Logo
আজঃ শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪
শিরোনাম
কক্সবাজারে পাহাড় ধসে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠান চালুর পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে: শিল্পমন্ত্রী বাংলাদেশের হার দিয়ে সুপার এইট শুরু গোদাগাড়ীতে রাসেল ভাইপারের চিকিৎসার দাবিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়েছে নাগরিক স্বার্থ-সংরক্ষণ কমিটি রূপগঞ্জে জমে উঠেছে কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচন যাত্রাবাড়ীতে পুলিশ কর্মকর্তার বাবা মাকে কুপিয়ে হত্যা যানজট নিরসনে সংসদ সদস্যগণের সাথে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের সমন্বয়সভা ভোলায় ফের দেখা মিলল রাসেল ভাইপার, জনমনে আতঙ্ক বাজেট পাস হয়নি,অনেক কিছু পুনর্বিবেচনা করা সম্ভব: অর্থমন্ত্রী দেশের সব মহৎ অর্জন আ. লীগের মাধ্যমেই হয়েছে: ওবায়দুল কাদের

বাগেরহাটে হরিণের মাংসসহ দুই যুবক আটক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১৪২জন দেখেছেন

Image

বাগেরহাট প্রতিনিধি:বাগেরহাটের রামপালে হরিণের মাংসসহ শওকত সরদার (৩৭ও শেখ হেকমত আলী (৩৯নামের দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) ভোরে রামপাল উপজেলার বাঁশতলী ইউনিয়নের গিলাতলা বাজার সংলগ্ন ব্যাংকের মোড় থেকে এদের আটক করা হয়। এসময় আটককৃতদের কাছ থেকে সাড়ে ৬ কেজি হরিণের মাংস ও তাদের ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেল জব্দ করে পুলিশ।


আটককৃতরা হলেন, মোংলা উপজেলার সোনাইলতলা গ্রামের হাসান সরদারের ছেলে শওকত সরদার  এবং রামপাল উপজেলার ব্রী চাকশ্রী এলাকার শেখ আশরাফ আলীর ছেলে শেখ হেকমত আলী। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের পূর্বক আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম আশরাফুল আলম।


তিনি বলেন, সুন্দরবন থেকে শিকার করা হরিণের মাংস বিক্রির জন্য অপেক্ষা করছিল এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে দুইজনকে আটক করা হয়। তাদের কাছ থেকে সাড়ে ৬ কেজি মাংস জব্দ করা হয়েছে। মামলা দায়ের পূর্বক আটককৃতদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। আদালতের নির্দেশে মাংস ধ্বংস করা হয়েছে।


আরও খবর



বোদা থানার পুলিশের হাতে ধরা পড়ল জিনের বাদশা

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৮৭জন দেখেছেন

Image

কুয়েল ইসলাম সিহাত,বোদা (পঞ্চগড়) প্রতিনিধিঃপঞ্চগড়ে মুঠোফোনে জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে মিলন ইসলাম (৫০) নামে জিনের বাদশা চক্রের এক সদস্যকে বুধবার (৫ জুন) আইনি প্রক্রিয়া শেষে বিকেলে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। এর আগে গত মঙ্গলবার দিনগত গভীর রাতে উপজেলার কাজলদিঘী কালিয়াগঞ্জ ইউনিয়নের উৎকুড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। মো. মিলন ইসলাম ওই এলাকার মৃত আব্দুল আজিজের ছেলে। ধৃত মিলন ইসলাম ও তার একটি প্রতারকচক্রের দল সহ দীর্ঘদিন যাবৎ মানুষকে সিঙ্গাপুর, ইউএসএ এর ডলারসহ অন্যান্য দেশের মূদ্রা, হুনুমানের পয়সা, নকল স্বর্ণের পুতুল, নকল কষ্টি পাথরের মূর্তি, তক্ষক সহ প্রভৃতি জিনিস দেখিয়ে মানুষের নিকট হতে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে আসতেছিল।

বোদা থানা সূত্রে জানা যায়, ২০২৪ সালের অনুষ্ঠিত ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ২য় ধাপে মহসিন আলী রুবেল নামে নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে হেলিকপ্টার প্রতীক নিয়ে উপজেলা নির্বাচনী প্রচারনা শুরু করেন। ধৃত আসামী মিলন ইসলাম গত ২৩ মে চেয়ারম্যান প্রার্থীর গাড়ী ড্রাইভার বুলু ইসলামকে হিপনোটাইজ করেন এবং ২১ মে ২০২৪ইং তারিখের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বাদী মহসিন আলী রুবেলের পক্ষে ভোট কেন্দ্রে কথিত জিনের বাদশা পাঠিয়ে বাদীকে বিজয়ী করবে মর্মে প্রলোভন দেখিয়ে বিশ্বাস স্থাপন করে ১৫ লাখ হাতিয়ে নেন। পরবর্তীতে নির্বাচনের দিন ভোট গণনা শেষে বাদী চেয়ারম্যান প্রার্থী ৬ষ্ঠ স্থানের অধিকার করায় প্রতারক চক্রের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টায় ব্যার্থ হলে গত ২২ শে মে সন্ধ্যা অনুমান সাড়ে ৭টায় বাদী ব্যক্তিগত ড্রাইভার বুলু ইসলামসহ বাদীর পরিচিত লোকজনদের নিয়ে ধৃত আসামী মিলন ইসলাম এর বাড়ীতে যান এবং বাদী মহসিন আলী রুবেল নির্বাচনে বিজয়ী না হওয়ায় প্রতারক চক্রের নিকট প্রদানকৃত ১৫ লাখ টাকা ফেরত চাইলে তারা বাদীকে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করে। পরবর্তীতে বাদী মহসিন আলী রুবেল থানায় উপস্থিত হয়ে বোদা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

এর প্রেক্ষিতে পঞ্চগড় জেলার সম্মানিত পুলিশ সুপার জনাব এস এম সিরাজুল হুদা পিপিএম-বার, সহকারী পুলিশ সুপার (বি-সার্কেল) জনাব রুনা লায়লা মহোদয়গনের দিক-নির্দেশনায় বোদা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মোজাম্মেল হক পিপিএম এর নেতৃত্বে বোদা থানার এসআই মো. আব্দুস ছালাম ও সঙ্গীয় ফোর্সের সমন্বয়ে গঠিত আভিযানিক দল তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার ও পুলিশি অভিযান পরিচালনা করে গত মঙ্গলবার ৪ জুন সকাল ৯’৩৫ ঘটিকার বোদা থানাধীন কাজলদিঘী কালিয়াগঞ্জ বাজার এলাকা হতে কুখ্যাত জিনের বাদশা মো. মিলন ইসলামকে আটক করে। বোদা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাম্মেল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে সময় সংবাদকে বলেন, অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অভিযান পরিচালনা করে তাকে গ্রেফতার করা হয়। মিলনকে বুধবার (৫ জুন) বিকেলে আদালতে তোলার পরে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। কিন্তু শুনানি না হওয়ায় এখনো রিমান্ডের বিষয়ে আদালতে কোনো নির্দেশনা আসেনি। তবে এ চক্রের অন্য সদস্যদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছে তিনি।


আরও খবর



এমপি আনার হত্যার ঘটনায় ৩ বাংলাদেশি আটক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | ১৭০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:চিকিৎসা করাতে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে গিয়ে নিহত ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীমকে হত্যার ঘটনায় তিন বাংলাদেশিকে আটক করা হয়েছে,বলেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

বুধবার (২২ মে) ধানমন্ডির নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন তিনি। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন পুলিশ ও ডিবি প্রধান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ভারতীয় পুলিশ আমাদের নিশ্চিত করেছে এমপি আনার খুন হয়েছেন। তবে তদন্ত শেষে সবকিছু জানাবে বলে জানিয়েছে। এমপি আনারের হত্যার ঘটনায় বাংলাদেশ থেকে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। তারা তিনজনই বাংলাদেশি। খুনের মোটিভ এখনো জানা যায়নি। তদন্তের স্বার্থে এখন বিস্তারিত কিছু বলতে পারছেন না ভারতীয় পুলিশ।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশে চিকিৎসার জন্য গিয়ে নিখোঁজের ছয়দিন পর কলকাতার একটি এলাকা থেকে ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীমের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের কর্মকর্তারা কলকাতার নিউ টাউনের সঞ্জিভা গার্ডেন্সের একটি ফ্ল্যাট থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

সীমান্ত এলাকা ঝিনাইদহ-৪ আসনের টানা তিনবারের সংসদ সদস্য (এমপি) ও কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন আনোয়ারুল আজীম আনার।


আরও খবর



বেনাপোলে কাস্টমস কর্মকর্তার উপর হামলা, রক্তাক্ত জখম

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | ৫৯জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:বেনাপোলে কাস্টমস ইন্সপেক্টরের উপর সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা রাফিউল ইসলাম নামে একজন কাস্টমস কর্মতাকর্তাকে কুপিয়ে জখম করেছে। শুক্রবার রাত সোয়া ৮টার দিকে স্থানীয় পেচোর বাওড়ে এই ঘটনাটি ঘটেছে। তিনি যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

রাফিউল ইসলামের বন্ধু সোহরাব হোসেন জানান, প্রচন্ড গরমে তারা দুজন পেচোর বাওড়ে ঘুরতে যান। হঠাৎ করেই একদল সন্ত্রাসী এসে পেছেন থেকে তাদের উপর হামলা চালায়। এসময় তারা জানতে চান কেনো তাদের উপর হামলা করা হচ্ছে। জবাবে সন্ত্রাসীরা বলেন, 'এই ব্যাটার জন্যে অনেক ক্ষতি হয়েছে।' এই বলে সন্ত্রাসীরা একের পর এক ছুরি দিয়ে তার আঘাত করতে থাকে। এ সময় তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

পরে সন্ত্রাসীরা দ্রুত এলাকা ত্যাগ করলে বন্ধু সোহরাব স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহত কাস্টমস কর্মকর্তাকে শোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান।গুরুতর আহত রাফিউল ইসলাম জানিয়েছেন, তার কারও সাথে ওই এলাকায় কোনো শত্রুতা নেই। তবে, পেশাগত কারণে কেউ তার উপর ক্ষুব্ধ থাকতে পারে। হামলাকারীদের কাউকে তিনি চিনতে পারেননি।

খবর পেয়ে যশোর জেনারেল হাসপাতালে যান বেনাপোল কাস্টমসের যুগ্ম কমিশনার শাফায়েত হোসেন। তিনি জানান, আহত রাফিউল ইসলাম অত্যন্ত সৎ মানুষ হিসেবে পরিচিত। পেশাগত কারণে হয়তো তিনি কোনো অসৎ ব্যবসায়ীর রোষানলে পড়তে পারেন।তাছাড়া, তার কোনো শত্রু ছিলো বলে তাদের জানা নেই।তিনি আরো বলেন, ঘটনাটি থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। কাস্টমসের পক্ষ থেকেও ঘটনার অভ্যন্তরীণ তদন্ত করা হতে পারে বলেও তিনি জানান।


আরও খবর



এক হাটের গরু অন্য হাটে নেওয়া যাবে না : ডিএমপি কমিশনার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১৩২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ঢাকায় এক হাটের গরু অন্য হাটে নেওয়া যাবে না। কেউ যদি অন্য হাটে গরু নামিয়ে নেয় তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনে ছিনতাই মামলা দেওয়া হবে, বলেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার হাবিবুর রহমান।

মঙ্গলবার (৪ জুন) দুপুরে ডিএমপি সদরদপ্তরের হাট ইজারাদাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে এ কথা বলেন তিনি।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, গরু কোন হাটে যাবে সেটা ব্যবসায়ীরা আগে থেকেই ট্রাকের সামনে ব্যানারে লিখে রাখবেন। প্রয়োজনে ব্যানারে হাটের ইজারাদারের মোবাইল নাম্বার লিখে রাখবেন। এমন কোনো ঘটনা ঘটলে পুলিশ কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

তিনি বলেন, যেখানে গরুর হাট নয় সেখানে যেন হাট না বসে সেটা ব্যবসায়ী এবং সংশ্লিষ্ট পুলিশরা দেখবেন। নদীপথে নৌকা বা ট্রলারে গরু আসলে সেগুলো নৌ পুলিশ দেখভাল করবে। এক্ষেত্রে ডিএমপি নৌ পুলিশ কাজ করবে।

হাবিবুর রহমান বলেন, ম্যাজিস্ট্রেট, স্থানীয় পুলিশ ও হাটের ইজারাদারগণ সমন্বয় করে কাজ করবেন। হাট পরিচালনা কমিটি হাটে স্থানীয় পুলিশের নাম্বার প্রদর্শন করে ব্যানার টানাবেন। প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট সকলকে নিয়ে একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ খুলবেন।

তিনি আরও বলেন, রাস্তায় যাতে যান চলাচলে অসুবিধা না হয় এজন্য ইজারাদারগণ ব্যারিকেড দিয়ে হাটের সীমানা নির্ধারণ করে দিবেন। জাল নোট সনাক্তকরণে পুলিশ সহায়তা করবে। অজ্ঞান পার্টি মলম পার্টি প্রতিরোধে পর্যাপ্ত পুলিশ থাকবে। ইজারাদারগণ মাইকিং করে সবাইকে সচেতন করবেন।

এ সভায় আসন্ন পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে কোরবানির পশুর হাট সমূহের নিরাপত্তা, মানি এস্কর্ট ও জালনোট সনাক্তকরণ, সার্বিক আইনশৃঙ্খলা রক্ষা এবং ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।


আরও খবর



মেহেরপুর সরকারী মহিলা কলেজে শিক্ষার্থীদের মনোসামাজিক সহায়তা কেন্দ্রের উদ্বোধন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৭৪জন দেখেছেন

Image

মেহেরপুর প্রতিনিধি:মেহেরপুর সরকারী মহিলা কলেজে শিক্ষার্থীদের মনোসামাজিক সহায়তা কেন্দ্রের উদ্বোধন করা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের মধ্যে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতনতা তৈরী, মনোসামাজিক সমস্যা চিন্হিতকরণ ও সহায়তা প্রদান।  শিক্ষার্থীরা তাদের বিভিন্ন শারীরিক ও মানসিক বিষয়ে যে সমস্ত কথা অকপটে বাবা মা বা  অন্য কারো কাছে সহজে বলতে পারেনা সে সমস্ত বিষয়ে প্রতিষ্ঠানের একজন শিক্ষককে যাতে বলতে পারে এবং সে বিষয়ে সহায়তা পেতে পারে সে লক্ষ্য কে সামনে রেখে সরকারী মহিলা কলেজে এ সহায়তা কেন্দ্রে উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার সকালে কলেজে  এ সহায়তা কেন্দ্র উদ্বোধন করেন প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যাক্ষ কাজি আশরাফুল আলম। এ সময় সেখানে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য যে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে এবং ব্রাকের সার্বিক সহযোগিতায় প্রতিষ্ঠানের ইংরেজী বিভাগের প্রভাষক  রেকসোনা  আক্তার মে  মাসের ০২,  তারিখ থেকে ৩০ তারিখ পর্যন্ত অনলাইন এবং অফলাইনে ট্রেনিং প্রাপ্ত হন।  জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষ উদ্যোগে প্রথম পর্যায়ে ১০০ জন শিক্ষক ট্রেনিং প্রাপ্ত হন পরবর্তীতে আরও ৪০০ জন শিক্ষক কে ট্রেনিং করানো হবে। মেহেরপুর জেলায় প্রথম একজন শিক্ষক এ বিষয়ে ট্রেনিং করেছেন। মেহেরপুর সরকারী মহিলা কলেজ যখন শিক্ষা, সংস্কৃতিসহ সকল দিক  দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে তখন এ ধরনের একটি নুতন বিষয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্দেশনায় ও পরামর্শে মেহেরপুর মহিলা কলেজে একটি সেল খোলা অবশ্যই প্রশংসার দাবীদার। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় মহিলা কলেজের একজন  শিক্ষককে  প্রশিক্ষণ  দেয়ায় মেয়েদের জন্য অবশ্যই  এটা বাড়তি প্রাপ্তি । শিক্ষার্থীদের মধ্যে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতনতা তৈরীতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তরভুক্ত কলেজ গুলোতে একটি সাপোর্ট সিস্টেম তৈরী করা। কলেজের একজন শিক্ষককে ট্রেনিং 

এর  মাধ্যমে  তিনি মেয়েদের সাপোর্ট সিস্টেম সহায়তাকারী আপা হিসেবে কলেজে মেয়েদের বিভিন্ন মানসিক ও শারীরিক স্বাস্থ্য বিষয়ে যে কোন সমস্যা চিন্হিত করে তার যথাযথ প্রক্রিয়ায় তার সমাধান করা যদি সেটা সম্ভব না হয়ে তবে সঠিক পদ্ধতিতে রেফার করার ব্যবস্থা করা। এর আগে সহায়তাকারী আপা এবং প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের  মধ্যে এব  বিষয়ে প্রচারণা ও সচেতন করা হয়।   মেহেরপুর জেলার সর্ববৃহৎ নারী  শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মেহেরপুর সরকারী মহিলা কলেজ। এ প্রতিষ্ঠান  থেকে দেশের বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ, বুয়েটসহ অসংখ্যা ছাত্রী দেশের বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করছে। দীর্ঘদিন শিক্ষক সংকট থাকলেও কলেজ অধ্যক্ষ কাজী আশরাফুল আলমের ঐকান্তিক চেষ্টায় ও জনপ্রশাসন মন্রী ও মেহেরপুর ১ আসনের সংসদ সদস্য ফরহাদ হোসেনের সার্বিক সহযোগিতায়  গতমাসে  ১৩ জন্  শিক্ষক পদায়ন হওয়ায় কলেজটি এখন সকল দিক দিয়ে শিক্ষার্থীদের মনের মতো সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রুপান্তর হয়েছে। কলেজটির ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ কাজি আশরাফুল আলম দায়িত্ব নিয়েই কলেজের বিভিন্ন সমস্যা চিন্তিত করে তা সমাধানের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।  কলেজ অধ্যাক্ষ আশা করছেন সকলের সহযোগিতায় কলেজটি মেহেরপুর  জেলা তথা খুলনা বিভাগের মধ্যে সেরা    নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে উঠবে। 

আরও খবর