সর্বশেষ

আজঃ বৃহস্পতিবার ২২ এপ্রিল ২০২১

অবহেলা নয় সাংবাদিকতায় গুরুত্ব দিন


মামুনুর হাসান টিপু:

সম্পাদকীয়-

বাংলাদেশে প্রচুর পরিমাণে 'সংবাদ পত্র এবং অনলাইন নিউজ পোর্টালে' সমৃদ্ধ হয়েছে। বলাটা বাহুল্য হবে কতটা যে নিয়মিত অনিয়মিত দৈনিক, সাপ্তাহিক ও ম্যাগাজিনসহ বিভিন্ন পত্রিকাসমূহ এ বাংলাদেশে ইয়াত্তা নেই। আর 'জাতীয় দৈনিক ও ইলেক্ট্রনিক' মিডিয়া সংখ্যা গুনে বলা সম্ভব না। এই গুলো মিডিয়ার প্রায় সকলেরই যেন স্থানীয় প্রতিনিধি রয়েছে। মিডিয়ার জন্মহার বৃদ্ধির সাথে সাথেই প্রয়োজন হয়ে পড়ে সাংবাদিক। কিন্তু, নাম মাত্র তারা সাংবাদিক, তাদেরকে পারিশ্রমিক দেওয়া হয় না। তাদের মধ্যে কেউ যদি পারিশ্রমিক পায় সেইটা যেন তাদের সৌভাগ্য।

ভাগ্যবান লেখক, কলামিষ্ট ও সাংবাদিকগণরা হয়তোবা বলবে যে এইদেশে- প্রয়াত হুমায়ূন আহমেদ লিখেই তো সফলতা অর্জন সহ বহুত অর্থ উপার্জন করেছে, অথবা অন্য দু’একজন 'লেখক, কলামিষ্ট ও সাংবাদিকের নাম' উচ্চারণ করে বলতে পারে, এখনও ক্লান্তিহীনভাবেই তো তারা লিখে চলে। অবশ্যই এ গুলো দু’একটা উদাহরণটা ব্যতিক্রম। কিন্তু এটাও মনে রাখতেই হবে যে,- 'ব্যতিক্রম উদাহরণ দিয়ে সামাজিক রূপ ফুটে ওঠে না'। তবে তারা কষ্টকে আড়াল করে, লেখাটাকেই পেশা হিসাবেই বেছে নিয়েছে, এটাই সত্য। বলা যায় তারা আমাদের আইডল বা দিকনির্দেশনার পাথেও। আর তরুণপ্রজন্মের হাজার হাজার লেখকদের অনুপ্রেরণার অগ্রদূত।

আবারও বলি ব্যতিক্রম কখনো উদাহরণ হতে পারে না।লেখকের জীবনের বিভিন্ন পর্যায়ে আর্থিক অসচ্ছলতার কারণেই শেষ বয়সে উন্নত চিকিৎসার জন্যেই পত্রিকা'র পাতায় সাহায্যের আবেদন দাঁড় করাতে হয়। এই দেশের লেখক, কবি, কলামিষ্ট ও সাংবাদিকদের এটাই নিয়তি। তারা আমৃত্যু স্বাধীনচেতা মানসিকতায় কেন এ বাংলার জমিনে বেঁচে থাকার অধিকারটুকু হারিয়ে ফেলে। তারা 'মনের গহীনে গোপন ভাগ্যের অধীনস্থ' হবে। এমন কিছু গুরুত্বপূর্ণ পেশায় পেশাদার হওয়া মানুষের সংখ্যা দিনে দিনে বৃদ্ধি পেলেও ভাগ্যের উন্নয়নকে রাষ্ট্রীয় ভাবে ভাবা উচিত। সুতরাং তারা যোগ্যতার মানদন্ড আর ধরে রাখা যায় না। তাই- লেখক, কবি, কলামিষ্ট কি়ংবা সাংবাদিক সহ বিভিন্ন পেশার ব্যক্তি'রা প্রয়োজনের তাগিদে তাদের সৃজনশীল লেখালেখি পাঠকদের কাছে উপস্থাপনে যেন ব্যর্থ হয়। তবে বর্তমান প্রজন্মের বেশকিছু লেখক, কবি, কলামিষ্ট এবং সাংবাদিকরা বিভিন্ন পেশায় কাজ করছে তারা সবাই যে অযোগ্য কিংবা হতদরিদ্র নয়। বেশ কিছু ট্যালেন্ট লেখক, কবি, কলামিষ্ট ও সাংবাদিক দেখা যায় যারা স্বশিক্ষিত হয়ে দক্ষতার সাথেই কাজ করছে। তারা চেষ্টা করছে নিজেকে যোগ্য হিসেবে দাঁড় করবার জন্য।

তারা বিশেষ কিছু কারণে তাদের সৃজনশীল চেষ্টার বার বার বাধাগ্রস্ত করে বেশকিছু অসাধু মানুষ। এই বিষয়টি নিয়েই মূলত লিখার চেষ্টা করছি। প্রথমত আজ থেকেই ৪০ বছর আগে যখন এতো আধুনিক ব্যবস্থা যোগাযোগ ছিল না, তখনও সাংবাদিক ছিল, সংবাদপত্রও ছিল। এ ধারণার সা়ংবাদিকরা কাজেকর্মে খুবই দক্ষ ছিল। শুধুই সা়ংবাদিকদের নিয়ে আলোচনার উদ্দেশ্যটা হলো, এমন জগতে কিছু অসাধু মানুষের ক্রাইম করার প্রবনতা দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে। আগেরযুগে তারা চেষ্টাকে মূখ্য করে মানুষের ভাগ্য উন্নয়নেই সত্য লেখা প্রকাশ করে যথাযত ভাবে কাজ করতো।

বর্তমানে সাংবাদিকদের লেখালেখির অনেকটা প্লাটফর্ম সৃষ্টি হয়েছে কিন্তু তাদের হিংসার পরিমাণটাও বেড়েছে।কেউ কারো ভালো সহ্য করতে পারে না। জনপ্রিয় এবং ব্যতিক্রম কিছু ''অনলাইন নিউজ পোর্টাল'' আছে তাদের ভাবি আলাদা। কি হনুবে এমন ভাব। এখানে যারা লেখে তাদের নিয়মিত লেখক সম্মানী দেয়া হয় না। প্রয়োজনে তারা 'কৌশলে টাকা চায়'।  আবার কেউ যদি লেখককে টাকা দেয় তো 'মাস ছয়েক কিংবা বছর' ধরে অপেক্ষায় থাকতে হয়। মাস শেষ হলেই প্রাপ্য সম্মানী পাওনা সেটা নিয়ে ছিনি মিনি খেলা চলে। এমন কথাটি জানতে পেরে ব্যক্তিগতভাবেই সাংবাদিকদের পক্ষ নিয়ে ফোন করেও বিস্মিত হয়েছি। অনেকেই ফেসবুকের ইনবক্সে আমাকে জানালে কষ্ট লাগে।

অতীতের সময় থেকে এই মূহুর্ত পর্যন্ত ক্রমে ক্রমেই যেন আধুনিকতায় প্রবেশ করেছে, সুযোগ সন্ধানী বেশ কিছু সাংবাদিকরা। অবশ্যই বুকটা ভরে যায়, যখন দেখি এই সাংবাদিকরা ঐ জায়গার সাংবাদিক হয়ে নানা চ্যানেলে লাইভ সংবাদে ক্যামেরার সামনে দাড়িয়েই তথ্য বিলিয়ে দিচ্ছে। বর্তমানে বসেই তারা যেন ভবিষ্যত দেখতে পান, ভালোই লাগে, অথচ এ দেশের কোনো লেখক দৃঢ় কণ্ঠে বলতেই পারবেন না, পত্রিকা গুলোর করুন দশায় এসে দাঁড়িয়েছে।

 লেখক: মামুনুর হাসান টিপু, সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব




দায়রকৃত ষড়যন্ত্রমুলক মামলাটির সুষ্ঠ তদন্ত দাবী আদর্শ জনকল্যান সংগঠনের সভাপতি সাধারন সম্পাদকের

দায়রকৃত ষড়যন্ত্রমুলক মামলাটির সুষ্ঠ তদন্ত দাবী আদর্শ জনকল্যান সংগঠনের সভাপতি সাধারন সম্পাদকের

কাল থেকে লকডাউন : প্রজ্ঞাপনে ১১টি নির্দেশনা

কাল থেকে লকডাউন : প্রজ্ঞাপনে ১১টি নির্দেশনা

গণপরিবহনে নেই সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্য বিধি , ভাড়া দ্বিগুণ

গণপরিবহনে নেই সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্য বিধি , ভাড়া দ্বিগুণ

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে যোগ দিতে ঢাকায় নরেন্দ্র মোদি

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে যোগ দিতে ঢাকায় নরেন্দ্র মোদি

ধর্ষনের চেষ্টা মামলার আসামী জামিনে মুক্তি পেয়ে বাদিকে প্রাণ নাশের হুমকি

ধর্ষনের চেষ্টা মামলার আসামী জামিনে মুক্তি পেয়ে বাদিকে প্রাণ নাশের হুমকি

করোনা মোকাবেলায় ট্রাফিক-ডেমরা জোনের মাস্ক বিতরন

করোনা মোকাবেলায় ট্রাফিক-ডেমরা জোনের মাস্ক বিতরন

একদিনে সর্বোচ্চ ৬৮৩০ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ৫০

একদিনে সর্বোচ্চ ৬৮৩০ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ৫০

সোমবার থেকে সারাদেশ এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন, খোলা থাকবে শিল্পকারখানা

সোমবার থেকে সারাদেশ এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন, খোলা থাকবে শিল্পকারখানা

লকডাউনে রাজধানীতে যাত্রীবাহী বাস ছাড়া চলছে সবধরনের গাড়ি

লকডাউনে রাজধানীতে যাত্রীবাহী বাস ছাড়া চলছে সবধরনের গাড়ি

নাকে সরিষার তেল দিন ও গরম পানির ভাপ নিন: প্রধানমন্ত্রী

নাকে সরিষার তেল দিন ও গরম পানির ভাপ নিন: প্রধানমন্ত্রী

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরে এক কোটি পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেবে সরকার

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরে এক কোটি পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেবে সরকার

গোলাম সারোয়ার কবির এর করোনা মুক্তির জন্য দোয়া চাইলেন শান্তনুর খান শান্ত

গোলাম সারোয়ার কবির এর করোনা মুক্তির জন্য দোয়া চাইলেন শান্তনুর খান শান্ত

পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচন: রাত পোহালেই নন্দীগ্রামে ভোট

পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচন: রাত পোহালেই নন্দীগ্রামে ভোট

পুরো ঢাকা শহরকে হাসপাতাল করলেও করোনা রোগী রাখার জায়গা হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

পুরো ঢাকা শহরকে হাসপাতাল করলেও করোনা রোগী রাখার জায়গা হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

এমপি কাজী মনিরুল ইসলাম মনুর সুস্থতার জন্য দোয়া চাইলেন-ডেমরার জয়নাল হাজারী

এমপি কাজী মনিরুল ইসলাম মনুর সুস্থতার জন্য দোয়া চাইলেন-ডেমরার জয়নাল হাজারী