Logo
আজঃ Wednesday ২৫ May ২০২২
শিরোনাম

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত:Saturday ০২ April 2০২2 | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ২২৪জন দেখেছেন
Image

খবর প্রতিদিন ডেস্কঃ

বাংলাদেশের আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের গতিপ্রকৃতি কেমন হবে তা পর্যবেক্ষণ করবে যুক্তরাষ্ট্র।সম্প্রতি আমেরিকান ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ স্টাডিজ (এআইবিএস) আয়োজিত 'ফিফটি ইয়ারস অফ ইউএস-বাংলাদেশ রিলেশনস: ক্রিটিক্যাল রিফ্লেকশনস এন্ড ওয়েস ফরোয়ার্ড' শীর্ষক এক ওয়েবিনারে এমন বক্তব্য উঠে এসেছে। যুক্তরাষ্ট্রের ইলিনয় স্টেট ইউনিভার্সিটির রাজনীতি ও সরকার বিভাগের ডিস্টিংগুইশড প্রফেসর, আটলান্টিক কাউন্সিলের অনাবাসিক সিনিয়র ফেলো এবং এআইবিএস এর প্রেসিডেন্ট আলী রীয়াজ ওয়েবিনারটি সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন।


গত ৩১ শে মার্চ বাংলাদেশ সময় রাত ৮ টায় শুরু হওয়া ওয়েবিনারটিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিচালক (আমেরিকা) সৈয়দ শাহ সাদ আন্দালিব, ঢাকাস্থ যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের সাবেক ডেপুটি চিফ অফ মিশন জন ড্যানিলোভিচ, ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ (আইইউবি) এর গ্লোবাল স্টাডিজ ও গভর্নেন্স প্রোগ্রামের প্রধান অধ্যাপক ড. ইমতিয়াজ হুসাইন এবং যুক্তরাষ্ট্রের থিংক ট্যাংক উইলসন সেন্টারের এশিয়া প্রোগ্রামের উপ পরিচালক মাইকেল কুগেলম্যান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। ওয়েবিনারটি রেজিস্ট্রেশন সাপেক্ষে সকলের জন্য উন্মুক্ত ছিল এবং আলোচকরা দর্শকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।


নিজের ব্যক্তিগত মতামত প্রকাশ করে ঢাকাস্থ যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের সাবেক ডেপুটি চিফ অফ মিশন জন ড্যানিলোভিচ বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে কোন নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে বাংলাদেশের অনেক মানুষ মনে করেন যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের দিকে নজর দেবে। কিন্তু বিষয়টি সেরকম নয়। সারা বিশ্বে যুক্তরাষ্ট্রের অনেক অগ্রাধিকারের জায়গা রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের অনেক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তার সাথে বাংলাদেশ সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের ব্যক্তিদের দেখা না করার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, এই সরকার যতদিন আছে ততদিন বিষয়টি এমনই থাকবে বলে মনে হয়।


র‍্যাবের উপর যুক্তরাষ্ট্রের আরোপ করা নিষেধাজ্ঞা আগামী নির্বাচনে প্রভাব ফেলবে কিনা দর্শকের এমন প্রশ্নের জবাবে মাইকেল কুগেলম্যান বলেন, আমি মনে করি, বাংলাদেশের আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের গতিপ্রকৃতি পর্যবেক্ষণ করবে যুক্তরাষ্ট্র। আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করার পর উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্রের নিজস্ব মনোযোগ থাকা উচিত বলেও মনে করেন এশিয়া বিষয়ক এই বিশেষজ্ঞ।


সৈয়দ শাহ সাদ আন্দালিব এবং ড. ইমতিয়াজ হুসাইন যুক্তরাষ্ট্র এবং বাংলাদেশের মধ্যে বিগত ৫০ বছরের সম্পর্কের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন। আলোচনায় বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগ, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা,বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ, এ অঞ্চলে চীনের প্রভাব মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্রের সম্ভাব্য ভূমিকা সহ নানা বিষয় উঠে আসে। যুক্তরাষ্ট্রের অনুদানকৃত করোনার টিকার সবচেয়ে বড় গ্রহীতা যে বাংলাদেশ এবং সেটি যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে একটি উল্লেখযোগ্য দিক তা নিয়েও আলোচনা হয়। বক্তারা যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশ সম্পর্কোন্নয়নে 'পিপল-টু-পিপল কনট্যাক্ট' বা দু'দেশের মানুষের মধ্যে সরাসরি সম্পর্কের উপর গুরুত্বারোপ করেন।


আরও খবর



নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া ভোটে যাবে না ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

প্রকাশিত:Tuesday ১০ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৬৮জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

আগামীতে নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে ছাড়া কোনো নির্বাচনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ অংশ নেবে না বলে জানিয়েছেন দলটির আমির ও চরমোনাই পির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম।


রেজাউল করিম বলেন, ‘নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের অধীনে ছাড়া কোনো তামাশার নির্বাচনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ অংশ নেবে না।’


মঙ্গলবার (১০ মে) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে চরমোনাই পীর এ কথা জানিয়েছেন।


মুফতি রেজাউল করিম বলেন, ‘ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনে করে, কোনো দলীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। বিগত কয়েকটি জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচনে এটা বারবার প্রমাণিত হয়েছে।’


ইভিএমে ভোটগ্রহণ প্রসঙ্গে চরমোনাই পির বলেন, ‘ইভিএম আন্তর্জাতিকভাবে প্রত্যাখ্যাত। ইভিএমের মাধ্যমে সারাদেশে ভোট হবে, এ কথা প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দেওয়ার এখতিয়ার রাখেন না। নির্বাচন কোন প্রক্রিয়ায় অনুষ্ঠিত হবে, তা নির্ধারণ করবে নির্বাচন কমিশন।


আরও খবর



হজ যাত্রী পরিবহনে প্রস্তুত বিমান

প্রকাশিত:Monday ২৩ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৬৭জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ 

হজযাত্রীদের পরিবহনের জন্য ৩১ মে হজ ফ্লাইট চালু করতে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী।


সোমবার (২৩ মে) হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।



প্রতিমন্ত্রী বলেন, সামনে হজ ফ্লাইট। এ জন্য সিভিল এভিয়েশন এবং বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রস্তুতি রয়েছে। কিন্তু হজে যারা যাবেন তাদের বাড়ি ভাড়া এবং মোয়াল্লেম নির্ধারণসহ আনুষঙ্গিক কাজগুলো এখনো শেষ করতে পারেনি সৌদি কর্তৃপক্ষ। তবে আমাদের বিশ্বাস নির্দিষ্ট সময়ে কাজ শেষ করবে সৌদি আরব।


তিনি বলেন, নির্ধারিত সময়ে হজ ফ্লাইট চালু নিয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার সঙ্গে কথা হয়েছে। তারাও প্রায় সব প্রস্তুতি নিয়েছেন। আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে ৩১ মে হজ ফ্লাইট শুরু করবো।


বিমানবন্দরের গ্রাউন্ড হ্যান্ডেলিংয়ে দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দেশে বিমান প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বলেন, বিমানবন্দরে যার যা দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে হবে। যারা ডিউটি করে তারা নির্দিষ্ট সময়ের আধ ঘণ্টা আগে এয়ারপোর্টে ঢুকতে হবে। ডিউটি শেষে পরে বের হতে হবে। যাতে আমরা যাত্রী সেবা নিশ্চিত করতে পারি।



আরও খবর



একটি শোক সংবাদ

একটি শোক সংবাদ

প্রকাশিত:Thursday ১৯ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৯৮জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী গোকর্ণ ইউনিয়নের ব্রাহ্মণশাসন গ্রামের কৃতি  সন্তান,বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র  আইনজীবী এডভোকেট মোঃ মাহফুজ মিয়া আজ ১৯ মে ২০২২ রোজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ঘটিকার সময় রাজধানী ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।

ইন্নালিল্লাহে,,,রাজিউন)।


তিনি ছিলেন বৃহত্তর কুমিল্লা আইনজিবী সমিতির সিনিয়র সভাপতি ও  ঢাকাস্থ নাসিরনগর উপজেলা সমিতির আজীবন সদস্য। ব্যাক্তি জীবনে তিনি খুবই সজ্জন,সদালাপি,আমোদপ্রিয় মানুষ ছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি দুই পুত্র, স্ত্রীআত্মীয় স্বজন বন্ধু বান্ধ সহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।


তার বড় ছেলে চাকুরীজীবি,ছোট ছেলে ব্যারিষ্টার আর স্ত্রী অবসর প্রাপ্ত স্কুল শিক্ষিকা।তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম( বি,এম,এস,এফ) নাসিরনগর উপজেলা শাখার সভাপতি দৈনিক দেশ রূপান্তর ও এশিয়ান টেলিভিশনের নাসিরনগর উপজেলা প্রতিনিধি মোঃ আব্দুল হান্নান


আরও খবর



নাসিরনগরে নদীর পাড়ে ধানতোলা নিয়ে দু দল গ্রাম বাসীর মাঝে সংর্ঘষ

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ April ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১৪৮জন দেখেছেন
Image


মোঃ আব্দুল হান্নান, নাসিরনগর, (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)

২৬ এপ্রিল ২০২২ রোজ মঙ্গলবার বেলা অনুমান আড়াই ঘটিকার সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার বুড়িশ্বর ইউনিয়নের আশুরাইল ও শ্রীঘর দুই গ্রামের লোকের মাঝে নদীর পাড়ে ধানতোলাকে কেন্দ্র করে সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে। প্রায় আধা ঘন্টা ব্যপী সংর্ঘষ চলাকালে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। সংঘর্ষে উভয় গ্রামের প্রায় ২০ জন আহত হওয়া খবর পাওয়া গেছে।


আহতদের মাঝে মিজান মিয়া (৩০), আরজান মিয়া (২০), দিপু মিয়া (২০), দানা মিয়া (২৮), আরমান (২২), মহসিন (১৯) শফিকুল (১৮), সাইফুল ইসলাম (২৪), তারা মিয়া (৪০), মাহমুদুল হাসান (২৬), আব্দুল করিম (৪৫), মহসিন (১৫), জুনাইদ (১১) কে নাসিরনগর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে দেখা গেছে। এর মাঝে একজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদস হাসপাতালে প্রেরণ ও অন্যান্যরা বিভিন্ন জায়গায় প্রাথমিক চিকিৎসা নেওয়ার খবর পাওয়া গেছে।


জানাগেছে লঙ্গন নদীর তীরে ধানতোলাকে কেন্দ্র করে শ্রীঘর গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে জুনাইদ (৩৪) ও আশুরাইল গ্রামের ইউনুছ আলীর ছেলে জালাল মিয়ার মাঝে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয় সংঘর্ষ চলাকালীন সময়ে শ্রীঘর গ্রামের মৃত সানু মিয়ার ছেলে নায়েব উল্লাহ (৪৫) ঘটনাস্থলেই মারাযায়। তবে নিহতের শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। শুধু ডান পায়ের আটুর নীচে পুরাতন সামান্য একটি আঘাত রয়েছে বলে জানাগেছে। নিহত নায়েব উল্লাহকে নাসিরনগর সদস হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মোঃ আশিক মর্তুজা সীমান্ত বলেন প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে নায়েব উল্লাহ হার্টএটাকে মারা যেতে পারে তবে প্রয়োজনীয় পরিক্ষা নিরীক্ষা ছাড়া এখনো সঠিক ভাবে নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না বলে জানান এ কর্মকর্তা।


নাসিরনগর সরাইল আশুগঞ্জে দায়ীত্বরত (সার্কেল) সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আনিছুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। পরিস্থিতি অনেকটা তমথমে ভাব বিরাজ করছে বলে স্থানীয় সূত্র জানাগেছে। নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ হাবিবুল্লাহ সরকার জানান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। 



আরও খবর



ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের তদন্ত কমিটির উপস্থিতিতে যাত্রাবাড়ীর বর্ণমালা স্কুলে অভিভাবকদের মিছিলে হামলা : আহত ২

প্রকাশিত:Thursday ১৯ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১৬৪জন দেখেছেন
Image


নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর বর্ণমালা আদর্শ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে গঠিত পরিচালনা কমিটির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড।  বৃহস্পতিবার  বেলা ১১টার দিকে তদন্তকারী  কর্মকর্তারা স্কুল পরিদর্শনে এলে অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা কমিটির সভাপতি আব্দুস সালাম বাবুর অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে।


এ সময় সালাম বাবুর লোকজন মিছিলকারীদের উপর হামলা চালালে মাহফুজ নানে একজনসহ দুজন গুরুতর আহত হয়। এ ছাড়া তদন্ত কর্মকর্তাদের সামনেই সভাপতির লোকজন তার বিরুদ্ধে সাক্ষ্যদানকারীদের সাথে বিবাদে লিপ্ত হয়। পরিস্থিতি অস্বাভাবিক পর্যায়ে গেলে যাত্রাবাড়ী থানা পুলিশ এসে তা নিয়ন্ত্রণ করে।


এদিকে, বর্নমালা স্কুলের অধ্যক্ষ ও সভাপতির দুর্নীতি, অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ তদন্ত কমিটি গঠন করে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা। বোর্ডের চেয়ারম্যানের আদেশক্রমে কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর আবু তালেব মো. মোয়াজ্জেম হোসেন স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে (স্মারক নং ৬১৮/ক/স্বী:/৯৫/(অংশ-১)৩৩৪) এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এর আগে স্কুলটির অধ্যক্ষ ও পরিচালনা কমিটির সভাপতির বিরুদ্ধে ব্যাপক দুর্নীতি, অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ করেন সহকারি সিনিয়র শিক্ষক ফরিদা ইয়াসমিন।


অভিযোগে জানা যায়, বর্ণমালা স্কুলে অবৈধভাবে পরিচালনা কমিটি গঠন, ঘুষের বিনিময়ে শিক্ষক নিয়োগ, পদোন্নতি, জামায়াত সমর্থিত শিক্ষকদের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে পদায়ন, কোচিং বাণিজ্য, উন্নয়নের নামে লাখ লাখ টাকা লোপাট, ভূয়া ভাউচারে লাখ লাখ টাকা লোপাট, পরীক্ষা ও কোচিং বাণিজ্যসহ অধ্যক্ষ ও সভাপতির স্বেচ্ছাচারিতায় সাধারণ শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা অতিষ্ঠ। বিদ্যালয়ের ফান্ডের কোটি কোটি লোপট করে ইতোমধ্যে অধ্যক্ষসহ তার অনুসারীরা কোটি কোটি টাকা সম্পদের মালিক এবং সভাপতি শত কোটি টাকার মালিক হয়েছেন।


এসব বিষয়ে প্রতিবাদ করতে গেলেই শিক্ষকদের উপর নানাভাবে নির্যাতন চালানো হয়। কয়েকজন অভিভাবক বলেন, এক যুগেরও বেশি সময় ধরে একজন ব্যক্তিই সভাপতির দায়িত্ব পাওয়ায় দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতা মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। শিক্ষকরা নির্যাতিত হচ্ছে। অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। আমরা নির্বাচিত প্রতিনিধি চাই।


আরও খবর