Logo
আজঃ শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

বিরামপুরে শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টাঃধর্ষক পলাতক

প্রকাশিত:সোমবার ২০ নভেম্বর ২০23 | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ২২৪জন দেখেছেন

Image

বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃবিরামপুর পৌর শহরে এক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। গুরুত্বর আহত শিশুটিকে দিনাজপুর এম,আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত বৃদ্ধ ইনছান আলী (৬৫) পলাতক রয়েছে।

রবিবার (১৯ নভেম্বর) ১১টার দিকে দিনাজপুর জেলার বিরামপুর পৌর শহরের মির্জাপুর এলাকায় এঘটনা ঘটে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে বিরামপুর থানার এসআই এরশাদ মিয়া জানান, রবিবার (১৯ নভেম্বর) বেলা ১১টার দিকে বিরামপুরস্থ মির্জাপুর নূরানী কালিমুল মাদ্রাসা থেকে শিশুটি বাড়ী ফিরছিল। বাড়ি ফেরার পথে শিশুটিকে একা পেয়ে বিরামপুর বিজুল মাগুরাপাড়া গ্রামের মৃত: রিয়াদ আলীর ছেলে কাঠমিস্ত্রী বৃদ্ধ ইনছান আলী (৬৫) পৌর শহরের মির্জাপুরস্থ পারভেজ নার্সারীতে নিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় শিশুটির চিৎকারে এলাকার লোকজন ছুটে এলে অভিযুক্ত বৃদ্ধ কাঠমিস্ত্রী ইনছান আলী পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা তাৎক্ষণিক শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে (হাসপাতালে) নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জাকিরুল ইসলাম শিশুটির অবস্থা গুরুত্বর দেখে তাকে দুপুর ১টার দিকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে বলে তিনি জানান। (৭) বছর বয়সী ঐ শিশুটি বিরামপুর পৌর শহরের  মির্জাপুরস্থ নূরানী কালিমুল মাদ্রাসার শিশু শ্রেণীর ছাত্রী।

এবিষয়ে বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুব্রত কুমার সরকার বলেন, এ ঘটনায় শিশুটির মা থানায় অভিযোগ দাখিল করেছেন। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারে জন্য পুলিশী  অভিযানে অব্যাহত রয়েছে।


আরও খবর



ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ১০ সমঝোতা স্মারক সই

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ১৪৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের পর ১০টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। যার মধ্যে ৩টি সমঝোতা নবায়ন করা হয়েছে।

শনিবার (২২ জুন) স্থানীয় সময় দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বৈঠকে বসেন শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি। দিল্লির হায়দরাবাদ হাউসে অনুষ্ঠিত দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে এসব সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

‘ডিজিটাল অংশীদারত্ব’ এবং ‘টেকসই ভবিষ্যতের জন্য সবুজ অংশীদারত্ব’ বিষয়ক দুটি সমন্বিত রূপকল্পকে সামনে রেখে কাজ করবে ভারত এবং বাংলাদেশ। এ লক্ষ্যে দুই যৌথ কার্যক্রমের নথি সই করে বাংলাদেশ।

এ দুটি হলো-বাংলাদেশ-ভারত ডিজিটাল অংশীদারত্বের বিষয়ে অভিন্ন লক্ষ্যমাত্রা এবং টেকসই ভবিষ্যতের জন্য বাংলাদেশ-ভারত সবুজ অংশীদারত্বের বিষয়ে অভিন্ন লক্ষ্যমাত্রা বিষয়ক নথি সই।

নতুন পাঁচটি সমঝোতা স্মারক হলো-বঙ্গোপসাগর ও ভারত মহাসাগরের সুনীল অর্থনীতি এবং সমুদ্র সহযোগিতার বিষয়ে দুদেশের মধ্যে সমঝোতা স্মারক; ভারত মহাসাগরের ওশানোগ্রাফির ওপর যৌথ গবেষণা ও দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ে বাংলাদেশের বিওআরআই ও ভারতের সিএসআইআরের মধ্যে সমঝোতা স্মারক; বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে রেল যোগাযোগের ওপর সমঝোতা স্মারক; যৌথ ছোট স্যাটেলাইট প্রকল্পে সহযোগিতার জন্য বাংলাদেশ সরকারের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ভারতের ন্যাশনাল স্পেস প্রোমোশন অ্যান্ড অথোরাইজেশন সেন্টারের মধ্যে সমঝোতা স্মারক এবং ডিফেন্স স্টাফ কলেজের মধ্যে একাডেমিক সহযোগিতা বিষয়ে সমঝোতা স্মারক।

নবায়নকৃত তিন সমঝোতা স্মারক হলো-মৎস্যসম্পদ সহযোগিতা বিষয়ক সমঝোতা স্মারক; দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক সমঝোতা স্মারক এবং স্বাস্থ্য ও ওষুধ খাতে সহযোগিতা বিষয়ক সমঝোতা স্মারক।

এর আগে সকাল ৯টায় রাষ্ট্রপতি ভবনে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে তাকে স্বাগত জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সুসজ্জিত অশ্বারোহী দল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মোটর বহরকে পাহারা দিয়ে রাষ্ট্রপতি ভবনের গেট থেকে ফোরকোর্টে নিয়ে যায়।

এরপর এখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লাল গালিচা সংবর্ধনা ও গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। এ সময় বাংলাদেশ ও ভারতের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করা হয়। সশস্ত্র সালাম গ্রহণের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গার্ড অব অনার পরিদর্শন করেন।

পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি লাইন অব প্রেজেন্টেশনে দুদেশের মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের পরিচয় করিয়ে দেন।

রাষ্ট্রপতি ভবনের এ কর্মসূচি শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের জাতির পিতা মহাত্মা গান্ধীর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে রাজঘাট যান। সেখানে তিনি মহাত্মা গান্ধীর সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

পরে শেখ হাসিনা হায়দ্রাবাদ হাউসে যান। সেখানে তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সৌজন্য স্বাক্ষাৎ ও দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন।


আরও খবর



ইসলামপুরে বন্যা পরিস্থিতি চরম অবনতি সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন,শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষনা

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৩৩জন দেখেছেন

Image

লিয়াকত হোসাইন লায়ন,ইসলামপুর(জামালপুর)প্রতিনিধি:জামালপুরের ইসলামপুরে বন্যা পানি রাতারাতি ব্যপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় ৫০হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। বিভিন্ন এলাকায় ভানবাসীরা মানবেত জীবনযাপন করছে। উপজেলার আটটি ইউনিয়নের সাথে স্থল পথের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। 

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, উপজেলা থেকে চিনুডুলী ইউনিয়নের আমতলী বাজার সড়কে ও গুঠাইল সড়কে পানি উঠায় স্থল পথের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। এছাড়াও সদর ইউনিয়নে নটারকান্দা ও পাঁচবাড়িয়া সড়ক পানির তোড়ে ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। বেলগাছা  নদী ভাঙ্গনে শিলদহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে গিয়েছে। সিন্দুরতলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি যেকোন মুহুর্তে বিলীন হয়ে যাওয়ার আশংকা রয়েছে। 

ইতিমধ্যে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর ৫৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠদান বন্ধ করে দিয়েছে। পানিবন্দি মানুষগুলো উঁচু স্থানে,বিভিন্ন স্কুলে,আত্বীয় স্বজনের বাড়ীতে আশ্রয় নিয়েছে। এদিকে বন্যা দুর্গত এলাকায় বিশুদ্ধ খাবার পানির পাশাপাশি হাঁস,মুরগী সহ গো খাদ্যের চরম সংকট দেখা দিয়েছে। 

এদিকে বন্যার পানি বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে গত ২৪ঘন্টায় বৃদ্ধি পেয়ে বিপদ সীমার ৯৯সেন্টি মিটারে উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সিরাজুল ইসলাম জানান-বন্যা কবলিতদের মাঝে ত্রানসামগ্রী বিতরন কার্যক্রম চলমান রয়েছে।


আরও খবর



আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম এর উদ্যোগে ঝিনাইদহে বৃক্ষরোপণ

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ৫৭জন দেখেছেন

Image

কামরুজ্জামান ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:ঝিনাইদহ জেলা আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম এর উদ্যোগে শনিবার সকাল ১১ টায় আঞ্জুমান মিলনায়তনে আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও বৃক্ষরোপণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতিত্ব করেন জেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ (অবঃ) মোঃ আমিনুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বীরমুক্তিযোদ্ধা আনোয়ারুল ইসলাম, অধ্যক্ষ সাইদুল আলম, জেলা সেক্রেটারী মোঃ আশরাফুল ইসলাম, সমাজসেবক মোকাদ্দেস আলী, কৃষিবীদ আহমেদ হোসেন, এইড এনজিও পরিচালক তারিকুল ইসলাম পলাশ প্রমুখ। অসুস্থ আঞ্জুমান সদস্যদের জন্য এবং প্রতিষ্ঠানের দাতা সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুর জন্য বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা আল মাহাদী। পরে প্রতিষ্ঠান প্রাঙ্গনে ফলজ, বনজ ও ঔষধি গাছ রোপণ করা হয়। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.

আরও খবর



ভোটের লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত থাকব: বাইডেন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ১১২জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তার দুর্বল বিতর্কের জন্য ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন। নির্বাচনি দৌড় থেকে সরে যেতে তার ওপর চাপ কার্যত বেড়েই চলেছে। তবে সব চাপ উপেক্ষা করে লড়াইয়ে ‘শেষ পর্যন্ত’ থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বাইডেন।

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বুধবার তার প্রচারণা কর্মীদের সাথে ফোন কলে কথা বলেছেন এবং ডেমোক্র্যাটিক আইন প্রণেতা ও গভর্নরদের সাথে বৈঠক করেছেন। এসময় ২০২৪ সালের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়াইয়ে থাকার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

চলতি বছরের নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। চার বছর আগের মতো এবারের নির্বাচনেরও প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে থাকছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

আসন্ন এই নির্বাচনকে সামনে রেখে গত সপ্তাহে বিতর্কে অংশ নিয়েছিলেন এই দুই প্রার্থী। পররাষ্ট্রনীতি, অর্থনীতি, সীমান্ত ইস্যু, সামাজিক নিরাপত্তা, চাইল্ড কেয়ার, কংগ্রেস ভবনে হামলার ঘটনা এবং গর্ভপাতসহ বিভিন্ন ইস্যুতে তারা কথা বলেন এবং সেই বিতর্কে বাইডেনের পারফরম্যান্স ছিল অত্যন্ত দুর্বল।

মূলত গত সপ্তাহের সেই বিতর্কের পর থেকে বাইডেনকে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়। অনেকেই বলছেন, ৮০ বছরের বেশি বয়সী বাইডেনের এবার আর নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা উচিত নয়। কারণ, তিনি ঠিকমতো কথা বলতে পারছেন না। বিতর্কের সময় প্রতিপক্ষের কথার জবাবও দিতে পারছেন না।


আরও খবর

চীনে শপিং মলে আগুন, নিহত ১৬

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




কালিয়াকৈরে শিয়ালের কামড়ে আহত-১৫ আতঙ্কিত গ্রামবাসী, শিয়াল পিটিয়ে হত্যা

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৩৭জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে পাশাপাশি পৃথক দুটি গ্রামে দুই দিনে শিয়ালের কামড়ে শিশু-নারীসহ কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছেন। এক শিয়াল পিটিয়ে হত্যা করলেও বাকী শিয়ালের আক্রমণ আতঙ্কে লাঠিসোটা নিয়ে পাহাড়া দিচ্ছেন আতঙ্কিত গ্রামবাসী। এদিকে আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গেলে ভ্যাকসিন না পেয়ে দুর্ভোগে পড়েছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা গেছে, কালিয়াকৈর পৌরসভার টানকালিয়াকৈর এলাকায় বৃহস্পতিবার ভোরে স্থানীয় রতন মিয়া ও তার স্ত্রী হনুফা বেগমকে একটি শিয়াল আক্রমণ করে এবং তাদের কামড়ে দেয়। এসময় স্থানীয় লোকজন ওই শিয়ালকে লাঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের স্বামী-স্ত্রীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে ঠিকমতো ভ্যাকসিন না পেয়ে তাদের ঢাকা মহাখালী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এর আগে গত বুধবার বিকেলে ওই এলাকায় শিয়ালের কামড়ে নেওলা হকের ছেলে শামসুল হক(৫০), নজরুল ইসলামের ছেলে উসমান গণি (১০), কবির মিয়ার ছেলে আফনান হোসেন (১০), নুর আলমের স্ত্রী নাসিমা বেগম (৫০), আফসার আলীর ছেলে মেহমিত (৭), জলিল হোসেনের ছেলে শওকত হোসেন (৪০), শামসুল ইসলামের স্ত্রী হামিদা বেগম (৬০), জব্বার মিয়া (৪০) এবং ওইদিন সন্ধ্যায় পাশের জানেরচালা গ্রামের শাজাহান মিয়ার স্ত্রী বৃষ্টি বেগম (৩৫) ও তার নাতিন স্বর্ণা আক্তার (৬)সহ কমপক্ষে ১৫ জনকে আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান তাদের পরিবারের সদস্যরা। ওই হাসপাতালে ভ্যাকসিন না পেয়ে আহতরা পার্শ্ববর্তী টাঙ্গাইলের মির্জাপুর কুমুদিনী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও ঢাকা মহাখালীতে যান। দুদিনে শিশু ও নারীসহ ১৫জন শিয়ালের কামড়ে আহত হওয়ার ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন গ্রামবাসী। এছাড়াও আতঙ্কে লাঠি নিয়ে যাতায়াত করছেন শিশুরাও। এদিকে এক শিয়াল পিটিয়ে হত্যা করলেও বাকী শিয়ালের আক্রমণ আতঙ্কে ওই ঘটনার পর স্থানীয় যুবকরা লাঠিসোটা নিয়ে গত বুধবার সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত ও পরের দিন বৃহস্পতিবারও পাহাড়া অব্যাহত রেখেছে। তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আগুন জ¦ালিয়ে দিয়েছেন কয়েকটি শিয়ালের গর্তেও।

স্থানীয় শাহিনুর ইসলাম বলেন, কয়েকটি শিয়াল পাগলা হয়ে গেছে। তাই সে সবাইকে কামড়ে দিয়েছে। আরো যাতে কামড়ে দিতে না পারে সেজন্য আমরা পাহাড়া দিচ্ছি। মুদি দোকানদার আজিজুল হক বলেন, সবাই এখন পাগলা শিয়ালের আতঙ্কে আছি। এই বুঝি শিয়াল এসে কামড়ে দিলো। হেলাল পারভেজ বলেন, আমার মেয়েও এখন লাঠি নিয়ে চলাচল করে। আর শিয়াল আতঙ্কে আমার মেয়ের মতো অন্যান্য শিশুরাও লাঠি নিয়ে চলে। কিন্তু বেশির ভাগ শিশুরা ভয়ে বাড়ির বাইরে যাচ্ছে না। তবে সংশিষ্টদের প্রতি তাদের দাবী অতিদ্রুত পাগলা শিয়ালগুলোর বন্য আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা লুৎফর রহমান জানান, শিয়ালে কামড়ে দিলে কয়েকজন হাসপাতালে আসে। কিন্তু এর ভ্যাকসিন সদর হাসপাতাল ও মহাখালীতে থাকে। একারণে আহতদের সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এব্যাপারে কালিয়াকৈর রেঞ্জ কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম জানান, আমাদের বনবিভাগের আরো একটি শাখা রয়েছে। তাদের কাজ হচ্ছে বন্যপ্রাণী উদ্ধার করা। তবে ওই শাখায় যোগাযোগ করা হলে তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।


আরও খবর