Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

বাংলাদেশের নাগরিকদের মাথাপিছু আয় আরও বেড়েছে

প্রকাশিত:Tuesday ১০ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৯৯জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের নাগরিকদের মাথাপিছু আয় আরও বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৮২৪ মার্কিন ডলার (১০ মের রেট অনুযায়ী ২ লাখ ৪৪ হাজার ৬০০ টাকা)। ২০২১-২২ অর্থবছরে জিডিপির প্রবৃদ্ধির হার দাঁড়িয়েছে শতকরা ৭.২৫ শতাংশ।


মঙ্গলবার (১০ মে) রাজধানীর শেরে বাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা শেষে এ তথ্য জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।


প্রধানমন্ত্রী এবং একনেকের চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক সভা অনুষ্ঠিত হয়।


পরিকল্পনা মন্ত্রী জানান, সাময়িক হিসাব অনুযায়ী ২০২১-২২ অর্থবছরে জিডিপির প্রবৃদ্ধির হার দাঁড়িয়েছে শতকরা ৭ দশমিক ২৫ শতাংশ। ২০২০-২১ অর্থবছরের চূড়ান্ত হিসাবে জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার ছিল শতকরা ৬ দশমিক ৯৪ শতাংশ। ২০২১-২২ অর্থবছরের সাময়িক হিসাবে মাথাপিছু আয় দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৮২৪ মার্কিন ডলার। ২০২০-২১ অর্থবছরে মাথাপিছু আয় ছিল ২ লাখ ১৯ হাজার ৭৩৮ টাকা বা ২ হাজার ৫৯১ মার্কিন ডলার।


প্রাপ্যতার সাপেক্ষে ৬/৭ মাসের তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে ২০২১-২২ অর্থবছরের জিডিপির সাময়িক হিসাব প্রস্তুত করা হয়েছে।  


আরও খবর



পাবনায় বাস উল্টে প্রাণ গেলো দুই নারীর

প্রকাশিত:Thursday ০২ June 2০২2 | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬৯জন দেখেছেন
Image

পাবনায় যাত্রীবাহী বাস উল্টে দুই নারী নিহত হয়েছেন। এসময় আরও সাতজন গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন- সুজানগর উপজেলার চর গোলাই মধ্যপাড়ার আবুল কালাম আজাদের মেয়ে সুলতানা কনিকা (২৭) ও সাঁথিয়া উপজেলার আতাইকুলা থানার বৃহস্পতিপুর গ্রামের মন্টু শেখের স্ত্রী মোর্শেদা খাতুন (৭০)।

বৃহস্পতিবার (২ জুন) দুপুরে আতাইকুলার পাবনা-নগরবাড়ি মহাসড়কের মধুপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আতাইকুলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জালাল উদ্দিন বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, শাহজাদপুর থেকে একটি যাত্রীবাহী বাস পাবনা আসছিল। বাসটি পাবনা-নগরবাড়ি মহাসড়কের মধুপুরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে খাদে পড়ে যায়। এসময় ঘটনাস্থলেই দুইজন মারা যান এবং সাতজন গুরুতর আহত হন।


আরও খবর



মানবতাবিরোধী অপরাধ: সুপ্রিম কোর্টে ৩০ এর বেশি আপিল

প্রকাশিত:Friday ১৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
Image

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় সাতক্ষীরার সাবেক এমপি ও জেলা জামায়াতের আমির আব্দুল খালেক মণ্ডলসহ দুজনের মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। গত ২৪ মার্চ এ রায় ঘোষণা করেন ট্রাইব্যুনাল। এ মামলার অন্য আসামি খান রোকনুজ্জামান পলাতক। মুক্তিযুদ্ধের সময় খালেক মণ্ডল ছিলেন সাতক্ষীরায় রাজাকার বাহিনীর সংগঠক আর রোকনুজ্জামান ছিলেন ওই বাহিনীর সদস্য। তাদের বিরুদ্ধে খুন, ধর্ষণ, অপহরণসহ মানবতাবিরোধী ছয়টি অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় সর্বোচ্চ এ দণ্ড দেওয়া হয়।

তবে ওই রায়ের বিরুদ্ধে খালাস চেয়ে আপিল করেছেন আব্দুল খালেক মণ্ডল। নিয়ম অনুযায়ী ট্রাইব্যুনালের রায় ঘোষণার ৩০ দিনের মধ্যে আপিল করতে হয়। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৪ এপ্রিল সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ আবেদন করা হয়।

এছাড়াও ২০২১ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি ট্রাইব্যুনালের রায়ে ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার নিগুয়ারি ইউনিয়নের সাধুয়ার আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত মো. সামসুজ্জামান ওরফে আবুল কালাম এবং ২০ বছর করে সাজাপ্রাপ্ত মো. খলিলুর রহমান ও মো. আব্দুল্লাহ এই তিনজন আপিল আবেদন করেছেন।

সব মিলিয়ে একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের ৩৪টি মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের খালাস চেয়ে করা আপিল শুনানির অপেক্ষায়। এছাড়া চূড়ান্ত নিষ্পত্তির অপেক্ষায় আরও দুই আসামির করা রিভিউ (রায় পুনর্বিবেচনা) আবেদন।

করোনাকালীন লকডাউনের কারণে মৃত্যুদণ্ডের রায়ের বিরুদ্ধে জামায়াত নেতা এটিএম আজহারুল ইসলাম ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সারের পক্ষে করা রিভিউ আবেদন শুনানির অপেক্ষায়। যদিও এরই মধ্যে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত সাবেক প্রতিমন্ত্রী জাপা নেতা সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। গত ১১ ফেব্রুয়ারি ভোরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) মারা যান তিনি।

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ও নানা কারণে এসব আপিল এবং রিভিউ আবেদনের ওপর শুনানি হচ্ছে না গত দুই বছর। তবে করোনা পরিস্থিতির জট কাটিয়ে আবার চাঙ্গা হতে যাচ্ছে এসব মামলা।
রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল এবং ট্রাইব্যুনালের অন্যতম প্রসিকিউটরসহ সংশ্লিষ্টরা জাগো নিউজকে জানান, এখন নিয়মিত কোর্ট চালু হয়েছে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় দণ্ডিত আসামিদের করা আপিল শুনানির উদ্যোগ নেওয়া হবে।

এদিকে ট্রাইব্যুনালের রায়ের পর এখন পর্যন্ত দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে ৯টি মামলায় রায় ঘোষণার মধ্যে দিয়ে চূড়ান্ত নিষ্পত্তি হয়েছে। আরও দুটি মামলা সর্বোচ্চ আদালতে চূড়ান্ত নিষ্পত্তির অপেক্ষায়।

ট্রাইব্যুনালের ৪৫টি রায়ে যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত চারজন, আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হলেন ২২ জন ও স্বশ্রম কারাদণ্ড প্রাপ্ত ছয়জন। তাদের মধ্য থেকে একজন আসামি খালাস পেয়েছেন। এই হলো মোট ১২৭ জন আসামির বিচার প্রক্রিয়া।

২০১০ সালে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল গঠনের পর ২০১৩ সাল থেকে রায় ঘোষণা শুরু হয়। এরপর প্রতি বছর কোনো না কোনো মামলার রায় হয়। মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার শুরুর পর গত ১১ বছরে ৪৫ মামলায় মোট সাজা দেওয়া হয়েছে ১১২ জনকে। এর মধ্যে মৃত্যুদণ্ড হয়েছে ৮০ জনের। আমৃত্যু কারাদণ্ড হয়েছে ২২ জনের, অন্য আসামিদের বিভিন্ন মেয়াদে দণ্ড হয়। শিশু বয়স বিবেচনায় খালাস দেওয়া হয়েছে এক আসামিকে।

সুপ্রিম কোর্টে চূড়ান্ত নিষ্পত্তি ৯টি আপিল

ট্রাইব্যুনালে রায় ঘোষণার পর সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে চূড়ান্ত নিষ্পত্তি হয়েছে ৯টি মামলার। এর মধ্যে ছয়জন আসামির ফাঁসির দণ্ড কার্যকর হয়েছে। মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়েছে জামায়াত নেতা মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী, আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদ, মো. কামারুজ্জামান, আব্দুল কাদের মোল্লা, বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী ও জামায়াতের মীর কাসেম আলীর। সবশেষ কার্যকর হয়েছে ২০১৬ সালের ৩ সেপ্টেম্বর জামায়াতের মীর কাসেম আলীর ফাঁসি।

ঘোষিত রায়ের মধ্যে আপিল বিভাগে বর্তমানে বিচারাধীন ৩৪টি মামলা। প্রায় দেড় বছর আপিল বিভাগে এ মামলাগুলোর কোনো শুনানি হয়নি। এসব মামলায় মৃত্যুদণ্ডের আসামি অন্তত ৩৩ জন। এছাড়া আমত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত একজন এবং ২০ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত দুজন রয়েছেন।

আপিল বিভাগে পর্যায়ক্রমে শুনানির অপেক্ষায়

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার মোবারক হোসেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের আফসার হোসেন চুটু ও মাহিদুর রহমান, পটুয়াখালীর ফোরকান মল্লিক, বাগেরহাটের সিরাজুল হক ও খান আকরাম হোসেন, নেত্রকোনার আতাউর রহমান ননী ও ওবায়দুল হক খান তাহের, কিশোরগঞ্জের শামসুদ্দিন আহমেদ, হবিগঞ্জের মহিবুর রহমান বড় মিয়া, মুজিবুর রহমান আঙ্গুর মিয়া ও আবদুর রাজ্জাক, জামালপুরের অ্যাডভোকেট সামসুল হক ওরফে বদর ভাই ও এসএম ইউসুফ আলী এবং যশোরের সাবেক এমপি জামায়াত নেতা সাখাওয়াত হোসেন ও বিল্লাল হোসেন, নোয়াখালীর সুধারামের আমীর আলী ও জয়নাল আবেদীন, মৌলভীবাজারের উজের আহমেদ ও ইউনুছ আহমেদ, ফুলবাড়িয়ার রিয়াজউদ্দিন ফকিরসহ আরও অনেকের আপিল।

সাতক্ষীরা জেলা জামায়াতের আমির ও সাবেক এমপি আব্দুল খালেক মণ্ডল এবং ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার সাধুয়ার আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত মো. সামসুজ্জামান ওরফে আবুল কালাম এবং রায়ে ২০ বছর করে সাজাপ্রাপ্ত মো. খলিলুর রহমান এবং মো. আব্দুল্লাহ এই তিনজনের আপিল।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের রায়ের পর দণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্য থেকে খালাস চেয়ে করা আপিল বিভাগের পেন্ডিং মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার শুনানির বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল আবু মোহাম্মদ (এএম) আমিন উদ্দিন জাগো নিউজকে বলেন, করোনার পরে কোর্ট খোলা হয়েছে, লকডাউনের কারণে এতদিন আদালত সীমিত আকারে চলছিল। কিন্তু ওই সময় অনেক চাঞ্চল্যকর গুরুত্বপূর্ণ মামলার শুনানি করা যায়নি। এখন যেহেতু নিয়মিত আদালত খুলছে আমরা পর্যায়ক্রমে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের মানবতাবিরোধী অপরাধের দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের করা আপিল ও রিভিউ আবেদনসহ গুরুত্বপূর্ণ এবং আলোচিত মামলাগুলো শুনানির উদ্যোগ নেবো।

এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. মোমতাজ উদ্দিন ফকির জাগো নিউজকে বলেন, মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের মামলার রায়ের পরে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে আসামি ও রাষ্ট্রপক্ষের করা আপিল আবেদন পেন্ডিং থাকলেও করোনা মহামারির কারণে আমরা আপিলগুলো শুনানির জন্য ভালোভাবে পদক্ষেপ নিতে পারিনি। এখন আমরা ওইসব আপিল শুনানির চেষ্টা করবো। রাষ্ট্রপক্ষ এবং আসামিপক্ষ এ উদ্যোগ নেবে বলে আশা করছি।

এ বিষয়ে প্রসিকিউটির সৈয়দ হায়দার আলী জাগো নিউজকে বলেন, ট্রাইব্যুনালে রায় ঘোষণার পর দণ্ড থেকে খালাস চেয়ে আসামিদের করা আপিল ও দণ্ড বাড়াতে রাষ্ট্রপক্ষের করা আপিল সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে রয়েছে। এগুলো নিষ্পত্তি হওয়ার দরকার। আমরা সে ব্যাপারে উদ্যোগ নেব।

এ বিষয়ে প্রসিকিউটর রানা দাশগুপ্ত জাগো নিউজকে বলেন, হবিগঞ্জের সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সারের রিভিউ আপিল বিভাগে নিষ্পত্তির কথা ছিল। কিন্তু সেটি আর হলো না। অর্থাৎ মানবতাবিরোধী আসামির বিচার প্রক্রিয়া এই মুহূর্তে মোটামুটি একটা স্ট্যান্ড স্টিলের (স্থির অবস্থায়) জায়গায় আছে।

তিনি আরও বলেন, আপিল বিভাগের মামলা শুনানির জন্য সবাইকে অপেক্ষা করতে হবে। আইনজীবী হিসেবে আমাদের কোনো দাবি না থাকলেও যারা প্রতিকারপ্রার্থী তাদের আকাঙ্ক্ষা তো আছেই। সেই সঙ্গে জনগণের আকাঙ্ক্ষা বিচার শেষ হয়ে কবে রায় কার্যকর হবে।


আরও খবর



যশোর রেলস্টেশনে যাত্রীকে হয়রানির ‘প্রাথমিক সত্যতা’ মিলেছে

প্রকাশিত:Wednesday ০৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬১জন দেখেছেন
Image

যশোর রেলস্টেশনে রেলওয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে ভারতফেরত যাত্রীকে আটকে রেখে হয়রানি, মালামাল লুট ও চাঁদাবাজি অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। বুধবার (৮ জুন) অভিযোগ তদন্তে এসে এর সত্যতা পান খুলনা রেলওয়ের সহকারী পুলিশ সুপার (কুষ্টিয়া সার্কেল) মজনুর রহমান।

রোববার (৫ জুন) রাতে যশোর রেলওয়ে স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে। হয়রানির শিকার টি এম রাশিদুল হাসান সিরাজগঞ্জের সালঙ্গা থানার ধুপিল মেহমানশাহী গ্রামের বাসিন্দা ও ঢাকা তেজগাঁও কলেজের মাস্টার্সের ছাত্র। ঘটনার পরদিন জিআরপি পুলিশ হেডকোয়ার্টারে অভিযোগ করেন তিনি।

অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার দুপুরে তদন্তে যশোর রেলওয়ে স্টেশনে আসেন সহকারী পুলিশ সুপার মজনুর রহমান। ঘটনার শিকার রাশিদুল হাসানও সিরাজগঞ্জ থেকে যশোরে আসেন। তদন্ত কর্মকর্তা সহকারী পুলিশ সুপার মজনুর রহমান ঘটনাস্থল ঘুরে দেখেন। এ সময় তিনি ভুক্তভোগীসহ স্টেশন মাস্টার আয়নাল হাসান, রেলওয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারী, জিআরপি ফাঁড়ি ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম, ফাঁড়ির কনস্টেবল এবং স্টেশনের বিভিন্ন দোকানের দোকানিদের সঙ্গে কথা বলেন। একই সঙ্গে অভিযুক্ত কনস্টেবলদেরও জবানবন্দি নেন তিনি।

অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে সহকারী পুলিশ সুপার মজনুর রহমান বলেন, তিনি পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখছেন। বিস্তারিত প্রতিবেদন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দেওয়া হবে। এরপর পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

jagonews24

রাশিদুল হাসানের অভিযোগ, রোববার তিনি ভারত থেকে বেনাপোল বন্দর দিয়ে দেশে প্রবেশ করেন। এরপর বাসযোগে রাত ৮টার দিকে যশোর স্টেশনে আসেন সুন্দরবন এক্সপ্রেসে করে বাড়ি (সিরাজগঞ্জ) যাওয়ার জন্য। স্টেশনে অবস্থান করার সময় রেলওয়ে পুলিশ (জিআরপি) কনস্টেবল আবু বক্কর ও আলআমিনসহ সাদাপোশাকধারী আরও তিনজন তার ব্যাগ তল্লাশির নামে ফাঁড়িতে নিয়ে যান।

সেখানে পাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে ভারত থেকে আনা পোশাক, প্রসাধনীসহ প্রায় ১৫ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে নেন। পরে ভয়ভীতি দেখিয়ে বিকাশের মাধ্যমে পাঁচ হাজার টাকা নিয়ে সাদা কাগজে সই নেন। এরপর রাত দেড়টার দিকে তাকে ছেড়ে দেন। পরে বাধ্য হয়ে প্রাইভেটকার ভাড়া করে বাড়িতে ফেরেন রাশিদুল।

রাশিদুল জানান, রেলওয়ে পুলিশের মালামাল লুট ও চাঁদাবাজির বিষয়ে তিনি ৯৯৯ নম্বরে ফোন করেন। পরে রেলওয়ে পুলিশের হেডকোয়ার্টারে এসপি (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশন) বরাবর অভিযোগ করেন।

তিনি আরও জানান, ওই রাতে তিনি যে বিকাশ নম্বরে টাকা দিয়েছেন তার স্ক্রিনশট, গোপনে পুলিশ কনস্টেবলদের তোলা ছবি ও ভিডিও অভিযোগের সঙ্গে সংযুক্ত করেছেন। ঘটনার সময় স্টেশনের সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করলেও তার অভিযোগের সত্যতা মিলবে বলেও দাবি করেন রাশিদুল।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে পুলিশ কনস্টেবল আবু বক্কর বলেন, ওই রাতে এমন কোনো ঘটনা ঘটেনি। তারা কোনো যাত্রীকে তল্লাশি করেননি।


আরও খবর



এবারের ঈদ ‘আনন্দ মেলায়’ নানা চমক

প্রকাশিত:Monday ২৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৩৩জন দেখেছেন
Image

প্রতিবারই ঈদ উপলক্ষে নির্মিত হয় জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘আনন্দ মেলা’র বিশেষ পর্ব। যেখানে বরাবরই থাকে নিত্য-নতুন চমক। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। এবারের আনন্দ মেলার সবচেয়ে বড় চমক থাকছে উপস্থাপনায়।

এ সময়ের জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী আফরান নিশোকে এবার দেখা যাবে অনুষ্ঠানটির উপস্থাপক হিসেবে। নিজের অভিনীত বিভিন্ন নাটকের জনপ্রিয় ৪-৫টি চরিত্রে হাজির হবেন তিনি। আর চরিত্রগুলোর মাধ্যমে তিনি সাজিয়ে তুলবেন পুরো আনন্দ মেলা। অনুষ্ঠানটি পরিকল্পনা করেছেন জগদীশ এষ। লিটু সাখাওয়াতের গ্রম্হনায় প্রযোজনা করেছেন আফরোজা সুলতানা ও হাসান রিয়াদ।

এবারের আনন্দ মেলা প্রসঙ্গে প্রযোজকদ্বয় জানান, শুধু উপস্থাপনাতেই নয়, পুরো আনন্দ মেলায় থাকছে বিভিন্ন চমক। আনন্দ মেলার জন্য এবার একটি থিম সং তৈরি করা হয়েছে। যেখানে কণ্ঠ দিয়েছেন বেলাল খান ও লিজা। থাকছে ঢাকা ব্যান্ডের মাকসুদের পরিবেশনা।

এছাড়াও রয়েছে নিশিতা বড়ুয়া, সাব্বির, লিজা ও রাজীবের কণ্ঠে একটি মৌলিক গান। সিনেমার গানের সঙ্গে নাচবেন চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস ও চিত্রনায়ক সাইমন। থাকছে চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়ার নাচ। বিশেষ একটি পর্বে আড্ডায় অংশ নেবেন চিত্রনায়িকা পরীমনি ও তার স্বামী শরিফুল রাজ। চলচ্চিত্র অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন হাজির হবেন তার ছবির জনপ্রিয় নায়িকা অঞ্জনাকে নিয়ে। এছাড়াও থাকছে সমসাময়িক বিষয়ের ওপর ৩টি নাটিকা এবং মীরাক্কেলের কৌতুক অভিনেতাদের নিয়ে আড্ডা।

বিটিভির নিজস্ব স্টুডিওতে সম্প্রতি আনন্দ মেলার শুটিং সম্পন্ন হয়েছে। অনুষ্ঠানটি প্রচারিত হবে ঈদের দিন রাত ১০টার ইংরেজি সংবাদের পর


আরও খবর



ডেসটিনির পলাতকদের গ্রেফতারে রেড অ্যালার্ট জারির নির্দেশ

প্রকাশিত:Thursday ০৯ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪৭জন দেখেছেন
Image

ডেসটিনি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটির গ্রাহকদের চার হাজার কোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় চার বছরের কারাদণ্ড প্রাপ্ত গ্রুপের চেয়ারম্যান সাবেক সেনাপ্রধান হারুন-অর-রশিদের জামিন আবেদন খারিজ করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে এ মামলায় পলাতক ৩৯ জনকে গ্রেফতারে (রেড অ্যালার্ট) নোটিশ জারির নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) জামিনের ও আপিল শুনানিতে হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, জামিন আবেদন নামঞ্জুর, আপিল আবেদনের গ্রহণযোগ্যতার (অ্যাডমিশন) বিষয়ে শুনানি, মামলার সব রেকর্ড কল, পেপার বুক প্রস্তুতের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সেইসঙ্গে মামলায় পলাতক আসামিদের গ্রেফতারে আইজিপি পুলিশ, এসিসি ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি পলাতকদের গ্রেফতারে সংশ্লিষ্টদের রেড অ্যালার্ট জারির নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।


আরও খবর