Logo
আজঃ Wednesday ২৫ May ২০২২
শিরোনাম

বুফে ইফতার

প্রকাশিত:Sunday ১৭ April ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১৭৫জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

রমজানে যারা ইফতার এবং ডিনার একসঙ্গে করার কথা ভাবছেন তাদের জন্য হাভেলি রেস্টুরেন্ট নিয়ে এসেছে ইফতার কাম ডিনার বুফে। রাজধানীর উত্তরার গরীব-ই-নেওয়াজ অ্যাভিনিউ সেক্টর-১৩ অবস্থিত হাভেলি রেস্টুরেন্ট মাত্র ৯০০+ টাকায় রমজানে দিচ্ছে প্রায় ৩৭ আইটেমের ইফতার কাম ডিনার বুফে।


 

যারা পরিবার নিয়ে একসঙ্গে ইফতার করার জন্য রেস্টুরেন্টের খোঁজখবর করেন। তারা উত্তরার হাভেলি রেস্টুরেন্টটিতে ঘুরে আসতে পারেন।  


হাভেলি রেস্টুরেন্টের ম্যানেজার দেলোয়ার হোসেন বলেন, হরেক রকমের ইফতারপদ দিয়ে সাজানো হয়েছে হাভেলির এই আয়োজন। বুফেতে ৩৭ আইটেম থাকছে। ইফতারির আইটেমের মধ্যে রয়েছে- মাটন হালিম, লেমন জুস, জাফরান জিলাপি, খেজুর, মুড়ি, চানা ভুনা, বেগুনি, পেঁয়াজু, তরমুজ, আপেল ও কলা। আবার স্যুপ আইটেমে একটি বিশেষ স্যুপ থাকছে।  


অ্যাপেটাইজারে রয়েছে ভেজিটেবল রোল, ভেজিটেবল পাকোড়া ও অনথন। সালাদের মধ্যে রয়েছে- মিক্স রাইটা, মিক্সড সালাদ, শশা, গাজর, গ্রিন চাটনি।  

মেইন ডিসে থাকছে- তন্দুরি, বিফ মেজবানি গোস্ত, ফিশ দো পেঁয়াজা, চিকেন চিলি অনিয়ন, ডাল বাটার ফ্রাই, নান, স্টিম রাইস, প্লেন পোলাও, এগ ফ্রাইড রাইস ও ভেজিটেবল নুডুলস। গোলাব জামুন, নবাবী ফিরনি ও ফ্রুটস সালাদ রয়েছে শেষ পাতে।


তিনি আরো বলেন, আমাদের লক্ষ্য অতিথিদের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন এবং স্বাস্থ্যসম্মত খাবার পরিবেশন করা। ইফতারে হাভেলি রেস্টুরেন্টে রিজার্ভ করেও আসা যাবে আবার সরাসরি এসেও উপভোগ করা যাবে।  


আরও খবর



ধুপখোলা মাঠকে মাঠ হিসেবে ব্যবস্থাপনা করতে হবে

প্রকাশিত:Saturday ১৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

পুরাতন ঢাকার গেন্ডারিয়ার ধুপখোলা মাঠকে সম্পূর্ণরূপে মাঠ হিসেবে ছেড়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন আইনজীবী ও বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান।


তিনি বলেছেন, মাঠটিকে মাঠ হিসেবে ব্যবস্থাপনা করতে হবে। এখানে যত স্থাপনা আছে এগুলো সরিয়ে ফেলতে হবে।



শনিবার (১৪ মে) পরিবেশ ও সংস্কৃতি কর্মী এবং নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা ধূপখোলা মাঠ পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন।


রেজওয়ান হাসান বলেন, ঢাকা শহরের মাস্টার প্ল্যান ও হাইকোর্টের রায়ে বলা আছে, মাঠের মধ্যে কোনো স্থাপনা হতে পারবে না। আর ধূপখোলা মাঠের মতো এরকম ঐতিহ্যবাহী মাঠ নেই। যে কোনো নির্মাণ কাজ করতে গেলে ওখানে একটা সাইনবোর্ড দিয়ে জনগণকে জানাতে হবে এই নির্মাণ কাজ কে করছে, অর্থায়ন কে করছে, ইঞ্জিনিয়ার কে, অনুমোদনের তারিখ কবে। এখানে এরকম কোনো সাইনবোর্ড আমরা দেখতে পাইনি।



তিনি আরও বলেন, ঢাকা শহরের বেশির ভাগ খেলার মাঠ ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে আছে সিটি করপোরেশন। আর সিটি করপোরেশন যদি আইন ভঙ্গ ও হাইকোর্টের রায় উপেক্ষা করে মাঠের মধ্যে স্থাপনা করে তাহলে জনগণ যাবে কোথায়। এখানে ‘রক্ষকই ভক্ষক’ এই উদাহরণ সৃষ্টি করছে সিটি করপোরেশন।


পরিদর্শন শেষে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সহ-সভাপতি মোবাশ্বের হোসেন বলেন, মহানগরী, বিভাগীয় শহর ও জেলা শহরের এলাকাসহ দেশের সব পৌর এলাকার খেলার মাঠ, উন্মুক্ত স্থান, উদ্যান ও প্রাকৃতিক জলাধার সংরক্ষণ আইন, ২০০০ অনুসারে মাঠে কোনো স্থাপনা করার সুযোগ নেই। এই আইনে বিজিএমইএ ভবন ভেঙে ফেলা হয়েছে। ধূপখোলা মাঠে যে সব অবৈধ নির্মাণ কাজ রয়েছে সেগুলো সরিয়ে ফেলতে হবে। আর এই কাজটি করতে সিটি করপোরেশনকে উদ্যোগ নিতে হবে।



নাগরিক উদ্যোগের প্রধান নির্বাহী জাকির হোসেন বলেন, দেশের আইন ও উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী কোনো মাঠে স্থাপনা তৈরি করা যায় না। খেলার মাঠ খেলার জন্যই উন্মুক্ত থাকবে। ধূপখোলা মাঠ ঢাকার মধ্যে সবচেয়ে বড় খেলার মাঠ। এছাড়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররাও এখানে খেলাধুলা করেন।


তিনি নির্মাণ কাজ বন্ধ করার জন্য সিটি করপোরেশনের প্রতি আহ্বান জানান।


প্রতিনিধি দলে আরও উপস্থিত ছিলেন- গ্রিন ভয়েসের প্রধান সমন্বয়ক আলমগীর কবির, কেন্দ্রীয় সহ-সমন্বয়ক হুমায়ুন কবির সুমন, ময়মনসিংহ বিভাগের সমন্বয়ক শাকিল কবির, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক তারেক রহমান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান মিল্টন, পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দীন, ক্যামেলিয়াসহ অন্যান্য নেতারা।



আরও খবর



চোর-ছিনতাইকারী বলে গালি দেয়ায় ১০ বছরের শিশুর আত্মহত্যা

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ April ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১৬৬জন দেখেছেন
Image

সাভার প্রতিনিধিঃ

সাভার পৌর এলাকায় চোর-ছিনতাইকারী বলে গালির অপবাদ সইতে না পেরে আরাফাত (১০) নামে এক শিশু বাসায় ফ্যানের সঙ্গে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুঁলে আত্মহত্যা করেছে।সোমবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে সাভার পৌর এলাকার দেঁওগায়ে কামালের বাড়ি থেকে শিশুটির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।


শিশু আরাফাত চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ থানার কালিবাজার গ্রামের জিন্নার ছেলে। সে সাভারে দেঁওগায়ে দাদির কাছে থাকতো। বিয়ে বিচ্ছেদের পর বাবা-মা শিশুটিকে দাদির কাছে রেখে যার যার মতো সংসার করছেন। তাদের সঙ্গে এখন আর কোন যোগাযোগ নেই দাদী জরিনা বেগমের।



দাদি জরিনা বেগম  বলেন, ‘বাপ-মায়ে চলে যাওয়ার পর আরাফাত আমার সঙ্গে সাভারেই থাকতো। শুনেছি কারা যেন আরাফাতকে চোর-ছিনতাইকারী বলে গালিগালাজ করেছে। পরে গতকাল (সোমবার) দুপুরে আমি বাসায় না থাকলে সে ফ্যানের সঙ্গে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুঁলে আত্মহত্যা করে। তার মরদেহ পুলিশ এসে উদ্ধার করে।



আরও খবর



ঢাকা চট্রগ্রাম মহাসড়ক মাতুয়াইলে নতুন ইউলুপ চালু

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ April ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১৩৯জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

ট্রাফিক-ডেমরা জোনের অধীন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মাতুয়াইল মেডিকেলে সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের ব্যবস্থাপনায়  নতুন ইউলুপ চালু হয়েছে।বুধবার ২৭ শে এপ্রিল থেকে  নতুন ইউলুপ চালু হওয়ায় যাজটের দুর্ভোগ লাঘব হওয়ার আশা করছে ট্রাফিক-ডেমরা জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) ইমরান হোসেন মোল্লা।


তিনি বলেন,ট্রাফিক-ডেমরা জোনের মাতুয়াইলে নতুন ইউলুপ চালুর কারনে কমবে সড়ক দুর্ঘটনা ও জনভোগান্তি"।ইউলুপ চালুর পাশাপাশি, মাতুয়াইল মেডিকেলের সামনে আগের অতিমাত্রায় ঝুঁকিপূর্ণ ক্রসিংটি বন্ধ করা হয়েছে।



সড়ক দুর্ঘটনারোধে ও জনসাধারণের ও যানবাহনের ঝুঁকিপূর্ণ চলাচল হ্রাসে ইউলুপটি খুবই কার্যকরী হবে মর্মে ধারণা করা যায়।ইউলুপে ট্রাফিক-ডেমরা জোনের উদ্যোগে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার লক্ষ্যে ডেপ্লয়মেন্ট নিশ্চিত করা হয়েছে।


আরও খবর



আজ থেকে শুরু হচ্ছে ইলিশ ধরা

প্রকাশিত:Friday ২৯ April ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১৬৯জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

টানা দুই মাস পর শনিবার (৩০ এপিল) রাত ১২টার পর থেকে শুরু হচ্ছে ইলিশ ধরা। বর্তমানে জেলেরা নদীতে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।


ঘাটের পাড়ে জাল এবং নৌকা ঠিক করায় ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা।শনিবার রাত থেকে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে কর্মব্যস্ত হয়ে পড়বেন বেকার জেলেরা।এতোদিন যেসব আড়তে ছিল সুনশান নিরবতা সেইসব আড়ত জেলে, মৎস্যজীবী ও আড়তদারদের হাঁকডাকে মুখরিত হয়ে উঠবে। 


মাছ ধরে বিগত দিনের ধার-দেনা শোধ করে ঘুরে দাঁড়াতে পারবেন বলে আশাবাদী জেলেরা।ভোলা সদরের ইলিশা, তুলাতলী, ভোলার খাল, নাছির মাঝিসহ বিভিন্ন ঘাট ঘুরে দেখা গেছে, ইলিশ ধরার জন্য জেলেরা প্রস্তুতি নিচ্ছেন। শনিবার মধ্যরাত থেকে মাছ ধরা শুরু, তাই ঘাটে ঘাটে দেখা যাচ্ছে প্রস্তুতি। 


কেউ জাল বুনছেন কেউ নৌকায় রং দিচ্ছেন কেউবা ট্রলার-নৌকা মেরামত করছেন। নতুন উদ্যামে ফের নদীতে নামার প্রস্তুতি উপকূলের জেলেদের।  দুই মাস বেকার সময় পার করার পর ইলিশ ধরার উৎসবে মেতে উঠবেন এমন স্বপ্ন তাদের চোখ-মুখে। মেঘনা-তেঁতুলিয়া আহরিত সেই মাছ বিক্রি করে সংকট কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে পারবেন বলে আশাবাদী তারা।


জেলে রহিম, বশির ও মহিউদ্দিন জানান, এতোদিন মাছ ধরা বন্ধ ছিল, তাই নদীতে যাইনি। এখন মাছ ধরা শুরু হচ্ছে। আমরা নদীতে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছি। ভোলার খাল ঘাটে নৌকার ইঞ্জিন মেরামত করছিলেন। তারা জানালেন, মাছ ধরা শুরু হবে তাই ইঞ্জিন ঠিক করছি। কেউ আবার জাল প্রস্তুত করছেন।  মাছ ধরা বন্ধ থাকায় এতোদিন আড়তে ছিল সুনশান নিরবতা, সেইসব আড়তে জেলে, মৎস্যজীবী ও আড়তদারদের হাঁকডাকে মুখরিত হয়ে উঠবে।


আরও খবর



চট্টগ্রামে যুবকের অর্ধ গলিত লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:Monday ০৯ May ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৩ May ২০২২ | ৭৬জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রাম মহানগরীর হালিশহরে একটি বাড়ির নালা থেকে যুবকের অর্ধ গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।


সোমবার হালিশহর এইচ ব্লকের ১ নম্বর সড়কের ৪ নম্বর বাড়ির সীমানা প্রাচীরের পাশ থেকে মারুফ (২০) নামে ওই যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।


হালিশহর সবুজবাগের আনন্দধারা হাউজিং এলাকায় নানীর সঙ্গে থাকতেন মারুফ। এই এলাকায় তিনি অটোরিকশা চালাতেন। 


হালিশহর থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী জানান,এইচ ব্লকের যে বাড়ির পাশ থেকে মারুফের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয় সেটা পরিত্যক্ত ছিল।




আরও খবর