Logo
আজঃ Wednesday ২৬ January ২০২২
শিরোনাম
অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে সহ-শিল্পীদের নগ্ন ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বিদেশের মাটিতে কৃষিপণ্য সরবরাহ বাড়াণোর লক্ষ্যে : ইরান রাজনৈতিক কঠিন চাপে রয়েছেন মেয়র আরিফুল স্বপ্নের মেট্রোরেল রওনা হলো আগারগাঁওয়ের উদ্দেশে ওমিক্রনের সংক্রমণে ভারতে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত নিয়মিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ মুরাদ হাসান এমিরেটসের ফ্লাইটে কানাডা গেলেন সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলী মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ আগামী বিশ্বকাপে ব্যাটসম্যানদের উন্নতি দেখতে চান করোনাভাইরাসে আরও ছয়জনের মৃত্যু বিশ্বের ৪৩তম ক্ষমতাধর নারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আইজিপি কাপ যুব কাবাডি শুরু হবে আগামী বুধবার

প্রকাশিত:Friday ২৪ December ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ১৯২জন দেখেছেন
Image
আইজিপি কাপ যুব কাবাডি শুরু হবে আগামী বুধবার


আজাদ হোসেনঃ 

আইজিপি কাপ যুব (বালক ও বালিকা) কাবাডির চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা শুরু হবে আগামী বুধবার (২৯ ডিসেম্বর)। পল্টনের আউটার স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠেয় টুর্নামেন্টে ছেলে ও মেয়েদের দুই বিভাগেই ১৬টি করে দল রয়েছে। প্রাথমিক পর্বে পুরুষ বিভাগে ৫৮টি ও মেয়েদের বিভাগে ৫১টি জেলায় খেলা হয়েছে।দুইটি বিভাগেরই খেলা হয়েছে উপজেলা পর্যায় থেকে। 


সেখানে বালক বিভাগে অংশ নিয়েছিলো ৪১৭টি উপজেলার ৪১৭১টি ইউনিয়ন, বালিকা বিভাগে ৩৯৮টি উপজেলার ৩৮৯৭টি ইউনিয়ন। সব মিলিয়ে বালক বিভাগে ৫০,০৫২ জন খেলোয়াড় ও ১২,৫১৩ জন কোচ-কর্মকর্তা এবং বালিকা বিভাগে ৪৬,৭৬৪ জন খেলোয়াড় ও ১১,৬৯১১ জন কোচ-কর্মকর্তা অংশ নিচ্ছেন।জেলা পর্যায়ে পুরুষ বিভাগে ৫৮টি জেলাকে ও নারী বিভাগের ৫১টি জেলাকে আটটি করে অঞ্চলে ভাগ করা হয়েছিলো।

দুই বিভাগেই প্রতি অঞ্চলের চ্যাম্পিয়ন (৮টি করে) ও রানার্সআপ (৮টি করে) ১৬টি করে ৩২টি দল নিয়ে হবে চুড়ান্ত পর্ব।


শুক্রবার কাবাডি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ফেডারেশনের যুগ্ম সম্পাদক ও পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি গাজী মোজাম্মেল হক। এ সময় ফেডারেশনের সহসভাপতি ও রানার গ্রুপের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান ও যুগ্ম সম্পাদক নেওয়াজ সোহাগ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



মুরাদের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ স্ত্রীর, করলেন জিডি

প্রকাশিত:Thursday ০৬ January ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ২২ January 20২২ | ১২৮জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ এনে রাজধানীর ধানমন্ডি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন তার স্ত্রী ডা. জাহানারা এহসান। ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকরাম আলী মিয়া বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, মানসিক ও শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ তুলে সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে থানায় জিডি করেছেন তার স্ত্রী ডা. জাহানারা এহসান। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, বিএনপি নেতা তারেক রহমানের মেয়ে জাইমা রহমানকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে ফোনে ধষর্ণের হুমকি দেওয়ার অডিও ক্লিপ ছড়িয়ে পড়ার পর প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করেন মুরাদ হাসান। এরপর তাকে আওয়ামী লীগ থেকেও বহিষ্কার করা হয়।

বিতর্কের মুখে দেশ ত্যাগ করলেও কানাডায় ঢুকতে না পেরে দেশে ফিরে আসেন তিনি। তারপর থেকেই আড়ালে রয়েছেন ডা. মুরাদ হাসান।


আরও খবর



নাসিরনগরে ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাতা বার্ষিকী পালিত

নাসিরনগরে ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাতা বার্ষিকী পালিত

প্রকাশিত:Tuesday ০৪ January ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৪ January ২০২২ | ১২১জন দেখেছেন
Image
নাসিরনগরে ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাতা বার্ষিকী পালিত


মোঃ আব্দুল হান্নান, 

নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া), শিক্ষা, শান্তি প্রগতির পতাকাবাহী ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকা পালিত হয়েছে।এ উপলক্ষে বেলা ২ ঘটিকার সময় উপজেলা পরিষদ মিলনাতয়নে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনষ্ঠিত হয়।

উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক নাসির উদ্দিন রানার সভাপতিত্বে উক্ত আলোচনার ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১, সংসদীয় ২৪৩ নাসিরনগর আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব বিএম ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম।


বিশেষ অতিথি হিসেবে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাফি উদ্দিন আহমেদ, অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও গুনিয়াউক ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ জিতু মিয়া, সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি বশির আল হেলাল সহ অনেকেই। অনুষ্টানের শুরুতেই প্রধান অতিথি কেক কেটে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন।

পরে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ছাত্রলীগ নেতা শুভ সিদ্দিকী। 


-খবর প্রতিদিন/ সি.বা 


আরও খবর



মাওয়া শিমুলিয়া ফেরী ঘাটে পদে পদে দুর্নীতি

মাওয়া শিমুলিয়া ফেরী ঘাটে পদে পদে দুর্নীতি

প্রকাশিত:Monday ১৭ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ৮০জন দেখেছেন
Image


জুবায়ের আলম:

ফেরীর তেল চুরি ,দুর্নীতি, সংস্থার বিভিন্ন খাতের অর্থ আত্মসাত সহ মাওয়ায় শিমুলিয়া-বাংলাবাজার  ঘাটে বিআইডব্লিউটিসির কর্মচারীদের বিরুদ্ধেব্যাপক হারে  অভিযোগ রয়েছে।স্থানীয়ভাবে অনুসন্ধান করে জানাগেছে ফেরি চলাচলের জন্য বছরে কোটি কোটি টাকার তেল ব্যয় হয়।


এই তেল ব্যয়ের ব্যাপারে রয়েছে নানা রকমের কারসাজি। বহু দিন ধরেই শিমুলিয়ায় তেল চুরি সিন্ডিকেট সক্রিয়। চক্রটির হাত লম্বা। তেল চুরির ভাগ চলে যায় অনেক উপরের কর্মকর্তাদেরও হাতে। তাই যুগ যুগ ধরে এই তেল চুরি চলছেই। আধুনিক ভিটিএস যন্ত্র ব্যবহার না করাও এর একটি কারণ। এক শ্রেণীর কর্মকর্তার অবৈধ আয়ের অন্যতম উৎস এই তেল চুরি।সাশ্রয় করা তেলই বাইরে বিক্রি করা হয়।


প্রতিটি ফেরিরই তিন সদস্যের একটি একটি টাইম নির্ধারণ করে তেল বরাদ্দ দেয়। রো রো ফেরি শাহ পরাণের বাংলাবাজার থেকে শিমুলিয়া আসার জন্য সময় নির্ধারণ করা ৫৫ মিনিটি এবং তেল বরাদ্দ ১০৮ লিটার। শিমুলিয়া থেকে বাংলা বাজার যাওয়া জন্য ১ ঘণ্টা ৪৫ মিনিটে ২২১ লিটার বরাদ্দ রয়েছে।ফেরি কোন কোন সময় একটু বেশি লাগে আবার কখনও সময় একটু কম লাগে। কম লাগলে তেল কম খরচ হয়।


তবে হিসাবের মধ্যেই থাকে। এগুলো রেজিস্টার মেনটেন করা হয়।দূরত্ব, গতিবেগ ও স্রোত বিবেচনায় বিপুল পরিমাণ তেল বরাদ্দ দেয়া হলেও সেই অনুযায়ী ফেরি ও জাহাজ চালানো হয় না। এভাবে বরাদ্দের তেল বাঁচিয়ে তা গোপনে বিক্রি করে দেন সংশ্লিষ্টরা। তেল চুরির টাকা সংস্থাটির ফেরীচালক,মাষ্টার সুকানী,লস্কর সহ বিভিন্ন পর্যায়ের কয়েক কর্মকর্তার পকেটে যায়।


প্রতি মাসে এই ফেরি রুটে সংস্থাটির কোটি কোটি টাকা আয় ব্যয় রয়েছে। বিআইডব্লিউটিসির সহ-মহাব্যবস্থাপক(বাণিজ্য) মোঃ শফিকুল ইসলাম  জানান, গত ২০২১ সালের মে মাসে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটে ফেরিগুলো ৪ হাজার ৫৭০টি ট্রিপ দিয়ে আয় করেছে প্রায় ১০ কোটি টাকা। আর তেল খরচ হয়েছে ২ কেটি ৬৮ লাখ ৫০ হাজার টাকার। গত জুন মাসে ৬ হাজার ৪৫২টি ট্রাক, ২৫ হাজার ৩৬৯টি বাস এবং ৭৪ হাজার ৯৫টি ছোট যান পারাপার করেছে। ফেরিগুলো ট্রিপ দিয়েছে ৪ হাজার ৬১৬টি। এতে আয় হয়েছে ১১ কোটি ২০ লাখ ৯৫ হাজার ২৮৯ টাকা। তবে এই মাসের তেল খরচ তাৎক্ষণিক তিনি জানাতে পারেননি।


তেলে হিসাব অডিট হয়ে তার কাছে কিছুটা বিলম্ব হয় বলে তিনি জানান।তবে তেলের দায়িত্বে থাকা বিআইডব্লিউটিসির নির্বাহী প্রকৌশলী তথ্য না দিয়ে নানা কৌশলে এড়িয়ে যান। তেল চুরি সিন্ডিকেটের সঙ্গে তাঁর সম্পৃক্ততার আঙ্গুল তুলছেন অনেকে। তবে  নির্বাহী প্রকৌশলী অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।অন্যদিকে ফেরির ফগ লাইট কেনায় অনিয়মের অভিযোগে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) পরিচালক ও জিএমসহ ৭ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।বুধবার (৫ জানুয়ারি) দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ মামলাটি দায়ের করা হয়।


ঘন কুয়াশায় ফেরি চলাচল স্বাভাবিক রাখতে ১০ কিলোমিটার দেখা যায় এমন উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ফগ অ্যান্ড সার্চ লাইট ক্রয়ে ৫ কোটি ৬৫ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে  মামলা করেন দুদকের সহকারী পরিচালক মো. সাইদুজ্জামান। দুদকের উপ-পরিচালক (জনসংযোগ) মুহাম্মদ আরিফ সাদেক মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।মামলার আসামিরা হলেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) সাবেক চেয়ারম্যান ও পরিচালক (কারিগরি ) ড . জ্ঞান রঞ্জন শীল, মহাব্যবস্থাপক বা জিএম ক্যাপ্টেন শওকত সরদারমো. নুরুল হুদা, নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের ডেপুটি সেক্রেটারি পঙ্কজ কুমার পাল, বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের (বিএসএফআইসি) সাবেক মহাব্যবস্থাপক ( মেকানিক্যাল ) ইঞ্জিনিয়ার মো. রহমত উল্লা, বাংলাদেশ জুট মিলস করপোরেশনের (বিজেএমসি) মেকানিক্যাল বিভাগের ম্যানেজার ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন এবং মেসার্স জনী করপোরেশনের মালিক ওমর আলী।



আরও খবর



ট্রাফিক-ডেমরা জোনের উদ্যোগে হাইড্রোলিক হর্ন বন্ধে ও মাদকবিরোধী কর্মসূচি

প্রকাশিত:Thursday ০৬ January ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ২১ January ২০২২ | ১২১জন দেখেছেন
Image


নাজমুল হাসানঃ

রাজধানী ঢাকায় যানবাহনের হর্ন উচ্চ শব্দ তৈরি করে।ঢাকার বেশির ভাগ যানবাহনে হাইড্রোলিক হর্ন ব্যবহার করা হয়। যদিও আইনে হর্ন ব্যবহার নিষিদ্ধ।


যথাযথ তদারকির অভাবে হর্ন বাজানোর বিষয়টি কমানো যাচ্ছে না বলে অভিযোগ নাগরিকদের।নগরবাসীর মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে যেখানে-সেখানে যানবাহনের হর্ন বাজানোর ওপর বিধি-নিষেধ জানিয়ে প্রচারনা চালাতে ট্রাফিক-ডেমরা জোনের উদ্যোগে ৪ জানুয়ারি ২০২২ খ্রি. তারিখে পোস্তগোলা ঈগলবক্স এলাকায় যানবাহনে হাইড্রোলিক হর্ন বন্ধে ও মাদকবিরোধী ব্যতিক্রমী সচেতনতামূলক কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।


কর্মসুচীতে ব্যান্ডপার্টি নিয়ে সড়কে অবস্থান গ্রহন করে ট্রাফিক পুলিশ।এ সময় উপস্থিত ছিলেন ট্রাফিক-ডেমরা জোন এর সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ ইমরান হোসেন মোল্লা,ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মোস্তাক কলিমুল্লাহ সহ ট্রাফিক পুলিশ সদস্যরা।হাইড্রোলিক হর্নের ব্যবহার পুরোপুরি বন্ধ করতে হলে এটা যে জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর, এই বিষয়টি সবাইকে বোঝাতে হবে। বিশেষ করে যানবাহনের মালিক ও চালকদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির উদ্যোগ নিতে হবে।


একই সঙ্গে এর আমদানি, উৎপাদন ও বাজারজাত বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে আরও সক্রিয় হতে হবে।তারই অংশ হিসেবে ট্রাফিক পুলিশের এই অভিনব কর্মসুচী।


আরও খবর



হারানো ইমেইল খুঁজতে গিয়ে পেলেন ২৬ কোটি টাকা

প্রকাশিত:Monday ২৪ January ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ৪৮জন দেখেছেন
Image

অনলাইন ডেস্ক: পুরোনো ইমেইল খুঁজতে গিয়ে লটারিতে জেতা ৩০ লাখ ডলারের সন্ধান পেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানের এক নার্স। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ২৬ কোটি টাকার সমপরিমাণ। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে জানা যায়, তার ইনবক্সের স্পাম ফোল্ডারেই ছিল লটারিতে তার ৩০ লাখ ডলার জয়ের খবরটি।

রোববার (২৩ জানুয়ারি) ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মিশিগানের বাসিন্দা লরা স্পিয়ার্স (৫৫) পেশায় একজন নার্স। গত ৩১ ডিসেম্বর ওই লটারির টিকিট কেটেছিলেন তিনি, কিন্তু ভুলেই গিয়েছিলেন ওই টিকিটের কথা। স্পাম ফোল্ডারে পাওয়া মেসেজের সূত্রেই পরে জানতে পারেন যে, তার কাটা টিকিটের নাম্বারটিই ড্রতে সর্বোচ্চ পুরস্কার পেয়েছে।

মিশিগানের ওকল্যান্ড কাউন্টির বাসিন্দা লরা জানান, আমি শুনছিলাম মিশিগান লটারির মেগা মিলিয়ন ড্রতে অনেকেই পুরস্কার পাচ্ছেন, তাই আমিও বছরের শেষ দিনে হঠাৎ ঝোঁকের বশেই একটা টিকিট কিনে নিয়েছিলাম। আমি এর আগে কখনো লটারির টিকিট কাটিনি।

তিনি আরও জানান, টিকিট কাটার প্রায় ১৫ দিন পরও ইনবক্সে কোনো ইমেইল না আসায় ভেবেছিলাম হয়তো কোনো পুরস্কার জিতিনি আমি। তবে এক বন্ধুর প্রয়োজনেই পুরোনো ইমেইল খুঁজতে স্পাম বক্সে ঢুকে আবিস্কার করি যে পুরস্কার জিতেছি।

লটারি সংস্থাটি জানিয়েছে, লরার টিকিটের নম্বর ছিল ২-৫-৩০-৪৬-৬১। লাকি ড্রয়ে নম্বর মিলে যাওয়ায় লটারির সর্বোচ্চ পুরস্কার ৩০ লাখ ডলার পেয়ে যান লরা।

আকস্মিক এমন লটারি জয়ের পর স্তম্ভিত লরা জানান, আমি বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। তাই আবারও নিশ্চিত হতে আমি লটারির অ্যাকাউন্টে লগ ইন করি। আমি এখনো বিশ্বাস করতে পারছি না যে, আমি আসলেই ৩০ লাখ ডলার পুরস্কার পেয়েছি! তবে আমি আমার ইমেইলের সেটিংস অবশ্যই পরিবর্তন করবো, যাতে ভবিষ্যতে লটারি জয়ের খবর আর মিস না হয়।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে লরা জানিয়েছেন, এখন আগেভাগেই চাকরি থেকে অবসরে যাওয়ার কথা ভাবছি। পরিবারের সাথে পুরস্কারের অর্থ ভাগাভাগির পরিকল্পনাও আছে।


আরও খবর