Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

২০ বছরের দ্বন্দ্ব ভুলে আবারও কাছাকাছি ইমরান-মল্লিকা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১১৪জন দেখেছেন

Image

বিনোদন প্রতিবেদক:সিরিয়াল কিসার নামের তকমা ঝেড়ে ফেলার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু চাইলেই তো আর সবকিছু মুছে ফেলা যায় না। এই যেমন ‘মার্ডার’ সিনেমায় মল্লিকা শেরওয়াতের সঙ্গে তার চুম্বন দৃশ্যটি আজও চর্চিত হয়।

তবে ভারতীয় গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ইমরান জানিয়েছিলেন, মল্লিকা ভালো কিসার নন। এ কথা শুনে খেপে গিয়েছিলেন অভিনেত্রী। তিনিও জানিয়েছিলেন, ইমরানকে চুমু খাওয়ার চেয়ে সাপকে চুমু খাওয়া ভালো। এরপর থেকেই তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়।

কয়েক মাস আগে এক বিয়ের অনুষ্ঠানে দেখা হয় তাদের। এর মধ্য দিয়ে তাদের ২০ বছরের দূরত্বের অবসান হয়। সম্প্রদি গণমাধ্যমে দেয়া সাক্ষাৎকারে এ প্রসঙ্গে মুখ খোলেন ইমরান। সব ভুলে পুনরায় মল্লিকার সঙ্গে অভিনয় করার আগ্রহ প্রকাশ করলেন ইমরান হাশমি। তিনি বলেন— (আমাদের দুজনের সাক্ষাৎ খুবই উষ্ণ এবং সৌহার্দ্যপূর্ণ ছিল। আমি তাকে অনেক দিন পর দেখেছি। আমার মনে হয় মার্ডার মুক্তির পর তার সঙ্গে মাত্র কয়েকবার দেখা হয়েছে। এরপরই তো আসলে আমাদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি আক্রমণ শুরু হয়ে যায়। আমাদের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়।)

হাশমি অতীত হাতড়ে নিজেদের ভুল শুধরে বলেন- আমরা তখন তরুণ এবং মূর্খ ছিলাম। জীবনে এমন একটি পর্যায় আসে যখন আপনার সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা এত সীমিত এবং খুব আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন, যা অনেক পরে টের পাওয়া যায়। তখন কিছু কথা মল্লিকা বলেছিল, কিছু আমি। সেগুলো আসলে খারাপ ছিল। আমি মনে করি, এটি এখন অতীত। আমরা এটিকে অনেক আগেই একপাশে ফেলে দিয়েছিলাম। প্রায় দুই দশক পর তাকে সামনাসামনি দেখে খুব ভালো লেগেছিল।)

এর আগে ২০২১ সালে হাশমির সঙ্গে বিবাদ সম্পর্কে ‘দ্য লাভ লাফ লাইভ’ শোতে কথা বলেছিলেন মল্লিকা। মন্দিরা বেদীর শোতে তিনি তাকে চমৎকার পুরুষ বলে প্রশংসা করেছিলেন। সেই সঙ্গে তাদের দ্বন্দ্ব বা লড়াইকে ‘শিশুসুলভ’ বলে অভিহিত করেছিলেন।


আরও খবর



কালিয়াকৈরে সাপের কামড়ে যুবকের মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১২৩জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার বাসুরা এলাকায় সাপের কামড়ে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার ভোরে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর কুমুদিনী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।নিহত হলেন, কালিয়াকৈর উপজেলার বাসুরা এলাকার ইউনুছ আলীর ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪০)।এলাকাবাসী ও নিহতের স্বজন সূত্রে জানা গেছে, সাইফুল ইসলাম গত শুক্রবার রাতে কালিয়াকৈর উপজেলার ঢালজোড়া ইউনিয়নের বাসুরা এলাকার একটি বিলে টেটা দিয়ে সখের বসে মাছ ধরতে যান। এ সময় একটি বিষধর সাপ এসে সাইফুলের পায়ে কামড়ে দেয়। পরে তিনি তার হাতের টেটা দিয়ে সাপটি মেরে ফেলে। এরপর তিনি ওই সাপটি নিয়ে দ্রুত বাড়িতে গিয়ে পরিবার ও এলাকাবাসীর লোকজন কাছে ঘটনাটি জানায়। পরে পরিবারের লোকজন ও এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কুমুদিনী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার ভোরে সাইফুল মারা যান।স্থানীয় ঢালজোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইছামুদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শনিবার যোহরের নামাজের পর জানাযার নামাজ শেষে তার দাফন সম্পূর্ণ করা হবে।


আরও খবর



মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৭১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:দেশজুড়ে আলোচিত ছাগলকাণ্ডে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সাবেক সদস্য মতিউর রহমান, তার স্ত্রী লায়লা কানিজ ও ছেলে আহম্মেদ তৌফিকুর রহমান অর্নবের বিদেশ গমনে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৪ জুন) ঢাকার মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ মোহাম্মদ আসসামস জগলুল হোসেন এই আদেশ দেন।

যদিও ইতোমধ্যে মতিউরের দেশ ছেড়ার খবর ছড়িয়ে পড়েছে। তার বিভিন্ন বাসভবনে খোঁজ নিয়েও সন্ধান মেলেনি। এমনকি কোরবানির ঈদের ছুটির পর অফিস খুললেও তিনি আর অফিসে আসেননি।

জানা যায়, রোববার (২২ জুন) বিকেলের দিকে আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে মতিউর ভারতে পালিয়ে গেছেন। সেখান থেকে দুবাইয়ের উদ্দেশ্যে রওনা দিতে পারেন। প্রভাবশালী একটি সিন্ডিকেট তাকে দেশত্যাগে সহযোগিতা করেছে।

শুধু মতিউর রহমান নয়, তার দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী শাম্মী আখতার শিভলী, ছেলে মুশফিকুর রহমান ইফাত ও ইরফানও দেশত্যাগ করেছেন বলে জানা গেছে।

এর আগে, মতিউরকে এনবিআরের কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট অ্যাপিলেট ট্রাইব্যুনালের প্রেসিডেন্টের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। হারিয়েছেন সোনালী ব্যাংকের পরিচালক পদও।

মতিউরের দ্বিতীয় স্ত্রীর ছেলে ইফাতের ‘ছাগলকাণ্ড’ সব হারানোর পেছনে রয়েছে। একজন সরকারি কর্মকর্তার ছেলের বিপুল পরিমাণ টাকায় গরু-ছাগল কেনা নিয়ে তুমুল আলোচনার সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে মতিউর রহমান দাবি করেন, ইফাত তার ছেলে নন। এমনকি এই তরুণ তার পরিচিতও নয়। এই ঘটনার সূত্র ধরে অনুসন্ধানে মতিউর রহমানের বিপুল সম্পদের তথ্য বেরিয়ে আসে। ইতোমধ্যে তার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগের বিষয়ে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

অনুসন্ধানে ঢাকা, গাজীপুর, সাভার, নরসিংদী, বরিশালসহ বিভিন্ন জায়গায় মতিউরের নামে বাড়ি, জমি, ফ্ল্যাট, প্লটসহ অন্যান্য স্থাবর সম্পদের খোঁজ মিলেছে।


আরও খবর



মোরেলগঞ্জে ঘূর্ণিঝড় রিমেলে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা পেল বিনামূল্যে বীজ ও সার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৬১জন দেখেছেন

Image
শেফালী আক্তার রাখি,মোরেলগঞ্জ প্রতিনিধিঃঘূর্ণিঝড় রিমেলে ক্ষতিগ্রস্ত বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার সাড়ে ৫ হাজার কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে ২৮ টন উচ্চ ফলনশীল জাতের ধানবীজ ও দুই ধরণের ১১২ টন সার বিতরণ করা হয়েছে। স্থানীয় সংসদ সদস্য এইচ.এম বদিউজ্জামান সোহাগ সোমবার বেলা ১১ টার দিকে আনুষ্ঠানিকভাবে সার ও বীজ বিতরণ করেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. লিয়াকত আলী খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম তারেক সুলতান, কৃষি কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ সামসুদ্দীন, ভাইস চেয়ারম্যান মো. রাসেল হাওলাদার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আজমিন নাহার ও বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়াও উপজেলা কৃষি অফিসের উদ্যোগে ৩ হাজার ৮০০ কৃষকের মাঝে ৫টি করে মোট ১৯ হাজার নারকেল গাছের চারা বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে বলে কৃষি কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

আরও খবর



তানোরে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের শুভ উদ্ধোধন

প্রকাশিত:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১১৪জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে আন্ত উপজেলা বালক অনুর্ধ্ব ১৭  জাতির জনক বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের শুভ উদ্ধোধন করা হয়। বৃহস্পতিবার বিকেলের দিকে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম মাঠে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নির্বাহী অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান। প্রধান অতিথি হিসেবে বেলুন উড়িয়ে উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন, টিএইচও বার্নাবাস হাসদাক, কৃষি অফিসার সাইফুল্লাহ আহম্মেদ, উপজেলা প্রকৌশলী সাইদুর রহমান,  উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান তানভীর রেজা,  বাঁধাইড় ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, পাঁচন্দর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন,  জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী জাকির হোসেন, সমাজ সেবা অফিসার মোহাম্মদ হোসেন, মৎস্য কর্মকর্তা বাবুল হোসেন, পারিশো দূর্গাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাম কমল সাহা, আওয়ামী লীগ নেতা সুফি কামাল মিন্টু প্রমুখ । 

উদ্বোধনী খেলায় বাঁধাইড় ইউনিয়ন বনাম চান্দুড়িয়া ইউনিয়নের খেলা অনুষ্ঠিত হয়। নির্ধারিত সময়ে গোলশূন্য ড্র থাকায় টাইবেকারে ২-১ গোলে বাঁধাইড় ইউনিয়ন বিজয়ী হয়। দ্বিতীয় উদ্বোধনী ম্যাচে তানোর পৌরসভা বনাম মুন্ডুমালা পৌরসভা অংশ গ্রহন করেন।  নির্ধারিত সময়ে গোলশূন্য ড্র থাকায় টাইবেকারে ৫-৩ গোলে তানোর পৌরসভা বিজয়ী হয়।খেলার রেফারির দায়িত্ব পালন করেন উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, শরীর চর্চা শিক্ষক আব্দুল বারি, সোহরাব হোসেন, হাফিজুর রহমান, খাইরুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম এবং কামরুজ্জামান। এসময় উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী এবং বিপুল সংখ্যাক ক্রীড়া প্রেমীরা উপস্থিত থেকে খেলা উপভোগ করেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.

আরও খবর



জুনের ২৩ দিনে এলো ২০৫ কোটি ডলার রেমিট্যান্স

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৪৮জন দেখেছেন

Image

ঈদুল আজহা থাকায় এ মাসে ২৩ দিনে দেশে রেমিট্যান্স এসেছে ২০৫ কোটি মার্কিন ডলার। এর মধ্যে শুধু ২৩ জুনই এসেছে ১৩ কোটি ৮০ লাখ ডলার। এ তথ্য পাওয়া গেছে বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে। প্রতিদিন গড়ে দেশে এসেছে ৮ কোটি ৯১ লাখ ডলার।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, চলতি মাসের প্রথম ১২ দিনে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ব্যাংকের মাধ্যমে দেশে ১৪৬ কোটি ডলারের প্রবাসী আয় পাঠিয়েছেন। আর ২৩ জুন পর্যন্ত তারা পাঠান ২০৫ কোটি ২০ লাখ ডলার। গত বছরের ১ থেকে ২১ জুন প্রবাসী আয় এসেছিল ১৬৬ কোটি ৬০ লাখ ডলার।

গত মাসে বাংলাদেশ ব্যাংক একলাফে ডলারের দাম ৭ টাকা বাড়িয়ে ১১৭ টাকা নির্ধারণ করার পর বৈধ পথে প্রবাসী আয় আসা বেড়ে যায়। এতে মাসের প্রথম ২৩ দিনেই এসেছে ২০৫ কোটি ২০ লাখ ডলার। আর শুধুমাত্র সোমবার (২৩ জুন) এই এক দিনেই এসেছে ১৩ কোটি ৮০ লাখ মার্কিন ডলার। ব্যাংক কর্মকর্তারা বলছেন, গত মাসে বাংলাদেশ ব্যাংক একলাফে ডলারের দাম ৭ টাকা বাড়িয়ে ১১৭ টাকা নির্ধারণ করার পর বৈধ পথে প্রবাসী আয় আসা বেড়েছে। যার প্রভাব দেখা গেছে গত মাসে। চলতি মাসেও এখন পর্যন্ত প্রবাসী আয়ে ঊর্ধ্বমুখী ধারা চলছে। তবে নথিপত্রে ডলারের দাম ১১৭ টাকা হলেও ব্যাংকগুলো ১১৮-১১৯ টাকা দরেও প্রবাসী আয়ের ডলার কিনছে। যে ব্যাংক ডলারের দাম যত বেশি দিচ্ছে, সেটি প্রবাসীদের কাছ থেকে তত বেশি ডলার পাচ্ছে। এসব ব্যাংক অবশ্য বেশি দামে অন্য ব্যাংকগুলোর কাছে ডলার বিক্রি করছে। এতে আমদানিকারকদের বেশি দামে ডলার কিনতে হচ্ছে। মাঝেমধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকও এসব ব্যাংক থেকে ডলার কিনে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বাড়ায়।

২০২০ সালে করোনা ভাইরাসের কারণে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেলে বৈধ পথে প্রবাসী আয় আসা বেড়ে গিয়েছিল। তখন প্রবাসী আয় প্রতি মাসে গড়ে ২০০ কোটি ডলার ছাড়িয়েছিল। এর প্রভাবে তখন বৈদেশিক মুদ্রার মোট রিজার্ভ ৪৮ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যায়। ২০২২ সালে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর ডলার–সংকট শুরু হয়। ফলে মোট রিজার্ভ কমতে কমতে এখন ২৪ বিলিয়ন ডলারে নেমে এসেছে। তবে প্রকৃত রিজার্ভ ১৩ বিলিয়ন ডলার।

দেশে ২০২২-২৩ অর্থবছরে ২ হাজার ১৬১ কোটি ডলারের প্রবাসী আয় আসে। আর চলতি ২০২৩-২৪ অর্থবছরের প্রথম ১১ মাসে (জুলাই-মে) প্রবাসী আয় এসেছে ২ হাজার ১৩৭ কোটি ডলার।


আরও খবর