Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা
সঙ্গে গেছেন তার স্ত্রী

চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর গেলেন মির্জা আব্বাস

প্রকাশিত:Tuesday ২৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১১৪জন দেখেছেন
Image
নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

পাকস্থলীতে সমস্যা নিয়ে চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

মঙ্গলবার (২৪ মে) সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে তিনি ঢাকা ত্যাগ করেন।

বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


তিনি বলেন, মির্জা আব্বাসকে সিঙ্গাপুর মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে ভর্তি করা হবে। তার সঙ্গে গেছেন স্ত্রী আফরোজা আব্বাস ও তার ছেলে।

এর আগে গত ১৭ মে সকালে অসুস্থ হয়ে রাজধানীর শ্যামলীতে বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি হন । পেটের পীড়ায় অসুস্থ হয়ে হাসপাতালের গ্যাস্ট্রোলিভার বিভাগের অধীনে ভর্তি হন তিনি।

আরও খবর



৬ বিঘা জমি গেছে দুঃখ নেই, পদ্মা সেতু চালু হলো এতেই খুশি নাসির

প্রকাশিত:Saturday ২৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ২৩জন দেখেছেন
Image

পদ্মা সেতু প্রকল্পের জন্য ছয় বিঘা জমি দিয়েছেন ৫৭ বছর বয়সী মো. নাসির জমাদ্দার। তার বাড়ি শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার নাওডোবা ইউনিয়নের মাইনুদ্দিন জমাদ্দারকান্দিতে।

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী দিনে শনিবার (২৫) বিকেলে জমাদ্দার বাসস্ট্যান্ডে তার সঙ্গে কথা হয় জাগো নিউজের।

নাসির জমাদ্দার জানান, শরীয়তপুর অংশে পদ্মা সেতুর জন্য তার পুরো পরিবারকে ২০ বিঘা জমি দিতে হয়েছে। তিনি দিয়েছেন ছয় বিঘা। অধিগ্রহণের জন্য সরকার থেকে ক্ষতিপূরণের অর্থ পেয়েছেন। তবে পুরোনো বসতভিটার জন্য এখনো তার মন কাঁদে। তবে পদ্মা সেতুতে অবদান রাখায় গর্ববোধ করেন নাসির জমাদ্দার। নিজেকে পদ্মা সেতুর একজন অংশীদার মনে করেন তিনি।

নাসির জমাদ্দার বলেন, ‘পদ্মা সেতুর জন্য সরকার আমাদের জায়গা-জমি নিয়েছে, তারপরও আমরা খুশি। সরকার যেটা করেছে ভালোর জন্য করেছে। আজ পদ্মা সেতু উদ্বোধন হলো। এজন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই। পদ্মা সেতু হওয়ায় আমার ও শরীয়তপুরের মানুষের উপকার হয়েছে। জমির জন্য কষ্ট হলেও আজ আমরা খুশি। এটা ভেবে ভালো লাগছে যে পদ্মা সেতুর জন্য আমি জমি দিয়েছি।’

তার মতো ওই এলাকার আব্দুর রউফ খালাশী, রশিদ মাদবর, রাজ্জাক হোসেন, রশিদ মিয়া ও জয়নাম জমাদ্দারও পদ্মা সেতুর জন্য জমি দিয়েছেন।

সেতুর জন্য আব্দুর রউফ খালাশীর পরিবারকে ২৭ বিঘা জমি দিতে হয়েছে। তারপরও তিনি খুশি। আব্দুর রউফ বলেন, ‘জমি দিতে হয়েছে তাতে কী? পদ্মা সেতু চালু তো হয়েছে। এতেই আমরা খুশি।’

গত আট বছর ধেরে নাওডোবা পুনর্বাসন কেন্দ্রে বসবাস করছেন রাজ্জাক হোসেন ও রশিদ মিয়া। পদ্মা সেতুর জন্য তাদের জমি দিতে হয়েছে। তাদের বাপ-দাদার ভিটেমাটি ছিল। পুরো পরিবার নিয়ে থাকতেন। জমি অধিগ্রহণের জন্য সরকার দেড়গুণ টাকা দিয়েছে। পুনর্বাসন কেন্দ্রে তারা সরকার থেকে জমি কিনে বাড়ি করেছেন।

রাজ্জাক হোসেন ও রশিদ মিয়া জাগো নিউজকে বলেন, ‘বাড়ি ও জমি গেছে তাতে কোনো দুঃখ নেই। পদ্মা সেতু চালু হয়েছে এতেই আমাদের সুখ।’

বহুল প্রত্যাশিত পদ্মা সেতুর সড়কপথে রোববার (২৬ জুন) ভোর ৬টা থেকে সবধরনের যান চলাচল শুরু হবে।

২০০১ সালের ৪ জুলাই স্বপ্নের পদ্মা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২০১৪ সালের নভেম্বরে নির্মাণকাজ শুরু হয়। দুই স্তরবিশিষ্ট স্টিল ও কংক্রিট নির্মিত ট্রাসের এ সেতুর ওপরের স্তরে চার লেনের সড়ক পথ এবং নিচের স্তরে একটি একক রেলপথ রয়েছে।

পদ্মা-ব্রহ্মপুত্র-মেঘনা নদীর অববাহিকায় ৪২টি পিলার ও ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যানের মাধ্যমে মূল অবকাঠামো তৈরি করা হয়। সেতুটির দৈর্ঘ্য ৬.১৫০ কিলোমিটার এবং প্রস্থ ১৮.১০ মিটার।

পদ্মা সেতু নির্মাণে খরচ হয়েছে ৩০ হাজার কোটি টাকা। এসব খরচের মধ্যে রয়েছে সেতুর অবকাঠামো তৈরি, নদী শাসন, সংযোগ সড়ক, ভূমি অধিগ্রহণ, পুনর্বাসন ও পরিবেশ, বেতন-ভাতা ইত্যাদি।

বাংলাদেশের অর্থ বিভাগের সঙ্গে সেতু বিভাগের চুক্তি অনুযায়ী, সেতু নির্মাণে ২৯ হাজার ৮৯৩ কোটি টাকা ঋণ দেয় সরকার। ১ শতাংশ সুদ হারে ৩৫ বছরের মধ্যে সেটি পরিশোধ করবে সেতু কর্তৃপক্ষ।

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার স্বপ্নের কাঠামো নির্মাণের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন কোম্পানি লিমিটেড।


আরও খবর



আজকের জোকস: সংসার সুখের হবে যেভাবে

প্রকাশিত:Thursday ০৯ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
Image

অনেকদিন পর দুই বন্ধুর দেখা হতেই খোশগল্পে মেতে উঠল—
পল্টু: দোস্ত, বলছিস সংসার জীবনে তুই খুবই সুখী। কিন্তু তুই তো আমাগো ক্লাসমেট মিলিরে বিয়া করছস!
বল্টু: হ্যাঁ, করছি। তাতে কী?
পল্টু: ও তো খুবই জেদী আর আর কড়া মেজাজের মেয়ে। ওকে সামলে চলা নির্ঘাৎ কঠিন কাজ? কীভাবে ম্যানেজ করিস?
বল্টু: খুব সোজা। যখন আমি দোষ করি, তখন সঙ্গে সঙ্গে স্বীকার করি। আর যখন সে দোষ করে, জাস্ট চেপে যাই।

****

ডাকনাম নয় স্কুলের নাম
পথিক: তোমার নাম কি খোকা?
খোকা: নাবিল।
পথিক: আহা, ডাকনাম নয়, স্কুলের নাম জানতে চাইছি।
খোকা: ও, স্কুলের নাম যাত্রাপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়।

****

পৃথিবীর সবচেয়ে চালাক প্রাণি গরু
শিক্ষক: এই পল্টু, তুই বল তো পৃথিবীতে সবচেয়ে চালাক প্রাণি কোনটি?
পল্টু: পৃথিবীর সবচেয়ে চালাক প্রাণি হচ্ছে গরু।
শিক্ষক: এটা কিভাবে সম্ভব? ব্যাখ্যা দে।
পল্টু: স্যার, অতি চালাকের গলায় দড়ি। বেশিরভাগ গরুর গলায় দড়ি থাকে। সুতরাং গরুই সবচেয়ে চালাক প্রাণি।


আরও খবর



ত্রিপুরায় উপনির্বাচনে মমতার দলের ভরাডুবি

প্রকাশিত:Sunday ২৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২৯জন দেখেছেন
Image

ভারতের ত্রিপুরার চার বিধানসভা কেন্দ্রের উপ-নির্বাচনে দেখা গেলো গেরুয়া ঝড়। কারণ চারটি আসনের তিনটিতেই জিতেছে ক্ষমতাসীন বিজেপি। একটি আসনে জিতে দুই নম্বরে থাকলো কংগ্রেস। মূলত বামফ্রন্টের চেয়েও ভালো ফল করেছে তারা। তবে সবচেয়ে খারাপ ফল হয়েছে মমতা ব্যানার্জীর দল তৃণমূলের। সব আসনেই দলটির প্রার্থীদের জামানত জব্দ হয়েছে।

রোববার (২৬ জুন) ফল প্রকাশের পর দেখা যায়, প্রথমবার ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেই জয়ী হয়েছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা। বড়দোয়ালি কেন্দ্রে মানিক পেলেন ১৭ হাজার ১৮১টি ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী কংগ্রেসের দুই বারের বিদায়ক আশিস সাহা পান ১১ হাজার ৭৭টি ভোট। এই কেন্দ্রের তৃণমূলের প্রার্থী সংহিতা ভট্টাচার্য পেয়েছেন মাত্র ৯৮৬টি ভোট। সেই আসনে বাম প্রার্থী পেয়েছেন ৩ হাজার ৩৭৬টি ভোট।

গত মাসে বিপ্লব দেবের হঠাৎ পদত্যাগের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে রাজ্যসভার সদস্য মানিক সাহার নাম ঘোষণা করে বিজেপি। মুখ্যমন্ত্রী থাকতে হলে তাকে উপ-নির্বাচনে জিততে হতো। এক সময়ের কংগ্রেস নেতা মানিক বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন ২০১৬ সালে। পেশায় দন্ত চিকিৎসক ২০২০ সালে ত্রিপুরা বিজেপির রাজ্য সভাপতিও হন।

আগরতলা কেন্দ্রে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর শেষ হাসি হাসেন বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে আসা সুদীপ রায়বর্মণ। বিপ্লব দেবের মন্ত্রিসভার সাবেক মন্ত্রী সুদীপ পান ১৭ হাজার ৪৩১টি ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপির অশোক সিংহ পান ১৫ হাজার ২৬৮টি ভোট। বাম প্রার্থী কৃষ্ণা মজুমদার ৬ হাজার ৮০৮টি ও তৃণমূলের প্রণব দেব পান ৮৪২টি ভোট।

যুবরাজনগর কেন্দ্রেও পদ্ম ফুটেছে। বিজেপি প্রার্থী মলিনা দেবনাথ পান ১৮ হাজার ৭৬৯টি ভোট। এই একটি কেন্দ্রেই দ্বিতীয় স্থান পেয়েছে বামেরা।

ভোটের আগে উত্তপ্ত হয়েছিল সুরমা। তৃণমূল কর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ ওঠে সেখানে। ওই কেন্দ্রেও জিতেছে বিজেপি। বাম ও স্বতন্ত্র প্রার্থীকে হারিয়ে জয় হাসিল করেছেন বিজেপি প্রার্থী স্বপন দাস।

সূত্র: এনডিটিভি


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লায় অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:Monday ১৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৮৪জন দেখেছেন
Image

স্টাফ রিপোর্টারঃমোঃআবু কাওছার মিঠু 

নারায়ণগঞ্জ  সদর উপজেলার ফতুল্লায় তক্কার মাঠ এলাকায় এক যুবককে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে দূবৃত্তরা। তার পরিচয় এখন পর্যন্ত জানা যায়নি।


তবে যুবকটির বয়স আনুমানিক ২৫ বছর। তাকে পেছন দিকে কোমরের উপরে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারনা করছে পুলিশ।


ঘটনাটি ঘটেছে রোববার (১২ জুন) দিবাগত রাত দেড়টায় ফতুল্লার তক্কারমাঠ শেহাচর এলাকায়।

  ইস্ট কোস্ট নীট ওয়্যার গার্মেন্টসের সামনে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শহরের ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেন।


ওই গার্মেন্টসের সিকিউরিটি গার্ড ফয়জুল হক জানান, রাত ১১টায় আমাদের গার্মেন্টস ছুটি হয়েছে। এরপর থেকে কারখানার সামনের সড়ক একে বারেই নিরব হয়ে যায়। কারখানার সামনে দোকানপাটও বন্ধ হয়ে যায়। আমরা এসময় কেউ বাহিরে বের হই না।


রাত দেড়টার সময় কুকুরের ঘেউ ঘেউ শব্দ শুনে গেইটের ফুটো দিয়ে বাহিরে তাকিয়ে দেখি একটা ছেলে সড়কে লাফাচ্ছে।কিছুক্ষন লাফিয়ে সড়কে লুটিয়ে পড়ে নিথর হয়ে যায়। তখন তার আশপাশে কাউকে দেখিনি।এরপর তাৎক্ষনিক মালিকপক্ষকে ফোন করে বিষয়টি জানিয়েছি।


ফতুল্লা মডেল থানার ওসি শেখ রিজাউল হক দিপু বলেন, লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের নাম পরিচয় জানাযায়নি। রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা চলছ।


আরও খবর



‘মেয়ে অনেক কষ্ট করেছে আল্লাহ যেন তার ফল দেয়’

প্রকাশিত:Friday ০৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৭৪জন দেখেছেন
Image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে শুরু হয়েছে ভর্তিযুদ্ধ। শুক্রবার (৩ জুন) বেলা ১১টায় শুরু হয় পরীক্ষা। পরীক্ষার্থীদের এই যুদ্ধে যেন অংশ নিয়েছেন অভিভাবকরাও। তারাও এসেছেন ক্যাম্পাসে। সন্তানরা পরীক্ষা দিচ্ছেন কেন্দ্রের ভেতরে। আর বাইরে অপেক্ষায় অভিভাবকরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল, বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি চত্বর ও ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের সামনে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা বসে আছেন। এসময় কেউ কেউ সন্তানের পরীক্ষা যেন ভালো হয় তার জন্য দোয়া করতে থাকেন।

কুষ্টিয়া থেকে আসা সানজিদা ইয়াসমিন ইশা নামের এক পরীক্ষার্থীর মা রুমা বেগম বলেন, মেয়ে অনেক পড়াশোনা করেছে। কষ্ট করেছে আল্লাহ যেন তার ফল দেয়।

jagonews24

তিনি জানান, দুদিন আগেই পরীক্ষার জন্য ঢাকায় এসেছেন মেয়েকে নিয়ে। আজ পরীক্ষা কেন্দ্রে সকাল সাড়ে সাতটায় চলে এসেছেন। হয়।

অপরদিকে মো. কামাল নামে আরেক অভিভাবক বলেন, আমার মেয়ে পরীক্ষা দিচ্ছে। মেয়ের জন্য দোয়া করছি, আর অপেক্ষা করছি ভালো পরীক্ষা দিয়ে যেন বের হয়।

মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ছেলে পরীক্ষা দিচ্ছে এখানে অপেক্ষা করছি। ক্লাস ওয়ান থেকে এভাবেই পরীক্ষার সময় অপেক্ষা করেছি। কিন্তু আজকের অপেক্ষা আগের অপেক্ষার মতো না। এটা তার জীবনের অনেক গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা। দোয়া করছি এ পরীক্ষার জন্য সে উত্তীর্ণ হয়।

এদিকে এ বছর ‘গ’ ইউনিটে ৯৩০টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ৩৩ হাজার ৬৯৩ জন ভর্তিচ্ছু। সে হিসাবে প্রতি আসনের বিপরীতে লড়ছেন ৩৬ জন শিক্ষার্থী। গত বছর আসনপ্রতি গড়ে পরীক্ষার্থী ছিল ২১ জন।

গত বছরের মতো এবারও ‘গ’ ইউনিটে ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষায় ৬০ নম্বরের এমসিকিউ এবং ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হবে। এমসিকিউ পরীক্ষা ৪৫ মিনিট আর লিখিত পরীক্ষা হবে ৪৫ মিনিট। এ পরীক্ষায় প্রাপ্ত ফলাফলের সঙ্গে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের ফলাফলের ওপর ২০ নম্বর যোগ করে মেধাতালিকা প্রস্তুত হবে।


আরও খবর