Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী জব্বারের বলীখেলা

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২৬৪জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

করোনার কারণে দুই বছর হয়নি শতবছরের ঐতিহ্যবাহী আবদুল জব্বারের বলীখেলা ও বৈশাখী মেলা। এবার স্বল্প সময়ের প্রস্তুতিতে আয়োজিত হচ্ছে এ মেলা। যেখান থেকে বৃহত্তর চট্টগ্রামের মানুষ এক বছরের গৃহস্থালি টুকিটাকি সংগ্রহ করেন। বলা হয়ে থাকে সুঁই থেকে ফুলশয্যার খাটও মেলে জব্বারের বলীখেলায়।  



জীবন বলী চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে জব্বারের বলীখেলা। খেলাকে ঘিরে আগের দিন ও পরের দিন বৈশাখী মেলা।তিন দিনের এ মেলার শেষ দিন মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল)। দূরদূরান্ত থেকে আসা ব্যবসায়ীরা কম লাভে, কেনা দামেই ছেড়ে দিচ্ছেন পণ্যসামগ্রী। এ সুযোগে কিনে নিচ্ছেন ক্রেতারা।


সরেজমিন দেখা গেছে, মাটির তৈরি ছোট-বড় ব্যাংক, ফুলদানি, কাপ-পিরিচ, জগ-গ্লাস, ধর্মীয় নানা স্মারক বিক্রি হচ্ছে বেশি। হাতপাখা, মুড়ি-মুড়কি, বাঁশি, শিশুদের খেলনা, টমটম গাড়ি, নারীদের ইমিটেশনের গহনা, শীতলপাটি, ফুল ও ফলের চারা, বাঁশের শলার তৈরি মাছ ধরার চাই (ফাঁদ), ডালা, কুলা, দা-বঁটি, প্লাস্টিকের ফুলসহ বাহারি সব জিনিস কিনতে আসছেন মানুষ।      




আবদুল জব্বার স্মৃতি কুস্তি প্রতিযোগিতা ও মেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এম জামাল হোসাইন বলেন, মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) দিনগত রাত ১২টায় জব্বারের বলীখেলাকে ঘিরে তিন দিনের বৈশাখী মেলা শেষ হবে। ভোরের মধ্যে সড়কের আশপাশ থেকে সব দোকানপাট উঠে যাবে।   


ঐতিহ্যবাহী জব্বারের বলীখেলা ও মেলাকে ঘিরে বলীখেলা কমিটি, প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছে।  



আরও খবর



আশ্বাসেই থেমে আছে অন্ধ হাফেজ চাঁন সওদাগরের জীবন

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
Image

কষ্টের কথা শুনে বাড়িতে ছুটে গিয়েছিলেন অনেকেই। আশ্বাস দিয়েছিলেন সমস্যা সমাধানের। কিন্তু দীর্ঘ পাঁচ মাসেও সেই সমস্যা সমাধান না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অন্ধ হাফেজ চাঁন সওদাগর।

চাঁন সওদাগর বলেন, আমার কষ্টের কথা শুনে প্রশাসনের লোকজনসহ অনেকে বাড়িতে এসেছিলেন। তারা আমাকে একটি ঘর, একটি ব্রেইল মেশিন ও ছেলের লেখাপড়ার খরচসহ জমির সমস্যাগুলো সমাধানের আশ্বাস দিয়েছিলেন। জমিজমার কাগজের সমস্যা কিছুটা সমাধান হলেও অন্য সমস্যাগুলো এখনও মেটেনি।

তিনি আরও জানান, ‘অভিযাত্রিক ফাউন্ডেশন’ নামে একটি সামাজিক সংগঠন তার ছেলের জন্য একটি কম্পিউটার এবং ‘স্বপ্নিল’ নামে একটি সংগঠন তার জন্য একটি ব্রেইল মেশিনের ব্যবস্থা করে দেয়। এছাড়া আর কেউই খোঁজখবর নেয়নি তার।

jamal1

চাঁন সওদাগর জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জের হাতিভাঙ্গা ইউনিয়নের পূর্ব আমখাওয়া গ্রামের মৃত মনছুর আলীর ছেলে। স্ত্রী ও এক সন্তান নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ওই এলাকায় বসবাস করে আসছেন তিনি। ছেলে এসএসসি পাস করে বর্তমানে তারাটিয়া গাজী নাসির উদ্দীন মেমোরিয়াল কলেজে ভর্তি হয়েছেন। ব্রেইল মেশিন দিয়ে অন্ধদের জন্য পবিত্র কোরআন ও হাদিসের বই লিখে সংসার চলে চাঁন সওদাগরের।

অন্ধ হাফেজ চাঁন সওদাগরের ছেলে সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমাদের একটি ঘরের আবদার ছিলো তা এখনও পাইনি। উপজেলা চেয়ারম্যান আশ্বাস দিয়েছিলেন, কিন্তু তিনি আর খোঁজ নেননি।

দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান সোলায়মান হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, তার জমিতে একটু সমস্যা রয়েছে। সমস্যা সমাধান হলে ঘর করে দেওয়া হবে।

তবে ভিন্ন কথা জানালেন দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কামরুন্নাহার শেফা। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, চাঁন সওদাগরকে একটি ব্রেইল মেশিন কিনে দিতে চাইলেও তিনি সেটি নিতে রাজি হননি। ছেলের ভর্তি হওয়ার হওয়ার ব্যাপারেও কোনো কিছু জানাননি।

jamal1

তিনি আরও বলেন, তার একটি ঘরের আবদার ছিলো, কিন্তু তিনি ভূমিহীন না হওয়ায় উপজেলা চেয়ারম্যান তার ব্যক্তিগত অর্থায়নে সেটি করে দিতে চেয়েছেন। সে বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি ইউএনও। তবে ক্রয়কৃত জমি নিয়ে চাঁন সওদাগরের যে সমস্যাটি ছিলো সেটির সমাধান করে দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

অন্ধ হাফেজ চাঁন সওদাগরের (৫৩) রোজগারের একমাত্র অবলম্বন ব্রেইল মেশিন। কিন্তু ছয়মাস ধরে সেই মেশিনটি অকেজো ছিল। এতে বন্ধ হয়ে যায় চাঁন সওদাগরের উপার্জন। ব্রেইল মেশিনের জন্য ছয়মাস মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও পাননি সহযোগিতা।

২৫ জানুয়ারি দেশের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগো নিউজে ‘সংসার চালাতে নতুন ব্রেইল মেশিন চান দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী হাফেজ’ শিরনামে সংবাদ প্রকাশিত হলে খোঁজ নিতে তার বাড়িতে যান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুন্নাহার শেফা। দায়িত্ব নেন সব সমস্যা সমাধানের। এছাড়াও অনেকেই ব্যক্তিগতভাবে তার পাশে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতি দেন।


আরও খবর



‘আমরা প্রতিটি ঘটনা থেকে শিক্ষা নেই, শতভাগ কারেকশন করতে পারি না’

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪৭জন দেখেছেন
Image

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান বলেছেন, প্রতিটি ঘটনা থেকে আমরা শিক্ষাগ্রহণ করি। হয়তো শতভাগ আমরা নিজেদের কারেকশন করতে পারি না।

সোমবার (৬ জুন) দুপুরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী ও শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল উপস্থিত ছিলেন।

যখন কোনো দুর্ঘটনা ঘটে- এরপর তদন্ত কমিটি হয়, মামলা হয় এবং ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা পরিদর্শনও করেন। কিন্তু এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটবে নাকি কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে- এমন প্রশ্নের জবাবে ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান বলেন, প্রতিটি ঘটনা থেকে আমরা শিক্ষাগ্রহণ করি। হয়তো শতভাগ আমরা নিজেদের কারেকশন করতে পারি না।

তিনি বলেন, ডিপোর যে নীতিমালা রয়েছে সেগুলো বাস্তবায়ন করা হয়েছিল কিনা, তা তদন্তে উঠে আসবে। ভবিষ্যতে প্রতিটি প্রতিষ্ঠানে ফায়ার সেফটি বাস্তবায়নে কাজ করা হবে।

ডা. মো. এনামুর রহমান আরও বলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় নিহতদের পরিবারের জন্য এক লাখ ও আহতদের জন্য ৫০ হাজার টাকা করে দেবে। একই সঙ্গে শ্রম মন্ত্রণালয় নিহতের পরিবারের জন্য দুই লাখ ও আহতদের জন্য ৫০ হাজার টাকা করে দেবে। যারা আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তাদের ব্যয়ভার সরকার নিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে নির্দেশনা দিয়েছেন এখানে সর্বোচ্চ সহায়তা দিতে হবে এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সবাইকে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে, আমরা সেই মোতাবেক কাজ করে চলেছি।

এ সময় নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ হোসেন সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা যে প্রশ্নগুলো করছেন আমারও একই প্রশ্ন আছে। এসব প্রশ্নের উত্তর এই মুহূর্তে দেওয়া সম্ভব নয়। কারণ আমরা তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। তদন্ত কমিটি পাওয়ার পর আমরা সব প্রশ্নের উত্তর দিতে প্রস্তুত।

তিনি বলেন, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার পর যে ক্ষতি হয়েছে তা দেশের ভাবমূর্তির ওপর ধাক্কা পড়েছে। আমাদের আন্তর্জাতিক ব্যবসা-বাণিজ্যে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। কাজেই তদন্তে আমরা জিরো টলারেন্স। তদন্তে যা বেরিয়ে আসবে আমরা সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবো।


আরও খবর



মিরসরাইয়ে ধর্ষণ মামলায় কবিরাজের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:Thursday ০৯ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪৯জন দেখেছেন
Image

ঝাড়ফুঁক দেওয়ার কথা বলে চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জ থানা এলাকায় এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মো. হারুন নামে এক কবিরাজকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৩ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

বুধবার (৮ জুন) দুপুরে চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭ এর বিচারক ফেরদৌস আরা এ রায় দেন। দণ্ডিত আসামি হারুন জোরারগঞ্জ থানার মধ্যম আজমনগর ছুনিমিঝির বাড়ির মৃত মাওলানা আবদুল কুদ্দুসের ছেলে।

রায়ে জরিমানার টাকা ভিকটিমের পরিবারকে দিতে বলা হয়েছে বলে জানান নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭ এর রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি খন্দকার আরিফুল আলম।

তিনি বলেন, আটজনের সাক্ষ্যের ভিত্তিতে আদালত এ রায় দিয়েছেন। রায়ের সময় আসামী পলাতক ছিলেন বলেও জানান তিনি।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালের ২১ জানুয়ারি কবিরাজ নামধারী মো. হারুনের কাছে পানির মোটরচুরির বিষয়ে আয়না পড়ার জন্য যান এক ব্যক্তি। তখন কবিরাজ ঝাড়ফুঁকের জন্য একজন কুমারী লাগবে বলেন জানান। পরদিন ভিকটিম ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিশুকে নিয়ে যায়। প্রথমে কিছুক্ষণ ঝাড়ফুঁক ও তাবিজ লিখে দেন। পরে মো. হারুন কবিরাজ ওই শিশুকে নিজের ঘরে নিয়ে তেল মালিশের নাম করে ধর্ষণ করেন। এসময় চিৎকার শুনে লোকজন গিয়ে শিশুকে উদ্ধার করে। পরে তাকে ফেনী জেলা ছাগলনাইয়া পরে ফেনী জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় ভিকটিমের মা বাদী হয়ে ওই বছরের ২৪ জানুয়ারি কবিরাজের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।


আরও খবর



সেই ম্যাথ্যু হেইডেনের শরণাপন্ন হচ্ছে পাকিস্তান

প্রকাশিত:Sunday ২৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২২জন দেখেছেন
Image

ওমান-আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার ম্যাথ্যু হেইডেনকে নিয়োগ দিয়েছিল পাকিস্তান। যার ফলও তারা হাতেনাতে পেয়ে গিয়েছিল। অত্যন্ত সুশৃঙ্খল একটি দলে পরিণত হয়েছিল তারা।

গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেই পাকিস্তানের এই বদলে যাওয়া রূপ দেখেছিল বিশ্ব। শুধু তাই নয়, বিশ্বকাপের পর এখনও পর্যন্ত সেই শৃঙ্খলার প্রভাব বিরাজমান পাকিস্তান ক্রিকেট দলে।

যদিও বিশ্বকাপের পর আর ম্যাথ্যু হেইডেনকে রাখেননি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। অনেকেই বলেছিল হেইডেনকে প্রধান কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয়া হোক। এমনকি বর্তমান কোচ সাকলায়েন মোস্তাক এবং অধিনায়ক বাবর আজমরা চেয়েছিলেন ভালোমানের একজন বিদেশী কোচ। তারা যে হেইডেনকেই চেয়েছিলেন, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড শেষ পর্যন্ত সাকলায়েন মোস্তাকের ওপর ভার কমিয়ে তাকে পুরোপুরি প্রধান কোচ হিসেবেই নিয়োগ দিয়েছে। সঙ্গে ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে সাবেক কিংবদন্তি ব্যাটার মোহাম্মদ ইউসুফকে।

তবে এবার আবারও সেই হেইডেনের শরণাপন্ন হচ্ছে পাকিস্তান। আরও একটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আসন্ন। তার আগেই অস্ট্রেলিয়ার হেইডেনকে তারা ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দিতে যাচ্ছে। ব্যাটিং কোচ মোহাম্মদ ইউসুফের সঙ্গে মিলেই কাজ করবেন হেইডেন।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান রমিজ রাজা শনিবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন পাকিস্তানি মিডিয়াকে। সেখানে তিনি জানিয়েছেন, বিশ্বকাপের আগে নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশকে নিয়ে যে ত্রিদেশীয় সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে, সেখানেই পাকিস্তান দলের সঙ্গে যোগ দেবেন হেইডেন।

সে সঙ্গে রমিজ রাজা জানিয়েছেন, চুক্তি শেষ না হওয়া পর্যন্ত প্রধান কোচের দায়িত্ব চালিয়ে যাবেন সাকলায়েন মোস্তাক। তিনি বলেন, ‘এক বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত সাকলায়েন প্রধান কোচের ভূমিকা পালন করবেন। ঘরোয়া ক্রিকেটে তার যুক্ত থাকার স্বার্থে এক বছর পর হয়তো চুক্তি আর নবায়ন নাও হতে পারে। তবে, জাতীয় দলের সঙ্গে এক বছর পূর্ণ দায়িত্ব পালন করেই তিনি যাবেন।’

রমিজ রাজা জানিয়েছেন, সাত ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার জন্য সেপ্টেম্বরে পাকিস্তানে আসবে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল। লাহোর এবং করাচিতেই প্রায় সবগুলো ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। মুলতান ভেন্যু তালিকায় থাকলেও তাকে বাদ দিচ্ছে পিসিবি। রমিজ বলেন, ‘মুলতানের জন্য দুঃখ প্রকাশ করছি। তবে, টেস্ট সিরিজের জন্য মুলতানকে এডজাস্ট করে নেয়া হবে।’

টানা সাফল্যের মধ্যে থাকায় বাবর আজমদের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন পিসিবি চেয়ারম্যান রমিজ রাজা। বিশেষ করে গত বিশ্বকাপে ভারতকে হারানোর পর থেকে এমনিতেই উচ্ছ্বাসে ভাসছে পুরো পাকিস্তান। রমিজ বলেন, ‘বিশ্বকাপে প্রথমবারের মত ভারতকে হারানো, বিশেষ করে ১০ উইকেটের ব্যবধানে বিশাল সেই জয়ের পর বিশ্বের দরবারে পাকিস্তানের ব্র্যান্ড অব ক্রিকেটের মূল্য অনেক বেড়ে গেছে। আমরা সারা বিশ্ব থেকেই অনেক বেশি রেসপন্স পেয়েছি। সবাই এখন আমাদের সম্মান করে, সমীহ করে। এর আগে পাকিস্তান ক্রিকেটে যা কখনো ঘটেনি।’


আরও খবর



নামাজের সময়সূচি : ১২ জুন ২০২২

প্রকাশিত:Sunday ১২ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
Image

আজ রোববার ১২ জুন ২০২২ ইংরেজি, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বাংলা, ১১ জিলকদ ১৪৪৩ হিজরি। ঢাকা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকার নামাজের সময়সূচি তুলে ধরা হলো-

> জোহর- ১২:০২ মিনিট।
> আসর- ৪:৩৮ মিনিট।
> মাগরিব- ৬:৫০ মিনিট।
> ইশা- ৮:১৬ মিনিট।
> ফজর (১৩ জুন)- ৩:৪৪ মিনিট।

> আজ সুর্যাস্ত- ৬:৪৬ মিনিট।
> আগামীকালের (১৩ জুন) সূর্যোদয়- ৫:১০ মিনিট।

বিভাগীয় শহরের জন্য উল্লেখিত সময়ের সঙ্গে যেসব বিভাগে সময় যোগ-বিয়োগ করতে হবে, তাহলো-

বিয়োগ করতে হবে-
> চট্টগ্রাম : -০৫ মিনিট
> সিলেট : -০৬ মিনিট

যোগ করতে হবে-
> খুলনা : +০৩ মিনিট
> রাজশাহী : +০৭ মিনিট
> রংপুর : +০৮ মিনিট
> বরিশাল : +০১ মিনিট

তথ্যসূত্র : ইসলামিক ফাউন্ডেশন


আরও খবর