Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

বায়ুদূষণ রোধের ৭ উপায়

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৯০জন দেখেছেন
Image

আজ ১৫ জন বিশ্ব বায়ু দিবস। প্রতিবছরের মতো এবারও বিশ্বজুড়ে পালন করা হয় বিশ্ব পরিবেশ দিবস। বিশ্বব্যাপী প্রতি ১০ জনের মধ্যে ৯ জন শ্বাসের মাধ্যমে দূষিত বায়ু গ্রহণ করছে। বায়ু দূষণের কারণে সৃষ্ট বিভিন্ন রোগে বছরে ৭০ লাখ মানুষ মারা যায় বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। যাদের বেশিরভাগই নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশের।

আমাদের দেশও পিছিয়ে নেই। সুইজারল্যান্ডভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ‘আইকিউএয়ার’-এর ২০২১ সালের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বাংলাদেশে বাতাসের প্রতি ঘনমিটারে পিএম ২.৫-এর মাত্রা ৭৬.৯। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্ধারিত মান অনুযায়ী, প্রতি ঘনমিটারে যা থাকার কথা ১০-এর কম।

বায়ুদূষণের দিক থেকে বিশ্বের শীর্ষ ১০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের পরে রয়েছে চাদ, পাকিস্তান, তাজিকিস্তান, ভারত, ওমান, কিরগিজস্তান, বাহরাইন, ইরাক ও নেপালের নাম। প্রতিবেদন অনুযায়ী, রাজধানী শহরগুলোর মধ্যে সবচেয়ে দূষিত বায়ুর শহর নয়াদিল্লি (ভারত)। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গত কয়েক বছরের সমীক্ষা অনুযায়ী বায়ুদূষণের ফলে কমছে মানুষের আয়ু। হাঁপানি, ক্যানসার, হৃদরোগ, ফুসফুসের অসুখসহ অনেক রোগের কারণ বায়ুদূষণ। এ রোগ বৃদ্ধির জন্যও বায়ুদূষণ দায়ী। বায়ুদূষণের দৈনিক অর্থনৈতিক ক্ষতি প্রায় ৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বা মোট বিশ্ব উৎপাদনের ৩ থেকে ৪ শতাংশ।

বায়ুদূষণ তাদেরই বেশি প্রভাবিত করে, যারা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ। ২০২১ সালে পাঁচ বছরের কম বয়সী প্রায় ৪০ হাজার শিশুর মৃত্যু সরাসরি পিএম ২.৫-জনিত বায়ুদূষণের সঙ্গে জড়িত। এছাড়াও বায়ুতে থাকা দূষণের মাত্রা বাড়ার ফলে ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছেন প্রতি ঘন্টায় ৮০০ জন।

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার মতে,পারিপার্শ্বিক বায়ুতে কিছু কিছু বস্তু যথেষ্ট পরিমাণে মিশ্রিত হওয়ায় উদ্ভূত পরিস্থিতির জন্য মানুষ ও তার পরিবেশ ভীষণ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হলে তাকে বায়ুদূষণ বলে।

পরিবেশবিদ পার্কিন্স তার রচিত ‘এয়ার পলিউশন’ বইতে বলেছেন যেন ঘরের বাইরের আবহমণ্ডলে এক বা একাধিক সংক্রামক বস্তু যেমন- বিষাক্ত ধোঁয়া, ধূলিকনা, গ্যাস, কুয়াশা, কাঁকর, ধোঁয়াশা অথবা বাস্পের যে পরিমান উপস্থিতি ও যতক্ষন স্থায়ী হলে মানুষ, জীবজন্তু অথবা উদ্ভিদ জগতের পক্ষে ক্ষতিকারক, তাকেই বায়ুদূষক বলা হয়।

উইন্ডইউরোপ সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বের যে অঞ্চলগুলো উপকূলীয় স্থানে আছে সেই স্থানের বায়ুশক্তি এখন সারা বিশ্বের সস্তা শক্তি। যদিও ইতিমধ্যেই বহু জায়গায় টারবাইন ব্যবহার করে বায়ু শক্তি থেকে বিদ্যুৎ শক্তি তৈরি করা হয়। বায়ু শক্তিকে কাজে লাগানোর উদ্দেশ্যে সাধারণ মানুষকে সচেতন করার জন্য সর্বপ্রথম ২০০৭ সালের ১৫ জুন বিশ্ব বায়ু দিবস পালন করা হয়েছিল। এর ঠিক দুই বছর পর অর্থাৎ ২০০৯ সাল থেকে বিশ্বজুড়ে এই দিবস পালন করা হয়ে আসছে। এই দিবসের মাধ্যমে বার্তা দেওয়া হয় , অপ্রচলিত শক্তিকে ভবিষ্যত করে গড়ে তোলার জন্য। কারণ প্রচলিত শক্তির ভাণ্ডার একদিন না একদিন শেষ হবে , উপরন্তু দিনের পর দিন বোঝা বাড়ছে পরিবেশ দূষণের।

রাস্তা নির্মাণের কাজ, করকারখানার ধোঁয়া, গাড়ির কালো ধোঁয়া, ধূমপান, যেখানে সেখানে কাগজ, নোংড়া পুড়িয়ে ফেলার ফলে বায়ু দূষণ হচ্ছে। বায়ুদূষণ রোধে যা করণীয়-

>> শিল্পাঞ্চলের কারখানা থেকে নির্গত কার্বন ডাই অক্সাইড, কার্বন মনোঅক্সাইড, নাইট্রোজেন অক্সাইড, হাইড্রোকার্বন, ধাতব কনা, ধোঁয়া প্রভৃতি প্রচুর পরিমানে বাতাসে মিশ্রিত হয়ে বাতাসকে দূষিত করে।

>> বিভিন্ন যানবাহনে জীবাশ্ম জ্বালানীর (পেট্রোল ও ডিজেল) দহনের ফলে বিভিন্ন ক্ষতিকার গ্যাস নির্গত হয়। এগুলির মধ্যে অন্যতম প্রধান বায়ুদূষক কার্বন মনোক্সাইডের প্রায় ৭০ শতাংশ এই যানবাহন থেকে নির্গত হয়। এছাড়া যানবাহনের ধোয়ায় প্রচুর নাইট্রোজেনের অক্সাইড থাকে যা বায়ুকে দূষিত করে তোলে। যানবাহনের আধিক্যের জন্য শহরাঞ্চলের বাতাস বেশি দূষিত হয়।

>> কয়লা নির্ভর তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে নাইট্রাস অক্সাইড, সালফারের অক্সাইড, কার্বন ডাই অক্সাইড, কার্বন মনোঅক্সাইড প্রভৃতি গ্যাস ছাড়াও প্রচুর পরিমাণে ছাই বাতাসে মিশে বায়ুদূষণ ঘটায়। পৃথিবীর মোট সালফার দূষণের প্রায় ৩০ শতাংশ তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে ব্যবহৃত কয়লার দহনের ফলে বাতাসে মিশ্রিত হয়।

>> মৃত জীবদেহের পচনের ফলে অনেক ধরণের দূর্গন্ধ যুক্ত গ্যাস যেমন মিথেন, হাইড্রোজেন সালফাইড ইত্যাদি বাতাসের সাথে মিশ্রিত হয়ে বায়ুদূষণ ঘটায়। এজন্য আশেপাশে জীবজন্তু মারা গেলে তা মাটিচাপা দিয়ে রাখুন।

> > শুষ্ক ঋতুতে অনেকেই আবর্জনা সংগ্রহ করে তা পুড়িয়ে নষ্ট করেন। বিশেষ করে বনের শুকনো পাতা এভাবে নষ্ট করা হয়। এ থেকে তৈরি ধোঁয়া পরিবেশের জন্য খুবই ক্ষতিকর।

>> এছাড়া ধূমপান বায়ুদূষণের অন্যতম কারণ। যতদূর সম্ভব ধূমপান এড়িয়ে চলুন। এতে যেমন ধূমপায়ী নিজে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন তেমনি আশেপাশের মানুষও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন সমানভাবে।

>> রাস্তা নির্মাণের কাজ শেষ করতে হবে যত দ্রুত সম্ভব শেষ করতে হবে।


আরও খবর



আইজিপি যুক্তরাষ্ট্রে যেতে পারবেন, আশা পররাষ্ট্র সচিবের

প্রকাশিত:Monday ০৮ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ১৫জন দেখেছেন
Image

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পুলিশ প্রধানদের নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জাতিসংঘের তৃতীয় সম্মেলন শুরু হবে আগামী ৩১ আগস্ট। এতে অংশ নিতে মহাপুলিশ পরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ যুক্তরাষ্ট্রে যেতে পারবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন।

সোমবার (৮ আগস্ট) ঢাকায় ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

গত বছরের ৯ ডিসেম্বর র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সাবেক ও বর্তমান সাত কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয় যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট (রাজস্ব বিভাগ)। নিষেধাজ্ঞার তালিকায় রয়েছেন- র‌্যাবের সাবেক মহাপরিচালক (ডিজি) ও বর্তমান আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদও।

তবে গত ৪ আগস্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক আদেশে বলা হয়, জাতিসংঘে ৩১ আগস্ট থেকে ১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পুলিশ প্রধানদের নিয়ে তৃতীয় সম্মেলন হবে। এতে বাংলাদেশের নেতৃত্ব দেবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন আইজিপি বেনজীর আহমেদ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের যুগ্ম-সচিব আবু হেনা মোস্তফা জামান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর একান্ত সচিব মুহম্মাদ আসাদুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ উপমহাপরিদর্শক নাসিয়ান ওয়াজেদ ও সহকারী পুলিশ মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ মাসুদ আলম।

যুক্তরাষ্ট্র যাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়, তারা জাতিসংঘের আমন্ত্রণে কোনো অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারেন কি না জানতে চাইলে পররাষ্ট্র সচিব সাংবাদিকদের বলেন, এ রকম একটি কনভেশন আছে জাতিসংঘের মিটিংয়ে যেতে গেলে। তবে আমরা অতীতে এই নিয়মের ব্যতিক্রমও দেখেছি। তবে এটা না হওয়া পর্যন্ত আগে থেকে বলা মুশকিল।

আইজিপির বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রে আগে থেকে যোগাযোগ করা হবে কি না জানতে চাইলে সচিব বলেন, এ বিষয়ে আমরা এখনো যোগাযোগ করিনি। কোনো রকম অসুবিধা না হলে আমরা আশা করছি তিনি যুক্তরাষ্ট্রে যেতে পারবেন। আর কোনো সমস্যা যদি থাকে তাহলে আমরা আগে জানানোর চেষ্টা করবো।


আরও খবর



চার বছর পর চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ২৯জন দেখেছেন
Image

দীর্ঘ চার বছর তিন মাস পর চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। রোববার (৩১ জুলাই) দিনগত রাত ১২টার দিকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে এই কমিটি প্রকাশ করা হয়।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত ৩১৬ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ এ কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

এর আগে ২০১৮ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম মহানগরীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউটে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। পরবর্তীতে আড়াই মাস পর তানভীর হোসেন চৌধুরী তপুকে সভাপতি ও মুহাম্মদ রেজাউল করিমকে সাধারণ সম্পাদক করে দুই সদস্যের কমিটি অনুমোদন দেয় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

এর প্রায় চার বছর তিন মাস পর ৩১৬ জন সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেয় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনটি। বর্তমানে ঘোষিত কমিটিতে ঘোষিত কমিটিতে সহ-সভাপতি পদে ৮৩ জন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে ১১ জন, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ১১ জন এবং অন্যান্য সম্পাদকীয় ও উপ সম্পাদকীয় পদে রয়েছে ১৮৬ জন। কমিটিতে সদস্য পদে রয়েছেন ২৩ জন।


আরও খবর



যশোরে কলেজছাত্রের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:Sunday ২৪ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৩০জন দেখেছেন
Image

যশোরের মণিরামপুরে রুহুল আমিন (১৮) নামে এক কলেজছাত্রের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার (২৪ জুলাই) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নিজ ঘর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

রুহুল আমিন মণিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জ বাজার এলাকার নূর ইসলামের ছেলে ও যশোর সরকারি মাইকেল মধুসূদন কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। পরিবারের আর্থিক অসচ্ছলতার হতাশা থেকে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে স্বজনদের দাবি।

স্বজনরা জানান, শনিবার রাতে রুহুল আমিন খাবার খেয়ে নিজের ঘরে ঘুমাতে যান। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তার মা রহিমা বেগম খাবার খেতে ছেলেকে ডাকতে গিয়ে দেখেন ওড়না ও গামছা জোড়া দিয়ে ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে আছেন রুহুল আমিন।

মনিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূর-ই-আলম সিদ্দিকী বলেন, রুহুল আমিন শহরে ছাত্রাবাসে থেকে পড়াশোনা করতেন। ঈদের আগে তিনি বাড়ি আসেন। টাকার অভাবে ছাত্রাবাসে ফিরতে পারছিলেন না। পারিবারিক আর্থিক অসচ্ছলতায় হতাশায় পড়ে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে জানা গেছে।

ওসি আরও বলেন, কোনো অভিযোগ না থাকায় বিনা ময়নাতদন্তে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।


আরও খবর



সৌদি ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগ বাড়ানোর আহ্বান

প্রকাশিত:Tuesday ০২ August 2০২2 | হালনাগাদ:Saturday ০৬ August ২০২২ | ৩৬জন দেখেছেন
Image

সৌদি আরবের তাবুক প্রদেশের ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগ ও দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন সেখানে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

সৌদি আরবের তাবুকের চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি ইমাদ সাদাদ আল ফাখরির সঙ্গে বৈঠককালে তিনি এ আহ্বান জানান। সোমবার (১ আগস্ট) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

রাষ্ট্রদূত জাবেদ পাটোয়ারী বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ও বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বিনিয়োগে এগিয়ে আসার জন্য সৌদি ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগকারীদের অনুরোধ করেন।

সৌদি ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে সব সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, সৌদি বিনিয়োগকারীদের জন্য আলাদা ইকোনমিক জোন তৈরির বিষয় বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনায় রয়েছে।

এ সময় চেম্বার সভাপতি ইমাদ সাদাদ আল ফাখরি সৌদি আরবের নিওম সিটি প্রকল্প ও রেড সি প্রকল্পের সুবিধাজনক খাতে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা বিনিয়োগ করতে পারেন বলে জানান।

চেম্বার সভাপতি বলেন, বাংলাদেশ সৌদি আরবে কেবল একটি অভিবাসী কর্মী প্রেরণকারী দেশই নয়, এ দু’দেশের মধ্যে ব্যবসা বাণিজ্য বৃদ্ধির অনেক সম্ভাবনা রয়েছে, যা আমাদের কাজে লাগাতে হবে।

এ সময় রাষ্ট্রদূত জাবেদ পাটোয়ারী বাংলাদেশ ওষুধ, সিরামিক পণ্য, কৃষিজাত পণ্য এবং ইলেকট্রনিকস পণ্য খাতে বিনিয়োগ করতে পারে বলে জানান। এসব খাতে অগ্রগতি তুলে ধরে বাংলাদেশ থেকে প্রয়োজনীয় ওষুধ আমদানির জন্য সৌদি ব্যবসায়ীদের অনুরোধ জানান তিনি। এছাড়া বাংলাদেশের হস্তশিল্প, তৈরি পোশাক ও চামড়াজাত পণ্য আমদানির জন্যও সৌদি ব্যবসায়ীদের অনুরোধ করেন রাষ্ট্রদূত।

বৈঠকে জেদ্দাস্থ বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল মো. নাজমুল হক ও দূতাবাসের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



৫ জন এজিএম নেবে নাসা গ্রুপ

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ২৯জন দেখেছেন
Image

শীর্ষস্থানীয় শিল্পপ্রতিষ্ঠান নাসা গ্রুপে ‘অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার/ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ০৪ আগস্ট পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: নাসা গ্রুপ
বিভাগের নাম: কমার্শিয়াল

পদের নাম: অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার/ডেপুটি জেনারলে ম্যানেজার
পদসংখ্যা: ০৫ জন
শিক্ষাগত যোগ্যতা: স্নাতকোত্তর/এমবিএ
অভিজ্ঞতা: ১৫ বছর
বেতন: আলোচনা সাপেক্ষে

চাকরির ধরন: ফুল টাইম
প্রার্থীর ধরন: পুরুষ
বয়স: ৪৫ বছর
কর্মস্থল: যে কোনো স্থান

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহীরা jobs.bdjobs.com এর মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ সময়: ০৪ আগস্ট ২০২২

সূত্র: বিডিজবস ডটকম


আরও খবর