Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

বাংলাদেশের রাজনৈতিক বন্ধু ভারত, চীন উন্নয়নের: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১০৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:শনিবার (৬ জুলাই) রাজধানীর বেইলি রোডে শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রাম ঐতিহ্য ও গবেষণা কেন্দ্রে সাত দিনব্যাপী পাহাড়ি ফলমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন ভারত বাংলাদেশের রাজনৈতিক বন্ধু, চীন উন্নয়নের। ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক ভালো বলেই তাদের কাছ থেকে অনেক সুবিধা নিতে পেরেছি। অন্যদিকে আমাদের দেশে বহু উন্নয়নে চীনের অবদান রয়েছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো ছিল বলেই আমরা বাংলাদেশের সমান আরেকটি সমুদ্র পেয়েছি। সম্পর্ক সিটমহল সমস্যার সমাধান করেছি। গঙ্গাচুক্তিসহ বহুবিধ সুবিধা ভারত থেকে নিতে পেরেছেন শেখ হাসিনা। সম্পর্ক ভালো থাকলে আলাপ-আলোচনা করে সমস্যার সমাধান করা যায়।

চীনের সঙ্গে আমাদের পার্টনারশিপ রয়েছে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, এ দেশে বহু উন্নয়নে চীনের অবদান আছে। সাহায্য পেলে আমরা সাহায্য কেনো নেব না? আমার দেশের উন্নয়নের জন্য যেখানে সাহায্য দরকার আমরা সেখান থেকে সাহায্য নেব। মেট্রোরেল, পদ্মা সেতু, এক্সপ্রেসওয়ে এসব নিয়ে অনেকের জ্বলে, যাদের জ্বলে তাদের মন্তব্যের কোনো জবাব আমরা দেব না।

গত ১৬ বছরে বাংলাদেশ বদলে গেছে। সেই বদলের সঙ্গে তাল মিলিয়ে পার্বত্য অঞ্চলও বদলেছে জানিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, সড়ক যোগাযোগে এখন পার্বত্য তিন জেলা অনেক উন্নত, একসাথে ৪২টি ব্রিজ উদ্বোধন হয়েছে খাগড়াছড়িতে। এখন সীমান্ত সড়ক তৈরি হচ্ছে। শেখ হাসিনা থাকলে সব সমস্যার সমাধান হবে।


আরও খবর



১১ হাজারের বেশি বাংলাদেশি বিদেশের কারাগারে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ জুলাই 2০২4 | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১০৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বিশ্বের ৩১ দেশের কারাগারে ১১ হাজার ৪৫০ বাংলাদেশি শ্রমিক ও প্রবাসী আটক আছেন,জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। সোমবার (১ জুলাই) জাতীয় সংসদে লিখিত প্রশ্নোত্তরে সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য ফরিদা ইয়াসমিনের লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

ড. হাছান মাহমুদ জানান, বাংলাদেশি বন্দী সবচেয়ে বেশি আটক রয়েছেন সৌদি আরবে, ৫ হাজার ৭৪৬ জন। প্রতিবেশী ভারতে আটক আছেন ১ হাজার ৫৭৯ জন। অন্য দেশগুলোর মধ্যে তুরস্কে ৫০৮ জন, ওমানে ৪২০ জন, কাতারে ৪১৫ জন, গ্রিসে ৪১৪ জন, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৪০৪ জন, দক্ষিণ আফ্রিকায় ৩৮৫ জন ও মিয়ানমারের কারাগারের ৩৫৮ জন বাংলাদেশি আটক আছেন।

এর বাইরে মালয়েশিয়ায় ২১৯ জন, ইরাকে ২১৭ জন, চীনে ১৯১ জন, হংকংয়ে ১২২ জন, জর্ডানে ১০০ জন, ইতালিতে ৮১ জন, মালদ্বীপে ৭০ জন, সিঙ্গাপুরে ৬৬ জন, ইন্দোনেশিয়ায় ৪৯ জন, লেবাননে ২৮ জন, স্পেনে ১৯ জন, ব্রুনেইতে ১৬ জন বাংলাদেশি আটক আছেন। এ ছাড়া ২ থেকে ১০ বাংলাদেশি আটক রয়েছেন জাপান, পর্তুগাল, বেলজিয়াম, মোজাম্বিক, থাইল্যান্ড, আলজেরিয়া, লিবিয়া, শ্রীলঙ্কা, দক্ষিণ কোরিয়া ও মিসরের কারাগারে।


আরও খবর



প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর

মেয়েরা রাজাকার বলে স্লোগান দেয়, কোন দেশে বাস করছি

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৭৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রশ্ন রাখলেন, রোকেয়া হলের মেয়েরা রাজাকার বলে স্লোগান দেয়, কোন চেতনা তারা বিশ্বাস করে? এ কোন দেশে বাস করছি?।

সোমবার (১৫ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে মন্ত্রণালয়/বিভাগে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর এবং বার্ষিক কর্মসম্পাদন চক্তি ও শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে এই প্রশ্ন রাখেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোটা বিরোধী আন্দোলনের নামে যারা নিজেদের রাজাকার বলতে লজ্জা পায়না তারা কোন চেতনায় বিশ্বাস করে? তারা কি শিক্ষা পেয়েছে?

দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়নের তাগিদ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেছেন, দুর্নীতি রোধে সরকারি কাজে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে।

সরকারের বদনাম হলেও দুর্নীতিবাজদের ক্ষমা করা হবে না জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, সরকারের বদনাম নিয়ে ভাবি না, দুর্নীতি করলেই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিজ নিজ কর্মস্থলে জবাবদিহিতা নিশ্চিতের নির্দেশ নিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, ওপর থেকে নিচ পর্যন্ত জবাবদিহিতা না থাকলে কাজ সঠিকভাবে শেষ হয় না। সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা নিয়ে এগোলে লক্ষ্যে পৌঁছানো সম্ভব।

তিনি বলেন, সব মন্ত্রণালয়ের নিচ দিকেও অনিয়ম-দুর্নীতি হয়। এজন্য নজরদারি রাখতে হবে। সরকারি কাজে দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে। স্বচ্ছতার সঙ্গে কাজ করলে পুরস্কৃত করা হবে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১১১জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃনারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে দুটি শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। এ সময় কারখানা দুটিকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন পিএলসি'র ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হারুনুর রশিদ মোল্লাহর নির্দেশে এসব অবৈধ গ্যাস সংযোগ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে যাতে বৈধ গ্রাহকগন নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস পায়।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রবিন মিয়ার নেতৃত্বে রোববার দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত সিদ্ধিরগঞ্জের জালকুঁড়ি কাঠপট্টি ও ঝুটপট্টি এলাকার দুটি স্পটে এই অভিযান চালানো হয়।জানা যায়, অভিযানে জালকুঁড়ি ডাইং কারখানা ও সাকিব ওয়াশিং কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে স্থায়ীভাবে সীলগালা করে দেয় তিতাস কর্তৃপক্ষ। দুই কারখানা থেকে জব্দ করা হয় বিপুল পরিমাণ অবৈধ পাইপ, রাইজার ও বার্নার।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় পরিচালিত এই অভিযানে উপস্থিত ছিলেন তিতাস গ্যাসের ফতুল্লা শাখা ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মশিউর রহমান ও নারায়ণগঞ্জ শাখার ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মোস্তাক মাসুদ মোহাম্মদ ইমরান সহ অন্য কর্মকর্তারা।

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোং লিমিটেডের ফতুল্লা শাখা ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মশিউর রহমান বলেন, অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন অভিযান চলমান থাকবে। অবৈধ সংযোগ প্রদানকারীদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও খবর



আত্রাইয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে রথযাত্রা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৮৮জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:নওগাঁর আত্রাইয়ে উৎসবমুখর ও ধর্মীয় ভাবগম্ভীর পরিবেশের মধ্য দিয়ে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় অনুষ্ঠান শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রথযাত্রাটি উপজেলার ভবানীপুর বাজার সংলগ্ন জগন্নাথ মন্দির থেকে জগন্নাথ দেবের মূর্তি সুসজ্জিত রথে করে শত শত ভক্তবৃন্দ রশি দিয়ে রথ টেনে এ পূর্ণ্য তীর্থে নিজেদের সম্পৃক্ত করে। এ যাত্রাটি ভবানীপুর বাজারের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে জমিদার বাড়ি এসে পৌছে। পরে নগেন্দ্রনাথ ঘোষের বাড়িতে এ রথ যাত্রাটি অবস্থান করেন। 

রথযাত্রা উপলক্ষে রবিবার সকালে বিভিন্ন বয়সী শত শত নারী-পুরুষ ঢাক-ঢোলসহ দেবতার নাম জপ, কির্তন ও পুজো অর্চনা পালন করেন। আগামী ১৫ জুলাই উল্টো রথযাত্রার মধ্য দিয়ে এ উৎসব শেষ হবে।

রথ যাত্রাটি শুরু হওয়ার পূর্বে রথ যাত্রা অনুষ্ঠানে জগন্নাথ মন্দির কমিটির সভাপতি অনুপ কুমার দত্ত বাদলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন নওগাঁ-৬ (আত্রাই- রাণীনগর) আসনের স্থানীয় সংসদ সদস্য, বিদ্যুৎ-জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয় সম্প্রর্কীত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য, নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. মো. ওমর ফারুক সুমন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সঞ্চিতা বিশ্বাস, শাহাগোলা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এসএম মামুনুর রশিদ, চিত্রা চৌধুরী, শফিকুল ইসলাম বাবু, অভিজিৎ চৌধুরী, রইচ উদ্দিন (সাবু), মোসলেম উদ্দিন, সুপবিত্র ঘোষ, সুব্রত ঘোষ প্রমূখ। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.

আরও খবর



আমতলীতে ৩দিন ব্যাপী কৃষি মেলা শুরু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৭৫জন দেখেছেন

Image

আব্দুল্লাহ আল নোমান,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি:আমতলী উপজেলা পরিষদের মাঠে ৩দিন ব্যাপী কৃষি মেলা বুধবার সকাল থেকে শুরু হয়েছে।  কোন্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায়   আমতলী উপজেলা প্রশাসন ও  কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর এ মেলার আয়োজন করে।

মেলা উপলক্ষে সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদ চত্ত্বর থেকে এক বর্নাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে। পরে ফিতা কেটে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন অতিথিরা। মেলা উপলক্ষে সকাল ১১ টায় উপজেলা পরিষদের হল রুমে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আমতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আশরাফুল আলমের সভাপতিত্বে আরোচনা সভঅয় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন  আমতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ গোলাম সরোয়ার ফোরকান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বরগুনার  কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের  অতিরিক্ত উপ পরিচালক কৃষিবিদ সিএস রেজাউল করিম, আমতলী উপজেলা কুষি কর্মকর্তা মো. ইছা, আমতলী পৌরসভার সাবেক মেয়র মো. নাজমুল আহসান নান্নু  আমতলী উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মো. মোয়াজ্জেম হোসেন খান, নারী ভাইস চেয়ারম্যান জেসিকা তারতিলা জুথী, হলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিন্টু মল্লিক। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.

আরও খবর