English Version

মুন্নার সেই জার্সিগুলো…

প্রকাশিতঃ ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮, ৫:৪৬ অপরাহ্ণ


১২ ফেব্রুয়ারি তারিখটা এলেই কেমন যেন এক শূন্যতার অনুভূতি হয়। বাংলাদেশের ফুটবলপ্রেমীদের কাছে এ যেন দুঃসহ এক বেদনার দিন। ২০০৫ সালের এই দিনেই পৃথিবীকে বিদায় জানিয়েছিলেন মোনেম মুন্না—এ দেশের ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা তারকা। এক যুগেরও বেশি সময় পেরিয়ে যাওয়ার পর মুন্নার অভাবটা অনুভূত হয় বাংলাদেশের ফুটবলের তারকাশূন্যতাকে কেন্দ্র করে নয়, বরং অনেক বেশি করেই তাঁর ফুটবলকীর্তির কারণেই।

এ প্রজন্মের স্মৃতিতে মুন্না নেই। থাকবেন কী করে? ইন্টারনেট যুগের আগের এই ফুটবলারকে যে খুঁজে নিতে হয় পুরোনো পত্রিকার ধূলি-ধূসরতায় কিংবা কারও ঝাপসা স্মৃতির নির্ভরশীলতায়। এই প্রজন্ম যদি হঠাৎ জিজ্ঞেস করে বসে, কেমন ছিল মোনেম মুন্নার খেলা, কিংবা কতটা গতি ছিল তাঁর শটে? উত্তর দেওয়াটা কঠিনই হয়ে যাবে। ভাবতে অবাক লাগে, মুন্না যখন খেলছেন, ঢাকার ফুটবল দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন, তখন যুগটা তথাকথিত ডিজিটাল না হলেও ছিল ভিডিও প্রযুক্তির। অথচ মুন্নার খেলার এতটুকু ভিডিও ফুটেজের খোঁজ মিলবে না কারোর কাছে। দেশের ফুটবলের হর্তাকর্তা বিধাতা ফুটবল ফেডারেশনের কথা বাদ দিন, কিন্তু যে ক্লাবে তিনি নিজের যৌবনের পুরো সময়টা ব্যয় করেছেন, যে ক্লাবকে তিনি সাফল্য উপহার দিয়েছেন, সেই আবাহনীর কাছে কি তাঁর খেলার কোনো ভিডিও ফুটেজ সংরক্ষিত আছে? যদি থাকে, তাহলে অবাক হতেই হবে। মুন্নার স্মৃতি এখন রায়েরবাজারের ছোট্ট একটা ফ্ল্যাটের চৌহদ্দিতেই সীমাবদ্ধ। যেখানে এখন বাস করেন তাঁর প্রিয়তমা স্মৃতি সুরভী মোনেম তাঁর দুই ছেলেমেয়ে ইউশরা মোনেম দানিয়া ও আজমান সালিদকে নিয়ে। তাঁরাই বয়ে বেড়াচ্ছেন মুন্নার স্মৃতি। রায়েরবাজারের সেই ফ্ল্যাটের আনাচকানাচে মুন্না যেন বর্তমান হয়েই আছেন। এক দশকের ফুটবল ক্যারিয়ারকে ধারণ করে রাখা ছবির অ্যালবাম কিংবা দেয়ালে বড় করে বাঁধিয়ে রাখা ছবিগুলো যেন চিৎকার করে জানান দিতে চাইছে এ দেশের ক্রীড়াঙ্গনে মুন্নার অবস্থানটা।

ছেলে আজমান খুব যত্ন করেই রেখে দিয়েছে বাবার স্মৃতিময় কিছু জার্সি। যে জার্সিগুলো পরে মুন্না মাঠ মাতিয়েছেন, দেশে-বিদেশে। যে জার্সিগুলোতেই দেশের ফুটবলপ্রেমীদের একটা প্রজন্মের কাছে তারকা হয়ে উঠেছেন। আজ এত বছর পরেও সেই জার্সিগুলোতেই বেঁচে আছেন মুন্না। সেই জার্সিগুলোই যেন এই প্রজন্মের কাছে তুলে ধরছে তাঁকে।

প্রিয় পাঠক, মুন্নার কোনো খেলার ভিডিও ফুটেজ আমরা আপনাদের সামনে তুলে ধরতে পারব না। অনেক চেষ্টা করেও তেমন কিছুর খোঁজ আমরা পাইনি। মুহূর্তকে থামিয়ে রাখা আলোকচিত্রে মুন্নাকে তুলে ধরা হয়েছে অনেকবারই। এবার না হয় খেলোয়াড়ি জীবনে ব্যবহৃত জার্সিতেই এই ক্ষণজন্মা তারকাকে তুলে ধরা যাক। এটা নিশ্চিত, জার্সিগুলো আপনাদের অনেককেই নস্টালজিক করে তুলবে। নিয়ে যাবে সেই অতীত দিনগুলোয়; যখন মুন্না ঝড় তুলতেন লাখো-কোটি ফুটবলপ্রেমীর মনে।

মুন্নার খেলোয়াড়ি জীবনে ব্যবহৃত ছয়টি জার্সি নিয়ে আমাদের এই ফটোফিচার। এই ছয় জার্সিতেই পাঠকেরা পেয়ে যাবেন মোনেম মুন্নার গোটা ক্যারিয়ার…

প্রকাশকঃ
মোঃ মামুনুর হাসান (টিপু)

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক:
খন্দকার আমিনুর রহমান

৫০/এফ, ইনার সার্কুলার, (ভি আই পি) রোড- নয়া পল্টন ,ঢাকা- ১০০০।
ফোন: ০২-৯৩৩১৩৯৪, ৯৩৩১৩৯৫, নিউজ রুমঃ ০১৫৩৫৭৭৩৩১৪
ই-মেইল: khoborprotidin24.com@gmail.com, khoborprotidin24news@gmail.com

.::Developed by::.
Great IT