Logo
আজঃ Friday ১৯ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে আবাসিকের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন ডেমরায় প্যাকেজিং কারখানায় ভয়বহ অগ্নিকান্ড রূপগঞ্জে পুলিশের ভুয়া সাব-ইন্সপেক্টর গ্রেফতার রূপগঞ্জে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ॥ সভা সরাইলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ৭৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত। নারায়ণগঞ্জে পারিবারিক কলহে স্ত্রীকে পুতা দিয়ে আঘাত করে হত্যা,,স্বামী গ্রেপ্তার রূপগঞ্জ ইউএনও’র বিদায় সংবর্ধনা নাসিরনগরে স্বামীর পরকিয়ার,বলি ননদ ভাবীর বুলেটপানে আত্মহত্যা নাসিরনগরে জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকী পালিত ডেমরায় জাতীয় শোক দিবসের কর্মসুচি পালিত

আবারও দেখা মিলল হাতওয়ালা গোলাপি মাছের

প্রকাশিত:Friday ২৪ December ২০২১ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৫৩৭জন দেখেছেন
Image

অস্ট্রেলিয়ার তাসমানিয়ার উপকূলে ২২ বছর পর প্রথমবারের মতো দেখা মিলেছে বিরল প্রজাতির হাতওয়ালা (হ্যান্ডফিশ) গোলাপি মাছের। গভীর সমুদ্রে ধারণ করা ফুটেজ বিশ্লেষণ করে এ তথ্য জানিয়েছেন দেশটির গবেষকরা। এর আগে ১৯৯৯ সালে তাসমানিয়ার একজন ডুবুরি গোলাপি মাছ দেখতে পান। অস্তিত্ব সংকট বিবেচনা করে সম্প্রতি একে বিপন্ন প্রজাতি ঘোষণা করে অস্ট্রেলিয়া কর্তৃপক্ষ।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণের দ্বীপ এলাকা তাসমানিয়া এলাকায় ১৪ ধরনের হ্যান্ডফিশ মাছ দেখা যায়। গোলাপি হ্যান্ডফিশ এমনই একটি ধরন। মাছগুলোর ছোট হাত থাকায় সাঁতারের পাশাপাশি হাতের ওপর ভর দিয়ে সমুদ্রের তলদেশে হেঁটে বেড়াতে পারে। এ বছরের শুরুতে ধারণ করা ফুটেজ বিশ্লেষণ করে গবেষকরা বলছেন, দীর্ঘদিন পর আবার দেখা মিলেছে এই মাছের।

গত ফেব্রুয়ারিতে তাসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক নেভিল ব্যারেটের নেতৃত্বাধীন গবেষক দল তাসমান ফ্র্যাকচার মেরিন পার্কে সমুদ্রের তলদেশে একটি ক্যামেরা স্থাপন করেন। প্রবাল, লবস্টার ও বিভিন্ন মৎস্য প্রজাতি নিয়ে জরিপ চালানোর উদ্দেশ্যে তারা এই কাজ করেন। ফুটেজে দেখা যায়, বড় একটি লবস্টারের তাড়া খেয়ে সমুদ্রের তলদেশের শিলাস্তর থেকে ১৫ সেন্টিমিটার দৈর্ঘ্যের মাছটি বের হয়ে আসছে। প্রথমে মাছটি কয়েক সেকেন্ড সেখানে থেমে থাকে ও পরিস্থিতি বোঝার চেষ্টা করে। এরপর সেটি সাঁতার কেটে চলে যায়।

গবেষক দলের এক সদস্য গত অক্টোবরে ফুটেজ বিশ্লেষণের সময় মাছটি শনাক্ত করেন। তিনি দেখতে পান, অনেকগুলো বড় আকারের সামুদ্রিক প্রাণীর ভিড়ে অদ্ভুত এক প্রাণীও রয়েছে। ওই গবেষক বলেন, ‘আমি খসড়া ভিডিওগুলোর একটি দেখছিলাম। তখন দেখলাম, প্রবাল প্রাচীরের ওপর একটি ছোট মাছ লাফালাফি করছে। এটিকে একটু অন্য রকম মনে হচ্ছিল। ফুটেজ আরেকটু বড় করে দেখলাম এর ছোট ছোট হাতও আছে।’

মাছটি সম্পর্কে নতুন তথ্যও মিলেছে। আগের চেয়ে অনেক বেশি গভীর ও খোলা পানিতে বসবাস করছে এ মাছ। তাসমানিয়ার বনাঞ্চল-সংলগ্ন দক্ষিণ উপকূলে ৩৯০ ফুট গভীর পানিতেও এ মাছের অস্তিত্ব পাওয়া যাচ্ছে।

প্রধান গবেষক ও সামুদ্রিক জীববিজ্ঞানী নেভিল ব্যারেট বলেন, ‘এটি গুরুত্বপূর্ণ আবিষ্কার। এর মধ্য দিয়ে গোলাপি হ্যান্ডফিশের টিকে থাকার ব্যাপারে আশার সঞ্চার হয়েছে। অতীতে যেমনটা ভাবা হতো, তার তুলনায় বিস্তৃত আবাসস্থলে তারা বাস করে।’


আরও খবর



জানাজা শেষে বাড়ির পথে শাবির ছাত্র বুলবুলের মরদেহ

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১৭ August ২০২২ | ৪৫জন দেখেছেন
Image

ছুরিকাঘাতে নিহত শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) লোক প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী বুলবুল আহমেদের মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) দুপুর ১টার দিকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কেন্দ্রীয় মাঠে জানাজা শেষে পরিবারের সদস্যদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক অধ্যাপক আমিনা পারভীন, প্রক্টর ইশরাত ইবনে ইসমাইল, সাবেক প্রক্টর আলমগীর কবির, বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

মরদেহ হস্তান্তর করার সময় দ্রুততম সময়ের মধ্যে অপরাধীদের শনাক্ত করে আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি দেওয়া হবে বলে জানান উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

এদিকে অপরাধীদের শনাক্ত করে সুষ্ঠু বিচার নিশ্চিতে পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। কমিটিতে রয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. আখতারুল ইসলাম, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক অধ্যাপক আমিনা পারভীন, শাহপরান হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান খান, লোক প্রশাসন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. শফিকুল ইসলাম ও সহকারী প্রক্টর আবু হেনা পহিল।

সোমবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে গাজীকালুর টিলায় বুলবুল আহমেদকে ছুরিকাঘাত করে দুর্বৃত্তরা। ঘটনাস্থলে তিনি অজ্ঞান অবস্থায় পড়েছিলেন। পরে তাকে উদ্ধার করে এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত বুলবুল আহমেদের বাড়ি নরসিংদী জেলায়। তিনি শাবিপ্রবির লোকপ্রশাসন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।


আরও খবর



লঞ্চের ভিআইপি কেবিনের দুই যাত্রীর কাছে মিললো সাড়ে ১৩ কেজি গাঁজা

প্রকাশিত:Friday ২৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Thursday ১৮ August ২০২২ | ৩২জন দেখেছেন
Image

ভোলায় ঢাকা থেকে আসা যাত্রীবাহী লঞ্চ ফারহান-৮ এর ভিআইপি কেবিন থেকে সাড়ে ১৩ কেজি গাঁজাসহ দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে নৌপুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) বিকেলে ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার হাকিমউদ্দিন লঞ্চঘাটে ওই লঞ্চ থেকে গাঁজাসহ তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- কুমিল্লার শ্রীমন্ত্রপুর গ্রামের আব্দুল মাজেদের ছেলে আব্দুল করিম (৪৫) ও একই জেলার কোতোয়ালির ঠাকুরপাড়ার হুমায়ুন কবিরের ছেলে মো. লিমন (৩৫)।

মির্জাকালু নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. শরিফুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিকেল ৫টার হাকিমউদ্দিন লঞ্চঘাটে অভিযান পরিচালনা করি। এ সময় ঢাকা থেকে আসা যাত্রীবাহী লঞ্চ ফারহান-৮ এর ভিআইপি কেবিন-১ এ তল্লাশি চালিয়ে সাড়ে ১৩ কেজি গাঁজা দুজনকে আটক করি।

আটকদের বিরুদ্ধে বোরহানউদ্দিন থানায় মাদক আইনে একটি মামলা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।


আরও খবর



শেয়ারবাজারে স্টার্টআপ কোম্পানির জন্য নতুন বোর্ড গঠনের পরিকল্পনা

প্রকাশিত:Thursday ০৪ August ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১৭ August ২০২২ | ১৬জন দেখেছেন
Image

স্টার্টআপ কোম্পানির জন্য শেয়ারবাজারে আলাদা বোর্ড গঠনের পরিকল্পনার কথা জানিয়ে পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেছেন, যোগ্য স্টার্টআপ কোম্পানিগুলোকে পুঁজিবাজার থেকে অর্থ উত্তোলনের সুযোগ দেওয়া হবে।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) রাজধানীর নিকুঞ্জের ডিএসই ভবনে ‘ক্যাপিটাল মার্কেট অব বাংলাদেশ প্রস্পেক্ট অ্যান্ড অপারচুনিটিস ফর টেক স্টার্টআপ অ্যান্ড গ্রোথ স্টেজ কোম্পানিজ’ শীর্ষক সেমিনারে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, ব্যাংক গ্রাহকদের কাছ থেকে আমানত নিয়ে ঋণ দেয়। অন্যদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে ঋণ দিতে ব্যাংকগুলোকে অনেক সাবধান হতে হয়। এছাড়া জামানত নিতে হয়। কিন্তু স্টার্টআপ কোম্পানিগুলো নতুন জেনারেশন গঠন করে। এদের পক্ষ জামানত রাখা সম্ভব হয় না। তবে, তাদের কোম্পানি চালানোর জ্ঞান এবং ইনোভেটিভ পরিকল্পনা থাকে। এ জাতীয় কোম্পানিকে কমিশন সহযোগিতা করবে।

শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেন, স্টার্টআপ কোম্পানিগুলোর মধ্যে যারা ভালো করছে, যাদের গ্রোথ ভালো আমরা তাদের পুঁজিবাজার থেকে অর্থ উত্তোলন করার সুযোগ দেবে। তবে, সবার জন্য এ সুযোগ ওপেন করে দেওয়া হবে না। তাহলে, যারা খারাপ তারা এসে— যারা ভালো করছে তাদের পরিবেশ খারাপ করে দেবে।

স্টার্টআপ কোম্পানির মুনাফা করতে সময় লাগে। তবে লোকসানে থাকলেও ছাড় বা সুযোগ দিয়ে (ওয়েভার) শেয়ারবাজারে আসতে দেওয়ার সুযোগ আছে। আর এ সুযোগ করে দেবো। তবে, আইন পরিবর্তন করে সব লোকসানি স্টার্টআপ কোম্পানিকে শেয়ারবাজারে আনা যাবে না। তাহলে যেসব কোম্পানি কর্তৃপক্ষ ব্যক্তি স্বার্থ উদ্ধারে ফন্দিফিকির করে, তারা সুযোগ নেবে।

তিনি বলেন, আমাদের কোনো কোম্পানির অর্থ উত্তোলনের সুযোগ দেওয়ার ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীদের দিকটিও দেখতে হয়। তাই সবকিছু কোম্পানি কর্তৃপক্ষের মনোপুত নাও হতে পারে। তবে, এটা কাউকে নিরুৎসাহিত করার জন্য না করি না। কারণ আমাদের কোম্পানির পাশাপাশি বিনিয়োগকারীদের স্বার্থের দিকটিও বিবেচনা করতে হয়। আমাদের ক্ষেত্রে পরিস্থিতি এমন দাঁড়ায় আমরা বামে গেলে ডান মন খারপ করে, আবার ডানে গেলে বাম মন খারাপ করে।

স্টার্টআপ কোম্পানিকে সহযোগিতা করলে যদি দেশ লাভবান হয়, তাহলে কেন সহযোগিতা করবো না। তবে, এ জাতীয় কোম্পানিগুলোকে শেয়ারবাজারে আসতে চাইলে অবশ্যই কমপক্ষে ১০ শতাংশ শেয়ার ইস্যু করতে হবে। অন্যথায় আমরা অর্থ উত্তোলনের সুযোগ দেবো না।

স্টার্টআপ কোম্পানিগুলোর জন্য নতুন বোর্ড গঠন করা বিবেচনা করা হবে বলে জানিয়ে বিএসইসির চেয়ারম্যান বলেন, স্টার্টআপ কোম্পানিগুলো মূল বা এসএমই মার্কেটে এসে খাপ খাওয়াতে পারবে না। তবে উন্নতি করার পরে এসএমইতে দেওয়া হবে। আরও উন্নতির পরে এসএমই থেকে মূল মার্কেটে নেওয়া হবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএসইসির কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) চেয়ারম্যান মো. ইউনুসুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এবং স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এনএম জিয়াউল আলম, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সাবেক চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান, ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক তারেক আমিন ভূঁইয়া, ডিএসইর পরিচালক শাকিল রিজভী প্রমুখ।

সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য বিএসইসির কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ বলেন, আমাদের দুয়ার সবসময় স্টার্টআপ কোম্পানির জন্য খোলা। আপনারা কমিশনে আসেন। আপনাদের কথা গুরুত্বসহকারে শুনতে চাই। সমস্যা থাকলে, তা সমাধান করা হবে। আমাদের দেশে ফান্ডের সমস্যা নেই, আছে স্পৃহার অভাব। বর্তমানে আমাদের দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইর পিই ১৫ এর কাছাকাছি। যা বিনিয়োগের জন্য খুবই ভালো।


আরও খবর



রাতের আঁধারে নিয়োগ বাণিজ্যের টাকা ফেরত দিলেন মাদরাসা সভাপতি

প্রকাশিত:Saturday ২৩ July ২০২২ | হালনাগাদ:Thursday ১৮ August ২০২২ | ২৯জন দেখেছেন
Image

ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার আশাপুর সিনিয়র আলিম মাদরাসার সভাপতি তৈয়বুর রহমান মিয়ার বিরুদ্ধে নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। এক প্রার্থীতে নিয়োগ দিতে না পেরে রাতের আঁধারে টাকা ফেরত দেওয়ার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, মাদরাসার সভাপতি তৈয়বুর রহমান একটি ব্যাগ থেকে টাকা বের করে এক নিয়োগ প্রত্যাশীর স্বামীর হাতে তুলে দিচ্ছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ২৫ জুন মাদরাসায় চারটি পদে নিয়োগের জন্য পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে একটি পদ ব্যতীত অন্য তিনটি পদে তিনজন প্রার্থী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। উপাধ্যক্ষ পদে প্রার্থীরা কাঙ্ক্ষিত ফলাফল করতে না পারায় এই পদের নিয়োগ বাতিল করা হয়। অন্য তিনটি পদে আয়া হিসেবে রেশমা খাতুন, অফিস সহকারী কাম-হিসাব সহকারী হিসেবে মো. তারিক হাসান এবং অফিস সহকারী কাম-কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে মো. নাজমুল হক নির্বাচিত হন।

খোঁজ নিয়ে আরও জানা যায়, মনিরা আলম নামে এক নারী প্রার্থীকে আয়ার চাকরি দেবেন বলে তার স্বামী জিয়াউর রহমানের কাছ থেকে চার লাখ টাকা নেন মাদরাসার সভাপতি তৈয়বুর রহমান। তিনি যেভাবেই হোক চাকরির ব্যবস্থা করবেন বলে চাকরিপ্রার্থীকে আশ্বাস দেন। কিন্তু মনিরা আলমকে চাকরি না দিতে পেরে তৈয়বুর রহমান রাতের আঁধারে জিয়াউর রহমানকে সেই চার লাখ টাকা ফেরত দেন।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, যারা চাকরি পেয়েছেন তাদের কাছ থেকেও মোটা অঙ্কের টাকা নিয়েছেন সভাপতি। আয়া পদের জন্য যদি চার লাখ টাকা দিতে হয় তাহলে অন্যসব পদের জন্য আরও বেশি টাকা দিতে হয়েছে। তিনটি পদে প্রায় ৩১ লাখ টাকা নিয়োগ বাণিজ্য হয়েছে তারা অভিযোগ করেছেন।

অফিস সহকারী কাম-কম্পিউটার অপারেটর পদে আবেদন করা মিতু খানম সবদিক দিয়ে এগিয়ে থেকেও চাকরি পাননি বলে দাবি করেন তার স্বামী নাইমুর রহমান। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, মাদরাসার সভাপতি আমার সম্পর্কে চাচা। তার কথামতো সবই করেছি। সবই ঠিক ছিল। কিন্তু নিয়োগের আগের রাতে কী হতে কী হয়ে গেলো কিছুই বুঝলাম না। পরে যদিও ঘুসের টাকা ফেরত পেয়েছি।

তিনি আরও বলেন, সব পদেই মোটা অঙ্কের টাকা লেনদেন হয়েছে। টাকা ছাড়া কোনো পদে নিয়োগ হয়নি।

এ বিষয়ে মাদরাসার সভাপতি তৈয়বুর রহমানের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলে মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। তার বাড়িতে খোঁজ নিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি। এলাকাবাসী জানান, তিনি নিয়োগের পরই বাড়ি থেকে ঢাকায় অবস্থান করছেন।

এ বিষয়ে আশাপুর সিনিয়র আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ মো. শহিদুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ সঠিক নয়। স্বচ্ছতার ভিত্তিতে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। সব অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। এটা এক ধরনের ষড়যন্ত্র।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মধুখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আশিকুর রহমান চৌধুরী জাগো নিউজকে বলেন, নিয়োগ বাণিজ্যর অভিযোগ সঠিক নয়। কোনো ধরনের নিয়োগ বাণিজ্য হয়নি। স্বচ্ছতার সঙ্গে নিয়োগ সম্পন্ন করা হয়েছে। কোনো বাণিজ্য হতে দেওয়া হয়নি।

রাতের অন্ধকারে ঘুসের টাকা ফেরতের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বাণিজ্য হয়নি বলেই টাকা ফেরত দিয়েছেন।


আরও খবর



গম-ভুট্টা চাষে হাজার কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন স্কিম

প্রকাশিত:Monday ০৮ August ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১৭ August ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
Image

সংকটের কথা মাথায় রেখে সরাসরি কৃষকদের মাঝে ঋণ বিতরণ করবে ব্যাংকগুলো। এ লক্ষ্যে গম ও ভুট্টা উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ১ হাজার কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন স্কিম চালু করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বোর্ড সভায় এ স্কিম অনুমোদন হয়।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, দেশের কৃষি খাতকে এগিয়ে নিতে গম ও ভুট্টা চাষে স্কিমটি চালু করা হয়েছে। এ স্কিম থেকে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ব্যাংকগুলোকে দেবে শূন্য দশমিক ৫ শতাংশ সুদ হারে। আর বিতরণকৃত ঋণের গ্রাহক পর্যায়ে সুদহার হবে ৪ শতাংশ। চলতি বছরের ডিসেম্বর থেকে এ স্কিমের মেয়াদ শুরু হবে। এর মেয়াদ হবে তিন বছর।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমাদের দেশ গম ও ভুট্টা আমদানি করে। বর্তমানে ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে একটা সমস্যা তৈরি হয়েছে। যার কারণে এক হাজার কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন স্কিম চালু করা হয়েছে। যাতে দেশে এসব উৎপাদন করে চাহিদা মেটাতে পারে।

এদিকে শিল্প ও সেবা খাতের জন্য দেওয়া ২৭ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজে যুক্ত হয়েছে আরও তিন হাজার কোটি টাকা। অতিরিক্ত টাকা থেকে দেশি-বিদেশি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানকে ঋণ দেওয়া হবে। প্রণোদনা প্যাকেজের ৩য় ও সর্বশেষ পর্যায়ের বাস্তবায়নের লক্ষ্যে শিল্প ও সার্ভিস সেক্টরের প্রতিষ্ঠানের (সিএমএসএমই ছাড়া) জন্য ২৭ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনার ঋণ দেওয়া হবে।

এছাড়া বেজা, বেপজা ও বাংলাদেশ হাইটেক কর্তৃপক্ষে অবস্থিত ‘এ’,‘বি’ ও ‘সি’ টাইপ শিল্প প্রতিষ্ঠান এবং এসব অঞ্চলের বাইরে অবস্থিত শতভাগ বিদেশি মালিকানাধীন ও যৌথ মালিকানাধীন (দেশি ও বিদেশি) প্রতিষ্ঠানের জন্য তিন হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা তহবিল ঘোষণা করা হয়েছে। সব মিলিয়ে এ খাতে ৩০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

যেসব প্রতিষ্ঠান ঋণ সুবিধা পায়নি তারা অগ্রাধিকার পাবে। এ প্যাকেজের আওতায় ৩য় পর্যায়ে ঋণ বিতরণ কার্যক্রম আগামী বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত।


আরও খবর