Logo
আজঃ Wednesday ২৬ January ২০২২
শিরোনাম
অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে সহ-শিল্পীদের নগ্ন ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বিদেশের মাটিতে কৃষিপণ্য সরবরাহ বাড়াণোর লক্ষ্যে : ইরান রাজনৈতিক কঠিন চাপে রয়েছেন মেয়র আরিফুল স্বপ্নের মেট্রোরেল রওনা হলো আগারগাঁওয়ের উদ্দেশে ওমিক্রনের সংক্রমণে ভারতে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত নিয়মিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ মুরাদ হাসান এমিরেটসের ফ্লাইটে কানাডা গেলেন সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলী মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ আগামী বিশ্বকাপে ব্যাটসম্যানদের উন্নতি দেখতে চান করোনাভাইরাসে আরও ছয়জনের মৃত্যু বিশ্বের ৪৩তম ক্ষমতাধর নারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
বাংলাদেশ স্কাউটস ঢাকা মেট্রোপলিটন যাত্রাবাড়ী থানার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন জিয়াউদ্দিন জিয়া

বাংলাদেশ স্কাউটস ঢাকা মেট্রোপলিটন যাত্রাবাড়ী থানার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন জিয়াউদ্দিন জিয়া

প্রকাশিত:Monday ১০ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ১১০জন দেখেছেন
Image


সোহরাওয়ার্দীঃ

বাংলাদেশ স্কাউটস ঢাকা মেট্রোপলিটনের থানাভিত্তিক কাউন্সিলে যাত্রাবাড়ী থানা থেকে এস.এম.জিয়াউদ্দিন জিয়া সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন।


যাত্রাবাড়ী থানা আওতাধীন সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান ও ইউনিট লিডারগণের উপস্থিতিতে নির্বাচন পক্রিয়ার মাধ্যমে জিয়া উদ্দিন (জিয়া) সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।ইমপিসা ওপেন স্কাউট গ্রুপের গ্রুপ সম্পাদক হিসেবে দীর্ঘদিন যাবত দ্বায়িত্ব পালন করছেন এস.এম.জিয়াউদ্দিন জিয়া।


ইমপিসা ওপেন স্কাউট গ্রুপ গত লকডাউনে জনসচেতনতা বৃদ্ধির জন্য বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ, নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে বাজার করা, চলাচল করা এবং মাস্ক সঠিকভাবে পরিধান করার বিষয়ে ধলপুর বাজার, মানিকনগর বাজার, গোপীবাগ বাজার ও বিভিন্ন স্থানে  নানা কর্মসুচী পালন করেছে।


এছারাও করোনা দুর্যোগে দুর্দশাগ্রস্ত মানুষকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করে।ভোট ও সমর্থন দিয়ে নির্বাচিত করায় সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান ও ইউনিট লিডারগণের প্রতি ধন্যবাদ জানিয়েছেন এস.এম.জিয়াউদ্দিন জিয়া।


আরও খবর



বাংলাদেশের ফুটবলের প্রমো বানিয়েছেন ফুটবল প্রেমী আমির হামজা

বাংলাদেশের ফুটবলের প্রমো বানিয়েছেন ফুটবল প্রেমী আমির হামজা

প্রকাশিত:Sunday ২৩ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ৮০জন দেখেছেন
Image


আজাদ হোসেনঃ 

কাতার বিশ্বকাপের সূচী চূড়ান্ত হয়েছে। ২১ নভেম্বর ৬০ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতা সম্পন্ন আল বায়েত স্টেডিয়ামে স্থানীয় সময় দুপুর একটায় উদ্বোধনী ম্যাচের মধ্য দিয়ে আসরটি মাঠে গড়াবে হবে বলে জানিয়েছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রন সংস্থা ফিফা।ফুটবল বিশ্বকাপের সেই উম্মাদনা বিস্তারের জন্য বাংলাদেশের ফুটবল প্রেমিরা ইতোমধ্যে প্রস্তুতি গ্রহণ করেছ।


এরই মাঝে খুশির বার্তা নিয়ে ফুটবলভক্তদের মাঝে হাজির হয়েছে বাংলাদেশের একটি বেসরকারি টেলিভিশনের ভিডিও গ্রাফার আমির হামজা। আমির হামজা বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সম্মতিক্রমে ২০২২ কাতার ফুটবল বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে বাংলাদেশের ফুটবল নিয়ে প্রোমো তৈরি করেছেন।বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের প্রাক্তন খেলোয়াড়দের সোনালী স্মৃতিময় দিনের ছবি সংযুক্তির মাধ্যমে ২০২২ ফুটবল বিশ্বকাপের থিম সংয়ের মাধ্যমে প্রোমোটি তৈরী করছেন তিনি।ফুটবলের প্রতি গভীর ভালোবাসা নিয়ে এই প্রমো তৈরী করেছেন আমির হামজা। প্রোমো তৈরিতে তাকে সহযোগিতা করায় আমির হামজা বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।


আমির হামজা মনে করেন, ফুটবলকে এগিয়ে নিতে হলে গভীরভাবে ভালোবেসে প্রাক্তন খেলোয়াড়দের সন্মান ও শ্রদ্ধা করতে হবে। দেশের সোনালী দিনের ফুটবল ইতিহাসকে মনে করিয়ে দিতেই এমন উদ্যোগ হাতে নিয়েছেন তিনি।আমির হামজার এই মহতী উদ্যোগকে স্বাগত জানায় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনসহ বিভিন্ন ক্রীড়া সংগঠন। বিশ্ব ফুটবল যখন খেলার মাঠ কাঁপাতে ব্যস্ত থাকবে ঠিক তখনই প্রোমোর ছন্দে-তালে নেচে গেয়ে উল্লাস করবে বাংলাদেশের ফুটবল প্রেমীরা।

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা 


আরও খবর



নাসিরনগর উপজেলা ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক শরীফ গ্রেপ্তার।

নাসিরনগর উপজেলা ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক শরীফ গ্রেপ্তার।

প্রকাশিত:Sunday ০৯ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ১২১জন দেখেছেন
Image


মোঃ আব্দুল হান্নানঃ

৮ জানুয়ারী ২০২২ রোজ শনিবার,  বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে ব্রাক্ষণবাড়িয়া গণসমাবেশ ডাকে জেলা বি,এন,পি।গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে শহরে ১৪৪ ধারা জারী করে জেলা প্রসাশন।প্রশাসনের  ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরতলীর নাটাই উত্তর ইউনিয়নের বটতলি বাজারে সমাবেশ করে বিএনপি। 


সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপি'র সাবেক সভাপতি, সাবেক পৌর মেয়র হাফিজুর রহমান মোল্লা কচি ,প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক মন্ত্রী,  বিএনপি’র জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য  আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী,প্রধান বক্তা আবুল খায়ের ভূঁইয়া, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  চেয়ারপারসনের সম্মানিত উপদেষ্টা উকিল আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া, চেয়ারপারসনের সম্মানিত উপদেষ্টা নাসিরনগর উপজেলার জননন্দিত নেতা আলহাজ্ব সৈয়দ একরামুজ্জান সুখন , ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা এমপি, কেন্দ্রীয় বিএনপি'র অর্থনৈতিক বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার খালেদ হোসেন মাহবুব শ্যামল,ভূঁইয়া ফাউন্ডেশন এর চেয়ারম্যান কসবা আখাউড়ার গণমানুষের নেতা কবির আহমদ ভূঁইয়া, যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোরতাজুল করিম বাদরু,সহ সভাপতি জাকির হোসেন সিদ্দিকী, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি  জাকির হোসেন  সহ কেন্দ্রীয় জেলাও বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত বিএনপি সহ সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ স্বতঃস্ফূর্তভাবে উপস্থিত ছিলেন। 


সমাবেশকে কেন্দ্র করে কোন গ্রেপ্তারী পরোয়ানা ছাড়াই নাসিরনগর উপজেলা ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল বাতেন শরীফকে গ্রেপ্তার করে নেয পুলিশ।অন্যায় ভাবে শরীফকে গ্রেপ্তারে নাসিরনগর উপজেলা ছাত্রদল যুবদলে, বি,এন,পি ও সকল অঙ্গও সহযোগি সংগঠনের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তার নিঃশর্ত  মুক্তির দাবি করা হয়েছে।


আরও খবর



মাওয়া শিমুলিয়া ফেরী ঘাটে পদে পদে দুর্নীতি

মাওয়া শিমুলিয়া ফেরী ঘাটে পদে পদে দুর্নীতি

প্রকাশিত:Monday ১৭ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ৮০জন দেখেছেন
Image


জুবায়ের আলম:

ফেরীর তেল চুরি ,দুর্নীতি, সংস্থার বিভিন্ন খাতের অর্থ আত্মসাত সহ মাওয়ায় শিমুলিয়া-বাংলাবাজার  ঘাটে বিআইডব্লিউটিসির কর্মচারীদের বিরুদ্ধেব্যাপক হারে  অভিযোগ রয়েছে।স্থানীয়ভাবে অনুসন্ধান করে জানাগেছে ফেরি চলাচলের জন্য বছরে কোটি কোটি টাকার তেল ব্যয় হয়।


এই তেল ব্যয়ের ব্যাপারে রয়েছে নানা রকমের কারসাজি। বহু দিন ধরেই শিমুলিয়ায় তেল চুরি সিন্ডিকেট সক্রিয়। চক্রটির হাত লম্বা। তেল চুরির ভাগ চলে যায় অনেক উপরের কর্মকর্তাদেরও হাতে। তাই যুগ যুগ ধরে এই তেল চুরি চলছেই। আধুনিক ভিটিএস যন্ত্র ব্যবহার না করাও এর একটি কারণ। এক শ্রেণীর কর্মকর্তার অবৈধ আয়ের অন্যতম উৎস এই তেল চুরি।সাশ্রয় করা তেলই বাইরে বিক্রি করা হয়।


প্রতিটি ফেরিরই তিন সদস্যের একটি একটি টাইম নির্ধারণ করে তেল বরাদ্দ দেয়। রো রো ফেরি শাহ পরাণের বাংলাবাজার থেকে শিমুলিয়া আসার জন্য সময় নির্ধারণ করা ৫৫ মিনিটি এবং তেল বরাদ্দ ১০৮ লিটার। শিমুলিয়া থেকে বাংলা বাজার যাওয়া জন্য ১ ঘণ্টা ৪৫ মিনিটে ২২১ লিটার বরাদ্দ রয়েছে।ফেরি কোন কোন সময় একটু বেশি লাগে আবার কখনও সময় একটু কম লাগে। কম লাগলে তেল কম খরচ হয়।


তবে হিসাবের মধ্যেই থাকে। এগুলো রেজিস্টার মেনটেন করা হয়।দূরত্ব, গতিবেগ ও স্রোত বিবেচনায় বিপুল পরিমাণ তেল বরাদ্দ দেয়া হলেও সেই অনুযায়ী ফেরি ও জাহাজ চালানো হয় না। এভাবে বরাদ্দের তেল বাঁচিয়ে তা গোপনে বিক্রি করে দেন সংশ্লিষ্টরা। তেল চুরির টাকা সংস্থাটির ফেরীচালক,মাষ্টার সুকানী,লস্কর সহ বিভিন্ন পর্যায়ের কয়েক কর্মকর্তার পকেটে যায়।


প্রতি মাসে এই ফেরি রুটে সংস্থাটির কোটি কোটি টাকা আয় ব্যয় রয়েছে। বিআইডব্লিউটিসির সহ-মহাব্যবস্থাপক(বাণিজ্য) মোঃ শফিকুল ইসলাম  জানান, গত ২০২১ সালের মে মাসে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটে ফেরিগুলো ৪ হাজার ৫৭০টি ট্রিপ দিয়ে আয় করেছে প্রায় ১০ কোটি টাকা। আর তেল খরচ হয়েছে ২ কেটি ৬৮ লাখ ৫০ হাজার টাকার। গত জুন মাসে ৬ হাজার ৪৫২টি ট্রাক, ২৫ হাজার ৩৬৯টি বাস এবং ৭৪ হাজার ৯৫টি ছোট যান পারাপার করেছে। ফেরিগুলো ট্রিপ দিয়েছে ৪ হাজার ৬১৬টি। এতে আয় হয়েছে ১১ কোটি ২০ লাখ ৯৫ হাজার ২৮৯ টাকা। তবে এই মাসের তেল খরচ তাৎক্ষণিক তিনি জানাতে পারেননি।


তেলে হিসাব অডিট হয়ে তার কাছে কিছুটা বিলম্ব হয় বলে তিনি জানান।তবে তেলের দায়িত্বে থাকা বিআইডব্লিউটিসির নির্বাহী প্রকৌশলী তথ্য না দিয়ে নানা কৌশলে এড়িয়ে যান। তেল চুরি সিন্ডিকেটের সঙ্গে তাঁর সম্পৃক্ততার আঙ্গুল তুলছেন অনেকে। তবে  নির্বাহী প্রকৌশলী অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।অন্যদিকে ফেরির ফগ লাইট কেনায় অনিয়মের অভিযোগে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) পরিচালক ও জিএমসহ ৭ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।বুধবার (৫ জানুয়ারি) দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ মামলাটি দায়ের করা হয়।


ঘন কুয়াশায় ফেরি চলাচল স্বাভাবিক রাখতে ১০ কিলোমিটার দেখা যায় এমন উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ফগ অ্যান্ড সার্চ লাইট ক্রয়ে ৫ কোটি ৬৫ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে  মামলা করেন দুদকের সহকারী পরিচালক মো. সাইদুজ্জামান। দুদকের উপ-পরিচালক (জনসংযোগ) মুহাম্মদ আরিফ সাদেক মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।মামলার আসামিরা হলেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) সাবেক চেয়ারম্যান ও পরিচালক (কারিগরি ) ড . জ্ঞান রঞ্জন শীল, মহাব্যবস্থাপক বা জিএম ক্যাপ্টেন শওকত সরদারমো. নুরুল হুদা, নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের ডেপুটি সেক্রেটারি পঙ্কজ কুমার পাল, বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের (বিএসএফআইসি) সাবেক মহাব্যবস্থাপক ( মেকানিক্যাল ) ইঞ্জিনিয়ার মো. রহমত উল্লা, বাংলাদেশ জুট মিলস করপোরেশনের (বিজেএমসি) মেকানিক্যাল বিভাগের ম্যানেজার ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন এবং মেসার্স জনী করপোরেশনের মালিক ওমর আলী।



আরও খবর



ধনবাড়ীতে সরিষার সুফলে লাভ জনক কৃষক ছানোয়ার হোসেন তোতা

প্রকাশিত:Tuesday ২৫ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
Image


আবুল হোসেন আকাশ (টাঙ্গাইল,ধনবাড়ী)

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলার ধোপাখালী ইউনিয়নের কৃষক ছানোয়ার হোসেন তোতা উপজেলার কৃষি অফিস থেকে একটি প্রকল্প  দিয়েছে  কৃষিক পর যায় উন্নত জাতের একটি ডাল তৈল ও মশলা  প্রকল্পটির  মাধ্যমে  তিন একর জমিতে সরিষা চাষ করেন ।  


কৃষক ছানোয়ার হোসেন তোতা জানান প্রথম আমাকে  উপজেলা-কৃষি-অফিস থেকে এক একর জমি চাষ করার জন্য  সার বীজ এবং কিছু অর্থ দিয়ে আমাকে সহযোগিতা করে  এতে আমি অনেক লাভ বান হই। আর ৫০০ কেজি সরিষা বীজ  উৎপাদন করি  ।


আবারো আমি  দুই একর জমিতে সরিষা চাষ করি এতে আমার ১ এক হাজার কেজি  বীজ উৎপাদন করি  পরে লোক জনে জানজানি হয় যে আমি সরিষা  বারি সত্তেরো  বারি চৌদ্দো ,আমার এই সরিষা বীজ বিভিন্ন এলাকার মানুষ   নিয়ে সরিষা চাষ করে  অনেকেই  আজ লাভ বান হয়   । এবার আমি তিন একর জমিতে সরিষা চাষ করেছি। এতে আমার  প্রতি এক একর জমিতে ৫০০ কেজি সরিষা উৎপাদন হবে বলেস।


কৃষক তোতা তিন এবার ৩ একর জমিতে ১৫০০ শ কেজি থেকে ১৮০০শ কেজি সরিষা উৎপাদন হবে বলে আশা করেন কৃষক ছানোয়ার হোসেন তোতা । তিনি বলেন, সরিষা আবাদে খরচ কম ফলে অল্প খরচেই ও কম পরিশ্রমেই সরিষা আবাদ করা যায়।  । আমার নিজের জন্য কিছু বীজ রেখে আর সব বীজ আমি বিক্রয় করবো ।


আমি অনেক লাভমান হবো ,আমি উপজেলা  কৃষি সম্পসারণ অধিদপ্তর এর সহযোগিতা না পেলে  আমি এতো লাভ ভান হতে পারতাম না  । মাননীয় কৃষি মন্ত্রীর ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি মহদোয় কৃষকদের প্রতি বিশেষ  অবদান রেখেছেন। ,


বর্তমানেমাননীয় প্রধান মন্রীর শেখ হাসিনার  নেতিত্বে আমরা কৃষিক যারা সার বীজ নগত  অর্থ সহ  অনেক সুযোগ সুবিধা পাচ্ছি  ।


আরও খবর



মানিকগঞ্জে সরকারি নির্দেশ অমান্য করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা।

প্রকাশিত:Tuesday ২৫ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
Image

প্রধান শিক্ষক আব্দুল রহিম

বজলুর রহমান

করোনা ভাইরাসের কারণে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। কিন্তু সরকারি নির্দেশ অমান্য করে এবং সাস্থ ঝুঁকি নিয়ে ক্লাস নিচ্ছেন মানিকগঞ্জ জেলার হরিরামপুর থানার মানিক নগর বাজারের পদ্মা আইডিয়াল কিন্ডার গার্ডেনের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহিম। তিনি প্রতিষ্ঠান খোলা রেখে নিয়মিত ক্লাস পরিচালনা করে আসছেন। মঙ্গলবার সকালে এই দৃশ্য এলাকার অভিভাবকদের মাঝে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।


পরে সাংবাদিকদের উপস্থিতি টের পেয়ে দ্রুত শিক্ষার্থীদের ছুটি দিয়ে দেন প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহিম। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা জানায় জোর করে তাদের ক্লাসে আসতে বাধ্য করছেন প্রধান শিক্ষক। তারা আরো জানায় স্কুলে অনুপস্থিত থাকলে তাদের স্কুল থেকে বের করে দেওয়া হবে। এই হুমকির মুখে তারা স্কুলে আসতে বাধ্য হচ্ছে।


স্কুলে গিয়ে দেখা যায় সকল শিক্ষক উপস্থিত। প্রধান শিক্ষক কাজে ব্যস্ত। প্রতিষ্ঠানের সামনে জাতীয় পতাকা উড়ছে। কয়েকজন শিক্ষক জানায় তারা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন কিন্তু প্রধান শিক্ষক কিছুতেই মানেন না সরকারি নির্দেশনা। প্রধান শিক্ষক বলেন সরকারি নিয়ম মানলে প্রতিষ্ঠান চালানো যাবেনা।


কয়েকজন সাংবাদিক প্রধান শিক্ষক আবদুর রহিমকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করলে তিনি জানান আপনারা এত খারাপ কেন। আমার প্রতিষ্ঠান খোলা রাখি আর বন্ধ রাখি সেটা আমার ব্যাপার। সরকারের সব সিদ্ধান্ত মেনে আমার প্রতিষ্ঠান চালাতে পারবো না।


এই বিষয়ে মানিকগঞ্জ হরিরামপুর সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মাহফুজা আক্তার বলেন বিষয়টি আমি শিক্ষা অফিসার কে জানাচ্ছি এবং বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নিতে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে।


আরও খবর