Logo
আজঃ Friday ১৯ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে আবাসিকের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন ডেমরায় প্যাকেজিং কারখানায় ভয়বহ অগ্নিকান্ড রূপগঞ্জে পুলিশের ভুয়া সাব-ইন্সপেক্টর গ্রেফতার রূপগঞ্জে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ॥ সভা সরাইলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ৭৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত। নারায়ণগঞ্জে পারিবারিক কলহে স্ত্রীকে পুতা দিয়ে আঘাত করে হত্যা,,স্বামী গ্রেপ্তার রূপগঞ্জ ইউএনও’র বিদায় সংবর্ধনা নাসিরনগরে স্বামীর পরকিয়ার,বলি ননদ ভাবীর বুলেটপানে আত্মহত্যা নাসিরনগরে জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকী পালিত ডেমরায় জাতীয় শোক দিবসের কর্মসুচি পালিত

আইভীর জন্য মাঠে আ.লীগ ‘ভিন্ন কৌশলে’ তৈমূর

প্রকাশিত:Friday ০৭ January ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৪০৮জন দেখেছেন
Image

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে লড়ছেন সাতজন। তাদের মধ্যে আওয়ামী লীগের ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী এবং স্বতন্ত্র তৈমূর আলম খন্দকারের মধ্যেই মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে- বলছেন স্থানীয়রা। মাঠেও এ দুই প্রার্থীকে সমানতালে প্রচারে দেখা যাচ্ছে। এ দুই হেভিওয়েট প্রার্থীকে নিয়ে সিটিতে চলছে এখন আলাপ-আলোচনা। আগামীতে কে হচ্ছেন এই সিটির মেয়র, তারই অপেক্ষায় রয়েছেন নারায়ণগঞ্জের প্রায় সোয়া পাঁচ লাখ ভোটার।

নৌকার প্রার্থী ডা. আইভীকে জেতাতে মাঠে নেমেছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা। তারা বিভিন্ন সময় নারায়ণগঞ্জে এসে সভাসমাবেশও করছেন। তাদের নির্দেশনায় নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ কাজ করছেন। অন্যদিকে স্বতন্ত্র মেয়র পদপ্রার্থী তৈমূর আলমের প্রচার চলছে ভিন্ন কৌশলে। তার পাশে নেই বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। উপরন্তু একের পর এক দলীয় পদবি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হচ্ছে তাকে। নির্বাচনী প্রচারে দেখা যাচ্ছে না নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির শীর্ষ কোনো নেতাকেও। রাজনীতি পর্যবেক্ষকরা বলছেন, যেহেতু বিএনপি বলছে- এই সরকার ও নির্বাচন কমিশনের অধীনে তারা কোনো নির্বাচনে অংশ নেবে না। তাই ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে তৈমূর আলমকে সুযোগ করে দিয়েছেন তারা।

ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর পক্ষে সবচেয়ে বড় সমাবেশটি হয়েছিল ২৪ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জের শেখ রাসেল পার্কে। বিজয় সমাবেশের ব্যানারে ওই সমাবেশটি হলেও অনেকেই বলছেন- এটি আইভীর নির্বাচনী সমাবেশ। বিশাল ওই জনসমাবেশে ছিলেন কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ এবং নারায়ণগঞ্জের আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতারা। তবে ছিলেন না নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান। এর পর নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে বেশ কয়েকটি সভা করেছেন কেন্দ্রীয় নেতারা। এ ছাড়া যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দও নারায়ণগঞ্জে বিভিন্ন সময় আইভীর নির্বাচন ঘিরে সমাবেশ করেছে। সর্বশেষ কর্মী-সমাবেশ হয়েছে সিদ্ধিরগঞ্জে গত বুধবার।

এদিকে তৈমূরকে একের পর এক দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। গত ২৬ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও ৩ জানুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পদ থেকে তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। সবশেষ গত বুধবার জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যপদ থেকেও তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। ফোরামের দপ্তরের দায়িত্বে থাকা সদস্য আব্দুল্লাহ আল মাহবুব স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। কেন একের পর এক পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হচ্ছে, তা জানতে গতকাল তৈমূর আলমকে ফোন করা হলে তিনি রিসিভ করেননি।

গতকাল সিদ্ধিরগঞ্জ এবং বন্দরে প্রচার চালান আইভী ও তৈমূর। আইভী প্রচার চালান সিদ্ধিরগঞ্জের ১০নং ওয়ার্ডে এবং বন্দরের ২৫নং ওয়ার্ডে। অন্য তৈমূর সিদ্ধিরগঞ্জের ৭ ও ৮নং ওয়ার্ডে প্রচার চালান। ডা. আইভী তার অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করার জন্য সুযোগ চান। পক্ষান্তরে তৈমূর আলম বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা জানান।


আরও খবর



যুদ্ধ থামাতে ইউক্রেনে এরদোয়ান-গুতেরেসের আলোচনা

প্রকাশিত:Friday ১৯ August ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ১৯জন দেখেছেন
Image

চলমান যুদ্ধ বন্ধের উপায় ও ইউরোপের সবচেয়ে বড় পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র রক্ষায় আলোচনা করেছেন জাতিসংঘের মহাসচিব, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান ও ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। শুক্রবার (১৯ আগস্ট) রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের লভিভে আলোচনার পর জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক কেন্দ্রের পরিস্থিতি নিয়ে গভীরভাবে উদ্বিগ্ন প্রকাশ করেন ও এসময় সেখানে থাকা সামরিক সরঞ্জাম ও কর্মীদের প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট তাইয়্যেপ এরদোয়ান বলেছেন, গত মার্চ মাসে ইস্তাম্বুলে অনুষ্ঠিত রাশিয়ার সঙ্গে শান্তি আলোচনা পুনরুজ্জীবিত করার জন্য ইতিবাচক পরিবেশ তৈরির বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। এসময় গুতেরেসের পাশাপাশি জেলেনস্কিও উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে জাতিসংঘ ও তুরস্কের মধ্যস্থতায় রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে একটি চুক্তি সই হয়। ওই চুক্তির আওতায় ইউক্রেনের বন্দর থেকে পণ্যবাহী জাহাজ নিরাপদে ছাড়ার সুযোগ পায়। ইউক্রেন সাগরপথে আগস্টের শুরু থেকে রপ্তানি শুরু করেছে।

ন্যাটোভুক্ত দেশ তুরস্ক রাশিয়ার সঙ্গে ভালো সম্পর্ক বজায় রাখছে। তাছাড়া রাশিয়া হচ্ছে তুরস্কের গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্য অংশিদার। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে হামলা করে রাশিয়া। এরপরই যুদ্ধ থামাতে কাজ করছে তুরস্ক।


আরও খবর



রাবির ‘বি’ ইউনিটে এক আসনের জন্য লড়বে ৬৯ ভর্তিচ্ছু

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১৭ August ২০২২ | ১৪২জন দেখেছেন
Image

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) স্নাতক প্রথম বর্ষের ব্যবসা বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। বুধবার (২৭ জুলাই) সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়ে এক ঘণ্টা চলবে এ ভর্তি পরীক্ষা।

চার শিফটের ভর্তি পরীক্ষা শেষ হবে বিকাল সাড়ে ৪টায়। তবে এ বছর ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্র পরিদর্শন করতে যাবে না বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মধ্য দিয়েই শেষ হচ্ছে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের রাবির ভর্তি পরীক্ষা। এ বছর ইউনিটটিতে ৫৬০টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ৩৮ হাজার ৬২১ জন ভর্তিচ্ছু৷ সে হিসেবে প্রতিটি আসনের বিপরীতে লড়বে প্রায় ৬৯ জন ভর্তিচ্ছু। এর আগে সোমবার ‘সি’ ইউনিটের ও মঙ্গলবার ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা মধ্য দিয়ে শেষ হয় রাবির প্রথম ও দ্বিতীয় দিনের ভর্তিযুদ্ধ।

রাবির ‘বি’ ইউনিটে এক আসনের জন্য লড়বে ৬৯ ভর্তিচ্ছু

‘বি’ ইউনিটে বাণিজ্য ও অবাণিজ্য শাখার শিক্ষার্থীরাও পরীক্ষা দিতে পারবেন। বাণিজ্য শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে ইংরেজিতে ২৫, আইসিটিতে ১৫, হিসাব বিজ্ঞানে ২৫, ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনায় ২৫ ও বাংলায় ১০ নম্বরের প্রশ্ন থাকবে। এদিকে অবাণিজ্য শিক্ষার্থীদের জন্য ইংরেজি ৩০, বাংলায় ২০, সাধারণ জ্ঞান ২৫ ও আইসিটিতে ২৫ নম্বরের প্রশ্ন থাকবে।

গত বছরের মতো এবারও ‘বি’ ইউনিটে ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষায় ৮০ নম্বরের এমসিকিউ নেওয়া হবে। থাকবে না কোনো লিখিত পরীক্ষা। ৮০টি এমসিকিউ পরীক্ষার জন্য সময় থাকবে এক ঘণ্টা। এ পরীক্ষায় প্রাপ্ত ফলাফলের সঙ্গে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের ফলাফলের (জিপিএ) ওপর কোনো নম্বর যোগ করে হবে না।

রাবির ‘বি’ ইউনিটে এক আসনের জন্য লড়বে ৬৯ ভর্তিচ্ছু

এবার প্রত্যেক ইউনিটে চারটি শিফটে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ভর্তি পরীক্ষায় বিশেষ কোটাসহ আসন সংখ্যা চার হাজার ৬৪১টি। এ আসনের বিপরীতে এক লাখ ৭৮ হাজার ২৬৮টি চূড়ান্ত আবেদন জমা হয়েছে। এর মধ্যে ‘এ’ ইউনিটে ৬৭ হাজার ২৩৭টি, ‘বি’ ইউনিটে ৩৮ হাজার ৬২১টি এবং ‘সি’ ইউনিটে ৭২ হাজার ৪১০ টি চূড়ান্ত আবেদন সম্পন্ন হয়। এবার একক আবেদনকারীর সংখ্যা এক লাখ ৫০ হাজার ৪২৯ জন।


আরও খবর



স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত:Sunday ৩১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Thursday ১৮ August ২০২২ | ৩৩জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর ডেমরায় যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার মামলায় মো. আমিন ওরফে ফকির আমিনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। রোববার (৩১ জুলাই) ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক এ এম জুলফিকার হায়াত এ রায় ঘোষণা করেন। মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি আমিনকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এদিন আসামির উপস্থিতিতে আদালত রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণা শেষে সাজা পরোয়ানা দিয়ে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৩ সালের জুন মাসে শাবানা বেগমের সঙ্গে বিয়ে হয় আমিনের। তাদের দুটি সন্তান আছে। বিয়ের পর থেকে আমিন যৌতুকের জন্য শাবানার ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালায়। শাবানার পরিবার আমিনকে ৩ লাখ টাকাও দেয়। পরে তিনি আবারও ১ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। এর মধ্যে আবার বিয়ে করে আমিন। বিয়ের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তিনি শাবানাকে মারধর করেন এবং ১ লাখ টাকার জন্য চাপ দেন। অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে শাবানা ২০ হাজার টাকা এনে দেন। বাকি ৮০ হাজার টাকা ঈদের পর দিতে বলেন আমিন।

এরপর আবারও টাকার জন্য শাবানাকে চাপ দেন আমিন। টাকা আনতে অস্বীকার করলে তিনি শাবানার শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। দগ্ধ শাবানাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাবানা মারা যান।

এ ঘটনায় শাবানার বোন শিল্পী ইয়াসমিন ডেমরা থানায় মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত করে ২০০৬ সালের ১২ মার্চ আমিনকে অভিযুক্ত করে অভিযোগপত্র দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা ডেমরা থানার উপ-পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ। এরপর আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরু হয়। মামলার বিচার চলাকালে আদালত ১৮ সাক্ষীর মধ্যে ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।


আরও খবর



ধূমপান ছাড়াও যে কারণে হতে পারে ফুসফুসের ক্যানসার

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
Image

ফুসফুসের ক্যানসারে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছেই। বিভিন্ন ধরনের ক্যানসারের মধ্যে চতুর্থ সর্বাধিক সাধারণ ক্যানসার হলো ফুসফুসের ক্যানসার।

ধূমপায়ীদের মধ্যে এই রোগের ঝুঁকি বেশি। তবে ধূমপান ছাড়াও বিভিন্ন কারণে ফুসফুসের ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়তে পারে।

যদিও জীবনধারায় কিছু স্বাস্থ্যকর পরিবর্তনের মাধ্যমে সহজেই প্রতিরোধ করা যায় এই ব্যাধি। তবে এই ক্যানসার হলে এর থেকে বাঁচার কোনো নিশ্চিত উপায় নেই।

ধূমপান ত্যাগ করার মাধ্যমে ফুসফুসের ক্যানসারের ঝুঁকি কমানো যায়। ধূমপান একটি নীরব ঘাতক। প্রাথমিক পর্যায়ে ফুসফুসের ক্যানসারের লক্ষণ প্রায় থাকেই না। যখন সমস্যা বেশ বেড়ে যায় তখন উপসর্গগুলো প্রকাশ পায়।

ফুসফুসের ক্যানসারে লক্ষণ কী কী?

১. কাশির সময় রক্ত
২. শ্বাসকষ্ট
৩. বুকে ব্যথা
৪. ওজন কমে যাওয়া ও
৫. হাড়ের ব্যথা ইত্যিাদি।

অধূমপায়ীদেরও কেন ফুসফুসের ক্যানসারের ঝুঁকি আছে?

ধূমপান না কারলেও পরোক্ষ ধূমপানের কারণও হতে পারে ফুসফুসের ক্যানসারের অন্যতম কারণ। চেইন স্মোকারের আশপাশে থাকলে আপনার ফুসফুসের ক্যানসার হতে পারে।

আপনার পাশে অন্য কেউ ধূমপান করলেও সিগারেট থেকে প্রচুর রাসায়নিক শ্বাসের সঙ্গে গ্রহণ করছেন আপনি ও অন্যান্যরা। যা সবার মধ্যেই ফুসফুসের ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়।

এর সঙ্গে বায়ু দূষণও এই ক্যানসারের ঝুঁকি অনেকটাই বাড়িয়ে দেয়। তাই ধূমপায়ীদের কাছ থেকে দূরে থাকতে হবে। আর যারা ধূমপানে আসক্ত তারা অবশ্যই এই অভ্যাস ত্যাগ করুন।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া


আরও খবর



চার বিভাগ ২ জেলায় বইছে তাপপ্রবাহ, জনজীবন দুর্বিষহ

প্রকাশিত:Wednesday ১৭ August ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
Image

ভাদ্রের শুরুতেই সারাদেশ প্রায় বৃষ্টিহীন। তাই দেশের চার বিভাগে ও দুই জেলায় ফের শুরু হয়েছে তাপপ্রবাহ। আগামী দুই দিনের মধ্যে বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। এরপর দেশে বৃষ্টির প্রবণতা বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে বুধবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ৩১, চট্টগ্রামে ৭, চাঁদপুরে ১, কক্সবাজারের ২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। কুমিল্লায় সামান্য বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।

বুধবার শরতের প্রথম মাস ভাদ্রের ২ তারিখ। বৃষ্টি না হওয়ায় দেশের অনেক অঞ্চলেই শুরু হয়েছে তাপপ্রবাহ। একদিকে ভ্যাপসা গরম অন্যদিকে লোডশেডিংয়ে জনজীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে।

সকাল থেকেই ঢাকায় গরম বাড়তে থাকে। তবে দুপুরের দিকে হঠাৎ আকাশ মেঘে ঢেকে গিয়ে এক পাশলা বৃষ্টিও হয়। এতে গরম তো কমেইনি, উল্টো ভ্যাপসা গরমে অস্বস্তি বেড়েছে। গরমের সঙ্গে যানজট এবং লোডশেডিংয়ে নগর জীবনেও উঠেছেন নাভিশ্বাস।

এর আগে ৫ আগস্ট উত্তরাঞ্চলে তাপপ্রবাহ শুরু হয়। একদিন বিরতি দিয়ে ৭ আগস্ট থেকে ফের শুরু হয় তাপপ্রবাহ। সাগরের লঘুচাপ সৃষ্টি হলে বৃষ্টি বেড়ে একদিন পরে চলে যায় এই তাপপ্রবাহও।

গত কয়েকদিনে বঙ্গোপসাগরে দুটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয় এবং পরবর্তীতে দুটিই নিম্নচাপে পরিণত হয়ে ভারতীয় ভূখণ্ডে এসে নিষ্ক্রিয় হয়। এর প্রভাবে বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলসহ কয়েকটি স্থানে বৃষ্টি বেড়েছিল।

বুধবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল সৈয়দপুরে। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, ৩৬ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রাকে বলে মৃদু তাপপ্রবাহ, ৩৮ থেকে ৪০ ডিগ্রি পর্যন্ত তাপমাত্রাকে বলা হয় মাঝারি তাপপ্রবাহ। তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের উপরে গেলে বলে তীব্র তাপপ্রবাহ।

আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশিদ জানান, বুধবার সন্ধ্যা ছয়টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দুই এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হতে পারে।

গোপালগঞ্জ ও মানিকগঞ্জ জেলাসহ ময়মনসিংহ, রাজশাহী, রংপুর ও খুলনা বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও জানান এ আবহাওয়াবিদ।

তিনি আরও জানান, আগামী দুই দিনের মধ্যে উত্তর বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। এরপর বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে।


আরও খবর