Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

চার্জিংয়ের ভবিষ্যৎ ম্যাগনেটিক ওয়্যারলেস চার্জিং

প্রকাশিত:সোমবার ০১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৬২জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:ইনফিনিক্সের নোট ৪০ সিরিজের স্মার্টফোনে ম্যাগনেটিক ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি তরুণদের মাঝে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। এতদিন পর্যন্ত উন্নত এই প্রযুক্তি শুধু আইফোনেই পাওয়া যেত, তবে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরাও এখন এই সুবিধা ভোগ করতে পারছেন। এই পদক্ষেপের কারণে একদিকে যেমন চার্জিংয়ের চিত্র বদলে গেছে অন্যদিকে চার্জিংয়ের ক্ষেত্রে নতুন মানদণ্ডও স্থাপিত হয়েছে।

এমন সময়ে এই প্রযুক্তির ঘোষণা এলো, যখন স্মার্টফোন শিল্প ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তির দিকে ঝুঁকছে। প্রযুক্তির উন্নতি এবং গ্রাহকদের পরিবর্তনশীল চাহিদা মেটাতে ইনফিনিক্স দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। ম্যাগনেটিক ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি চালু করা সেই প্রতিজ্ঞারই প্রতিফলন। এর আগে কিউআই প্রটোকল ২.০-এর মাধ্যমে শুধু অ্যাপল ডিভাইসে এই প্রযুক্তি সীমাবদ্ধ ছিল। অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্র্যান্ডগুলোর মধ্যে ইনফিনিক্সই প্রথম এই প্রযুক্তি নিয়ে এসেছে।

ম্যাগচার্জ প্রযুক্তির মাধ্যমে ম্যাগনেটিক ওয়্যারলেস চার্জিংকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়েছে ইনফিনিক্স, এমনকি অ্যাপলের প্রযুক্তিকেও এটি ছাড়িয়ে গেছে। ফোনের কয়েল ও চার্জারকে নিরাপদে যুক্ত করার মাধ্যমে নিরবচ্ছিন্ন চার্জিংয়ের অভিজ্ঞতা প্রদান করছে ইনফিনিক্সের ম্যাগচার্জ প্রযুক্তি। ফলে সুনির্দিষ্ট অ্যালাইনমেন্টের প্রয়োজনীয়তা দূর হয়ে একটি স্থিতিশীল চার্জিং প্রক্রিয়া নিশ্চিত হয়।

তাছাড়া, ইনফিনিক্সের ম্যাগকিট ব্যবহারকারীদের পূর্ণাঙ্গ ম্যাগনেটিক চার্জিং সল্যুশন প্রদান করে। এই ম্যাগকিটের অন্তর্ভুক্ত ম্যাগপাওয়ার দেয় সত্যিকারের “ম্যাগনেটিক চার্জিং,” যার জন্য কোনো শক্তির উৎসের কাছাকাছি থাকারও কোনো প্রয়োজন হয় না। ফলে ফোনটি ব্যবহার করা যায় আরও সহজে।

নোট ৪০ সিরিজের ম্যাগনেটিক ওয়্যারলেস চার্জিং ফিচারের সাথে আরও আছে চমৎকার একটি আল্ট্রা-থিন ম্যাগনেটিক পাওয়ার ব্যাংক। মাত্র ৮.৬ মি.মি. পুরুত্ব ও ৮৬ গ্রাম ওজনের পাওয়ার ব্যাংকটি সহজেই বহনযোগ্য। এই পাওয়ার ব্যাংকের সক্ষমতা ৩০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার, যা যেকোনো জায়গায় ফোনে চার্জ দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

পাওয়ার ব্যাংকটির ম্যাগনেটিক ডিজাইনের কারণে এটিকে সহজেই নোট ৪০ ফোনের পেছনের অংশে যুক্ত করা যায়। ফলে চার্জিংয়ের জন্য একটি নিরাপদ সংযোগ তৈরি হয় এবং কোনো ক্যাবল বা অ্যাডাপ্টারের ঝামেলা ছাড়াই এটি চার্জ দেয়া যায়। এছাড়া, পাওয়ার ব্যাংকটি ঘড়ি ও হেডফোনের মতো অন্যান্য ইকোসিটেম পণ্যের সাথেও ব্যবহার করা যায়।

নোট ৪০ সিরিজের মাধ্যমে গ্রাহকদের জন্য অত্যাধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে আসার পাশাপাশি ম্যাগনেটিক ও ওয়্যারলেস চার্জিংকে সবার জন্য সহজলভ্য করে তুলছে ইনফিনিক্স। ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি ক্রমাগত বিবর্তিত হচ্ছে। আর ব্যবহারকারীদের অভিজ্ঞতা উন্নত করার লক্ষ্যে উদ্ভাবনী সমাধান প্রদানের মাধ্যমে এক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিতে ইনফিনিক্স প্রস্তুত। প্রযুক্তির উন্নতি অনেক সময় মূল্যের সীমা অতিক্রম করার ওপর নির্ভর করে। এর ফলে সেই প্রযুক্তির ব্যাপক ব্যবহার ও উন্নয়ন সম্ভব হয়। 


আরও খবর



ওয়ারী ট্রাফিক বিভাগের অভিযানে গাঁজাসহ দুই ব্যক্তি আটক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৩৬জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃরাজধানীর ডেমরায় চার কেজি গাঁজাসহ দুই মোটরসাইকেল আরোহীকে আটক করেছে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ। সোমবার (৮ জুলাই) ডেমরা থানাধীন ডেমরা-২ পয়েন্টে চেকপোস্টে রাত ৮টার দিকে তাদের আটক করা হয়। আটক ব্যক্তিরা হলে- সজিব (২৫), তিনি কিশোরগঞ্জের ভৈরবের কালিয়াকৈরের স্বপনের ছেলে। অপরজন আরমাদ (২৭), তিনি কিশোরগঞ্জের ভৈরবের কালিয়াকৈরের দুলালের ছেলে। এ ঘটনায় ডেমরা থানায় একটি জিডি করা হয়।

ডেমরা থানার এসি ট্রাফিক মোস্তাইন বিল্লাহ ফেরদৌসের নেতৃত্বে ডেমরা স্টাফ কোয়াটার এলাকার গ্রাফি ইন্সপেক্টর (টিআই) মৃদুল কুমার পাল, সার্জেন্ট রমজান মুন্সি, সার্জেন্ট আরেফিন, সার্জেন্ট সুমন এর টিম ডেমরা থানাধীন ডেমরা-২ পয়েন্টে চেকপোস্ট কার্যক্রম পরিচালনার সময় সন্দেহভাজন এক মোটরসাইকেল আরোহীকে চ্যালেঞ্জ করে গাড়ি চেকিংয়ের জন্য সিগন্যাল দিলে তারা পালানোর চেষ্টা করে। পরবর্তীতে তাদের দুজনকে মোটরসাইকেলে ধাওয়া করে আটক করা হয়। আটকের পর তাদের শরীরে পেঁচানো অবস্থায় আনুমানিক চার কেজি গাঁজা পাওয়া যায়। এসময় তাদের মোটরসাইকেলটি জব্দ করা হয়। জব্দকৃত মোটরসাইকেল নম্বর কিশোরগঞ্জ-হ ১২-৩৭০৭ (৮০ সিসি)। ট্রাফিক পুলিশের মাদক উদ্ধার ঘটনায় এলাকার মানুষের ব্যাপক প্রশংসা পেয়েছে।

ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টার এলাকার টিআই মৃদুল কুমার পাল যানজট নিরসনে ও সড়কের শৃঙ্খলা ফেরাতে এই এলাকায় সার্বক্ষণিক কঠিন নজরদারি অব্যাহত রেখেছেন।

এদিকে আজ পৃথক অভিযানে  ১৩টি ফিটনেসবিহীন গাড়িকে ডাম্পিং করেছে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ।



আরও খবর



ভারতের সঙ্গে সকল চুক্তি বাতিলের দাবিতে ঝিনাইদহে ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৯৮জন দেখেছেন

Image

কামরুজ্জামান ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:ভারতের সঙ্গে দেশবিরোধী সকল চুক্তি বাতিল এবং চিহ্নিত দূর্নীতিবাজদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৫ ঘটিকায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশহিসাবে ঝিনাইদহ পুরাতন ডিসি কোর্ট প্রাঙ্গন থেকে এক বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভ মিছিল শেষে পায়রাচত্বরে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতিত্ব করেন ইসলামী আন্দোলন ঝিনাইদহ জেলা শাখার সভাপতি এইচ এম মমতাজুল করিম। সঞ্চলনা করেন সংগঠনের সেক্রেটালী প্রভাষক মাওলানা শিহাব উদ্দীন। বক্তব্য রাখেন মুফতী আহমদ আব্দুল জলিল, মাওলানা হুমায়ুন কবীর, মুফতী রাসেল উদ্দীন, মুফতী নাজির আহমাদ, মাওলানা শহীদুল ইসলাম, মুফতী আলী হুসাইন, মাওলানা মিরাজ হুসাইন, এইচ এম নাঈম মাহমুদ প্রমুখ। বক্তাগণ বলেন প্রধানমন্ত্রীর সম্প্রতি ভারত সফরে যেসব চুক্তি হয়েছে তাতে এদেশের কোন স্বার্থ নেই। তাই অবিলম্বে দেশবিরোধী সকল চুক্তি বাতিল করতে হবে।  



আরও খবর



ফুলবাড়ীর বাজিতপুর আবাসন প্রকল্পের বাড়িতে রাস্তা না থাকায় যেতে পারছেনা ১৪টি পরিবার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১০০জন দেখেছেন

Image

আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার শিবনগর ইউপির বাজিতপুর গ্রামে গড়ে ওঠে আবাসন প্রকল্প সেই বাড়ীগুলিতে যাতায়াতের রাস্তা না থাকায় যাতায়াত করতে পারছেনা ১৪টি পরিবার। ফুলবাড়ী উপজেলা পরিষদ থেকে শিবনগর ইউপির বাজিতপুর এলাকায় মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহারের ১৪বাড়ী ভূমিহীনদের হস্তান্তর করেন। সেই বাড়ীর সামনের জায়গাগুলি মালিকানা হওয়ায় এবং রাস্তা না থাকায় সরকারের সেই খাস জমিতে ১৪টি বাড়ী নির্মাণ করেন উপজেলা প্রশাসন। এখন এই ১৪টি পরিবার রাস্তা না থাকায় তাদের বাড়ী হতে বাহির হতে পারছেনা। ঐ ১৪টি পরিবার জমির আইল দিয়ে বর্তমানে কোন রকমে যাতায়াত করছে। 

এ বিষয়ে শিবনগর ইউপির ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য দিলীপ চন্দ্র রায় এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ইতিপূর্বে নির্বাহী কর্মকর্তা রিয়াজ উদ্দীন থাকা কালীন অবস্থায় ঘরগুলি নিমার্ণ করা হয়েছে। বর্তমান উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা শফিউল ইসলাম এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, এলাকায় সরকারি জমি থাকলে ইউনিয়ন ভূমি অফিস থেকে মাপযোগ করে জায়গা বাহির করে রাস্তা নির্মাণ করা হবে। তবে সময়ের ব্যাপার।

এ ব্যাপারে বাজিতপুর আবাসান প্রকল্পের ১৪টি পরিবার রাস্তার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নেকদৃষ্টি কামনা করেছেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



রৌমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটির ইসুতে সংর্ঘষের আশঙ্কা

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৩জন দেখেছেন

Image

মাজহারুল ইসলাম,রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃজেলাধীন রৌমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের এক অংশ আরেক অংশের বিরুদ্ধে নানাবিধ অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করছেন। তারই প্রতিবাদে আবার প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলণ করছেন রৌমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক প্রাথমিক গনশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন এমপি।  এনিয়ে দুগ্র্পের মাঝে রক্তক্ষয়ী সংর্ঘষের আশংকা দেখা দিয়েছে। যেকোন মুহুর্তেই রৌমারীতে অপ্রীতিকর ঘটার আশংকা করছেন সাধারণ নেতৃবৃন্ধরা।

কেন এমন আকার ধারন করেছে তার ব্যাখ্যা দিয়েছে আওয়ামী লীগের সচেতন ব্যাক্তিরা। তারা তাদের বক্তব্যে বলেন দীর্ঘদিন অতিবাহিত হওয়ায় প্রনাঙ্গ কমিটির দাবীকে কেন্দ্র করে এই সংর্ঘষের রুপ ধারন করেছে। এবিষয়ে প্রতিকার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন আওয়ামী লীগের এক অংশ তার নেতৃত্ব দেন সাবেক সাধরণ সম্পাদক উপজেলা আওয়ামী লীগ রৌমারী রেজাউল ইসলাম মিনু, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আবিদ শাহনেওয়াজ তহিনসহ আরও অনেকেই। প্রতিমন্ত্রী সাবেক জাকির হোসেন এমপির বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে উপজেলা প্রেসক্লাব রৌমারী কুড়িগ্রাম এসে সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সমম্মেলনে জানা গেছে বাংলাদেশ আওযামী লীগের সেন্টাল ঢাকা থেকে কমিটি করার লক্ষে কমিটি পাঠানো হয়েছিল। তারই আলোকে সেন্টাল কমিটি এসে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটির সভাপতি সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করেন। সেই দেয়া সেন্টাল কমিটির কমিটি ভেঙ্গে নতুন আঙ্গিকে কমিটি করার দাবী জানান এক অংশ।

এখবরে সাবেক প্রতিমিন্ত্রী জাকির হোসেন এমপি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি দুই উপজেলার সংবাদ প্রতিনিধিদের নিয়ে প্রতিবাদ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। খবর পেয়ে আওয়ামী লীগের এক অংশ বিক্ষোভ সমাবেশ বের করেন। এসময় প্রতিমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনে উপস্তিতি নেতাকর্মীরাও ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। দুপক্ষের উত্তেজনা পরিস্তিতি ঠেকাতে অতিরিক্ত ফোর্সের ব্যবস্তা করেছেন রৌমারী-রাজিবপুরের দায়ীত্বরত এ এসপি সার্কেল। অবস্তার বেগতিক দেখে উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদ হাসান খান, উপজেলা সহকারি কমিশনার ভূমি কর্মকর্তা, রৌমারী-পাশাপাশি রাজিবপুর থানার সহযোগিতায় উত্তেজনা পরিস্তিতি আইনশৃঙ্খা বাহিনী নিয়ন্ত্রন করতে সক্ষম হয়।

এখন পর্যন্ত কোনপ্রকার অপ্রীতিকর কোন ঘটনা ঘটেনি তবে আশংকায় রয়েছে উপজেলার সাধারণ নেতাকর্মীরা।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ কর্মিদের দাবী আওয়ামী লীগের উর্ধ্ববতণ কতৃপক্ষের হস্তক্ষেপ জুররী বলে মনে করছেন। কারন এনিয়ে যদি একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে তাহলে দলের আন্তরিকতার ইউনিটি থাকবেনা ফলে দলের ভাবমুর্তি ক্ষন্য হওয়ারও আশষ্কা থেকে যায়। যাতে এমন কোন ঘটনার সুষ্টি না হয় সেদিকে অবশ্যই দায়ীত্বশীলদের নজর দেয়া এবং নিরশণের প্রয়োজন বলে মনে করছেন সাধারণ নেতাকর্মিরা। অপরদিকে একই দলে বিভাজন হয়ে দফায় দফায় সংবাদ সম্মেলন এবং দুই দলেই বিক্ষোভ সমাবেশ বের করে মখোমুখি সংর্ঘষের রুপ নেয়। এতে রক্তক্ষয়ী সংর্ঘষ যেকোন সময় ঘটতে পারে। এবিষয় রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দল্লাহেল জামান বর্তমান পরিস্তি শান্ত রয়েছে। রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদ হাসান খান বলেন আপাতত পরিস্তিতি ভালো আছে তারপরও আমরা প্রশাসনিকভাবে তৎপর রয়েছি যাতে কোনপ্রকার সমস্যার সুষ্টি না হয়।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



কালিয়াকৈরে সাপের কামড়ে যুবকের মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১২৩জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার বাসুরা এলাকায় সাপের কামড়ে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার ভোরে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর কুমুদিনী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।নিহত হলেন, কালিয়াকৈর উপজেলার বাসুরা এলাকার ইউনুছ আলীর ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪০)।এলাকাবাসী ও নিহতের স্বজন সূত্রে জানা গেছে, সাইফুল ইসলাম গত শুক্রবার রাতে কালিয়াকৈর উপজেলার ঢালজোড়া ইউনিয়নের বাসুরা এলাকার একটি বিলে টেটা দিয়ে সখের বসে মাছ ধরতে যান। এ সময় একটি বিষধর সাপ এসে সাইফুলের পায়ে কামড়ে দেয়। পরে তিনি তার হাতের টেটা দিয়ে সাপটি মেরে ফেলে। এরপর তিনি ওই সাপটি নিয়ে দ্রুত বাড়িতে গিয়ে পরিবার ও এলাকাবাসীর লোকজন কাছে ঘটনাটি জানায়। পরে পরিবারের লোকজন ও এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কুমুদিনী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার ভোরে সাইফুল মারা যান।স্থানীয় ঢালজোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইছামুদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শনিবার যোহরের নামাজের পর জানাযার নামাজ শেষে তার দাফন সম্পূর্ণ করা হবে।


আরও খবর