English Version

৮ম শ্রেণি পর্যন্ত মৌলিক শিক্ষা নিশ্চিত করতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৩১, ২০১৭, ১০:০৫ অপরাহ্ণ


অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত সবার জন্য মৌলিক শিক্ষা নিশ্চিত করতে হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। পরবর্তী পর্যায়ে কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষার ওপর অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে বলেও তিনি জানান।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর পিলখানায় শহীদ ক্যাপ্টেন আশরাফ হলে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের চারদিনব্যাপী সম্মেলনের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
‘আমাদের দৃষ্টিতে একটি শ্রেষ্ঠ স্কুল কেমন হওয়া উচিত’ প্রতিপাদ্য বিষয়ে ২৮-৩১ পর্যন্ত এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

মন্ত্রী বলেন, উচ্চশিক্ষার জন্য দেশে ১২টি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা হয়েছে। গণিত ও বিজ্ঞান শিক্ষার উন্নয়নেও কাজ করছে সরকার। বিজ্ঞান শিক্ষাকে উৎসাহিত করা হচ্ছে। গত চার বছর ধরে ধারাবাহিকভাবে বিজ্ঞানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়ছে। গতানুগতিক শিক্ষার বিকল্প হিসেবে আধুনিক বিশ্বমানের শিক্ষা পদ্ধতি চালু করতে হবে। শিক্ষানীতি অনুযায়ী সরকার নিরন্তর এ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী বিজিবির শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের উদ্দেশে তিনি বলেন, শিক্ষার মানোন্নয়নে শিক্ষকরাই প্রধান শক্তি। ভাল ফলাফল অর্জনের পাশাপাশি ভাল মানুষ তৈরি করা আমাদের অন্যতম লক্ষ্য। এ লক্ষ্য বাস্তবায়নে শিক্ষকদের নীতি-নৈতিকতা, মূল্যবোধ, আন্তরিকতা ও নিবেদিতপ্রাণ হয়ে কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, শিক্ষকদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণ ছাড়া শিক্ষার মানোন্নয়ন অসম্ভব। শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হবে-শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর গুণগতমান বৃদ্ধি।

শিক্ষামন্ত্রী বিজিবি আয়োজিত এ সম্মেলনের প্রশংসা করে বলেন, বিজিবি পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার ফলে শিক্ষার সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের জন্য মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করা হচ্ছে। এ সম্মেলনে অংশগ্রহণকারীদের সুপারিশমালা দেশের অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও কাজে লাগানো সম্ভব হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী, বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন, বিজিবির গুইমারা সেক্টর কমান্ডার কর্নেল আব্দুল্লাহ আল মামুন এবং দুইজন শিক্ষক প্রতিনিধি বক্তব্য রাখেন।

পরে শিক্ষামন্ত্রী বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আব্দুর রউফ পাবলিক কলেজের নবনির্মিত টিচার্স লাউঞ্জ পরিদর্শন করেন ও রসায়ন বিজ্ঞানাগার উদ্বোধন করেন।

প্রথমবারের মতো বিজিবি পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের এই সম্মেলনে ঢাকার বাইরের বিজিবির বিভিন্ন ইউনিটের ২৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা অংশ নেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী শিক্ষার মানোন্নয়নে কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেল তৈরির মাধ্যমে আউটকাম বেইজড এডুকেশন নিশ্চিত করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

তিনি বলেন, একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি সহশিক্ষা কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের এগিয়ে নেওয়ার জন্য আন্তঃ স্কুল প্রতিযোগিতা ব্যবস্থা করা অত্যাবশ্যক।

তিনি শিক্ষার্থীদের আধুনিক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষায় শিক্ষিত করার লক্ষ্যে এবং গণিত-ভীতি দূর করার জন্য বিজিবি পরিচালিত কোনো একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিজ্ঞান ও গণিত অলিম্পিয়াড আয়োজন ও শিক্ষার্থীদের তাতে অংশগ্রহণের পরামর্শ দেন।

বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, দেশের প্রতিটি নাগরিককে সম্পদে পরিণত করতে শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। সে শিক্ষা হতে হবে মানসম্পন্ন এবং তথ্য-প্রযুক্তি নির্ভর আধুনিক শিক্ষা। বিজিবি পরিচালিত প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার প্রত্যাশিত মানোন্নয়নের লক্ষ্যকে সামনে রেখে আমরা সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

প্রকাশকঃ
মোঃ মামুনুর হাসান (টিপু)

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক:
খন্দকার আমিনুর রহমান

৫০/এফ, ইনার সার্কুলার, (ভি আই পি) রোড- নয়া পল্টন ,ঢাকা- ১০০০।
ফোন: ০২-৯৩৩১৩৯৪, ৯৩৩১৩৯৫, নিউজ রুমঃ ০১৫৩৫৭৭৩৩১৪
ই-মেইল: khoborprotidin24.com@gmail.com, khoborprotidin24news@gmail.com

.::Developed by::.
Great IT