Logo
আজঃ Wednesday ২৬ January ২০২২
শিরোনাম
অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে সহ-শিল্পীদের নগ্ন ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বিদেশের মাটিতে কৃষিপণ্য সরবরাহ বাড়াণোর লক্ষ্যে : ইরান রাজনৈতিক কঠিন চাপে রয়েছেন মেয়র আরিফুল স্বপ্নের মেট্রোরেল রওনা হলো আগারগাঁওয়ের উদ্দেশে ওমিক্রনের সংক্রমণে ভারতে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত নিয়মিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ মুরাদ হাসান এমিরেটসের ফ্লাইটে কানাডা গেলেন সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলী মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ আগামী বিশ্বকাপে ব্যাটসম্যানদের উন্নতি দেখতে চান করোনাভাইরাসে আরও ছয়জনের মৃত্যু বিশ্বের ৪৩তম ক্ষমতাধর নারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আবারও দেখা মিলল হাতওয়ালা গোলাপি মাছের

প্রকাশিত:Friday ২৪ December ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ১৫৪জন দেখেছেন
Image

অস্ট্রেলিয়ার তাসমানিয়ার উপকূলে ২২ বছর পর প্রথমবারের মতো দেখা মিলেছে বিরল প্রজাতির হাতওয়ালা (হ্যান্ডফিশ) গোলাপি মাছের। গভীর সমুদ্রে ধারণ করা ফুটেজ বিশ্লেষণ করে এ তথ্য জানিয়েছেন দেশটির গবেষকরা। এর আগে ১৯৯৯ সালে তাসমানিয়ার একজন ডুবুরি গোলাপি মাছ দেখতে পান। অস্তিত্ব সংকট বিবেচনা করে সম্প্রতি একে বিপন্ন প্রজাতি ঘোষণা করে অস্ট্রেলিয়া কর্তৃপক্ষ।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণের দ্বীপ এলাকা তাসমানিয়া এলাকায় ১৪ ধরনের হ্যান্ডফিশ মাছ দেখা যায়। গোলাপি হ্যান্ডফিশ এমনই একটি ধরন। মাছগুলোর ছোট হাত থাকায় সাঁতারের পাশাপাশি হাতের ওপর ভর দিয়ে সমুদ্রের তলদেশে হেঁটে বেড়াতে পারে। এ বছরের শুরুতে ধারণ করা ফুটেজ বিশ্লেষণ করে গবেষকরা বলছেন, দীর্ঘদিন পর আবার দেখা মিলেছে এই মাছের।

গত ফেব্রুয়ারিতে তাসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক নেভিল ব্যারেটের নেতৃত্বাধীন গবেষক দল তাসমান ফ্র্যাকচার মেরিন পার্কে সমুদ্রের তলদেশে একটি ক্যামেরা স্থাপন করেন। প্রবাল, লবস্টার ও বিভিন্ন মৎস্য প্রজাতি নিয়ে জরিপ চালানোর উদ্দেশ্যে তারা এই কাজ করেন। ফুটেজে দেখা যায়, বড় একটি লবস্টারের তাড়া খেয়ে সমুদ্রের তলদেশের শিলাস্তর থেকে ১৫ সেন্টিমিটার দৈর্ঘ্যের মাছটি বের হয়ে আসছে। প্রথমে মাছটি কয়েক সেকেন্ড সেখানে থেমে থাকে ও পরিস্থিতি বোঝার চেষ্টা করে। এরপর সেটি সাঁতার কেটে চলে যায়।

গবেষক দলের এক সদস্য গত অক্টোবরে ফুটেজ বিশ্লেষণের সময় মাছটি শনাক্ত করেন। তিনি দেখতে পান, অনেকগুলো বড় আকারের সামুদ্রিক প্রাণীর ভিড়ে অদ্ভুত এক প্রাণীও রয়েছে। ওই গবেষক বলেন, ‘আমি খসড়া ভিডিওগুলোর একটি দেখছিলাম। তখন দেখলাম, প্রবাল প্রাচীরের ওপর একটি ছোট মাছ লাফালাফি করছে। এটিকে একটু অন্য রকম মনে হচ্ছিল। ফুটেজ আরেকটু বড় করে দেখলাম এর ছোট ছোট হাতও আছে।’

মাছটি সম্পর্কে নতুন তথ্যও মিলেছে। আগের চেয়ে অনেক বেশি গভীর ও খোলা পানিতে বসবাস করছে এ মাছ। তাসমানিয়ার বনাঞ্চল-সংলগ্ন দক্ষিণ উপকূলে ৩৯০ ফুট গভীর পানিতেও এ মাছের অস্তিত্ব পাওয়া যাচ্ছে।

প্রধান গবেষক ও সামুদ্রিক জীববিজ্ঞানী নেভিল ব্যারেট বলেন, ‘এটি গুরুত্বপূর্ণ আবিষ্কার। এর মধ্য দিয়ে গোলাপি হ্যান্ডফিশের টিকে থাকার ব্যাপারে আশার সঞ্চার হয়েছে। অতীতে যেমনটা ভাবা হতো, তার তুলনায় বিস্তৃত আবাসস্থলে তারা বাস করে।’


আরও খবর



রাজধানীর গ্রিন রোডের আরএস টাওয়ারে আগুন

প্রকাশিত:Friday ০৭ January ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ১০৫জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর গ্রিন রোডের আরএস টাওয়ারে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ওই ভবনে আগুনের সূত্রপাত হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট এক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। 

ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ডিউটি অফিসার রাশেদ বিন খালিদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘সকাল সাড়ে ১০টায় গ্রিন রোডের আরএস টাওয়ারে আগুন লাগার খবর পায় ফায়ার সার্ভিস। খবর পেয়ে দ্রুতই ঘটনাস্থলে গিয়ে চারটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। এছাড়া


আরও খবর



সরিষায় সতেজ স্বপ্ন কৃষকের

প্রকাশিত:Thursday ০৬ January ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ১০৯জন দেখেছেন
Image


মোঃআবুর হোসেন আকাশ

ধনবাড়ী (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি : পৌষের হিমেল বাতাসে দোল খাচ্ছে সারা মাঠজুড়ে হলুদ সরিষার ফুল। প্রকৃতির সাথে হলুদে মাঠ সেঁজেসে রঙিন সমারহে। ফুল থেকে মধু সংগ্রহে ব্যস্ত মৌমাছিরা।


এমন দৃশ্য দেখা যাচ্ছে টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলায়। দুই ফসলি জমিতে সরিষাকে যোগ করে করা হচ্ছে তিন ফসলি জমি। লাভবান হওয়ার আশায় কৃষকরা দেখেছেন সতেজ স্বপ্ন। দিনদিন ভোজ্যতেলের চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় বেশি ফলনের আশায় উচ্চ ফলনশীল জাতের সরিষা আবাদ করছেন কৃষকরা।


উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, এ বছর উপজেলায় ৪৩০ হেক্টর জমিতে উচ্চ ফলনশীল বারি জাতের ১৪, ১৫, ১৭ এর পাশাপাশি স্থানীয় জাতের সরিষা আবাদ করেছেন কৃষকরা। যা গত বছরের তুলনায় বেশি। কৃষকদের সরকারিভাবে নানা ধরনের সাহায্য, পরামর্শ এবং প্রদর্শনী প্লট দিয়ে সহযোগিতা করা হচ্ছে। যাতে করে কৃষকরা সরিষা চাষে আগ্রহী হয়ে উঠে।


গতকাল উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, মাঠের পর মাঠ সরিষা। মাঠে হলুদ রঙের সরিষা খেতে হলুদের হাতছানি। ফুলে ফুলে ভরে গেছে খেতগুলো। ফুল থেকে মধু সংগ্রহ করছে মৌমাছিরা। কথা হয় উপজেলা মুশুদ্দি ইউনিয়নের কৃষক মিজানুর রহমানের সাথে। তিনি বলেন, এবার আমি স্থানীয় কৃষি অফিসের পরামর্শে এক একর জমিতে বারি ১৪ জাতের সরিষা আবাদ করেছি। যদি আবহাওয়া অনুকূলে থাকে তাহলে ভালো ফলন পাবো। অপর কৃষক মো. নিয়ামত আলী বলেন, আমন ধান ঘরে তুলেই ৬০ শতাংশ জমিতে উচ্চ ফলনশীল জাতের সরিষা অবাদ করেছি।


ফালনও ভালো। আশা করছি লাভবান হতে পারবো। কয়ড়া এলাকার কৃষক সাখাওয়াত হোসেন বলেন, সরিষা আবাদে খরচ কম। ফলে অল্প খরচই ও কম পরিশ্রমেই সরিষা আবাদ করা যায়। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. ফরিদ হোসেন বলেন, সরিষা অল্প সময়ের ফসল। চলতি মৌসুমে কৃষকরা আমন ধান তুলেই সরিষা আবাদ করেছেন। সরিষা উঠিয়ে কৃষকরা যথা সময়ে বোরো ধান চাষ করতে পারে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মাজেদুল ইসলাম বলেন, ‘কৃষকরা কম খরচে বেশি লাভ হওয়ায় সরিষা আবাদে ঝুঁকছে।


সরিষা আবাদ করলে ওই খেতে বোরো ধান চাষে সারের পরিমাণ কম লাগে। আমাদের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তারা মাঠে গিয়ে কৃষদের পরামর্শ দিচ্ছে। কৃষকদের প্রণোদনার মাধ্যমে সহযোগিতা করা হচ্ছে।’

 


আরও খবর



সরাইলে আশুতোষ চক্রবর্ত্তী স্মারক শিক্ষাবৃত্তি- ২০২২ অনু্ষ্ঠিত।

প্রকাশিত:Tuesday ১১ January ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ১০৭জন দেখেছেন
Image


রুবেল মিয়াঃ সরাইল 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইলে আশুতোষ চক্রবর্তী স্মারক শিক্ষাবৃত্তি অনুষ্ঠিত হয়েছে। মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে মেডেল, ক্রেষ্ট, সার্টিফিকেট, গিফট বক্স ও আর্থিক সহায়তা  প্রদান করা হয়। 


রবিবার, ৯ই জানুয়ারি ২০২২ খ্রিঃ , সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার উচালিয়াপাড়া এলকায় সরাইল  উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর প্রাঙ্গণে অষ্টম বারের মতো শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠিত হয়েছে।


অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী এম. এ. মান্নান এমপি।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন,  ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের  ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও “আশুতোষ চক্রবর্তী স্মারক শিক্ষাবৃত্তি’র” সদস্য-সচিব ডাঃ আশীষ কুমার চক্রবর্তী।


অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ এর সংসদ সদস্য এবং বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ এর বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী।


এ সময় অনু্ষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল ও আশুগঞ্জ) সংসদ সদস্য উকিল আব্দুস ছাত্তার ভূঞা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংরক্ষিত মহিলা আসন-৩১২ এর সংসদ সদস্য উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম (শিউলী আজাদ), ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের  সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার, সরাইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন ঠাকুর, সরাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আরিফুল হক মৃদুল, সিনিয়র সহকারি  পুলিশ সুপার (সরাইল সার্কেল) মোহাম্মদ আনিছুর রহমান, সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আসলাম হোসেন, এবং সরাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক এডভোকেট মোঃ নাজমুল হোসেন।


এছাড়াও অনু্ষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সরাইল উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আবু হানিফ, সরাইল সদর ইউনিয়ন পরিষদের সদ্য বিজয়ী  চেয়ারম্যান আব্দুল জাব্বার  সহ বিভিন্ন ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি, ছাত্রলীগ, যুবলীগের নেতৃবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।   


এতে সভাপতিত্ব করেন, রাজধানী ঢাকার মহাখালিস্থঃ ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (সাবেক আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতাল) এর চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট, এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক ও স্বর্গীয় আশুতোষ চক্রবর্তীর জ্যেষ্ঠ কন্যা প্রীতি চক্রবর্তী (সিআইপি)।


অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন জাতীয় দৈনিক দেশ রূপান্তর পত্রিকার ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা  প্রতিনিধি সাংবাদিক মনির হোসেন।

 

অনু্ষ্ঠানে প্রধান অতিথি তিনি তাঁর বক্তব্যে ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশুনোর প্রতি অধিক মনোযোগী হবার উপদেশ দেন, তিনি বলেন-“শিক্ষা ছাড়া কোন জাতি উন্নতি করতে পারে না। তাই শিক্ষা ব্যবস্থার উপর সর্বোচ্চ জোর দিতে হবে। প্রধান অতিথি এমন একটি নান্দনিক ও ছাত্র ছাত্রীদের কে উৎসাহ মূলক বৃত্তি প্রদানের জন্য স্বর্গীয় আশুতোষ চক্রবর্তীর পরিবারকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।


ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল ও আশুগঞ্জ উপজেলার ১৩টি শীর্ষস্থানীয় স্কুলের ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণীর মেধাবী শিক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করা হয়। স্বর্গীয় আশুতোষ চক্রবর্তীর পরিবারের পক্ষ থেকে বিগত বছরগুলোর ন্যায় এ বছরও ৭৫ জন শিক্ষার্থীকে আর্থিক অনুদানের পাশাপাশি প্রত্যেক বৃত্তিপ্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীকে মেডেল, ক্রেষ্ট, সার্টিফিকেট গিফট বক্স ও খাবার প্যাকেট প্রদান করা হয়। 


উল্লেখ্য- ‘আশুতোষ চক্রবর্তী স্মারক শিক্ষাবৃত্তি’ রাজধানীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের একটি জনকল্যাণ মূলক একটি  উদ্যোগ।


-খবর প্রতিদিন/ সি.বা


আরও খবর



প্রতারক লিটনের বিরোদ্ধে রবিউলের ১২ লক্ষ টাকা আত্মসাতের আরো এক মামলা

প্রতারক লিটনের বিরোদ্ধে রবিউলের ১২ লক্ষ টাকা আত্মসাতের আরো এক মামলা

প্রকাশিত:Saturday ২২ January 20২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ১১৫জন দেখেছেন
Image

পর্ব -৩

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ৷

ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলা সদরের বাসিন্দা মৃত আব্দুল গাফ্ফারের ছেলে Rab এর হাতে গ্রেপ্তার হওয়া প্রতারক মোঃ লিটন (৩৫) এর বিরোদ্ধে ১২ লক্ষ টাকা আত্মসাতের আরো একটি প্রতারনার মামলার সন্ধান পাওয়া গেছে।বাদী গুনিয়াউক ইউনিয়নের চিতনা গ্রামের প্রবাসী মোঃ রবিউল মিয়া।

বাদী ও মামলা সুত্রে জানা গেছে,প্রতারক লিটন ২০১৫ সালের ২৩ আগষ্ট প্রবাসী রবিউলের নিকট নাসিরনগর সদরে ৩ শতাংশ জায়গা ১৫ লক্ষ টাকা বিক্রি করে উপস্থিত স্বাক্ষীদের সামনে ৩ শত টাকা মুল্যের ননজুডিশিয়াল ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে ১২ লক্ষ টাকা গ্রহন করে।বাকী ৩ লক্ষটাকা জমি রেজিষ্টারির দিনে বুঝে নিয়ে রেজিষ্টারী করে দেয়ার কথা হয়।পরবর্তীতে রবিউল জমি রেজিষ্টারী করার কথা বললে দেম দিচ্ছি বলে ঘুড়াইতে থাকে।এক পর্য্যায়ে রবিউলের কাছে জমি বিক্রি করছে না বলে জানিয়ে দেয়।একপয্যার্য়ে লিটন ও তার ছোটভাই সাংবাদিক মনির মিলে রাস্তায় ফেলে রবিউলকে মারপিট করে।এমনকি রবিউলের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে রবিউলকে জেলেও পাঠায়।


অবশেষে নিরুপায় হয়ে রবিউল প্রতারক লিটনের বিরোদ্ধে ব্রাক্ষণবাড়িয়ার বিজ্ঞ আদালতে অর্থ আত্মসাতের মামলা দায়ের করে।বর্তমানে লিটনের বিরোদ্ধে রবিউলের দায়ের করা মামলাটি আদালতে  বিচারাধীন রয়েছে বলে জানা গেছে।


-খবর প্রতিদিন/ সি.বা              


আরও খবর



হাইকোর্টে তাহসানের জামিন

প্রকাশিত:Thursday ২০ January ২০22 | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ৭৪জন দেখেছেন
Image

বিনোদন ডেস্ক: ই-কমার্সভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির হয়ে প্রতারণামূলক কর্মকাণ্ডে সহযোগিতা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় অভিনেতা ও গায়ক তাহসান খানকে আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি খিজির হায়াতের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ভার্চুয়াল বেঞ্চ তাকে ছয় সপ্তাহের আগাম জামিন দেন।

এদিন আদালতে তাহসান খানের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মহিউদ্দিন দেওয়ান। এর আগে গতকাল বুধবার তাহসান হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন।

২০২১ সালের ৪ ডিসেম্বর রাজধানীর ধানমন্ডি থানায় সাদ স্যাম রহমান নামে ইভ্যালির এক গ্রাহক তাহসান খান, রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও শবনম ফারিয়াসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

সাদ স্যাম তার অভিযোগে উল্লেখ করেন, প্রতারণামূলকভাবে গ্রাহকদের টাকা আত্মসাৎ ও এতে সহায়তা করা হয়েছে। আত্মসাৎ করা টাকার পরিমাণ তিন লাখ ১৮ হাজার, যা তিনি এখনো উদ্ধার করতে পারেননি।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, তাহসান, মিথিলা ও শবনম ফারিয়া ইভ্যালির বিভিন্ন দায়িত্বে ছিলেন। তাদের উপস্থিতি এবং তাদের বিভিন্ন প্রমোশনাল কথাবার্তার কারণে আস্থা রেখে বিনিয়োগ করেন সাদ স্যাম রহমান। এসব তারকার কারণে মামলার বাদী প্রতারিত হয়েছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। পরে ওই মামলায় গত ১৩ ডিসেম্বর অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও শবনম ফারিয়াকে ৮ সপ্তাহের জামিন দেন হাইকোর্ট। তবে, তাহসান বিদেশে থাকায় তার জামিন আবেদন করতে দেরি হয়েছে বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, ইভ্যালিতে অভিনেতা তাহসান খান শুভেচ্ছাদূত হিসেবে যুক্ত ছিলেন। আর রাফিয়াত রশিদ মিথিলা প্রতিষ্ঠানটির ‘ফেস অব ইভ্যালি লাইফস্টাইল’ হিসেবে কাজ করেছিলেন। আর প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা হিসেবে যোগ দেন অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া।


আরও খবর