Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

আদালতে আত্মসমর্পণ করেছেন সম্রাট

প্রকাশিত:Tuesday ২৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৩৯জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

দুদকের করা মামলায় আত্মসমর্পণ করেছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট।

আত্মসমর্পণ ঘিরে আদালতের মূল ফটকের পাশাপাশি এজলাসের বাইরে ভিড় করেছেন তার সমর্থক ও দলের শতাধিক নেতাকর্মী।


মঙ্গলবার (২৪ মে) দুপুর ১২ টা ৩৫ মিনিটে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬ এর বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামানের আদালতে আত্মসমর্পণ করতে ঢোকেন সম্রাট।



সম্রাটের আত্মসমর্পণ করার কথা শুনে আদালত প্রাঙ্গণে ভিড় করেন তার সমর্থকরা। এজলাসের দরজায়ও ভিড় করেন অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী।



এজলাসের দরজায় অবস্থান করা ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের ৫৩ নম্বর ওয়ার্ডের নেতা মো. বিপ্লব জানান, সম্রাট ভাই যুবলীগের একজন প্রিয় নেতা। তার প্রতি ভালোবাসার টানে এখানে এসেছি।


রমনা থানার ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের যুবলীগের নেতা মোহাম্মদ আল-আমিন বলেন, ভাইকে দেখতে আসলাম আদালতে। তিনি অসুস্থ বেশ কয়েক দিন দেখা হয় না তাই আজকে আবার আসলাম দেখতে।



এসময় এজলাসের দরজায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।



আরও খবর



স্টোকস-বেয়ারেস্টর অবিশ্বাস্য ব্যাটিং, দুরন্ত জয় ইংল্যান্ডের

প্রকাশিত:Tuesday ১৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬৩জন দেখেছেন
Image

২৯৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৯৩ রানেই নাই ৪ উইকেট। এরমধ্যে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, প্রথম টেস্টে জয়ের নায়ক এবং এই টেস্টের প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরিয়ান জো রুট আউট হয়ে গেছেন মাত্র ৩ রানে। প্রথম ইনিংসের আরেক সেঞ্চুরিয়ান ওলি পোপও আউট মাত্র ১৮ রান করে।

ইংল্যান্ডের হাল ধরবেন কে তাহলে? ট্রেন্টন বোল্ট, টিম সাউদিরা যেভাবে খোলস ছেড়ে বেরিয়ে এসে বিধ্বংসী রূপ দেখাচ্ছেন, তাতে করে ইংল্যান্ডই উল্টো পরাজয়ের শঙ্কায় পড়ে গিয়েছিল।

কিন্তু শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত লড়তে জানা ইংল্যান্ড, বিশেষ করে অধিনায়ক বেন স্টোকস হাল ছাড়তে রাজি নন। টি-টোয়েন্টির গতিতে সেঞ্চুরি করেছেন জনি বেয়ারেস্টো। ৯২ বলে ১৩৬ রান করে আউট হলেন।

অধিনায়ক বেন স্টোকস আউট হননি। ওয়ানডে স্টাইলে ৭০ বলে ৭৫ রান করে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়লেন তিনি। ২৯৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে পঞ্চম দিন চতুর্থ ইনিংসে ঝড়ো গতিতে ব্যাট করে ৫ উইকেটে জয় তুলে নিয়েছে ইংল্যান্ড।

লর্ডসে প্রথম টেস্টেও ৫ উইকেটে জিতেছিল ইংলিশরা। ট্রেন্টব্রিজেও জিতলো ৫ উইকেটে। সে সঙ্গে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই জিতে নিলো স্বাগতিক ইংলিশরা। নতুন অধিনায়ক বেন স্টোকস আর কোচ ব্রেন্ডন ম্যাককালামের যাত্রাটা শুরু হলো সিরিজ জয়ের মধ্য দিয়েই।

৭ উইকেটে ২২৪ রান নিয়ে পঞ্চম দিন ব্যাট করতে নেমেছিল নিউজিল্যান্ড। দিনের প্রথম সেশনে প্রায় সাড়ে ১৫ ওভার ব্যাট করে ২৮৪ রানে অলআউট হয়ে যায় কিউইরা। ইংল্যান্ডের সামনে তাদের লিড দাঁড়ায় ২৯৮ রানের।

দিনের খেলা ১৫ ওভারের বেশি শেষ। বাকি আছে আর ৭৪ কিংবা ৭৫ ওভার। টেস্টের চতুর্থ ইনিংসে পঞ্চম দিন এই ৭৫ ওভারে ২৯৯ রান তাড়া করা দুঃস্বপ্নেরও সমান। কারণ, ক্রিজের অবস্থা থাকে খারাপ। ঝুঁকি নিতে গেলে উইকেট পড়ে দ্রুত।

এমন পরিস্থিতিতে মাত্র ৫০ ওভার খেলেই ২৯৯ রান তুলে ফেলেছে ইংল্যান্ড। একেবারে আদর্শ ওয়ানডে ম্যাচে রূপ দিয়েছে তারা। যদিও ঝুঁকি নিতে গিয়ে শুরুতে কিছুটা মূল্য দিতে হয়েছে।

শুরুতেই কোনো রান না করে বিদায় নেন জ্যাক ক্রাউলি। অ্যালেক্স লিস ৪৪ রান করলেও ১৮ রানে আউট হন ওলি পোপ। জো রুট বিদায় নেন ৩ রান করে। ৯৩ রানে নেই ৪ উইকেট।

কিন্তু অন্য ধাতুতে গড়া সম্ভবত বেয়ারেস্টো এবং স্টোকস। বোল্ট, সাউদি, ম্যাট হেনরি কিংবা মিচেল ব্রেসওয়েলদের চোখ রাঙানি উপেক্ষা করে তারা গড়লেন ১৭৯ রানের অনবদ্য এক জুটি।

জনি বেয়ারেস্টো খেলেছেন রীতিমত টি-টোয়েন্টি স্টাইলে। ৭৭ বলে সেঞ্চুরি পূরণ করেন তিনি। ৯টি বাউন্ডারি আর ৫টি ছক্কা মেরে। শেষ পর্যন্ত আউট হন ৯২ বলে ১৩৬ রান করে। ১৪টি বাউন্ডারির সঙ্গে ছক্কা মারেন ৭টি। ম্যাচ সেরার পুরস্কারও জেতেন বেয়ারেস্টো।

বেন স্টোকসের ৭০ বলে খেলা ৭৫ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ১০টি বাউন্ডারি আর ৪টি ছক্কায়। ১৫ বলে ১২ রান করে অপরাজিত ছিলেন বেন ফোকস। ৩ উইকেট নেন ট্রেন্ট বোল্ট। ১টি করে নেন সাউদি আর ম্যাট হেনরি।

প্রথম ইনিংসে ৫৫৩ রান করেছিল নিউজিল্যান্ড। জোড়া সেঞ্চুরি করেন ড্যারিল মিচেল (১৯০) এবং টম ব্লান্ডেল (১০৬)। জবাবে জোড়া সেঞ্চুরিতে ইংল্যান্ডও করে ৫৩৯ রান। ১৭৬ রান করেন জো রুট এবং ১৪৫ রান করেন ওলি পোপ।

দ্বিতীয় ইনিংসে তিন হাফ সেঞ্চুরির সুবাধে ২৮৪ রান করে অলআউট হয় নিউজিল্যান্ড। ফলে ২৯৯ রানের লক্ষ্য দাঁড়ায় ইংল্যান্ডের সামনে। ওভারপ্রতি ৫.৯৮ করে নিয়ে ৫০ ওভারেই জয় তুলে নেয় ইংল্যান্ড।


আরও খবর



ইতালিতে প্রথম চিকিৎসকের সহায়তায় আত্মহত্যা

প্রকাশিত:Friday ১৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
Image

ইতালিতে প্রথমবারের মতো ৪৪ বছর বয়সি ফ্রেডরিকো কার্বনি চিকিৎসকদের সহায়তায় স্বেচ্ছায় মৃত্যুবরণ করেছেন। গলা থেকে নিচ পর্যন্ত পক্ষাঘাতে অসাড় হয়ে গিয়েছিল তার শরীর। বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) ওই অসুস্থ মানুষটি আত্মহত্যা করেন।

ইতালির আইন অনুযায়ী, কারও মৃত্যুতে সাহায্য করা অপরাধ। কিন্তু ২০১৯ সালে সাংবিধানিক আদালত জানিয়ে দেন, সামান্য কিছু ব্যতিক্রম হতে পারে। তবে তার জন্য কঠিন শর্ত পালন করা জরুরি।

জানা গেছে, বিশেষ মেশিনের সহায়তায় তার শরীরে মৃত্যুর জন্য ওষুধ দেওয়া হয়। তার অন্তিম শয্যায় তার বন্ধু ও স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।

ফ্রেডরিকো কার্বনির মৃত্যুর ঘোষণা করে লুকা কসিওনি অ্যাসোসিয়েশন। এই সংস্থাটি ইউথেনেশিয়া বা স্বেচ্ছামৃত্যুর সমর্থনে প্রচার চালায়। কার্বনির বিষয়টি নিয়েও তারা দীর্ঘদিন ধরে প্রচার চালাচ্ছিল।

ফ্রেডরিকো কার্বনি ছিলেন অবিবাহিত ট্র্যাক চালক। প্রায় দশ বছর আগে দুর্ঘটনার পর তিনি পক্ষাঘাতগ্রস্ত হন।

লুকা কসিওনি অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে, মৃত্যুর আগে কার্বনি বলেছেন, ‘এভাবে জীবন থেকে বিদায় নিতে আমার আক্ষেপ হচ্ছে। কিন্তু বাঁচার জন্য আমি সবরকম চেষ্টা করেছি। আর সম্ভব নয়। শারীরিক ও মানসিকভাবে জীবনের শেষ সীমায় এসে পৌঁছেছি। আমি সমুদ্রে নৌকার মতো ভাসছি।’

কার্বনির জন্য ২৪ ঘণ্টা সাহায্যকারী থাকতেন। স্বাধীনভাবে তিনি কিছুই করতে পারতেন না। বিদায় নেয়ার আগে তিনি বলেন, ‘এখন আমি যেখানে খুশি উড়ে যেতে পারবো।’

২০১৯ সালে ইতালির সুপ্রিম কোর্ট কিছু ক্ষেত্রে স্বেচ্ছামৃত্যুর অনুমতি দিয়েছিল। কিন্তু রোমান ক্যাথলিক চার্চ ও রক্ষণশীল দলগুলো এর বিরোধিতা করে।

আদালত তাদের নির্দেশে বেশ কিছু মাপদণ্ড ঠিক করে দেন। সেই মাপদণ্ড মেনেই একমাত্র চিকিৎসকদের সহায়তায় জীবন দেওয়ার অনুমোদন দেওয়া হয়।

অন্যতম মাপদণ্ড হলো, রোগী আর কখনো ভালো হবেন না, তিনি জীবনধারণের জন্য সবসময় অন্যের উপর নির্ভরশীল থাকবেন এবং শারীরিক ও মানসিক দিক থেকে তিনি অসহনীয় যন্ত্রণা ভোগ করছেন। আর তার এই চেতনা থাকবে যে, তিনি নিজের মৃত্যুবরণের সিদ্ধান্ত নিজে নিতে পারবেন।

কার্বনি গত নভেম্বরে এথিক্স কমিটির কাছ থেকে স্বেচ্ছামৃত্যুর অনুমতি পান। তারপর তিনি জীবন শেষ করে দেয়ার জন্য পাঁচ হাজার ইউরোও জোগাড় করেন। ড্রাগ ও মেশিনের জন্য ওই পরিমাণ অর্থ জরুরি ছিল তার।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে, নিউইয়র্ক টাইমস


আরও খবর



ভ্যাট ফাঁকির জরিমানা কমছে

প্রকাশিত:Thursday ০৯ June ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ২৫ June ২০২২ | ৪৫জন দেখেছেন
Image

নতুন অর্থবছরের (২০২২-২৩) প্রস্তাবিত বাজেটে ভ্যাট ফাঁকি, ব্যর্থতা বা অনিয়মের ক্ষেত্রে আরোপিত জরিমানার পরিমাণ কমানোর প্রস্তাব দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। সেই সঙ্গে টার্নওয়ার কর দাখিলপত্র পেশ না করার ব্যর্থতা বা অনিয়মের পরিমাণ কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) জাতীয় সংসদে নতুন অর্থবছরের এ বাজেট প্রস্তাব উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এটি দেশের ৫১তম ও বর্তমান সরকারের ২৩তম বাজেট। আর অর্থমন্ত্রী হিসেবে মুস্তফা কামালের চতুর্থ বাজেট।

আইনে শাস্তি ও জরিমানার বিধান অতিরিক্ত কঠোর করা হলে অনেক ক্ষেত্রেই তা প্রায়োগিক জটিলতার সৃষ্টি করে এবং স্বাভাবিক ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড বাধাগ্রস্ত হয় বলে অভিমত অর্থমন্ত্রীর।

এজন্য মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন, ২০১২-এ জরিমানা ও সুদের হার সহনীয় করার লক্ষ্যে কয়েকটি প্রস্তাব দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। এর মধ্যে রয়েছে-

>> নির্ধারিত তারিখের মধ্যে মূসক বা টার্নওভার কর দাখিলপত্র পেশ না করার ব্যর্থতা বা অনিয়মের ক্ষেত্রে জরিমানার পরিমাণ ১০ হাজার টাকা থেকে কমিয়ে ৫ হাজার টাকা করা।

>> ভ্যাট ফাঁকি, ব্যর্থতা বা অনিয়মের ক্ষেত্রে আরোপিত জরিমানার পরিমাণ জড়িত রাজস্বের সমপরিমাণের পরিবর্তে ‘অন্যূন অর্ধেক এবং অনূর্ধ্ব সমপরিমাণ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

>> করদাতাদের অনিচ্ছাকৃত ভুলের ক্ষেত্রে জরিমানা আরোপ না করা ও বন্ধ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান পুনরায় চালু করার মধ্যবর্তী সময়ে দাখিলপত্র পেশ না করা হলে জরিমানা আরোপ না করার বিধান সংযোজন করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

>> আপিল কমিশনারেট, আপিলাত ট্রাইব্যুনাল এবং উচ্চ আদালতে আপিল দায়েরের ক্ষেত্রে আরোপিত জরিমানা ব্যতিরে শুধুমাত্র দাবি করা করের অংশবিশেষ জমার বিধান করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

>> আপিলাত ট্রাইব্যুনালে নির্ধারিত ৯০ দিনের মধ্যে প্রতিষ্ঠান আপিল দায়ের করতে না পারলে মেয়াদ আরও ৬০ দিন বর্ধিত করার বিধান সন্নিবেশকরণের প্রস্তাব করা হয়েছে।

>> বকেয়া মূসক আদায়ের ক্ষেত্রে সুদ আরোপের সময়সীমা সর্বোচ্চ ২৪ মাস করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

মূল্য সংযোজন কর আদায় কার্যক্রমে তদারকি নিশ্চিত করা এবং রাজস্ব আদায় বৃদ্ধির জন্য এ সংক্রান্ত আইন ও বিধিতে কিছু সংশোধনের প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী। এর মধ্যে রয়েছে-

>> আন্তর্জাতিক পরিবহন সংশ্লিষ্ট সেবার ক্ষেত্রে বৃহৎ পরিসরে শূন্য হারের সুবিধা বলবৎ রয়েছে, যার ফলে মাঠ পর্যায়ে প্রায়োগিক সমস্যার উদ্ভব হচ্ছে। তাই এক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সংশোধনী আনয়নের প্রস্তাব করা হয়েছে।

>> ভ্যাট খেলাপি প্রতিষ্ঠানের বিদ্যুৎ, গ্যাস ও পানি সংযোগ বিচ্ছিন্নকরণে মূসক কর্মকর্তারা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করার বিধান আইনে সন্নিবেশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

>> বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তি (এডিআর) প্রক্রিয়া অধিকতর কার্যকর করার লক্ষ্যে উচ্চ আদালতের পেন্ডিং মামলাগুলো বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির আওতায় আনার প্রস্তাব করা হয়েছে।

>> ‘চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টদের’ ন্যায় ‘কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টদের’ বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে সহায়তাকারী হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করার বিধান সংযোজনের প্রস্তাব করা হয়েছে।

>> বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির মাধ্যমে নিষ্পত্তি করা বিষয়ে কোনো তদন্তকারী সংস্থা এ বিষয়ে কোনো তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারবে না মর্মে বিধান সংযোজনের প্রস্তাব করা হয়েছে।

>> বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নিরীক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার সময় দাখিল করা বার্ষিক নিরীক্ষা প্রতিবেদনের সাথে ক্রেডিট রেটিং এজেন্সির রিপোর্ট পর্যালোচনা করার প্রয়োজন হয়। তাই, আইনে মূসক কর্মকর্তাকে সহায়তার লক্ষ্যে সহায়তাকারী হিসেবে ক্রেডিট রেটিং এজেন্সি-কে অন্তর্ভুক্তকরণের বিধান সংযোজনের প্রস্তাব করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের অভিঘাত পেরিয়ে উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় প্রত্যাবর্তনের লক্ষ্য নিয়ে প্রস্তাবিত ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটের আকার হচ্ছে ছয় লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকা। এবারের বাজেটের আকার যেমন বড়, তেমনি এ বাজেটে ঘাটতিও ধরা হয়েছে বড়।

অনুদান বাদে এই বাজেটের ঘাটতি দুই লাখ ৪৫ হাজার ৬৪ কোটি টাকা, যা জিডিপির সাড়ে ৫ শতাংশের সমান। আর অনুদানসহ বাজেট ঘাটতির পরিমাণ দুই লাখ ৪১ হাজার ৭৯৩ কোটি টাকা, যা জিডিপির ৫ দশমিক ৪০ শতাংশের সমান।

এটি বর্তমান সরকারের ২৩তম এবং বাংলাদেশের ৫১তম ও বর্তমান অর্থমন্ত্রীর চতুর্থ বাজেট। বাজেটে সঙ্গত কারণেই মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ, কৃষিখাত, স্বাস্থ্য, মানবসম্পদ, কর্মসংস্থান ও শিক্ষাসহ বেশকিছু খাতকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



বরগুনায় পণ্যবাহী ট্রলারডুবি, দুই শ্রমিক নিখোঁজ

প্রকাশিত:Sunday ০৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
Image

বরগুনার পায়রা নদীতে পণ্যবাহী ট্রলার ডুবে দুই শ্রমিক নিখোঁজ রয়েছেন। রোববার (৫ জুন) দিনগত রাত ১টার দিকে নদীর চাড়াভাঙা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিখোঁজদের উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধার অভিযান চলছে।

ট্রলারে থাকা শ্রমিক আব্দুর রব মৃধা জাগো নিউজকে জানান, শনিবার রাত ৮টার দিকে বরগুনা বাজারের রিপন মহাজনের ঘর থেকে বিভিন্ন পণ্য নিয়ে পাঁচ শ্রমিকসহ এক ব্যবসায়ী ট্রলারটি তালতলীর দিকে যাত্রা শুরু করে। রাত ১টার দিকে ট্রলারটি পায়রা নদীর চাড়াভাঙা এলাকায় পৌঁছালে ট্রলারটির ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়, এসময় নদী উত্তাল থাকায় ট্রলারটিতে পানি প্রবেশ করে। পানি ঢোকা বন্ধ করতে না পারায় ট্রলারটি ডুবে যায়। এ সময় ট্রলারে থাকা পাঁচজন সাতরে তীরে উঠতে পারলেও নিখোঁজ হন দুই শ্রমিক।

ফায়ার সার্ভিসের তালতলী স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাখাওয়াত হোসেন জানান, খবর পাওয়ারর সঙ্গে সঙ্গে ফায়ার সার্ভিসকর্মীরা ঘটনাস্থলে যান। সেখানে নিখোঁজ শ্রমিকদের উদ্ধারে কাজ করছেন তারা।


আরও খবর



২৪ ঘণ্টায় ৭১ জনের করোনা শনাক্ত

প্রকাশিত:Saturday ১১ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
Image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় কারও মৃত্যু হয়নি। ফলে দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২৯ হাজার ১৩১ জনই রয়েছে। একই সময়ে করোনা আক্রান্ত হিসেবে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৭১ জন।

একদিনে শনাক্তদের মধ্যে ৬৮ জনই ঢাকা জেলা ও মহানগরের বাসিন্দা। শনাক্ত অন্য তিনজনই কক্সবাজারের। এ নিয়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯ লাখ ৫৪ হাজার ৬ জনে।

শনিবার (১১জুন) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে সরকারি-বেসরকারি ৮৭৯টি ল্যাবরেটরিতে ছয় হাজার ১৭১টি নমুনা সংগ্রহ এবংছয় হাজার ২২৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১ দশমিক ১৪ শতাংশ।

এদিকে, একদিনে করোনা আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১১০ জন। এ নিয়ে সুস্থ রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ১৯ লাখ পাঁচ হাজার ১৭৫ জন।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম তিনজনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।


আরও খবর