Logo
আজঃ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪
শিরোনাম

আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে সৌদির ইতিহাস

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ৩৫৭জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক ;কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সৌদি আরবের বিপক্ষে ২-১ গোলে হারল আর্জেন্টিনা। আর ম্যাচ জিতে ইতিহাস গড়ল সৌদি। নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো আলবিসেলেস্তাদের হারাল দেশটি।


আরও খবর

সোনার খনি ধসে ভেনেজুয়েলায় নিহত ২৩

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




কালিয়াকৈরে ইটভাটায় অভিযান, জরিমানায় ক্ষুব্দ মালিকরা

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৭৩জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে একই এলাকায় রোববার দুপুরে পাশাপাশি তিনটি অবৈধ ইটভাটায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে উপজেলা প্রশাসন। কিন্তু আংশিক সাইট ওয়াল ভাঙ্গলেও চিমনী না ভাঙ্গায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা। অপর দিকে একই অপরাধে বৈষম্যের জরিমানায় ক্ষুব্দ ইটভাটার মালিকরা। এলাকাবাসী, ইটভাটা কর্তৃপক্ষ ও ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছর কালিয়াকৈর উপজেলায় ৪৩টি ইটভাটার মধ্যে চালু আছে ২৭টি। এসব ইটভাটা তিন ফসলি জমি, নদীর তীরসহ লোকালয়ে অবস্থিত। এর মধ্যে উপজেলার দরবাড়িয়া এলাকায় রোববার দুপুরে পাশাপাশি তিনটি অবৈধ ইটভাটায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে উপজেলা প্রশাসন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী মাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকীর নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) অনিন্দ্য গুহ, কালিয়াকৈর থানার এসআই আফজাল হোসেনসহ উপজেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারী, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা। অভিযান চালিয়ে ওই তিন অবৈধ ইটভাটার সাইট ওয়ালের আংশিক ভেঙ্গে ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। কিন্তু চিমনী না ভাঙ্গার কারণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী। তারা বলছেন, কয়েক দিন পরই বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে এসব ইটভাটা আবার চালু হবে। ওই অবৈধ ইটভাটার মধ্যে জে.আর.বি ইটভাটাকে ৪ লক্ষ টাকা, এস.বি স্টারকে ৪ লক্ষ টাকা এবং ন্যাশনাল ব্রিকসকে ২ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ইটভাটার মালিকদের অভিযোগ, পাশাপাশি ইটভাটা, অপরাধও একই ধরণের। অথচ অদৃশ্য কারণে এক ইটভাটাকে ২ লক্ষ টাকা কম জরিমানা করা হয়। একই অপরাধে বৈষম্যের জরিমানায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন ভুক্তভোগী অপর দুই ইটভাটার মালিক।

এস.বি স্টার ইটভাটার মালিক নাছির উদ্দিন বলেন, একই অপরাধে আমাকে ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা করলেও অদৃশ্য কারণে পাশের ইটভাটা ন্যাশনাল ব্রিকসকে ২ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়।এটাকে কি সঠিক বিচার বলে?

অপর জে.আর.বি ইটভাটার মালিক সৈয়দ সোহেল রানা বলেন, আমার ইটভাটার ৪টি দেয়াল ভাঙ্গা হলেও একই অপরাধে ন্যাশনাল ব্রিকসের ২টি ছোট দেয়াল ভাঙ্গা হয়। অজ্ঞাত কারণে ওই ভাটাকে জরিমানাও করা হয়েছে। এটা কেমন বিচার? কম জরিমানা করার বিষয়ে জানতে চাইলে ন্যাশনাল ব্রিকসের মালিক নুরুল ইসলাম জানান, আমাকে প্রশাসন ডেকে ছিল। আমি মেয়াদ উত্তীর্ণের কাগজপত্র দেখানোর কারণে আমাকে কম জরিমানা করেছেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী মাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকী জানান, কাগজপত্র না থাকার কারণে তিনটি ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযান চালিয়ে ওই তিনটি ইটভাটা বন্ধ করে দিয়েছি। এছাড়া তিনটি ইটভাটাকে ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

চিমনী কেন ভাঙ্গা হয়নি জানতে চাইলে তিনি বলেন, চিমনীটা ভেঙ্গে দিতে পারলাম না, সেটা বিষয় না। যেটা ভেঙ্গে দিয়েছি, সেটা ছাড়া ইটভাটা চালাতে পারবে না। এই চিমনী ভাঙ্গতে গেলে সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। পরবর্তীতে এসব ইটভাটা পরিচালনা করলে আমরা আরো কঠোর আইগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। তবে আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর



মেহেরপুর প্রেস ক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন সভাপতি মন্টু, মানিক সাধারণ সম্পাদক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১১১জন দেখেছেন

Image

মজনুর রহমান আকাশ,মেহেরপুর প্রতিনিধি:ঐতিহ্যবাহী মেহেরপুর প্রেস ক্লাবের দ্বিবার্ষিক নির্বাচন আজ সোমবার অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতি পদে এসএ টিভি প্রতিনিধি ফজলুল হক মন্টু এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন আরটিভি প্রতিনিধি মাজেদুল হক মানিক । মেহেরপুর প্রেস ক্লাবের আহবায়ক মহসিন আলী আঙ্গুর, প্রেস ক্লাবের নির্বাচন কমিশনার নুরুল ইসলাম, নির্বাচন কমিশনার ডক্টর আলিবদ্দীন ও সাজাদুজ্জামান নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব পালন করেন। ভোট গ্রহণ শেষে ফলাফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

প্রেস ক্লাব দ্বি-বার্ষিকী নির্বাচনে ১৩ টি পদের মধ্যে সহ সভাপতির দুটি পদ ছাড়া বাকি পদগুলোতে একক প্রার্থী ছিলেন। সহ সভাপতি পদে মহসিন আলী (মাথাভাঙ্গা), ফারুক মল্লিক (ইনকিলাব) ও মেহের আমজাদ (বাংলাদেশ বার্তা) প্রতিদ্বন্দীতা করেন। ভোটের মাধ্যমে মহসিন আলী ও ফারুক মল্লিক বিজয়ী হন।

নির্বাহী পরিষদের নির্বাচিত অন্যান্য সদস্যরা হচ্ছেন- যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেন ইয়ামিন মুক্ত (সময় টিভি) ও জিএফ মামুন লাকি (আকাশ খবর), অর্থ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম (বাংলাদেশের খবর), সাংগঠনিক সম্পাদক রাশেদুজ্জামান (চ্যানেল ২৪), দপ্তর সম্পাদক আবু সাঈদ (প্রথম আলো), নির্বাহী সদস্য উম্মে ফাতেমা রোজিনা (এটিএন নিউজ ও এটিএন বাংলা), নুহু বাঙ্গালী(দেশের কণ্ঠ), আসিফ ইকবাল (একাত্তর টিভি) ও মামুন বঙ্গবাসি (মুক্তখবর) ।গাংনী ও মুজিবনগর প্রেস ক্লাব নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ নির্বাচিতদেরকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।


আরও খবর



ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ চিকিৎসার অভাবে ভ্যান চালকের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৮জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ চিকিৎসার অভাবে ভ্যান চালকের মৃত্যু। ফুলবাড়ী উপজেলা শিবনগর ইউপির ঘাটপাড়া গ্রামের মৃত্যু মোস্তাব এর পুত্র মোঃ দুলাল (৩৫) বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৬টায় অসুস্থ অবস্থায় ফুলবাড়ী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হয়। ভর্তি হওয়ার পর সে চিকিৎসার জন্য ছটপট করে। এ সময় কর্তব্যরত নার্স সাবিনা ইয়াসমিন কে অক্সিজেন দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন দুলাল।

কিন্তু কর্তব্যরত নার্স তার কোন কথা কর্ণপাত না করে চলে যান। সকাল সাড়ে ১০টায় দুলাল চিকিৎসার অভাবে হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। কর্তব্যরত দায়িত্বে ছিলেন, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: আলমগীর, নার্স সাবিনা ইয়ামিন, মোছা: সুরাইয়া বেগম ও মিনারা বেগম। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এলাকাবাসী বিনা চিকিৎসায় দুলাল এর মৃত্যু হওয়ায় ন্যায় বিচারের দাবী জানান।

ঐ ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শী ও রোগীরা জানান, সে অক্সিজেন ও চিকিৎসা পাওয়ার জন্য কর্তব্যরত নার্সদেরকে বার বার অনুরোধ করছিলেন কিন্তু তার কোন কথা কেউ কর্ণপাত করেন নি।

এদিকে ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ অপ্রিতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে এ জন্য ফুলবাড়ী পৌর সভার মেয়র আলহাজ্ব মাহমুদ আলম লিটন স্থানীয় জনগণকে শান্ত হওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। তিনি জানান, এই ঘটনার সাথে যারা জড়িত কমিটি করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যারা অপরাধী তারা অবশ্যই শাস্তি পাবে।

অপর দিকে ফুলবাড়ী পৌর সভার প্যানেল মেয়র মামুনুর রশিদ চৌধুরী মানুন জানান,ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নার্স এর দায়িত্বে যারা রয়েছেন তারা রোগীদের প্রতি কোন গুরুত্ব দেন না। গুরুত্ব না দেওয়ার কারণে এবং প্রশাসনের গুরুত্ব না থাকায় এই ধরনের ঘটনা দুঃখ জনক। যারা অপরাধী তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা নিতে হবে।

ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডা: মশিউর রহমান জানান, যে ঘটনা ঘটেছে তা অত্যন্ত দুঃখ জনক। তদন্ত কমিটি গঠন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আইন শৃঙ্খরা রক্ষার্থে ফুলবাড়ী থানা পুলিশ ঘটনা শোনার সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। বিচারের অসস্থ হওয়ায় দুলাল এর আত্মীয় স্বজনেরা লাশ নিজ বাড়ীতে নিয়ে যায়। এ রিপোট লেখা পর্যন্ত ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ থমথমে অবস্থা বিরাজ করছিল।


আরও খবর



জামিন পেলেন ড. ইউনূস

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ ৪ আসামির শ্রম আইন লঙ্ঘনের মামলায় জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত। আপিল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তাদের জামিন দিয়েছেন শ্রম আপিলেট ট্রাইব্যুনাল।

রোববার (২৮ জানুয়ারি) সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে শ্রম আপিল ট্রাইব্যুনালে হাজির হয়ে আপিল করেন ড. ইউনূস। সেই সঙ্গে শ্রম আইন লঙ্ঘন মামলার রায়ে ৬ মাসের সাজার বিরুদ্ধে ২৫টি যুক্তি দেখিয়ে খালাস চেয়ে আপিলও করেছিলেন তিনি। তার আইনজীবী আবদুল্লাহ আল-মামুন গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

এর আগে ১ জানুয়ারি ড. ইউনূসসহ চারজনকে ছয় মাস করে কারাদণ্ড দেন ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেককে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

সাজাপ্রাপ্ত অপর তিনজন হলেন গ্রামীণ টেলিকমের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আশরাফুল হাসান, পরিচালক নুর জাহান বেগম ও মো. শাহজাহান।

রায় ঘোষণার পর উচ্চ আদালতে আপিল করার শর্তে ড. ইউনূসসহ চারজনকে এক মাসের অন্তর্র্বতীকালীন জামিন দিয়েছিলেন ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালত।

২০২১ সালের ১ সেপ্টেম্বর ড. ইউনূসসহ চারজনের বিরুদ্ধে শ্রম ট্রাইব্যুনালে মামলাটি করা হয়। গত বছরের ৬ জুন মামলায় অভিযোগ গঠন করা হয়। গত বছরের ২২ আগস্ট সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হয়, যা শেষ হয় ৯ নভেম্বর। গত ২৪ ডিসেম্বর যুক্তিতর্ক শুনানি শেষ হয়।

মামলায় অভিযোগ আনা হয়, শ্রম আইন ২০০৬ ও শ্রম বিধিমালা ২০১৫ অনুযায়ী, গ্রামীণ টেলিকমের শ্রমিক বা কর্মচারীদের শিক্ষানবিশকাল পার হলেও তাঁদের নিয়োগ স্থায়ী করা হয়নি। প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শ্রমিক বা কর্মচারীদের মজুরিসহ বার্ষিক ছুটি, ছুটি নগদায়ন ও ছুটির বিপরীতে নগদ অর্থ দেওয়া হয়নি। গ্রামীণ টেলিকমে শ্রমিক অংশগ্রহণ তহবিল ও কল্যাণ তহবিল গঠন করা হয়নি। লভ্যাংশের ৫ শতাংশের সমপরিমাণ অর্থ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন আইন অনুযায়ী গঠিত তহবিলে জমা দেওয়া হয়নি।


আরও খবর



ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সুবিয়ান্তোর জয়

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮০জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:বিপুল ভোটে এগিয়ে থাকা প্রতিরক্ষামন্ত্রী প্রাবোয়ো সুবিয়ান্তো জয় দাবি করেছেন,ইন্দোনেশিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বেসরকারি ফলাফলে। এখন পর্যন্ত গণনাকৃত ভোটের ৫৮ শতাংশেরও বেশি জিতে নিয়েছেন তিনি। খবর বিবিসির। ৭২ বছর বয়সী এই জেনারেল এর আগেও দুই বার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করে পরাজিত হয়েছিলেন।

ইন্দোনেশিয়ার নির্বাচনে কোনো প্রার্থী যদি ৫০ শতাংশের বেশি ভোট পান, তাহলে তাকে আর রান-অফে লড়তে হয় না। সুবিয়ান্তো যে পরিমাণ ভোট পেয়েছেন তাতে তিনি একবারেই প্রেসিডেন্ট হতে পারবেন। তবে সুবিয়ান্তো নিজেকে বিজয়ী ঘোষণা করলেও সমর্থকদের আরও ধৈর্য ধরতে হবে।

১৯৯৮ সালে সুহার্তোর একনায়কত্বের অবসানের পর দেশটিতে পঞ্চমবারের মতো প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এই নির্বাচনে প্রায় ২০ কোটি ৫০ লাখ মানুষ ভোট দেওয়ার যোগ্য।

ভোট উপলক্ষে ২৮ কোটি জনসংখ্যার দেশ ইন্দোনেশিয়ায় বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়। ৮ লাখের বেশি কেন্দ্রে আজ ভোট নেওয়া হচ্ছে। ভোটকেন্দ্রে ৫৭ লাখের বেশি ব্যক্তি নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করছেন।

বিবিসির খবরে বলা হয়, দেশটির ভোটাররা প্রেসিডেন্টের পাশাপাশি ভাইস প্রেসিডেন্ট, ৫৮০ জন পার্লামেন্ট সদস্য, ২০ হাজারের বেশি আঞ্চলিক আইনপ্রণেতাও নির্বাচন করবেন। এসব নির্বাচনে প্রায় ২ লাখ ৬০ হাজার প্রার্থী লড়ছেন।

এদিকে রাজধানী জাকার্তায় সমবেত সাংবাদিকদের প্রাবোয়ো সুবিয়ান্তো বলেন, এই জয় সব ইন্দোনেশিয়র জয়। ইন্দোনেশিয়ায় গণতন্ত্র ভাল যাচ্ছে। মানুষ দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। মানুষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সম্পদশালী এই সাবেক সামরিক জেনারেল সুবিয়ান্তোর সঙ্গে বর্তমান সরকারের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক আছে। তার মানবাধিকার রেকর্ড নিয়ে উদ্বেগ আছে। এ কারণে, তিনি একজন বিতর্কিত ব্যক্তিত্ব। এক প্রজন্ম আগে সুহার্তোর স্বৈরশাসনের সময় সামরিক বাহিনীর প্রধান কমান্ডার ছিলেন সুবিয়ান্তো।

ওই সময়ে তিনি মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছিলেন। ১৯৯০ এর দশকে এক পর্যায়ে তার যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশও নিষিদ্ধ করা হয়েছিল।

১৯৯৮ সালে ২০ জনের বেশি গণতান্ত্রিক আন্দোলনকর্মী শিক্ষার্থী (যাদের মধ্যে ১৩ জনের কোনও হদিস পাওয়া যায়নি) অপহরণের ঘটনায় জড়িত থাকার কারণে তাকে অসম্মানজনকভাবে সেনাবাহিনী থেকে বরখাস্ত করা হয়েছিল।

ফলে সুবিয়ান্তোর আগমনে ইন্দোনেশিয়া আবারও অতীতের একনায়কত্বে ফিরে যাওয়ার বিপদের ঝুঁকিতে পড়ছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।


আরও খবর

সোনার খনি ধসে ভেনেজুয়েলায় নিহত ২৩

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪