক্ষে ৫ দিন শুকানোর জন্য সরাসরি সূর্যের আলোতে রেখে দেয়া হয়। তবে এই প্রক্রিয়াটি বেশ দীর্ঘ এবং সময়সাপেক্ষ।

 

তবে দ্রুত এবং সহজ প্রক্রিয়া রয়েছে যা আপনাকে মাত্র ৫ মিনিটের মধ্যে রসুনের চিপস প্রস্তুত করতে সহায়তা করবে। প্রথমে রসুনের কোয়াগুলো কেটে নিন। একটি বেকিং প্যানে তেল ব্রাশ করে রসুনের টুকরো গুলো রেখে উপরে আরেকবার তেল ব্রাশ করে দিন। এরপর এতে কিছু লবণ ছিটিয়ে একটি ওভেন বা মাইক্রোওয়েভ ওভেনে ৫ মিনিট রোস্ট করুন।

রসুনের চিপস এয়ারটাইট জারে সংরক্ষণ করুন। দিনের যেকোনো সময় এটি খেতে পারেন।


খবর প্রতিদিন / সি.বা 

নিউজ ট্যাগ: রসুনের চিপস

আরও খবর



ডোমার পৌর নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মনছুরুল ইসলাম দানু নির্বাচিত

প্রকাশিত:Tuesday ০২ November 2০২1 | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ১৮৪জন দেখেছেন
Image


 

মনিরুজ্জামান লেবু , নীলফামারী :

 

 

নীলফামারীর ডোমার পৌরসভায় প্রথমবারের মতো ইভিএম’এ অনুষ্ঠিত নির্বাচনের বেসরকারীভাবে ফলাফল ঘোষনা করা হয়েছে। মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী নারিকেল গাছ প্রতীকের মনছুরুল ইসলাম দানু ৪ হাজার ৫৩৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

 

তিনি টানা ৩য়বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হলেন। এর আগে ডোমার ইউনিয়ন পরিষদে টানা ৫বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন। 

 

অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী মোবাইল ফোন প্রতীকের আফরোজা নাজনীন রুমি ৩ হাজার ৬৭৪ভোট পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন। তবে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী গনেশ কুমার আগরওয়ালা পেয়েছেন ২ হাজার ৩২৫ ভোট। 

 

মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত শান্তিপূর্নভাবে ৯টি কেন্দ্রের ৫১টি বুথে ভোটাররা আনন্দঘন পরিবেশে তাদের ভোটাধীকার প্রয়োগ করেন। নির্বাচনকালীন সময়ে কোন কেন্দ্রে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছেন রিটার্নিং অফিসার মোহাম্ম জাহাঙ্গীর হোসেন।

 

 খবর প্রতিদিন/ সি.বা

 


আরও খবর



রিকশাচালক বাবার ঘরের টিন খুলে নিল ছেলের পাওনাদাররা

ছেলে কাছে টাকা পায় তাই রিকশাচালক বাবার ঘরের টিন খুলে নিল পাওনাদাররা

প্রকাশিত:Monday ০১ November ২০২১ | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ২০৭জন দেখেছেন
Image


 

আমারা বড় ছেলে আবুল কাশেম বৌ নিয়ে আলাদা থাকে। তার কাছে স্থানীয় ইউনুস, আবুল কালাম ও রবিন নামে তিন যুবক টাকা পাবে বলে দাবি করে আসছে। কিন্তু কিসের টাকা বা কত টাকা পাবে তা আমি জানি না। আর এ টাকার জন্য প্রায়ই গালমন্দ ও মারধরের হুমকি শুনতে হয়েছে আমাকে। গত শুক্রবার আমার ঘরের টিনের চাল খুলে নিয়ে যায় ওই তিন যুবক।

 

রোববার দুপুরে কান্নাজড়িত কণ্ঠে এভাবেই কথাগুলো বলছিলেন আবদুর রহিম নামে এক বৃদ্ধ রিকশাচালক। তিনি লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের দক্ষিণ মজুপুর গ্রামের বাসিন্দা। তার দুই ছেলে, এক মেয়ে। অন্যদিকে, অভিযুক্তরা হলেন- একই এলাকার সিরাজের ছেলে ইউনুস, আলীর ছেলে আবুল কালাম ও খোকনের ছেলে রবিন।

 

আবদুর রহিম বলেন, ছেলের অপরাধের জন্য বাবাকে শাস্তি ভোগ করতে হবে, এটা কেমন বিচার। আমি রিকশা চালিয়ে কোনোরকমে স্ত্রী, স্কুল পড়ুয়া দুই নাতনী ও প্রতিবন্ধী ছোট ছেলেকে নিয়ে থাকি। কার সঙ্গে আমার ছেলের ব্যবসা আছে তাও জানা নেই। তাকে না পেয়ে টাকা পাওয়ার দাবি করে তারা বাড়িতে হামলা করে আমার ঘরের টিনের চাল খুলে নিয়ে যায়। এখন চালবিহীন (ছাউনি ছাড়া) ঘরে গত তিনদিন মানবেতর জীবনযাপন করছি। রাতে কুয়াশায় ভিজতে হচ্ছে আবার উপরে ছাউনি না থাকায় দিনে রৌদে কষ্ট পেতে হচ্ছে।

 

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ করেননি ওই রিকশাচালক। কারণ হিসেবে তিনি জানিয়েছেন, মামলা করতে টাকা লাগে, সে টাকা তো আমার নাই। ঘটনার পর থেকেই আমি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছি। গত তিনদিন রিকশা নিয়ে বের হতে পারিনি। এছাড়া অভিযুক্তরাও প্রভাবশালী।

 

স্থানীয় ও প্রতিবেশীরা জানান, রিকশাচালক আবদুর রহিমের ছেলে কাশেম চট্টগ্রামে মাছের ব্যবসা করতেন। ব্যবসার জন্য ইউনুস, কালা ও রবিনের কাছ থেকে টাকা ধার নেন কাশেম। ব্যবসায় লোকসান হওয়ায় কাশেম গা ঢাকা দেয়। কিন্তু পাওনা টাকা উদ্ধারের জন্য আইনের আশ্রয় না নিয়ে নিজেরাই কাশেমের বাড়িঘরে হামলা চালায়। এক পর্যায়ে বৃদ্ধ রহিমের বসতঘরের টিন খুলে ফেলে তারা। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চান তারা।

   

খবর প্রতিদিন /সি.বা 


আরও খবর



চট্টগ্রামবাসী না চাইলে সিআরবিতে হাসপাতাল নয়: রেলমন্ত্রী

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ প্রকল্প চাপিয়ে দেওয়া হবে না : রেলমন্ত্রী

প্রকাশিত:Monday ০১ November ২০২১ | হালনাগাদ:Sunday ২৮ November ২০২১ | ১৩২জন দেখেছেন
Image


 

চট্টগ্রামের মানুষ না চাইলে সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ প্রকল্প চাপিয়ে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। সোমবার দুপুরে রেল ভবনে নাগরিক সমাজ-চট্টগ্রাম এর নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় এ কথা বলেন তিনি।

 

রেলমন্ত্রী বলেন, হাসপাতাল করতে হলে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ) থেকে নকশা অনুমোদন দিতে হবে। সিডিএ যদি নকশা না দেয় সেখানে হাসপাতাল হবে কী করে? আর অন্যান্য সংস্থার অনুমোদনে আইনি বাধ্যবাধকতা থাকলেও সেখানে কোনো কিছু করা সম্ভব না। সবচেয়ে বড় কথা, চট্টগ্রামবাসী না চাইলে সেখানে হাসপাতাল প্রকল্প হবে না।

 

সিআরবিতে হাসপাতাল প্রকল্প রেল মন্ত্রণালয় গ্রহণ করেনি উল্লেখ করে তিনি বলেন, এটি প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের পিপিপি অথরিটির প্রকল্প। বিনিয়োগও বেসরকারি। সুতরাং রেল মন্ত্রণালয়ের এখানে করার কিছুই নেই। নাগরিক সমাজের দেওয়া যাবতীয় তথ্য উপাত্ত আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরবো, তিনিই এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবেন। তবে আমার অভিমত হচ্ছে, আইন ও চট্টগ্রামবাসীর সেন্টিমেন্টের বাইরে যাওয়া ঠিক হবে না। আমরা যা কিছু করছি জনগণের কল্যাণে।

 

মতবিনিময়ের সময় মন্ত্রীর কাছে প্রকল্পের বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত উপস্থাপন করেন নাগরিক সমাজ- চট্টগ্রাম’র সদস্য সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল।

 

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা 


আরও খবর



বাংলাদেশের স্বপ্নভঙ্গ, সঙ্গে লজ্জার হার

প্রকাশিত:Tuesday ০২ November 2০২1 | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ১৫০জন দেখেছেন
স্পোর্টস ডেস্ক

Image


 

আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ পর্বে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নামার আগে বাংলাদেশের সেমিফাইনালের ক্ষীণ স্বপ্ন বেঁচে ছিল। তবে মাঠের লড়াইয়ে তা উবে যেতে সময় লাগেনি। ব্যাটে বলে হতাশাজনক পারফরম্যান্সে লজ্জার হার হেরেছে টাইগাররা।বাংলাদেশের দেওয়া ৮৫ রানের লক্ষ্য ৪ উইকেট হারিয়েই পেরিয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। বাকি ছিল আরো ৩৯ বল।

 

আগে ব্যাট করে প্রোটিয়া বোলারদের তোপে ২০ ওভারও টিকতে পারেনি বাংলাদেশ। ১৮.২ ওভারে অল আউট হওয়ার আগে টাইগাররা করতে পারে মাত্র ৮৪ রান। নিজেদের বিশ্বকাপ ইতিহাসে এটি তৃতীয় সর্বনিম্ন স্কোর। এ ম্যাচে বাংলাদেশের পাঁচজন ব্যাটসম্যান কোনো রানই করতে পারেননি।

 

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সংগ্রহ ৭০ রান। ২০১৬ টি-২০ বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে লজ্জার এই রেকর্ড গড়েছিল টাইগাররা। এছাড়া ২০০৭ বিশ্বকাপে শ্রীলংকার বিপক্ষে ৮৩ রানে অল আউট হয়েছিল লাল-সবুজরা।

 

বাংলাদেশের দেওয়া মামুলি লক্ষ্য তাড়া করতে নামেন কুইন্টন ডি কক ও রেজা হেন্ড্রিক্স। প্রথম ওভারেই তাসকিনের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন ৪ রান করা হেন্ড্রিক্স। এরপর নিজের প্রথম ওভারে আঘাত হানেন মাহেদী হাসান। তার বলে বোল্ড হওয়ার আগে কুইন্টন ডি কক করেন ১৬ রান।

 

ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে তাসকিনের বলে ০ রানে এইডেন মার্করাম আউট হলে ম্যাচে ফেরার ইঙ্গিত দেয় বাংলাদেশ। তবে সেই পর্যন্তই। রাসি ফন ডার ডুসেন ও টেম্বা বাভুমা মিলে দলকে জয়ের বন্দরের কাছে নিয়ে যান।

২২ রান করে ডুসেন যখন আউট হন, জয় থেকে মাত্র ৫ রান দূরে ছিল প্রোটিয়ারা। বাভুমা ও ডেভিড মিলার সহজেই এটুকু পথ বাকী দেন। দুজন অপরাজিত ছিলেন যথাক্রমে ৩১ ও ৫ রানে।

 

বাংলাদেশের হয়ে ২ উইকেট শিকার করেন তাসকিন আহমেদ। এছাড়া নাসুম আহমেদ ও মাহেদী একটি করে উইকেট নেন।

আবু ধাবির জাইয়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা। বাংলাদেশের হয়ে ইনিংস উদ্বোধনে নামেন লিটন দাস ও নাইম শেখ। প্রথম ৩ ওভার দেখে খেললেও চতুর্থ ওভারে আর উইকেট পতন ঠেকাতে পারেনি টাইগাররা।

কাগিসো রাবাদা পরপর দুই বলে সাজঘরে ফেরান নাইম ও সৌম্য সরকারকে। নাইম ৯ রান করলেও সৌম্য গোল্ডেন ডাক মারেন। নিজের পরের ওভারে আবারো আঘাত হানেন রাবাদা। এবার মুশফিকুর রহিম রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরে ফেরেন।

সৌম্যের মতো প্রথম বলেই সাজঘরে ফেরেন আফিফ হোসেন। এর আগে ৩ রানে আউট হন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। একপ্রান্ত আগলে রেখে ইনিংস এগিয়ে নিচ্ছিলেন লিটন দাস। তবে তার প্রতিরোধ ভেঙে দেন তাবরাইজ শামসি। টাইগার ওপেনার ফেরার আগে করেন ২৪ রান।

বাকী পথে একাই লড়াই করেন মাহেদী হাসান। নবম উইকেট হিসেবে সাজঘরে ফেরার আগে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৭ রান করেন তিনি। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে কাগিসো রাবাদা ও আনরিখ নর্টজে তিনটি করে উইকেট শিকার করেন। এছাড়া তাবরাইজ শামসি দুটি ও ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস একটি উইকেট নেন।

 

-খবর প্রতিদিন /সি.বা 

নিউজ ট্যাগ: টি-২০ বিশ্বকাপ

আরও খবর