Logo
আজঃ Friday ০২ December 2০২2
শিরোনাম

ছাত্রলীগে কমিটি বাণিজ্য নিয়ে আ. লীগ নেতাদের অভিযোগে যা বললেন জয়-লেখক

প্রকাশিত:Monday ২১ November ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০২ December 2০২2 | ৭০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: ছাত্রলীগে পদবাণিজ্য, কমিটি বাণিজ্য, মাদকসেবী-কারবারি ও অনুপ্রবেশকারীদের পদায়ন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল নেতারা। তবে এসব অভিযোগকে মিথ্যা, বানোয়াট ও ভুয়া বলে দাবি করেছেন ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। তারা ছাত্রলীগকে বিতর্কমুক্ত করতে পেরেছেন বলে ওদাবি করেছেন।

আজ সোমবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আগামী ৮ ও ৯ ডিসেম্বর ছাত্রলীগের ৩০তম জাতীয় সম্মেলন সফলভাবে আয়োজন ও প্রস্তুতি উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করেন সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক

সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, ‘বিভিন্ন সময় যে পদবাণিজ্যের অভিযোগ তোলা হয়েছে, সেগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা। অর্থের বিনিময়ে আমরা কোনো ইউনিটের কমিটি দেইনি। আমরা বারবার বলেছি, কেউ যদি পদবাণিজ্যের অভিযোগ প্রমাণ করতে পারে, আমরা সেই শাস্তি মাথা পেতে নেব।

পদবাণিজ্যের বিষয়ে ছাত্রলীগের দুই নেতার অডিও ফাঁস হয়েছে- বিষয়টি উল্লেখ করে জয় বলেন, ‘আমরা বেশকিছু অডিও শুনেছি, কিন্তু সেগুলোর আনুষ্ঠানিক কোনো কিছু আমরা পাইনি। তাদের ব্যক্তিগত ফোনালাপের একটি অংশ হিসেবে তা প্রচার পেয়েছে।’

ফোনালাপ ফাঁসের বিষয়ে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য বলেন, ‘আপনারা ফোনালাপ শুনে দেখবেন যে সেখানে ছাত্রলীগের পদের জন্য কোনো টাকা চাওয়া হয়নি। ব্যক্তিগত ও ব্যবসায়িক সম্পর্ক তাদের থাকতে পারে, সেই লেনদেনের অডিও ফেসবুকে ছেড়ে ছাত্রলীগকে বিতর্কিত করার চেষ্টা করা হয়েছে।’

লেখক ভট্টাচার্য বলেন, ‘পদবাণিজ্য নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাদের বক্তব্য সম্পূর্ণ মিথ্যা।’

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির বর্ধিত অংশে কতজনকে পদ দেওয়া হয়েছে- এমন প্রশ্নের জবাবে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য বলেন, ‘ছাত্রলীগের নির্বাহী সংসদে ৩০১ জন নেতা। এর বাইরে কতজন আছে আমরা জানি না। দপ্তর সেল এটি বলতে পারবে।’

সংখ্যাটি কত- জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সংখ্যাটা জানি না। অনেক হতে পারে।

নিজেদের কমিটির সময় নেওয়া পদক্ষেপের চিত্র তুলে ধরে ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, ‘করোনা মহামারির সময় অক্সিজেন সেবা, টেলিমেডিসিন সেবা, গরিব ও অসহায়দের মাঝে খাবার বিতরণ করেছেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এ ছাড়া প্রাকৃতিক দুর্যোগে ভুক্তভোগীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ, রমজানে বিভিন্ন জায়গায় ইফতার বিতরণ এবং বিভিন্ন সময় গরিব শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করেছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি ইবরাহীম হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান হৃদয়, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক জোবায়ের আহমেদসহ সংগঠনের অন্যান্য কেন্দ্রীয়, বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিভিন্ন ইউনিটের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর