Logo
আজঃ Wednesday ২৫ May ২০২২
শিরোনাম

বিশ্বের নামীদামী সব ব্রান্ডের ঘড়ির সমাহার বাংলাদেশে

প্রকাশিত:Saturday ১৯ March ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ২৩১জন দেখেছেন
Image

খবর প্রতিদিন ডেস্কঃ

দেশের বাজারে বিশ্বমানের ঘড়ি বিক্রি করে ইতোমধ্যেই সুনাম অর্জন করেছে মেঘনা গ্রুপের প্রতিষ্ঠান ‘মোহাম্মদ অ্যান্ড সন্স’। বিশ্বখ্যাত ব্র্যান্ড ZENITH, TAG HEUER, MONTBLANC, MOVADO, ORIS, FREDERIQUE CONSTANT সহ আরও অনেক ঘড়ির ব্রান্ডের ডিস্ট্রিবিউটর তারা।


প্রতিষ্টানটি বেশ কয়েক বছর এসব শীর্ষ মানের ঘড়ি দেশের রুচিশীল ও ফ্যাশন সচেতন মানুষের কাছে বিক্রি করছে। ‘মোহাম্মদ অ্যান্ড সন্স’ বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ব্রান্ডের বাংলাদেশীয় ঘড়ি-ক্রেতাদের কাছে বিশ্বস্ত এক নাম।


সম্প্রতি সুইস ওয়াচ মেকার FREDERIQUE CONSTANT এর মাধ্যমে তারা বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে তিন ধরণের ঘড়ি বাজারে এনেছে, এর মধ্যে ৫০ পিস্ লিমিটেড এডিশন, স্পেশাল এডিশন এবং দেয়াল ঘড়ি রয়েছে। সম্প্রীতি আনুষ্ঠানিকভাবে ক্রেতাদের মধ্যে ৫০ পিস লিমিটেড এডিশন বিতরণ করে প্রতিষ্ঠানটি। এই তিন ধরণের ঘড়িগুলোতে শুধু রুচি ও ফ্যাশনের প্রতিনিধিত্বই করছে না, এর সাথে বাংলাদেশিদের আবেগও জড়িত। বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর উপলক্ষে এই বিশেষ প্রয়াস সকলের কাছে ব্যাপক প্রশংসা পেয়েছে।


বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ঘড়ির বাজার ক্রমবর্ধমান। চলমান অর্থনৈতিক বছরে বার্ষিক ১০ শতাংশ CAGR সহ এ শিল্পের বাজারমূল্য প্রায় ২শ' কোটি টাকা। সুইজারল্যান্ড, জার্মানি, জাপান, ফ্রান্স, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং আরও অনেক দেশ থেকে আমদানি করা এই সকল ব্র্যান্ডের ঘড়ির ব্যাপক চাহিদা রয়েছে দেশীয় বাজারে।


এর মধ্যে সুইস ব্র্যান্ড অন্যতম এবং এ বাজার ক্রমবর্ধমান। এবং এই সকল নামীদামী ব্র্যান্ডের ঘড়িও আমদানি করা হচ্ছে এখন বাংলাদেশে।


‘মোহাম্মদ অ্যান্ড সন্স’ - এর মহাব্যবস্থাপক সাফায়েত চৌধুরী জেসন বলেন, রুচিশীল ও শীর্ষ ব্রান্ডের বিলাসবহুল ঘড়ি বিক্রয়ের ক্ষেত্রে আমাদের প্রতিষ্ঠান শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের লক্ষে অটল। দীর্ঘদিন ধরে সম্মানিত ক্রেতাদের চাহিদা ও রুচির বিপরীতে আমাদের যোগান প্রশংসা কুড়িয়ে আসছে। ভবিষ্যতে এ ধারা অব্যবহত থাকবে।


তিনি বলেন, ‘ফ্রেডেরিক কনস্ট্যান্ট ওয়ার্ল্ডটাইমার বাংলাদেশ লিমিটেড এডিশন’ অসাধারণ সাফল্য পেয়েছে এবং এটি আমাদের আরও অনুপ্রাণিত করেছে। ফ্রেডেরিক কনস্ট্যান্টের সাথে সহযোগিতায়, আমরা ‘ফ্রেডেরিক কনস্ট্যান্ট হাইলাইফ COSC বাংলাদেশ স্পেশাল এডিশন’ এবং সীমিত পরিমাণে ‘দেয়াল-ঘড়ি’ তৈরি করেছি।


স্পেশাল এডিশন ঘড়ি এবং দেয়াল ঘড়ি আমাদের শোরুমে পাওয়া যায় এবং আমরা ইতিমধ্যেই প্রি-অর্ডার থেকে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ইউনিট বিক্রি করেছি।


সাফায়েত চৌধুরী জেসন আশা করেন, বিশ্বখ্যাত ব্রান্ডের ঘড়ি সরবরাহে ‘মোহাম্মদ অ্যান্ড সন্স’ বরাবরের মতোই অগ্রণী ভুমিকা পালন করবে এবং দেশের রুচিশীল, ফ্যাশন সচেতন ঘড়িপ্রেমীদের চাহিদা পূরণে কাজ করে যাবে।


প্রতিষ্ঠানের শোরুমগুলো- গুলশান শোরুম, কাসাব্লাঙ্কা (নিচতলা), ১১৪ গুলশান এভিনিউ, ঢাকা-১২১২ এবং বসুন্ধরা সিটি শপিংমল শোরুম, লেভেল-১, ব্লক-এ, দোকান-৩৯, পান্থপথ, ঢাকা- ১২১৫



আরও খবর



বাংলাদেশের নাগরিকদের মাথাপিছু আয় আরও বেড়েছে

প্রকাশিত:Tuesday ১০ May ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৩ May ২০২২ | ৬৬জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের নাগরিকদের মাথাপিছু আয় আরও বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৮২৪ মার্কিন ডলার (১০ মের রেট অনুযায়ী ২ লাখ ৪৪ হাজার ৬০০ টাকা)। ২০২১-২২ অর্থবছরে জিডিপির প্রবৃদ্ধির হার দাঁড়িয়েছে শতকরা ৭.২৫ শতাংশ।


মঙ্গলবার (১০ মে) রাজধানীর শেরে বাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা শেষে এ তথ্য জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।


প্রধানমন্ত্রী এবং একনেকের চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক সভা অনুষ্ঠিত হয়।


পরিকল্পনা মন্ত্রী জানান, সাময়িক হিসাব অনুযায়ী ২০২১-২২ অর্থবছরে জিডিপির প্রবৃদ্ধির হার দাঁড়িয়েছে শতকরা ৭ দশমিক ২৫ শতাংশ। ২০২০-২১ অর্থবছরের চূড়ান্ত হিসাবে জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার ছিল শতকরা ৬ দশমিক ৯৪ শতাংশ। ২০২১-২২ অর্থবছরের সাময়িক হিসাবে মাথাপিছু আয় দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৮২৪ মার্কিন ডলার। ২০২০-২১ অর্থবছরে মাথাপিছু আয় ছিল ২ লাখ ১৯ হাজার ৭৩৮ টাকা বা ২ হাজার ৫৯১ মার্কিন ডলার।


প্রাপ্যতার সাপেক্ষে ৬/৭ মাসের তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে ২০২১-২২ অর্থবছরের জিডিপির সাময়িক হিসাব প্রস্তুত করা হয়েছে।  


আরও খবর



ধুপখোলা মাঠকে মাঠ হিসেবে ব্যবস্থাপনা করতে হবে

প্রকাশিত:Saturday ১৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

পুরাতন ঢাকার গেন্ডারিয়ার ধুপখোলা মাঠকে সম্পূর্ণরূপে মাঠ হিসেবে ছেড়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন আইনজীবী ও বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান।


তিনি বলেছেন, মাঠটিকে মাঠ হিসেবে ব্যবস্থাপনা করতে হবে। এখানে যত স্থাপনা আছে এগুলো সরিয়ে ফেলতে হবে।



শনিবার (১৪ মে) পরিবেশ ও সংস্কৃতি কর্মী এবং নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা ধূপখোলা মাঠ পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন।


রেজওয়ান হাসান বলেন, ঢাকা শহরের মাস্টার প্ল্যান ও হাইকোর্টের রায়ে বলা আছে, মাঠের মধ্যে কোনো স্থাপনা হতে পারবে না। আর ধূপখোলা মাঠের মতো এরকম ঐতিহ্যবাহী মাঠ নেই। যে কোনো নির্মাণ কাজ করতে গেলে ওখানে একটা সাইনবোর্ড দিয়ে জনগণকে জানাতে হবে এই নির্মাণ কাজ কে করছে, অর্থায়ন কে করছে, ইঞ্জিনিয়ার কে, অনুমোদনের তারিখ কবে। এখানে এরকম কোনো সাইনবোর্ড আমরা দেখতে পাইনি।



তিনি আরও বলেন, ঢাকা শহরের বেশির ভাগ খেলার মাঠ ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে আছে সিটি করপোরেশন। আর সিটি করপোরেশন যদি আইন ভঙ্গ ও হাইকোর্টের রায় উপেক্ষা করে মাঠের মধ্যে স্থাপনা করে তাহলে জনগণ যাবে কোথায়। এখানে ‘রক্ষকই ভক্ষক’ এই উদাহরণ সৃষ্টি করছে সিটি করপোরেশন।


পরিদর্শন শেষে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সহ-সভাপতি মোবাশ্বের হোসেন বলেন, মহানগরী, বিভাগীয় শহর ও জেলা শহরের এলাকাসহ দেশের সব পৌর এলাকার খেলার মাঠ, উন্মুক্ত স্থান, উদ্যান ও প্রাকৃতিক জলাধার সংরক্ষণ আইন, ২০০০ অনুসারে মাঠে কোনো স্থাপনা করার সুযোগ নেই। এই আইনে বিজিএমইএ ভবন ভেঙে ফেলা হয়েছে। ধূপখোলা মাঠে যে সব অবৈধ নির্মাণ কাজ রয়েছে সেগুলো সরিয়ে ফেলতে হবে। আর এই কাজটি করতে সিটি করপোরেশনকে উদ্যোগ নিতে হবে।



নাগরিক উদ্যোগের প্রধান নির্বাহী জাকির হোসেন বলেন, দেশের আইন ও উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী কোনো মাঠে স্থাপনা তৈরি করা যায় না। খেলার মাঠ খেলার জন্যই উন্মুক্ত থাকবে। ধূপখোলা মাঠ ঢাকার মধ্যে সবচেয়ে বড় খেলার মাঠ। এছাড়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররাও এখানে খেলাধুলা করেন।


তিনি নির্মাণ কাজ বন্ধ করার জন্য সিটি করপোরেশনের প্রতি আহ্বান জানান।


প্রতিনিধি দলে আরও উপস্থিত ছিলেন- গ্রিন ভয়েসের প্রধান সমন্বয়ক আলমগীর কবির, কেন্দ্রীয় সহ-সমন্বয়ক হুমায়ুন কবির সুমন, ময়মনসিংহ বিভাগের সমন্বয়ক শাকিল কবির, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক তারেক রহমান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান মিল্টন, পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দীন, ক্যামেলিয়াসহ অন্যান্য নেতারা।



আরও খবর



ঢাকা চট্রগ্রাম মহাসড়ক মাতুয়াইলে নতুন ইউলুপ চালু

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ April ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১৪১জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

ট্রাফিক-ডেমরা জোনের অধীন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মাতুয়াইল মেডিকেলে সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের ব্যবস্থাপনায়  নতুন ইউলুপ চালু হয়েছে।বুধবার ২৭ শে এপ্রিল থেকে  নতুন ইউলুপ চালু হওয়ায় যাজটের দুর্ভোগ লাঘব হওয়ার আশা করছে ট্রাফিক-ডেমরা জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) ইমরান হোসেন মোল্লা।


তিনি বলেন,ট্রাফিক-ডেমরা জোনের মাতুয়াইলে নতুন ইউলুপ চালুর কারনে কমবে সড়ক দুর্ঘটনা ও জনভোগান্তি"।ইউলুপ চালুর পাশাপাশি, মাতুয়াইল মেডিকেলের সামনে আগের অতিমাত্রায় ঝুঁকিপূর্ণ ক্রসিংটি বন্ধ করা হয়েছে।



সড়ক দুর্ঘটনারোধে ও জনসাধারণের ও যানবাহনের ঝুঁকিপূর্ণ চলাচল হ্রাসে ইউলুপটি খুবই কার্যকরী হবে মর্মে ধারণা করা যায়।ইউলুপে ট্রাফিক-ডেমরা জোনের উদ্যোগে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার লক্ষ্যে ডেপ্লয়মেন্ট নিশ্চিত করা হয়েছে।


আরও খবর



সড়ক দুর্ঘটনায় পাঠাও চালকের মর্মান্তিক মৃত্যু

প্রকাশিত:Thursday ১২ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১০২জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

রাজধানী ঢাকার কারওয়ানবাজার এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় হাফিজুর রহমান (২৬) নামে এক পাঠাও চালকের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (১১ মে) রাতে ওই এলাকার সোনারগাঁও ক্রসিংয়ের সামনে ঘটনাটি ঘটে।


বৃহস্পতিবার (১২ মে) এ তথ্য নিশ্চিত করে পুলিশ জানিয়েছে, নিহতের মরদেহ শহীদ সোহ্‌রাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে নেওয়া হয়েছে। কোন গাড়ির সঙ্গে পাঠাও চালকের মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয়, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।


নিহতের গ্রামের বাড়ি বাগেরহাটের মোল্লার হাট উপজেলায়।


তেজগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সালেকীন মিত্তাল তৌফিক জানান, বুধবার রাতের দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে।



পাঠাও চালক হফিজুর কারওয়ানবাজারের সোনারগাঁও মোড়ের ব্র্যাক-এশিয়ার সামনে দিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় কোনো একটি বাহন সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে চাপা পড়েন হাফিজুর


তার সঙ্গে থাকা আরোহীও গুরুতর আহত হন। তার পা ভেঙে গেছে। ঘাতক বাহনটিকে চিহ্নিত করা যায়নি।


আরও খবর



সম্রাটের জামিনের আদেশ বাতিল

হাইকোর্টের সম্রাটের জামিনের আদেশ বাতিল

প্রকাশিত:Wednesday ১৮ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১০৩জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

ক্যাসিনোকাণ্ডের পর ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের জামিন বাতিল করে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে তাকে সাতদিনের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


বুধবার (১৮ মে) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।



আদালতে আজ সম্রাটের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মনসুরুল হক চৌধুরী ও অ্যাডভোকেট এহসানুল হক সামাজী। অন্যদিকে, রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল আবু মোহাম্মদ (এএম) আমিন উদ্দিন। তার সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক। আর দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।


এর আগে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় জামিন পেয়েছিলেন সম্রাট। ১১ মে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬-এর বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান তিন শর্তে ৯ জুন পর্যন্ত সম্রাটের জামিন মঞ্জুর করেছিলেন। যা বাতিল করলেন হাইকোর্ট।



এ সময় হাইকোর্ট বিচারিক আদালতে সম্রাটকে জামিন দেওয়া বিচারকের বিষয়ে বলেছেন, মেডিকেল রিপোর্ট চাইলেন সেটা না দেখেই জামিন দেওয়া তো ‌‘ঘোড়ার আগে গাড়ি চলার মতো বিষয় হয়ে গেল।’ এসময় ওই বিচারককে সতর্কও করেন আদালত।


আদেশের পর অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান বলেন, মেডিকেল রিপোর্ট আসার আগেই স্বাস্থ্যগত কারণ দেখিয়ে সম্রাটের জামিন দেওয়ায় তা বাতিল করেছেন আদালত।



আর বিচারকের বিষয়ে হাইকোর্টের মন্তব্য কি ছিল জানতে চাইলে দুদকের আইনজীবী বলেন, আদালত বলেছেন, মেডিকেল রিপোর্ট না দেখেই মেডিকেল গ্রাউন্ডে জামিন দিয়ে বিচারক যেন ঘোড়ার আগে গাড়ি জুড়ে দিয়েছেন। আদালত বিচারককে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ভবিষ্যতে তিনি যেন এ ধরনের কাজ না করেন।


দুদকের করা মামলায় জামিন পাওয়ার আগে সম্রাট তার বিরুদ্ধে থাকা আরও তিনটি মামলায় জামিন পান। চার মামলার সবগুলোতেই জামিন পাওয়ায় ১১ মে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএসএমইউ) হাসপাতালের প্রিজন সেল থেকে কারামুক্ত হন সম্রাট। তিনি এখনো এই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।


রমনা থানায় দায়ের করা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় গত ১১ এপ্রিল জামিন পান সম্রাট। ঢাকার সপ্তম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালত এ জামিন মঞ্জুর করেন। আগের দিন ১০ এপ্রিল অর্থপাচার ও অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় ঢাকার পৃথক দুটি আদালত থেকে সম্রাট জামিন পান।


২০১৯ সালের ৬ অক্টোবর সম্রাট ও তার সহযোগী তৎকালীন যুবলীগ নেতা এনামুল হক ওরফে আরমানকে কুমিল্লা থেকে গ্রেফতার করে র‍্যাব।



আরও খবর