Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪
শিরোনাম

৯৬ হাজার অবৈধ কর্মীকে বৈধতা দে‌বে ওমান: প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৫৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:৯৬ হাজার অবৈধ বাংলাদেশি কর্মীকে বৈধতার আশ্বাস দিয়েছে ওমান সরকার। একইস‌ঙ্গে দেশ‌টি বাংলা‌দেশ থে‌কে ১২ ক‌্যাটাগ‌রি‌তে লোক নেওয়ারও আশ্বাস দি‌য়ে‌ছে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) দুপুরে সাংবাদিকের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানান প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান।

সম্প্রতি শ্রমবাজার ইস‌্যু‌তে দুবাই, ওমান ও কাতার সফর ক‌রেন প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী। তি‌নি ব‌লেন, ওমানে ৯৬ হাজার কর্মী অবৈধভাবে বসবাস করছেন। তাদেরকে বৈধ করার আশ্বাস দিয়েছে ওমান সরকার।

এই বৈধকরণে জন্য একটি জরিমানা নেওয়া হয়। এই জরিমানা মওকুফ করার জন্য ওমান সরকারকে অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানান প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী।

শ‌ফিকুর রহমান ব‌লেন, ওমান বাংলা‌দেশ থে‌কে ১২ ক্যাটাগরিতে লোক নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে। তারা দক্ষ কর্মী চায়। আমরা এ বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি। দক্ষ কর্মী যাওয়া শুরু করলে অদক্ষ কর্মীও যাওয়া শুরু করবে। পর্যায়ক্রমে সে ব্যবস্থা হবে।

সংযুক্ত আরব আমিরা‌তের শ্রমবাজার নি‌য়ে প্রতিমন্ত্রী জানান, দুবাই শ্রমবাজার আরও গতিশীল ও বৃদ্ধি করার লক্ষ্যে দুবাইয়ের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করা হয়েছে। দুবাই থেকে ইতোমধ্যে ৩ হাজার কর্মীর চাহিদা এসেছে। এরমধ্যে ৪শ কর্মী চলে গেছে। ৫শ কর্মী যাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




গাংনীতে ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ১২১জন দেখেছেন

Image

মজনুর রহমান আকাশ, মেহেরপুরঃদ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট গ্রহণে সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানালেন মেহেরপুর জেলা প্রশাসক শামীম হাসান। আজ মঙ্গলবার (১৪ মে) দুপুরে গাংনী মহিলা কলেজে ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণে এ বিষয়ে সরকারের নানা দিক নির্দেশনা দেন তিনি। 

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন মেহেরপুর পুলিশ সুপার এস এম নাজমুল হক, রির্টার্নিং কর্মকর্তা তানভির হাসান রুমান, জেলা নির্বাচন অফিসার  ওয়ালিউল্লাহ, গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রীতম সাহা ও উপজেলা নির্বাচন অফিসার কামরুল ইসলাম। 

অনুষ্ঠানে গাংনী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণের লক্ষ্যে প্রিসাইডিং অফিসার, সহকারি প্রিসাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসারদেরকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। দ্বিতীয় ধাপে আগামি ২১ মে গাংনী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ।


আরও খবর



নতুন বাজেট অর্থনীতির সংকট সমাধানে যথোপযুক্ত নয়: সিপিডি

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৭০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ (সিপিডি) বলেছেন অর্থনীতির অস্বাভাবিক সময়ে একটি সাধারণ বাজেট দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (৭ জুন) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত বাজেট-পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেছেন বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) নির্বাহী সভাপতি ফাহমিদা খাতুন।

সিপিডির নির্বাহী পরিচালক বলেন, একটা চ্যালেঞ্জিং সময়ে বাজেটটি হলো। আমাদের প্রত্যাশা ছিল এই বাজেট অনেক উদ্ভাবনী হবে। এখানে সৃজনশীল ও কিছু সাহসী পদক্ষেপ থাকবে। কারণ অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জিং সময়ে গতানুগতিক বাজেট কোনো ধরনের সমস্যার সমাধান দিতে পারবে না। নতুন বাজেট আমাদের কাছে অতীতের বাজেটের মতোই মনে হয়েছে। বর্তমান সময়ের সমস্যা, ক্রান্তিকালীন সংকট দেখা দিয়েছে অর্থনীতিতে, সেগুলো সমাধানে এই বাজেট যথোপযুক্ত পদক্ষেপ বা দিকনির্দেশনা দিতে পারেনি।

সিপিডির নির্বাহী পরিচালক বলেন, আয়করের সর্বোচ্চ হার যেখানে বাড়িয়ে ৩০ শতাংশ করা হলো, সেখানে ১৫ শতাংশ কর দিয়ে কালোটাকা সাদা করার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। এটা নৈতিক ও অর্থনৈতিক কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। যাঁরা নিয়মিত কর দেন, এর মধ্য দিয়ে তাদের তিরস্কৃত করা হচ্ছে।

ফাহমিদা খাতুন বলেন, বাজেটে মুদ্রাস্ফীতি, জিডিপি প্রবৃদ্ধির, বিনিয়োগের যেসব লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে তা অতি উচ্চাভিলাষী ও বাস্তবসম্মত নয়। বাজেটে অর্থনৈতিক সূচকের অনেক লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হবে না। চলমান অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জ অনুধাবন করতে না পারায়, বাজেটে চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় যেসব পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তা দুর্বল ও অপর্যাপ্ত।

ফাহমিদা খাতুন আরও বলেন, অর্থনীতিতে এখন যেসব সমস্যা আছে, প্রথমত, সেগুলো মেনে নিয়ে তার গভীরতা বুঝতে হবে। এরপর সমাধানের দিকে যেতে হবে। কিন্তু প্রস্তাবিত বাজেটে তেমন কোনো ঘোষণা দেখা যায়নি।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




ট্রেনের ১৪ জুনের টিকিট আজ দেওয়া হচ্ছে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৭৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ট্রেনের অগ্রিম টিকিট ঈদুল আজহা উপলক্ষে বিক্রি শুরু করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। যাত্রীদের অনলাইনে টিকিট ক্রয় করতে হচ্ছে। আজ বিক্রি হচ্ছে ১৪ জুনের টিকিট।

মঙ্গলবার (৪ জুন) সকাল ৮টায় টিকিট বিক্রি শুরু হয়। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, যাত্রী সাধারণের টিকিট কেনা সহজলভ্য করার জন্য পশ্চিমাঞ্চলে চলাচলরত সব আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট বিক্রি সকাল ৮টায় শুরু হয়েছে। আর পূর্বাঞ্চলে চলাচলরত সব ট্রেনের টিকিট দুপুর ২টা থেকে বিক্রি শুরু হবে।

মঙ্গলবার যারা টিকিট ক্রয় করছেন তারা আগামী ১৪ জুন ভ্রমণ করতে পারবেন। একজন যাত্রী ঈদের আগে যাত্রা ও ফিরতিতে সর্বোচ্চ একবার টিকিট ক্রয় করতে পারবেন এবং সর্বাধিক ৪টি আসনের টিকিট ক্রয় করতে পারবেন। এক্ষেত্রে যাত্রীর সর্বোচ্চ এই ৪টি টিকিট ক্রয়ের ক্ষেত্রে সহযাত্রীদের নাম সংযুক্ত করে দেওয়ার ব্যবস্থা আছে। ঈদযাত্রার এই টিকিট রিফান্ড করা যাবে না।

ঈদের চাঁদ দেখার ওপর নির্ভর করে ১৭, ১৮ ও ১৯ জুনের টিকিট বিক্রি করা হবে। ঈদযাত্রার ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে ১০ জুন। ১০ থেকে ১৪ জুন পর্যন্ত ২০ থেকে ২৪ জুনের ফিরতি অগ্রিম টিকিট বিক্রি করা হবে।

২০ জুনের অগ্রিম টিকিট দেওয়া হবে ১০ জুন। ২১ জুনের টিকিট দেওয়া হবে ১১ জুন। ২২ জুনের টিকিট দেওয়া হবে ১২ জুন। ২৩ জুনের টিকিট দেওয়া হবে ১৩ জুন। আর ২৪ জুনের টিকিট দেওয়া হবে ১৪ জুন।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




তানোরে গাছের ডালে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৪৯জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে গাছের ডালের সাথে  গলায় ফাঁস দিয়ে আপেল নামের (১৫) এক কিশোরের  ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। তার বাড়ি উপজেলার কলমা ইউনিয়ন ইউপির গঙ্গারামপুর গ্রামে। সে আতাউর রহমানের ছেলে। রবিবার বিকেলের দিকে মুন্ডুমালা পৌর এলাকার প্রকাশনগর খালের পার্শের গাছের ডালে গলায় ফাঁস দিয়ে ঘটে  আত্মহত্যার ঘটনা । 
 
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে,নিহত কিশোর  আপেল দীর্ঘদিন ধরে মানুষিক ভারসাম্যহীন। রোববার দুপুরের পরে মুন্ডুমালা পৌরসভার প্রকাশনগর গ্রামের পানি নিষ্কাসনের খাড়ির ধারে লাগানো গাছের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করেন। স্থানীয়রা আপেল কে গাছের ডালের সাথে  ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। এসময় স্থানীয়রা থানা পুলিশ কে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করেন। 

এবিষয়ে  থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুর রহিম জানান,  খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও খবর



আমতলীতে রিমালের পানিতে সাড়ে ৩শ’ হেক্টর জমির আউশের বীজতলার সর্বনাস

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৮০জন দেখেছেন

Image

আব্দুল্লাহ আল নোমান,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি:আমতলীতে রিমালের পানিতে দেড় সপ্তাহ ধরে আউশের বীজতলা তলিয়ে থাকায় তা পচে নষ্ট হওয়ায় কৃষকের  সর্বনাস হয়েছে। উপজেলার শত শত কৃষকের ঘামে শ্রমে তৈরী করা নীচু জমির সাড়ে ৩শ’ হেক্টর বীজতলা পচে নষ্ট হওয়ায় চলতি মৌসুমের  আউশ আবাদ নিয়ে এখন দুশ্চিন্তায় নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন কৃষকরা। 

আমতলী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে,  উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন এবং ১টি পৌরসভায় এবছর ৭৫৫ হেক্টর জমিতে আউশের বীজতলা করা হয়েছে। আবাদের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে ১১ হাজার ৩শ’ ২৫ হেক্টর জমি। ফসলের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে ৩৩ হাজার ৯শ’ ৭৫ মেট্টিক টন । কিন্তু কৃষকের আউশ আবাদের বাধা হয়ে দারায় রিমাল। রিমালের সময় অতি বৃষ্টি এবং পায়রা নদীতে অধিক উচ্চতায় জলোচ্ছাস এবং বাঁধ ধসে কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হওয়ার  ফলে আউশের বীজতলা ৩-৪ ফুট পানিতে তলিয়ে যায়। সপ্তাহখানেক ধরে এভাবে বীজতলা ২ ফুট পানির নীচে  থাকায় উপজেলার অধিকাংশ কৃষকের বীজতলা পচে সম্পূর্ন নষ্ট হয়ে গেছে। সরকারী হিসেবে চাষ করা ৭৫৫ হেক্টর বীজতলার মধ্যে ১৭৯ হেক্টর নষ্ট হওয়ার কথা বলা হলেও বাস্তবে অর্ধেক বীজতলা প্রায় সাড়ে ৩শ হেক্টর  নষ্ট হয়েছে বলে সরেজমিন চিত্রে দেখা গেছে। কৃষকরা জানান, আউশ রোপনের এখন ভরা মৌসুম। রিমালের আগে অনেকে তাদের আউশ রোপন শুরু করেছে। এই মুহুর্তে বীজতলা নষ্ট হওয়ায় আমাদের মাথায় যেন আকাশ ভেঙ্গে পড়েছে। এই মুহুর্তে নতুন করে বীজতলা তৈরী করে আর আউশ রোপন করতে পারবো না। এতে আমাদের সামনে অনেক দুর্দিন অপেক্ষা করছে।

সোমবার সকালে উপজেলার কুকুয়া ইউনিয়নের কুকুয়া, কালিপুরা, কৃষ্ণনগর, আঠারগাছিয়া ইউনিয়নের সোনাখালী, গাজীপুর, হলদিয়া ইউনিয়নের হলদিয়া, উত্তর তক্তাবুনিয়, দক্ষিণ তক্তাবুনিয়া, গুরুদল, আমতলী সদর ইউনিয়নের ছোটনীলগঞ্জ, চলাভাঙ্গা, চাওড়া ইউনিয়নের বেতমোর বৈঠাকাটা, আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের ঘোপখালী, পশুরবুনিয়া ও বালিয়াতলী গ্রাম ঘুরে দেখা গেছে এখনো শত শত হেক্টর আউশের বীজতলা প্রায় ২ফুট পানির নীচে তলিয়ে রয়েছে। প্রায় দেড় সপ্তাহখানেক ধরে বীজতলা এভাবে  পানিতে তলিয়ে থাকায় তা পচে দুর্গন্দ ছড়াচ্ছে। 

কুকুয়া ইউনিয়নের কুকুয়া গ্রামের কৃষক মো. ইউনুছ মীরা বলেন, বইন্যার আগে আউশ লাগানের লইগ্যা  ৩৫ শতাংশ জমিতে  বীজ তলা করি। বইন্যায় সব তলাইয়া যায়। এহনো দেড় দুই আত পানি জইম্যা রইছে। পানি জইম্যা থাহায় মোর সব বীজতলা পইচ্যা নষ্ট অইয়া গ্যাছে। এহন টাহা আর বীজ পামু কই। আর কি দিয়া ধান লাগামু হেই চিন্তায় আছি। একই গ্রামের অনেছ খা বলেন, মোর ১০ কড়া জমির বীজ নষ্ট অইয়া গ্যাছে।

হলদিয়া ইউনিয়নের হলদিয়া গ্রামের ফজলু প্যাদা বলেন, মুই ৩০ শতাংশ জমিতে  ৭৫ স্যার ধান হালাইছি। বইন্যার পানি জইম্যা  হেইয়াসব পইচ্যা নষ্ট অইয়া গ্যাছে। তিনি আরো বলেন, এহন কুম্মে বীজ ধান পামু। হেইয়ার পর আবার বীজ কইর‌্যা চাষ করা মোগো লইগ্যা ব্যামালা কষ্টের।

চাওড়া ইউনিয়নের বৈঠাকাটা গ্রামের মাসুম গাজী, জসিম খান, আমতলী সদর ইউনিয়নের আলতাফ হাওলাদার, ঘোপখালী গ্রামের হোচেন বয়াতি বলেন, ব্যামালা টাহা খরচ কইর‌্যা আউশের বীজ চাষ হরছি। বইন্যায় সব নষ্ট অইয়া গ্যাছে। এহন মোরা আউশ ধান আর লাগাইতে পারমু না। ধান লাগাইতে না পারলে গুরাগারা লইয়া সামনের দিনে কি খামু হেই চিন্তায় আছি।

আমতলী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. ইছা বলেন, এবছর আমতলীতে রিমালের তান্ডবে বাধ ভেঙ্গে পায়রা নদীর জলোচ্ছাস  এবং অতিরিক্ত বৃষ্টি পানি বীজতলায়  জমে থাকায় ১৭৯ হেক্টর আউশের বীজতলা সম্পূর্ন নষ্ট হয়ে গেছে। তিনি আরো বলেন, বিপুল পরিমান আউশের বীজতলা নষ্ট হওয়ায় এবছর আউশ ধান চাষের লক্ষমাত্রা অর্জন করা সম্ভব হবে। এতে ফলনেও বিপর্যয় হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

আমতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আশরাফুল আলম বলেন, রিমালের তান্ডবে  আমতলী উপজেলার কৃষিতে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।  ক্ষয়ক্ষতির পরিমান নিরুপন করে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে  দুর্যোগ ব্যবস্থপনা অধিদপ্তর, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রান মন্ত্রনালয়ের জাতীয় দুর্যোগ সাড়াদান সমন্বয় কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন, বরাদ্দ পাওয়া গেলে ক্ষতিগ্রস্তদের পুন:বাসন করা হবে।


আরও খবর