Logo
আজঃ শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪
শিরোনাম
কক্সবাজারে পাহাড় ধসে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠান চালুর পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে: শিল্পমন্ত্রী বাংলাদেশের হার দিয়ে সুপার এইট শুরু গোদাগাড়ীতে রাসেল ভাইপারের চিকিৎসার দাবিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়েছে নাগরিক স্বার্থ-সংরক্ষণ কমিটি রূপগঞ্জে জমে উঠেছে কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচন যাত্রাবাড়ীতে পুলিশ কর্মকর্তার বাবা মাকে কুপিয়ে হত্যা যানজট নিরসনে সংসদ সদস্যগণের সাথে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের সমন্বয়সভা ভোলায় ফের দেখা মিলল রাসেল ভাইপার, জনমনে আতঙ্ক বাজেট পাস হয়নি,অনেক কিছু পুনর্বিবেচনা করা সম্ভব: অর্থমন্ত্রী দেশের সব মহৎ অর্জন আ. লীগের মাধ্যমেই হয়েছে: ওবায়দুল কাদের

বায়ান্ন হাজার টাকা বকেয়া আদিবাসি যুবকের উপর সাত লাখ টাকার মামলা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৪২১জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর:দোকানে বকেয়া মাত্র ৫২ হাজার টাকা, অথচ মামলা করা হয়েছে ৬ লাখ ৯২ হাজার টাকার। রাজশাহীর তানোরে অসহায় আদিবাসি যুবক রতন হেমরমের উপর এমন চাঞ্চল্যকর মামলা করেন চান্দুড়িয়া বাজারের সার কীটনাশক ব্যবসায়ী মিলন। বিগত দুই বছর ধরে আদালতে হাজিরা দিতেই সংসারে ব্যাপক টানাপড়েন শুরু হয়েছে রতনের। ঠিকমত তিন বেলা খেতে পাচ্ছিনা,আবার সন্তাদের পড়ালিখার খরচও দিতে পারছিনা। যাকে বলে চরম মানবেতর জীবন যাপন করছেন রতন হেমরমের পরিবার।  রতনের বাড়ি উপজেলার তালন্দ ইউনিয়(ইউপির) মোহর আদিবাসি পল্লীতে। সে সুশিল হেমরমের পুত্র। এঘটনায় আদিবাসি পল্লীর জনসাধারণের মাঝে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে। এমনকি এধরনের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার না হলে মানববন্ধন সহ নানা কর্মসূচি ঘোষনা করবেন পল্লীর জনসাধারনরা।

গত ২৩ মে মঙ্গলবার আদালত চত্বরে দেখা হয় রতনের সাথে, জানতে চাওয়া হয় আদালতে কেন, তিনি জানান, বিগত ২০১৭-১৮ সালের দিকে চান্দুড়িয়া বাজারের কীটনাশক ব্যবসায়ী মিলনের কাছ থেকে আলু চাষের জন্য বাকিতে ৯২ হাজার টাকার সার বিষ বাকি নেওয়া হয়। আলু তুলে ৪০ হাজার টাকা পরিশোধ করি। ওই সময় আলুতে প্রচুর লোকসান হয়েছিল। তারপরও ৪০ হাজার টাকা দিই। কিন্তু সার বিষ বাকি নেওয়ার সময় জোরপূর্বক ব্যাংকে আমার নামে একাউন্ট করে কয়েকটি ফাঁকা চেক নেয় মিলন। ওই চেক দিয়ে বিগত ২০১৮ সালের দিকে ৬ লাখ ৯০ হাজার টাকার মামলা করেন আদালতে। মামলার হাজিরা দেওয়ার কারনে সংসার চালাতে পারছিনা। পাড়ার দুজনে আলু করার জন্য জমি দিয়েছিল। আমার ছেলে মেয়ে রয়েছে চারজন।বড় ছেলে সবুজ হেমরম কলেজে পড়ে, মেয়ে বিউটি হেররমও কলেজে পড়ে ও সজিব হেমরম আগামী বছরে এসএসসি পরিক্ষা দিবে এবং ছোট মেয়ে মিঠি হেমরম ২য় শ্রেণীতে পড়ছে। মামলার কারনে আমার স্ত্রী কয়েকবার অসুস্থ হয়ে পড়েছিল এবং আমাকেও কয়েকবার হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল। কারন ৫২ হাজার টাকার বিপরীতে ৬ লাখ ৯০ হাজার টাকার মামলার বোঝা নিয়ে চলতে হচ্ছে। তিন বেলা খেতেই পাচ্ছিনা, ছেলে মেয়েদের স্কুলে পড়াতে পারছিনা। ভাঙ্গাচুরা খাস জায়গায় বসবাস করছি। টাকা পরিশোধ করার কোনই ক্ষমতা নাই। পরিবার নিয়ে আত্মহত্যা করা ছাড়া উপায় নাই। ছেলে সজিব জানান, টাকার টেনসনে বাবা মা ঘুমাতে পারেনা, আমরাও পড়তে পারছিনা। মরা ছাড়া উপায় নেই। তবে মিলন জানান, কোন বাকির টাকা না, রতন আমার কাছ থেকে ৬ লাখ ৯০ হাজার টাকা ধার নিয়েছিল। পরিশোধের জন্য একাধিকবার বলার পরও না দেওয়ার কারনে মামলা করেছি। ফাঁকা চেকে স্বাক্ষর নিয়ে কোন এমাউন্ট না লিখে চেক নেওয়া যায় কিনা  জানতে চাইলে তিনি জানান স্বাক্ষাতে কথা বললে সবকিছু বুঝতেন বলে দায় সারেন।

আরও খবর



৩০০ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | ১৩৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:তৃতীয় ধাপে সারাদেশে ৩০০ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে,ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে আয়োজনের লক্ষে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায়।

মঙ্গলবার (২৮ মে) বিজিবির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বুধবার (২৯ মে) অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে স্থানীয় বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তার জন্য ‘ইন এইড টু দ্য সিভিল পাওয়ার’ এর আওতায় ২৭ মে থেকে ৩১ মে পর্যন্ত নির্বাচনি এলাকায় শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষার্থে বিজিবি মোবাইল ও স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করবে।

আগামীকাল বুধবার তৃতীয় ধাপে ১০৯টি উপজেলায় নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সোমবার ঘূর্ণিঝড় রিমালের কারণে ১৯ উপজেলার ভোট স্থগিত করা হয়। এর ফলে ৯০ উপজেলা পরিষদের নির্বাচন হবে কাল।


আরও খবর



বিরামপুরে প্রতিবন্ধী ও প্রবীণ ব্যক্তিদের সচেতনতা বৃদ্ধিতে মত বিনিময়

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৬৯জন দেখেছেন

Image

মিজান, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃদিনাজপুর জেলার বিরামপুরে উপজেলা পর্যায়ে প্রতিবন্ধী ও প্রবীণ ব্যক্তিদের সম্পর্কে সচেতনতা এবং সামাজিক অংশ গ্রহণ বৃদ্ধিতে এনজিও সংস্থা কারিতাস মিডিয়ার সাথে মতবিনিময় সভা করেছে। 

বুধবার (১২ জুন) সাপ্তাহিক বিরামপুর বার্তা কার্যালয়ে কারিতাসের বাংলাদেশ প্রবীণ, প্রতিবন্ধী এবং মাদকসেবী ব্যক্তিদের সমন্বিত উন্নয়ন প্রকল্প এসডিডিবি, দিনাজপুর অঞ্চলের আয়োজনে   এ মত বিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

আলোচনা সভায় বিরামপুরের প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে কার্য্যক্রমের বিস্তারিত তুলে ধরেন, কারিতাস দিনাজপুর অঞ্চলের  এসডিডিবি প্রকল্পের জুনিয়র কর্মসূচি কর্মকর্তা বিনয় কুজুর। এতে সুবিধাভুগিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, প্রকল্পের খানপুর উন্নয়ন কমিটির সভাপতি আব্দুল্যা রহমান, প্রতিবন্ধী নারী ফোরামের সভাপতি খালেদা আক্তার প্রমূখ।


আরও খবর



চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে বসত ঘরে কুপিয়ে দাদী নতিকে হত্যা করেছে দুর্বত্তরা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | ১০৫জন দেখেছেন

Image

চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম,  চাঁদপুর থেকে:রাহেলার প্রচন্ড ঝড়বৃষ্টির মধ্যে গভীর রাতে দুর্বত্তরা বসত ঘরে ডুকে  দাদি, নাতি ও নাতিনকে কুপিয়েছে।

পরে লোকজন খবর পেযে ওই ঘরে উপস্থিত হয়ে দাদি হামিদুনেছা  (৭০) মৃত ও নাতি আরাফাত (১২) ও নাতনি  হালিমা (১৫) গুরুতর আহত অবস্থায় দেখতে পায়। তবে ঘটনাস্থলে প্রান হারান দাদী।

এ ঘটনায়  মঙ্গলবার  সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে পিবিআই তদন্ত টিম ঘটনাস্থলে পোঁছেছে। এর পরেই হামিদুনেচার লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হবে।

এসময় আহতদের উদ্ধার করে হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে নাতি আরাফাত হোসেনকে (১২) মৃত ঘোষণা করেন এবং নাতিন হালিমাকে (১৫) উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে রেপার করেন। হালিমার শারিরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

২৭ মে  দিবাগত রাতে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার বাকিলা ইউনিয়ন পশ্চিম রাধাসার বকাউল বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

হত্যার শিকার হামিদুনেছা ঐ বাড়ির সিরাজ বকাউলের স্ত্রী  নিহত আরাফাত ও আহত হালিমা ওই বাড়ির প্রবাসী ইউসুফের সন্তান। আরাফাত শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী এবং হালিমা একই বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী এবং নিহত হামিদা বেগম হলেন ইউসুফের মা।

পাশের খাঁন বাড়ির ইউসুফ জানান, রাত সাড়ে ১২টার দিকে নিহত আরাফাতের মা শাহিন আমাকে ফোন করে তাদের বাড়ীতে ডাকাত ডুকছে, অনেককে কুপিয়েছে বলে ফোন করে। পরে স্থানীয় মসজিদের মাইকে বকাউল বাড়ীর ডাকাত ডুকেছে বলে প্রচার করা হয়। পরে আমিসহ কয়েকজন ওই বাড়ীতে যাই।

তিনি  আরো বলেন ওই বাড়িতে গিয়ে দেখি প্রবাসি ইউসুফের মায়ের মৃতদেহ খাটের উপর পড়ে আছে। তার ছেলে আরাফাত ও মেয়ে হালিমা নিচে আহত অবস্থায় নিচে পড়ে আছে।

পরে মসজিদের ইমাম ও অন্যদের সহযোগিতায় আহতদের কাঁধে করে রাস্তায় এনে পাশের বাড়ী থেকে অটো নিয়ে হাসপাতালে আসি।

তিনি জানান, হাসপাতালে আসার পথেই আরাফাত মারা যায়। পরে হাসপাতাল এলে ডাক্তার আরাফাতকে মৃত ঘোষণা করেন এবং হালিমাকে কুমিল্লায় রেফার করা হয়। শুনেছি সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলে রেফার করা হয়েছে। তার পিঠে ও বুকে কোপ দেয়া হয়েছে।

আহতদের বহনকারী অটো চালক জহির জানান, রাতে প্রচণ্ড বৃষ্টি হচ্ছিল। তখন রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার পরে হবে। আমার বাড়ীতে আহত আরাফাত ও তার বোন হালিমাকে নিয়ে আসে স্থানীয়রা। পরে আমার ব্যাটারী চালিত অটোরিকশায় করে তাদেরকে হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসি।

একই বাড়ীর সাহাবুদ্দিন জানান, ডাকাতির ঘটনায় ফোন পেয়ে আমরা ওই বাড়ীতে যাই। আমার বড় ভাইয়ের স্ত্রী ফাতেমা জানান, ঘরের তালা ভেঙ্গে তার ঘরেও ডাকাত দল প্রবেশ করেছে। সে অন্য রুমের দরজা আটকিয়ে বিভিন্ন জনকে ফোন করে বাড়ীতে ডাকাতির খবর জানাচ্ছিল। ডাকাত দল কালো বোরকা পড়া ছিলো।

স্থানীয়রা জানান, বাড়ীতে ডাকাতির ঘটনা ঘটলেও ৩টি বিল্ডিং রেখে কেন ডাকাত দল টিনের ঘরে ডুকলো ? ডাকাত দল ডাকাতির উদ্দেশ্য ওই ঘরে প্রবেশ করলে, ঘর থেকে কোন স্বর্ণালংকার খোয়া যায়নি। এমনকি নিহত বৃদ্ধ মহিলা হামিদা বেগমের গলায়ও স্বর্ণের চেইন ও কানে স্বর্ণের দুল আছে। হামিদুনেছাকে জবাই করা হয়েছে আর আরাফাতকে গলায় কাটা দাগ রযেছে।

খবর পেয়ে হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আবদুর রশিদসহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে প্রচণ্ড ঝড় বৃষ্টিতে ডাকাতির খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে গিয়েছি। বিষয়টি গুরুত্বসহকারে দেখা হচ্ছে। পরে বিস্তারিত জানানো হবে।


আরও খবর



মধুপুরে ভিজিএফ এর চাল বিতরণে বাঁধা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে লাঞ্চিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১২৬জন দেখেছেন

Image

বিশেষ প্রতিনিধি মধুপুর টাঙ্গাইল:টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলাধীন শোলাকুড়ি ইউনিয়ন পরিষদে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ভিজিএফএর চাল বিতরণকালে বহিরাগতদের বাঁধা এবং ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও মারধর  করার অভিযোগ করেছেন উক্ত পরিষদের সকল ইউপি সদস্যগন।

গত বৃহস্পতিবার (১৩জুন) দুপুরে শোলাকুড়ি ইউনিয়ন পরিষদে প্রধানমন্ত্রীর নিজ তহবিল থেকে ঈদ উপহার হিসেবে দুস্থ ও হতদরিদ্র মানুষের মাঝে চাল বিতরণ কালে এ ঘটনাটি ঘটে বলে তারা জানান। 

ভুক্তভোগী ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো.রোস্তম আলী জানান, তিনি ১৩৫৪  জনের নামের তালিকা অনুযায়ী সাড়ে তের টন চাল পরিষদে নিয়ে আসেন এবং ওয়ার্ড ভিত্তিক তালিকা অনুযায়ী ইউপি সদস্যদের মাঝে বন্টন করে দেন।

ইউপি সদস্যগন চাল বিতরণ শুরু করলে শহিদুল ইসলাম শহিদ ফকির এবং পিয়াস মোহাম্মদ শামীম ফকির তাদের লোকজন নিয়ে এসে চাল বিতরণের মাস্টার রোলের তালিকা জোরপূর্বক কেড়ে নিয়ে তারা নিজেরাই চাল দেওয়া শুরু করেন। 

১ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুস সামাদ, ২নং ওয়ার্ডের সাইম সরকার, ৪নং ওয়ার্ডের আঃ কাদের, ৭নং ওয়ার্ডের তুহিন নকরেক, ৮ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নাজির এবং ১,২,৩, নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনের ইউপি সদস্য শ্যামা, ৪,৫,৬,নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনের ইউপি সদস্য শেফালী বেগম ও ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনের ইউপি সদস্য কনা এ ঘটনার

সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমরা সবাই মাস্টার রোলের তালিকা অনুযায়ী চাল বিতরণ শুরু করলে অভিযুক্তরা লোকজন নিয়ে এসে আমাদের তালিকা জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেয় এবং তারা তাদের ইচ্ছে মতো চাল দেওয়া শুরু করে। আমরা বাঁধা দিলে তারা আমাদের হুমকি ধামকি দিয়া সরিয়ে দেয়। 

তারা আরও জানান, চেয়ারম্যান এসে প্রতিবাদ করলে তারা তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং মারধর করে। 

পরবর্তীতে ইউপি চেয়ারম্যান বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেনের নিকট জানালে তিনি চাল বিতরণ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন এবং পরের দিন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট ইয়াকুব আলীকে সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার জন্য উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট ইয়াকুব আলী দুঃখ প্রকাশ করেন এবং দু'পক্ষের সাথে  আলোচনা করে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার মিমাংসা করেন। নিয়মানুযায়ী ইউপি সদস্যদের মাধ্যমেই চাল বিতরণ হবে বলেও তিনি জানান।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



নেপালে আটক সিয়াম কলকাতা সিআইডির হেফাজতে

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | ৮৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:শুক্রবার (৭ জুন) দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডের ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার হাবিবুর রহমান জানান।

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যা মামলায় নেপাল থেকে গ্রেপ্তার আরেক আসামিকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে কলকাতা সিআইডি।তিনি জানান, কলকাতা সিআইডি এই হত্যা মামলাটি তদন্ত করছে। তাদের কাছে দুইজন আসামি আছে।

একজনকে তারা নেপাল থেকে নিয়েছে। আরেকজনকে আগেই গ্রেপ্তার করেছে।ডিএমপি কমিশনার জানান, আনার হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত একজন নেপালে পালিয়ে ছিলেন। পরে তাকে নেপাল পুলিশ আটক করে। কলকাতার সিআইডি তাকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

অবশ্য এই আসামির নাম উল্লেখ করেননি ডিএমপি কমিশনার। তবে, দেশের গোয়েন্দা সূত্র বলছে, এই আসামি হলেন নেপালে পালিয়ে থাকা সিয়াম।আনার হত্যার বিচার কোন দেশে হবে? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে হাবিবুর রহমান বলেন, সেখানে ঘটনা তদন্ত সংঘটিত হয়, সেখানেই তদন্ত হয়। এটি একটি সেট রুল। কিন্তু আমাদের বাংলাদেশের আইনেও বলা আছে, বিদেশে যদি কেউ অপরাধ করে থাকে, সেক্ষেত্রে সেই অপরাধীকে আমরা বাংলাদেশে এনে বিচার করতে পারি...। আমরাও তদন্ত করছি, তারাও (কলকাতা) তদন্ত করছে। একপর্যায়ে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়ে যেকোনো জায়গায় এই বিচারটি হতে পারে।

এমপি আনার হত্যা মামলায় সিয়াম ছাড়াও আরও পাঁচজন আসামি গ্রেপ্তার হয়েছেন। এর মধ্যে বাংলাদেশে গ্রেপ্তাররা হলেন, আমানুল্লা সাঈদ ওরফে শিমুল ভুঁইয়া ওরফে শিহাব ওরফে ফজল মোহাম্মদ ভুঁইয়া, তানভীর ভুঁইয়া ও সেলেস্টি রহমান। ভারতে গ্রেপ্তার হয়েছেন জিহাদ ও আরেকজন।

এর আগে সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যায় অন্যতম সন্দেহভাজন মো. সিয়াম হোসেন নেপালে আটক হওয়ার খবর পায় ডিবি। পরে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদের একটি দল নেপালে যায়। গত মঙ্গলবার দেশে ফিরে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন ডিবি প্রধান হারুন। আটক সিয়ামকে নেপাল থেকে নেওয়ার জন্য ভারতও চেষ্টা করছে বলে জানান তিনি।


আরও খবর